বুধবার   ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সর্বশেষ:
রোকেয়া পদক পাচ্ছেন ৫ নারী আবারও শ্বাসরুদ্ধকর জয়, ৭ বছর পর ভারতের বিপক্ষে সিরিজ বাংলাদেশের একশ’ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় বাংলাদেশের ছোঁয়া দেশের দ্বিতীয় ডিজিটাল পল্লি হবে শরীয়তপুরের ডামুড্যায় প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হলেন তোফাজ্জল হোসেন মিয়া
১১৬

বঙ্গবন্ধুর ভাষণের পর স্বাধীনতা ঘোষণার প্রয়োজন ছিল না

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০২২  

বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণের পর আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীনতা ঘোষণার প্রয়োজন ছিল না বলে মনে করেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী। যারা এটা স্বীকার করেন না, তারা ১৯৭১ সালেও করেননি ভবিষ্যতেও করবেন না বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় অ্যাডভোকেট আবুল খায়েরের তিনটি বইয়ের প্রকাশনা উৎসবে এসব কথা বলেন তিনি। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ সফিউর রহমান মিলনায়তনে এই উৎসব হয়। তিন বই হলো- ‘ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু’, ‘আদি ভারত বর্ষ থেকে বাংলাদেশ’ ও ‘কবিতায় প্রিয় বাংলাদেশ’।

প্রকাশনা উৎসবে প্রধান বিচারপতি বলেন, আমার কাছে যেটা মনে হয়, ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচনের পর থেকে ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু দেশে ফিরে আসা পর্যন্ত এই সময়কে নিয়ে একটা প্যানোরমা তৈরি করতে পারে সরকার। এই প্যানোরমায় থাকবে ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে যেখানে বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, ‘আর যদি একটা গুলি চলে, আর যদি আমাদের লোকজনকে হত্যা করা হয়, তোমাদের কাছে অনুরোধ রইলো, প্রত্যেক ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোলো।’

তিনি আরও বলেন, আমরা যারা আইন চর্চার সঙ্গে সম্পর্কিত, আমরা যারা রায় লিখি, তারা অর্ডার পাস করার সময়, কখনো কখনো, সবসময় না, যদি সেটা সার্টেন প্রিয়ড করা না হয়, তাহলে এই রুলটা স্ট্যান্ড ডিসচার্জ হয়ে যাবে।

এসময় রেসকোর্স ময়দানে (বর্তমানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান) বঙ্গবন্ধু যে ভাষণ দিয়েছিলেন তা উল্লেখ করে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বলেন, বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, ‘আর যদি একটা গুলি চলে, আর যদি আমাদের লোকদের হত্যা করা হয়, তোমাদের কাছে অনুরোধ রইলো, প্রত্যেক ঘরে ঘরে দুর্গ গড়ে তোলো।’আমি মনে করি না তারপর ফায়ারিং ওপেন হয়েছে, ‘বাই অপারেশন দ্যাট অর্ডার’ অটোমেটেকলি স্বাধীনতা ডিক্লিয়ার হয়ে গেছে। ফরমাললি আর স্বাধীনতা ডিক্লিয়ার করার প্রয়োজন ছিল না। এটা যারা বুঝতে চায় না, তারা আর জীবনেও বুঝবে না, তারা ৭১ সালেও বুঝেনি, ভবিষ্যতেও বুঝবে না।

তুরস্কের ‘ডেমোক্রেসি অব ফ্রিডম আইল্যান্ড’র উদাহরণ টেনে প্রধান বিচারপতি বলেন, আপনারা যারা তার্কিতে গেছেন, তারা জানেন তুরস্কে একটা জায়গা আছে, ডেমোক্রেসি অব ফ্রিডম আইল্যান্ড। আমার সৌভাগ্য হয়েছিল ওই প্যানোরোমাটি দেখার এবং ডেমোক্রেসি অব ফ্রিডম আইল্যান্ড দেখার। এক সময়ের তুরস্কের নেতা মেন্ডিজের বিচার হয়েছে, সেখানে সেটা মনুমেন্টের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

