মঙ্গলবার   ১৮ মে ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
১২৯

He adventurous life of Martyr Lieutenant Sheikh Jamal

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৯ এপ্রিল ২০২১  

Dateline 27 June 1975 It's summer in England full of heavenly sweetness. Beauty flooding in nature. But even more joyful floods today in the hearts of cadets of Royal Military Academy Sandhurst, Britain. Prayerful Sovrin (Pursing Out) parade is being held today after six months of hard training. Princess Ellis reviewing the parade today.

Three proud youngsters are going to get commission from Bangladesh among foreign cadets. Two of them are Officer Cadet Alauddin Md. Abdul Wadood and Masudul Hasan. The name of the third youth is Sheikh Jamal. He is the President of Bangladesh and the second son of the father of the nation Bangabandhu Sheikh Mujibur Rahman. Sandhurse regular career course will start from 1 August 1975 Sheikh Jamal is not participating even after getting the golden opportunity to take this training. Because his two best friends are going back to Bangladesh. And there's a deep pull for mom. Only one and a half month later, this decision will ruin his life.


The Scottish farewell song ' Old Long Sin s' (good old days) is playing in the orchestra at the last stage of the parade. The cadets marched from the parade grounds and crossed the Old College stairs. Through this, three youths of Bangladesh converted from cadets to desired army officers. Tears of joy in Jamal's eyes now. He thought unwantedly, ' If father was in the parade today. ' Pictures of three youths of Bangladesh who were commissioned in British newspaper have been printed. The picture gave a symbolic message to the world - the newly established Bangladesh wants to build its military to an international standard in exchange of millions of lives.

Kishore Sheikh Jamal fled to India from Dhanmondi star-fenced Pakistani forces captive on August 1971, 5 to participate in the freedom war. Reaching Agartala in India after escaping from Dhanmondi was a very risky road. Sheikh Jamal from Agartala to Kolkata reached Kalshi, Uttar Pradesh, India. Sheikh Jamal took 21 days special training with 80 selected youths of Mujib Force (Bangladesh Liberation Force).

Sheikh Jamal joins sector 9 after completion of training. A picture of Sheikh Jamal during the freedom war on the shoulder of a rifle taken at the Kaliganj battlefield at the Bangabandhu Museum of Dhanmondi, in the memory of Sheikh Jamal's room (Satkhira) at the Bangabandhu Museum of Sector 9 Dare Devil Freedom Fighter Commander Mahfuz Alam Baig, still in memory of the days of the freedom war: Ichamati River, Hingalganj Camp, Parulia Teenage freedom fighter Sheikh Jamal at Bridge, battlefield, the motivational speech of Bangabandhu's younger brother Sheikh Nasser at the camp... Sheikh Jamal from the war front returns to Dhaka on December 1971, 18, in the dress of war when the country is independent. What a joy of elder sister Sheikh Hasina, younger sister Sheikh Rehana and younger brother Sheikh Russell! On that afternoon, Kader Siddiqui was present at the first public meeting in Paltan Dhaka organized by Veer-Uttam with the freedom fighters.

29 January 1974 Yugoslavia's President Marshall Tito has come to Dhaka for a state tour. Seeing Sheikh Jamal's intense interest in joining the army, Marshall Tito offered him military training at Yugoslav Military Academy. In the spring of 1974, Dhaka college student Jamal joined the Military Academy of Yugoslavia as a cadet. But it was becoming difficult for Sheikh Jamal to adjust to the training there due to a completely different environment, adverse weather and language difficulties. In this situation, Marshall Tito advised Sheikh Jamal to train in Sandhurst, Britain.

Bangabandhu wanted to make Sheikh Jamal as an army officer. Sheikh Jamal arrives in London aiming to undergo military training in Sandhurst in the fall of 1974 But Sandhurst's prerequisite requires Jamal (Britain) to receive necessary pre-training from the Army School of Language, Beckonsfield. Sandhurst is one of the best military academy in the world. Three youths from Bangladesh came here for the second time to take training. Noted, two cadets of the first Bangladesh Army in 1974 with the special initiative of Bangabandhu (Shafi Md. Mehboob and Luf Kamal) received commission from Sandhurst. Sandhurst's Short Service Commission's strict graduate course had a duration of about six months (3 January to 27 June 1975). Among the 400 cadets, the number of foreign cadets was 30 Three musketeers adjust themselves in a very short time in the international environment.

Cadets from Sandhurst went to West Germany (British Army on Rhine) in late May 1975 to participate in the maneuverical final exercise (Exercise Dynamic Victory). This practice can be called war. Jamal in combat uniform, rifle in hand, haver sack on back is a complete fighter. Adventurous practice runs sometimes in mountainous areas, sometimes in forest, sometimes in open fields. Sitting in the trench on defense all day. Attack of Gorkha Battalion was conducted at dawn. Enemy plane in the sky. Artillery shells falling in the distance of the trench. Live firing is going on. Now we have to move forward by removing the enemies. Had to get down a few hundred feet rappling from a helicopter in a forested area with pine trees. Sometimes reckless attacks in defense of the enemy.

