শুক্রবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৪৪৯৩

বিএনপি নেতা ফখরুলের ভিডিও বার্তা নিয়ে বিতর্ক তুমুলে

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮  

 বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের একটি ভিডিও বার্তা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, বিশেষ করে ফেসবুকে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়েছে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট্রের লাইভ এবং বিএনপি সমর্থকদের কিছু ফেসবুক পেজে প্রচার করা ওই ভিডিওতে মির্জা ফখরুল মুক্তিযুদ্ধের সময় তার মতো তরুণদের ভূমিকার কথা উল্লেখ করে এখনকার তরুণদের ৩০ ডিসেম্বর ‘সকাল সকাল’ ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

শুরু এবং শেষে ধানের শীষ প্রতীকের ছবিসহ বাংলা অক্ষরে ওই প্রতীকে ভোটের আহ্বান জানানো ভিডিওতে মির্জা ফখরুল তরুণদের উদ্দেশে বলেন, ‘তারা যে কাউকে ভোট দিতে পারে, কিন্তু তারা যেনো ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে যায় এবং ‘ভোট ডাকাতি’ ঠেকিয়ে দেয়।’

ভিডিওটি বিএনপি সমর্থক পেজে আপলোড হওয়ার পর বিএনপিপন্থী এবং বিএনপিবিরোধী দু’পক্ষ থেকেই তা শেয়ার করা হচ্ছে। এর বাইরেও অনেকে ভিডিওটি শেয়ার করছেন।

সবগুলো পোস্ট এবং শেয়ারে যেমন ভিডিওটি নিয়ে বিতর্ক চলছে, তেমনি মূল পোস্টেও কমেন্ট করে অনেকে বিতর্কে অংশ নিচ্ছেন। তার মধ্যে যেমন মির্জা ফখরুলের পক্ষে মন্তব্য আসছে, তেমনি তার বিরুদ্ধেও।

ইশরাক হাসান পারভেজ নামে একজন লিখেছেন: প্রত্যেকের ব্যক্তিগত মতাদর্শকে সম্মান করা উচিত৷ রাজনীতির বাইরে থেকেও আমার কাছে এই মানুষটির শব্দচয়ন, মার্জিত সদালাপ…সত্যিই ঈর্ষণীয়!

আলী হোসেন নামে আরেকজনের মন্তব্য: একজন রাজনীতিককে এমন পরিশীলিত ভাষায় কথা বলতে হবে! আমি বিএনপির সমর্থক নই, কিন্ত আপনার উন্নত মার্গের মার্জিত রুচির এই ভাষণকে শ্রদ্ধা জানাই অকুন্ঠ চিত্তে!

তবে, কিছু প্রশ্ন তুলে খন্দকার আহমেদ নামে একজন লিখেছেন: ছোট্ট প্রশ্ন….দাবি করছেন মুক্তিযোদ্ধা, বলছেন পাঞ্জাবী, পাকবাহিনী নয় কেন?? এতদিন ছিল পাকবাহিনী আজ হয়ে গেল ‘পাঞ্জাব’…পাঞ্জাব কিন্তু পুরো পাকিস্তান নয়…এখানে কি ইতিহাস বিকৃত করা হয়নি…

“মুক্তিযুদ্ধ করেছেন, এখনও কেন জামায়াতকে রেখেছেন সাথে, আবার অন্যদিকে নিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের কিছু নিবেদিত প্রাণ মানুষকে… জনগণের সেবা, নাকি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্যই এ ধরনের ‘ইমোশোনাল’ কথা বলা…‘জামায়াত কে না বলুন, না বলতে শিখুন’… শুভ কামনা,” এভাবেই তিনি তার বক্তব্য তুলে ধরেছেন।

নুসরাত ফাতেমা নামের একজনের মন্তব্য: অতীব দুঃখের কথাটি হচ্ছে তার পরিচয় তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের একজন প্রথম সারির নেতা। যে দলটি সিম্পলি বন্দুকের নল বিচারপতি সায়েমের কপালে ঠেকিয়ে ক্ষমতায় এসেছে, যে দলটি ৭৭ থেকে ৮১ শুধু শত শত মুক্তিযোদ্ধা সামরিক অফিসারদের খুন করেই ক্ষান্ত হয়নি বরং এই দেশটিতে মৌলবাদীদের বীজ বপন করে দিয়েছে।. … যত সহজে মির্জা সাহেব গণতন্ত্র শব্দটি বার বার উচ্চারণ করেছেন, বোধকরি গণতন্ত্র শব্দটি মির্জা সাহেবের জন্য ততটা স্বস্তিকর নয়। গণতন্ত্রের নাম করে বিরোধী পক্ষের নেত্রীকে আর্জেস গ্রেনেড দিয়ে হত্যা করবার চেষ্টা আর নগরের মোড়ে হাওয়া ভবন বানিয়ে চাঁদা আদায় করবার রশিদ মীর্জা সাহেবের চোখ মুখে যে সেঁটে রয়েছে, সেটি কি তিনি অনুভব করতে পারেন?

