রোববার   ০১ আগস্ট ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
২৩৯

ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস আজ

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৭ জুন ২০২১  

আজ ৭ জুন ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস। বাঙালি জাতির স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে অনন্য একটি দিন। বাঙালির অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ৬ দফা ধীরে ধীরে বাঙালির অকুণ্ঠ সমর্থন লাভ করে। রচিত হয় স্বাধীনতার রূপরেখা। ৬ দফাভিত্তিক আন্দোলন-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় বাঙালির স্বাধিকার আন্দোলন স্বাধীনতা সংগ্রামে রূপ নেয়। 

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু ৬ দফা সম্পর্কে বলেন, ছয় দফা জনগণের সামনে বাংলার মানুষের মুক্তির সনদ হিসেবে উপস্থাপন করেছিলেন বঙ্গবন্ধু। ঐতিহাসিক ছয় দফা বাঙালির মুক্তির পথ দেখিয়েছে, নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ করেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মুনতাসীর মামুন বলেন, বঙ্গবন্ধু যে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখেছিলেন সেই লক্ষে ১৯৪৮ সাল থেকে ১৯৬৬ পর্যন্ত কাজ করেছিলেন। বাঙালির মানস পরীক্ষা করতে ৬ দফার বীজ বপন করেছিলেন। ৬ দফাই স্বাধীনতার অভিযাত্রা। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের রূপরেখা ছিল ৬ দফা। তিনি আরো বলেন, ঐতিহাসিক ৬ দফাই মূলত আমাদের স্বাধীনতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৬৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি তাসখন্দ চুক্তিকে কেন্দ্র করে লাহোরে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের সাবজেক্ট কমিটিতে ৬ দফা উত্থাপন করেন এবং পরের দিন সম্মেলনের আলোচ্যসূচিতে ৬ দফাকে স্থান দিতে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করেন।  সম্মেলনে বঙ্গবন্ধুর অনুরোধ উপেক্ষা করে ৬ দফার প্রতি আয়োজকপক্ষ গুরুত্ব না দিয়ে তা প্রত্যাখান করে। এর প্রতিবাদে বঙ্গবন্ধু ওই সম্মেলনে আর যোগ দেননি। তবে লাহোরে অবস্থানকালেই ৬ দফা উত্থাপন করেন বঙ্গবন্ধু। 

এরমধ্য দিয়ে পশ্চিম পাকিস্তানের খবরের কাগজে বঙ্গবন্ধুকে বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা তকমা দিয়ে সংবাদ ছাপানো হয়। পরে বঙ্গবন্ধু ঢাকায় ফিরে ১৩ মার্চ ৬ দফা এবং  দলের অন্যান্য বিস্তারিত কর্মসূচি দলের কার্যনির্বাহী সংসদে পাস করিয়ে নেন।

৬ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে শুরু হয় আওয়ামী লীগের  আন্দোলন। হরতালও ডাকা হয়। হরতাল চলাকালে নিরস্ত্র জনতার ওপর পুলিশ ও তৎকালীন ইপিআর গুলিবর্ষণ করে। এতে ঢাকা এবং নারায়ণগঞ্জে মনু মিয়া, সফিক ও শামসুল হকসহ ১১ জন শহীদ হন।

ক্রমেই ৬ দফার প্রতি ব্যাপক জনসমর্থন তৈরি হয়। জনপ্রিয়তা বেড়ে যায় বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বের। বঙ্গবন্ধুর জনপ্রিয়তায় ভীত হয়ে সামরিক জান্তা আইয়ুব খানের নেতৃত্বাধীন স্বৈরাচারী সরকার ১৯৬৬ সালের ৮ মে বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায়।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত ৬ দফা আন্দোলন ১৯৬৬ সালের ৭ জুন নতুন মাত্রা পায়।