Second Lieutenant Sheikh Jamal's posting after returning from Sandhurst Academy in the Second East Bengal Regiment of Dhaka Army. Captain Nazrul Islam Bhuiyan, the company commander of Charlie Company of the Battalion, was the heroic symbol (later Lieutenant Colonel, State Minister, currently Member of Parliament). Under Captain Nazrul, Sheikh Jamal's regiment life's handwriting as a ' company officer '. On the day of joining the unit, Sheikh Jamal returned home wearing the army's khaki uniform. Father Sheikh Mujib and mother Begum Fazilatunnesa Mujib see a smart army officer with fascinated eyes.

Jamal's job in the second East Bengal was about one and a half month. But in this short time he kept an impression of outstanding professional skills and sincerity among officers and soldiers. Jamal became one of the officers and soldiers in a few weeks. Sheikh Jamal surprised everyone by running before the soldiers during PT in the morning. At the training ground, in the maneuver class, he impressed the soldiers by taking part in the Obstacle Crossing. Battalion train the boxing team members. Played basketball with unit members at the playground in the afternoon. Sometimes in the evening eat food with soldier messe soldiers. Arrange high quality plates for the company's soldiers in his own finance. Officers of the unit were surprised by the sublime regimental activities of the newcomer's youngest officer. Seems like the army was his destiny. He could have been the statue of a young regimental officer.

One day the order was that Sheikh Jamal will go to cantonment on motorcycle like other young officers. Lakshmi accepted the strong order of mother like her son with a smile. Sheikh Jamal came to Cantonment wearing sunglasses wearing favorite hero Amitabh's style by swearing bike. (Later on his job in Second East Bengal, this writer learned many stories and events from the then officers and soldiers). He came to Cantonment on the night of August 14 as a Battalion Duty Officer. A Subedar said, ' Sir, it's been a long night; stay in the unit tonight. ' But Sheikh Jamal doesn't have to stay in the army at night anymore. He returned to the house of Dhanmondi 32 Bangladesh's scandal ' killer party ' is preparing for one of the brutal killings of the century. The stain of scent will not be wiped out even if you wash it with the beautiful perfume of the whole Arab...

Sheikh Jamal's life was very short: 28 April 1954 to 15 August 1975 Sheikh Jamal is now sleeping in Banani cemetery. The beloved wife Rosi Jamal is sleeping beside him, whose hand's fresh henna color was made alone with the fresh blood of the chest. Sheikh Jamal's beloved Bangladesh Army is working with the love, pride and international dignity of the people as a professionally skilled and vigilant force. Bangladesh Army is moving forward under dynamic leadership on the golden horizon of professional prosperity. Whose destiny was the army, he would have been so happy to see these great achievements of the army. Rest in peace Sheikh Jamal. Know that your next generation soldiers are always ready to donate their chest blood to protect the freedom of the motherland. On this day we remember a premature teenage freedom fighter, patriotic army officer, friend-hearted and brave young man with humble respect. Lieutenant Sheikh Jamal-Salute to you sir.

It's been a long 44 years. Among the three musketeers of Sandhurst, not only Sheikh Jamal. Major General Wadud (Ab. ) and Captain Masood (Ab. ) Still looking for lost best friend Jamal in the dreamyness of Sandhurst days. The two go back to the Time Machine in February 1975 in search of a piece of memory of Sandhurst's ' Exercise Virgin Soldier '...

... The group of young cadets arrived in the woods after walking all day. Tired Jamal fell asleep in a short while after eating in the evening. Suddenly I woke up to the sound of something at midnight. Open the tent door and see a strange environment outside. Big moon in the sky. Birch and pine forests are decorated with unparalleled beauty in their sparkling moonlight. Sheikh Jamal came out of the tent. Surprised to see friend Masood and Wadud also standing beside him after coming out of the tent. The row of birch tree has gone down in the front valley, then the strange full moon over the mountain row. Three Bengali youths stared at Sandhurst's ' First Purnima '.

Author:
Brigadier General (Retired) Md. Bayazid Sarwar,
NDC

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • ডিএসইর লেনদেন ১৫০০ কোটি টাকা ছাড়ালো

  • শেখ হাসিনা বাংলাদেশের জন্য অপরিহার্য: নাছিম

  • দূরপাল্লার যানবাহন চালুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত সপ্তাহখানেক পর

  • দূরপাল্লার যানবাহন বন্ধ রাখতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর প্রস্তাব

  • চারদিন পর আখাউড়া স্থলবন্দরে রপ্তানি শুরু

  • বঙ্গবন্ধুর নামে পিরোজপুরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়

  • শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন নিশ্চিতের পর খুলবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

  • চার দশক ধরে আ.লীগের সফল নেতৃত্বে শেখ হাসিনা

  • পারমাণবিক বোমা ছাড়া সব সূচকে পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