ফয়সাল আজিজ নামে একজন লিখেছেন: অথচ, তিনি (ফখরুল) সৎ সাহস রেখে বলতে পারেননি, তরুণদের ভোট মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষে হোক, যদিও তিনি নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা দাবি করছেন, কালক্রমে তিনি বিএনপি করেন, তেমনি কালক্রমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবোধ এখন তার হৃদয় থেকে হারিয়ে গেছে, কারণ যেকোন মূল্যে ক্ষমতা চাই, কিন্তু তিনি যে স্বপ্নের পেছনে ছুটে বেড়াচ্ছেন সেই স্বপ্ন বারবার ভেঙে দেয় তারই দলের অন্যতম মহানায়ক তারেক রহমান…।

মূল পোস্টে এরকম পক্ষে বিপক্ষে মন্তব্য ছাড়াও শেয়ারগুলোতেও তুমুল আলোচনা চলছে।

প্রবাসী ডাক্তার সজল আশফাক ভিডিওটি শেয়ার করে লিখেছেন: মাত্র তিন মিনিট দশ সেকেন্ড। একজন রাজনীতিবিদ অন্ধকারে এ কোন আলো জ্বেলে দিয়ে গেলেন! মাত্র তিন মিনিট দশ সেকেন্ড! তারপর কিছুক্ষণের জন্য হলেও আপনি হারিয়ে যাবেন অন্য ভাবনায়! এই লোক বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলের নেতা? বিশ্বাস হয়!! এটা মানতে হবে!!! অসুরের মাঝে এ কোন মানবিক সুরের মূর্ছনা!!! মাত্র তিন মিনিট দশ সেকেন্ড!

তার পোস্টেই আরেক চিকিৎসক আব্দুন নূর তুষারের মন্তব্য: এজন্যই ২২ জন জামাতীকে সাথে নিয়ে ধানের শীষ দিয়ে নির্বাচন করছেন। যারা দেশ ও মুক্তিযুদ্ধ চায় নাই, তাদের সাথে নিয়ে….

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • করোনাসহ ১২ ধরনের ভ্যাকসিন তৈরি হবে গোপালগঞ্জে

  • শেখ হাসিনা দেশের নারী ক্ষমতায়নের অগ্রদূত: স্পিকার

  • আপাতত পরিবর্তন হচ্ছে না অফিস সময়

  • ধর্ম নিরপেক্ষতা সমুন্নত রাখতে শেখ হাসিনাই ‘একমাত্র ভরসা’

  • করোনায় কমেছে মৃত্যু, শনাক্ত আরো সাড়ে ৩ লাখ

  • ঢাকাসহ ১৫ জেলায় ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের আশঙ্কা 

  • জীবনধারণের সহায়ক সামগ্রী পেলেন ভাসানচরের রোহিঙ্গারা

  • ইউটিউব দেখে ব্ল্যাক কুইন তরমুজ চাষে সফল মোফাজ্জল

  • এক মাছের দাম ২৭ লাখ টাকা!

  • স‌লেমানের সোলার পাম্পে চিন্তামুক্ত হাজা‌রো কৃষ‌ক

  • বিশ্ব পর্যটন দিবস আজ

  • শিশু-কিশোরদের জন্য লার্নিং প্লাটফর্ম ‘হাসিনা অ্যান্ড ফ্রেন্ডস’

  • যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রপ্তানি বেড়েছে প্রায় সাড়ে ৫৪ শতাংশ

  • প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে বগুড়া জেলা আ.লীগের আনন্দ র‌্যালী

  • সাফ জয়ী পাহাড়ের ৫ কন্যাকে দেয়া হবে গণসংবর্ধনা

  • শরীয়তপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা`র ৭৬তম জন্মদিন উদযাপন

  • ‘শেখ হাসিনা আলোকিত বাংলাদেশ গড়ার কারিগর’