৬ দফাভিত্তিক ১১ দফা আন্দোলনের পথপরিক্রমায় শুরু হয় ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান। সর্বোপরি ১৯৭০-এর সাধারণ নির্বাচনে বাংলার জনগণ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের একচেটিয়া রায় প্রদান করেন। জনগণ বিজয়ী করলেও স্বৈরাচারী পাকিস্তানি শাসকরা বিজয়ী দলকে সরকার গঠন করতে না দিলে বঙ্গবন্ধু জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতার পক্ষে আন্দোলন শুরু করেন। এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অভ্যুদয় ঘটে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের।

৬ দফার মূল বক্তব্য ছিল - প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র বিষয় ছাড়া সকল ক্ষমতা প্রাদেশিক সরকারের হাতে থাকবে। পূর্ববাংলা ও পশ্চিম পাকিস্তানে দুটি পৃথক ও সহজে বিনিময়যোগ্য মুদ্রা থাকবে। সরকারের কর ও শুল্ক ধার্য ও আদায় করার দায়িত্ব প্রাদেশিক সরকারের হাতে থাকাসহ দুই অঞ্চলের অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার আলাদা হিসাব থাকবে এবং পূর্ববাংলার প্রতিরক্ষা ঝুঁকি কমানোর জন্য এখানে আধা-সামরিক বাহিনী গঠন ও নৌবাহিনীর সদর দফতর স্থাপনের দাবি জানানো হয়।

দিবসটি যথাযথ মর্যাদার সাথে পালন করে আসছে আওয়ামী লীগ। কিন্তু করোনাভাইরাসের মহামারীতে সৃষ্ট সংকটের কারণে ঐতিহাসিক এই দিনটিতে ব্যাপক জনসমাগম এড়িয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে দিবসটির কর্মসূচি পালন করবে দলটি।

দলটির দফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে - সোমবার সূর্যোদয়ের ক্ষণে বঙ্গবন্ধু ভবন, কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও আওয়ামী লীগের সকল দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ৯ টায় বঙ্গবন্ধু ভবন প্রাঙ্গণে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন।

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • আগস্টের প্রথম প্রহরে ছাত্রলীগের মোমবাতি প্রজ্জালন

  • সব ক্লাবের চাইতে পার্লামেন্ট মেম্বার্স ক্লাব অনন্য : স্পিকার

  • গাউসিয়া কমিটিকে অ্যাম্বুলেন্স উপহার আ. লীগের ত্রাণ উপ-কমিটির

  • টিকা নিবন্ধনকারীর সংখ্যা দেড় কোটি ছুঁই ছুঁই

  • রংপুরের ৬৯ সাংবাদিক পেলেন প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তা

  • আজ সকালে বাংলাদেশ, বিকেলে অনুশীলন অস্ট্রেলিয়ার

  • লোকজ সংস্কৃতির বিকাশে এগিয়ে আসতে হবে

  • প্রথম ম্যাচে অনিশ্চিত সাকিব সৌম্য মোস্তাফিজ!

  • কাতারের ইতিহাসে প্রথম অলিম্পিক সোনা

  • রায়পুরে দাফনের ২৩ দিন পর বৃদ্ধের লাশ উত্তোলন

  • আগস্টের অশ্রু, বয়ে যায় নয়নে নয়নে

  • পটুয়াখালী মেডিকেলে আইসিইউর ৫ মনিটর দিলেন আ.লীগ নেতা

  • ফেনীতে খাল পরিষ্কার করল ছাত্রলীগ

  • এইচএসসির ফরম পূরণ শুরু ১২ আগস্ট, কমেছে ফি

  • অস্ট্রেলিয়া-বাংলাদেশ সিরিজ: মিরপুরে চলাচল থাকবে সীমিত

  • করোনা রোগীদের জন্য ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স ও অক্সিজেন সার্ভিস

  • রাজশাহীতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চুরি, মালামালসহ গ্রেফতার ৪

  • অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান সেতুমন্ত্রীর

  • বাবা-মায়ের কবরের পাশে শায়িত হলেন আলী আশরাফ

  • অক্সিজেন সিলিন্ডার উপহার দিলেন আইনমন্ত্রী

  • যাত্রীবাহী মাইক্রো ভেবে ডিবির গাড়িতে ডাকাতি করতে গিয়ে গ্রেফতার

  • কর্মস্থলে ফিরতে বরিশাল মহাসড়কে জনস্রোত

  • পটুয়াখালী মেডিকেলে আইসিইউর ৫ মনিটর দিলেন আ.লীগ নেতা সুলতান

  • দেশে এক দামে ইন্টারনেট, ব্রডব্যান্ড গ্রাহক কোটি ছাড়ালো

  • বরিশালের নারীদের তৈরি পণ্য রপ্তানি হয় ২১ দেশে

  • রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের রিয়্যাক্টর ভবনের ডোম স্থাপন

  • বাংলাদেশে ভ্যাকসিন ফাইন্ডার চালু করছে ফেসবুক

  • জাপান থেকে এলো আরও প্রায় ৮ লাখ ডোজ টিকা

  • এনআইডি ও জন্ম নিবন্ধন ছাড়াও মিলবে ভ্যাকসিন

  • স্কিপিং রোপে বিশ্ব রেকর্ড করলেন ঠাকুরগাঁওয়ের রাসেল

  • ২৫শ টাকার নগদ সহায়তা পেয়েছেন ১৭ লাখ ২৪ হাজার মানুষ

  • পশুর নাড়ি-ভুঁড়ি রফতানি করে বছরে আয় ৩২০ কোটি টাকা

  • সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে আধুনিকতার ছোঁয়া

  • কঙ্গোয় বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত

  • প্রতিবন্ধকতা জয় করে এগিয়ে চলছে কর্ণফুলী টানেলের নির্মাণকাজ

  • গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর আর নেই

  • করোনাযুদ্ধে ১৯৫ দেশের মধ্যে সেরা ২০-এ বাংলাদেশ

  • কুড়িগ্রামে ধানের মুড়ি ফসল কৃষিতে নতুন বিপ্লব

  • ডিএনসিসি কোভিড হাসপাতালে যোগ হচ্ছে আরও ৫০০ বেড

  • বিদ্যুৎ উৎপাদন বেড়েছে ১৩৭৯৩ মেগাওয়াট

  • মেরিন ড্রাইভ খুলে দেবে সম্ভাবনার নতুন দিগন্ত

  • তেল চুরি করতে গিয়ে পদ্মাসেতুর পিলারে ফেরির ধাক্কা

  • তিন দুম্বায় বাজিমাত সোহেলের

  • মেট্রোরেলের আরো দুই সেট ট্রেন এখন দেশে

  • বিদেশে পড়তে যাওয়া সব শিক্ষার্থী টিকা পাবেন: পররাষ্ট্র সচিব

  • লটকন বিক্রি করে ৩০ লাখ টাকার বাড়ি করলেন তোতা মিয়া

  • প্রতি মাসে ১ কোটি টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য পৌনে ৫ কোটি টাকা, সাড়ে ৯ হাজার টন চাল

  • কলেবর বাড়ছে বিজিবির, নিয়োগ পাচ্ছে ১৫ হাজার সদস্য

  • ১৯ দিনে রেমিট্যান্স এলো ১৩ হাজার কোটি টাকা

  • যুক্তরাষ্ট্রে স্যাট পরীক্ষায় বাংলাদেশি অপূর্বর রেকর্ড

  • মৌখিক পরীক্ষা ছাড়াই নেয়া হচ্ছে ৮ হাজার চিকিৎসক-নার্স

  • বর্ণিল ফুলে সুশোভিত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক

  • ৩১ জুলাই চালু হচ্ছে বিএসএমএমইউ ফিল্ড হাসপাতাল

  • ৭ আগস্ট থেকে গ্রামে গ্রামে করোনা টিকা

  • ‘করোনা টিকা নেওয়ার বয়সসীমা ১৮ হচ্ছে’

  • দেশে নির্মাণ হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহত্তম আধুনিক খাদ্য সংরক্ষণাগার

  • কাপ্তাই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বেড়েছে উৎপাদন, সচল ৪ ইউনিট

  • মোবাইল থেকেই আয়কর রিটার্ন দাখিল করা যাবে

  • বারোমাসি সিডলেস ও এলাচি লেবু চাষ করে স্বাবলম্বী