  • সাগরে বসেই অনলাইনে মাছ বিক্রি করছেন জেলেরা

  • রাজনীতির সীমানা পেরিয়ে শেখ হাসিনা কালজয়ী রাষ্ট্রনায়ক

  • ফেরিতে গাদাগাদি, হিমশিমে বিআইডব্লিউটিসি

  • দেশে চীনের ‘সিনোফার্ম’ টিকা উৎপাদনে কাউকে অনুমতি দেয়া হয়নি

  • শেখ হাসিনা ফেরায় দেশের অগ্রযাত্রা হয়েছে

  • ইসরায়েলের নৃশংসতা অতীতের সকল বর্বরতাকে ছাড়িয়ে গেছে: তথ্যমন্ত্রী

  • শেখ হাসিনার প্রতি বাংলার জনগণের অসীম আস্থা

  • ফিলিস্তিন ইস্যু সমাধানে নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি বাংলাদেশের আহ্বান

  • ঈদের পর প্রথম কার্যদিবসে ঊর্ধ্বমুখী শেয়ারবাজার

  • চট্টগ্রাম বিভাগে করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত

  • ঈদ শেষে রাজধানীতে ফিরছে কর্মমুখী মানুষ

  • লিফট সম্বলিত পাঁচটি ফুটওভার ব্রিজ নির্মিত হবে: মেয়র আতিক

  • খুলনা বিভাগে সরকারি ত্রাণ ও আর্থিক সহায়তা পেল ৯ লাখ পরিবার

  • খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধি করতে সংশ্লিষ্টদের আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

  • শেখ হাসিনার ৪০তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ

  • ব্যান্ডউইথ রপ্তানিতে সৌদির সাথে সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানির চুক্তি

  • ‘শেখ হাসিনার হাত ধরেই বদলে যাওয়া বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা’

  • শেখ হাসিনার আগমন সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় তাৎপর্যপূর্ণ

  • ফিলিস্তিনে বঙ্গবন্ধুর নামে রোড, শেখ হাসিনার নামে বাড়ি

  • স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস: শেখ হাসিনার সফল নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ

  • বিজ্ঞান চর্চার নিরন্তর সাধক

  • করোনা সংকট জয় করে দেশ উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাবে

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের পাঁচ জামাত বায়তুল মোকাররমে  

  • লকডাউন আরো সাতদিন বাড়ছে

  • ঈদ কবে, জানা যাবে বুধবার

  • হাওর অঞ্চলে বোরো উৎপাদনে ঝুঁকি কমাবে বিনাধান

  • বুধবারও খোলা থাকবে সরকারি অফিস

  • এসপির ঈদ উপহার-খাবার পেয়ে কাঁদলেন সেই বৃদ্ধা

  • রাশিয়া থেকে আসবে এক কোটি ডোজ ভ্যাকসিন

  • ঢাকায় পৌঁছাল চীনের উপহারের পাঁচ লাখ টিকা

  • চাঁদ দেখা যায়নি, সৌদি আরবে ঈদ বৃহস্পতিবার

  • ঈদে ছুটি নেননি পদ্মাসেতু প্রকল্পের প্রকৌশলী-শ্রমিকরা

  • চীন থেকে আরও ডোজ আনার চেষ্টা চলছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • হাওরের শতভাগ বোরো ধান কাটা শেষ: কৃষিমন্ত্রী

  • চীনা রাষ্ট্রদূত আগ বাড়িয়ে কথা বলেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • আল-আকসা মসজিদে হামলায় প্রধানমন্ত্রীর নিন্দা

  • দুধের ভালো দামে চওড়া হাসি খামারিদের মুখে

  • লকডাউন আরো সাতদিন বাড়তে পারে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

  • দূরপাল্লার বাস চলাচল নিয়ে যা বললেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

  • তিস্তায়ও আগ্রহী চীন

  • ব্রডব্যান্ড সংযোগের আওতায় আসছে সাড়ে ৪ হাজার ইউনিয়ন পরিষদ

  •  ‘যে কোনো দুর্যোগকে আ. লীগ সব সময় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে’

  • করোনা সংকট মোকাবেলায় সরকারের অক্সিজেন প্রস্তুতি

  • জাতীয় সংসদের বাজেট অধিবেশন ২ জুন

  • কনস্টেবলকে সততার পুরস্কার দিলেন এসপি

  • মুঠোফোনে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা

  • স্বপ্নের মেট্রো রেলের সফল পরীক্ষা যাত্রা

  • ঈদের আগে বিকাশ-নগদে ঘণ্টায় ২০০ কোটি টাকার লেনদেন

  • বৃহস্পতিবার থেকে ঈদের ছুটি শুরু, বুধবার শেষ কর্মদিবস

  • বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে এখন বিটিভি দেখা যাবে অ্যাপে

  • লকডাউনে বিচারিক ক্ষমতা পাচ্ছে পুলিশ