  • শেখ হাসিনা জন্মেছিলেন বলেই গৌরবের ইতিহাস রচনা করেছে বাংলাদেশ

  • ঢাকার উন্মুক্ত বর্জ্য ৩০ শতাংশে নামিয়ে আনা হয়েছে : মেয়র তাপস

  • ‘বিএনপি লাঠির সঙ্গে পতাকা বেধে রাস্তায় নামলে জবাব দেওয়া হবে’ 

  • মালয়েশিয়ার সঙ্গে দ্রুত এফটিএ করতে আগ্রহী বাংলাদেশ: অর্থমন্ত্রী

  • প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাত্রনেতা থেকে আজ বিশ্বনেতা: তথ্যমন্ত্রী

  • ‘শিশু-কিশোরদেরকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে হবে’

  • যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ৫৪.৪৩ শতাংশ

  • প্রধানমন্ত্রীর ৭৬তম জন্মদিন উদযাপনে ৭৬ হাজার বৃক্ষ রোপণ

  • ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে’

  • শেখ হাসিনার জন্মবার্ষিকীতে স্মারক ডাকটিকিট ও আলোকচিত্র প্রদর্শনী 

  • ‘জলবায়ুর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে রোল মডেল’

  • ‘গণতান্ত্রিক সমাজ নির্মাণের ভিত মজবুত করবে তথ্য অধিকার’

  • বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ, নারায়ণগঞ্জে হচ্ছে ৬ মেগাওয়াট কেন্দ্র

  • প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে পদ্মা সেতু নিয়ে লিখবে শিক্ষার্থীরা

  • অ্যাফিডেভিট ছাড়াই পাসপোর্টের নাম-বয়স সংশোধন

  • শিশু সুরক্ষা বাড়াতে ৬ হাজার সমাজকর্মী নিয়োগ দেবে সরকার

  • যানজট নিরসনে রাজধানীতে নামছে স্কুলবাস

  • ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সবুজ মাল্টা চাষে বাম্পার ফলন

  • আসছে নতুন চমক :  যমুনায় বঙ্গবন্ধু রেল সেতু

  • সেনাবাহিনীতে যুক্ত হলো নতুন সামরিক বিমান

  • ই-টিকেটিংয়ে সাফল্য ২৫ টাকার ভাড়া নামলো ১৩ টাকায়

  • আলোর মুখ দেখছে পৃথিবীর দীর্ঘতম মেরিনড্রাইভ

  • ভূমি অপরাধ নিয়ন্ত্রণে চালু হচ্ছে ডিজিটাল কেস সিস্টেম

  • পরিত্যক্ত প্লাস্টিক বোতল দিয়ে ‘বোতল বাড়ি’

  • পাহাড়ে উৎপাদিত বিলাতি ধনে পাতার সুনাম সর্বত্র

  • পদ্মা সেতুর তিন মাস ; দক্ষিণাঞ্চলে আমূল পরির্বতন

  • চিনি ও পাম তেলের দাম বেঁধে দিল সরকার 

  • থাইল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপে বাংলাদেশ

  • অক্টোবরে খুলছে কর্ণফুলী টানেলের একাংশ 

  • রাজধানীর বাসে পরীক্ষামূলক ই-টিকেট চালু

  • সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের বিনা মূল্যে পদ্মা সেতু দেখাবে বিপিসি

  • রোহিঙ্গাদের জন্য ১৭০ মিলিয়ন ডলার দিচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র 

  • ৬ মাসে ৫ লাখ বাংলাদেশিকে ভিসা দিয়েছে সৌদি দূতাবাস

  • অস্কারে যাচ্ছে ‘হাওয়া’

  • শেখ রাসেল জুনিয়র দাবা প্রতিযোগিতা শুরু

  • ২২ দিনে রেমিট্যান্স এলো ১৩ হাজার কোটি টাকা

  • চট্টগ্রামে বীরকন্যা প্রীতিলতার নামে সড়কের নামকরণ

  • চট্টগ্রাম বন্দরের রাজস্ব আয় ৩৫৮৫ কোটি টাকা

  • বিএডিসির বীজআলু উৎপাদনের খামারে এবার আউশ ধান

  • ‘বীরদর্পে দেশকে এগিয়ে নিচ্ছেন শেখ হাসিনা’

  • পাটের আঁশ ছাড়িয়ে ৩৬ হাজার নারীর বাড়তি আয় 

  • বরেন্দ্র এলাকায় সেচ দিতে ২৫০ কোটি টাকার প্রকল্প

  • নারীদের হাতের তৈরি দড়ির পণ্য যাচ্ছে বিভিন্ন দেশে