‘আদি ভারত বর্ষ থেকে বাংলাদেশ’ বইয়ের লেখককে অভিনন্দন জানিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, ওনার লেখা বইয়ে ইতিহাসের যে প্রকৃত ঘটনার বিবরণ এসেছে, তা পাঠক মননে কৌতুহল সঞ্চারিত করবে। তার গ্রন্থটি ইতিহাস ও গবেষণার নতুন দ্বার উন্মোচন করবে। ৬০০ পৃষ্ঠার এই বই লেখা সম্ভব হয়েছে অ্যাডভোকেট আবুল খায়েরের পরিশ্রম ও সৃজনশীলনতার জন্য।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কথা সাহিত্যিক ও বাংলা একাডেমির চেয়ারম্যান সেলিনা হোসেন। আর সঞ্চালনা করেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুন নুর দুলাল।

আরও বক্তব্য রাখেন আপিল বিভাগের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ও প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান নিজামুল হক নাসিম, রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা অ্যাটর্নি জেনারেল আবু মোহাম্মদ (এএম) আমিন উদ্দিন, জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ও সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (বার) সভাপতি জ্যেষ্ঠ আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মোমতাজ উদ্দিন ফকির, বারের সাবেক সম্পাদক ড. বশির আহমেদ, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নবনির্বাচিত সদস্য অ্যাডভোকেট সাঈদ আহমেদ রাজা, ড. মিল্টন কুমার দে এবং ড. আলমগীর আলম প্রমুখ।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • লালমনিরহাটে ‘বাংলা ইশারা ভাষা’ দিবস পালিত

  • নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী চীন

  • সাতদিনে বইমেলায় ৫৩৫ নতুন বই

  • ভুটানের জালে ৫ গোল দিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা

  • পদ্মাপাড়ে ‘সমুদ্র বিলাস’

  • রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সম্মাননা পেলেন ড. অরূপরতন চৌধুরী

  • বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে নবনিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য

  • পাঁচ খাতে দক্ষ শ্রমিক নেবে সৌদি আরব

  • পাহাড়ে সৌর বিদ্যুতের সেচ প্রকল্পে উপকৃত বান্দরবানের কৃষকেরা

  • হজের নিবন্ধন শুরু ৮ ফেব্রুয়ারি

  • উত্তরাঞ্চলে চা উৎপাদনের রেকর্ড

  • নওগাঁয় মাশরুম চাষে সাফল্য

  • তুরস্কে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য হটলাইন চালু

  • এইচএসসির ফল প্রকাশ ৮ ফেব্রুয়ারি

  • ভোলার চরফ্যাশনে বিষমুক্ত সবজি চাষ হচ্ছে

  • তিস্তার চরে পেঁয়াজের বাম্পার ফলনের স্বপ্ন দেখছেন কৃষকরা

  • ফুলচাষেই লাভবান নওগাঁর চাষিরা

  • অক্টোবরে উদ্বোধন হবে শাহজালাল আন্তঃ বিমানবন্দরে তৃতীয় টার্মিনাল

  • পরীক্ষামূলকভাবে চালু হলো নাগরিক ভূমিসেবা কেন্দ্র

  • ১ মাসের ব্যবধানে আরিফিন শুভ`র চোখ ধাঁধানো পরিবর্তন

  • তুরস্কের পাশে দাঁড়াল বাংলাদেশ! যাচ্ছে উদ্ধারকারী দল।

  • তুরস্ক যেন এক মৃত্যুপুরী! বেড়ে চলেছে মৃতের সংখ্যা!

  • ভেজাল ওষুধ উৎপাদন বিক্রিতে যাবজ্জীবন

  • প্রেসক্রিপশন ছাড়া ওষুধ বিক্রি করলে ২০ হাজার টাকা জরিমানা

  • জানুয়ারিতে মূল্যস্ফীতি কমে ৮.৫৭ শতাংশ

  • ১১৬১ কোটি টাকার দুর্নীতি : বিমানের ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের

  • ফ্লাইওভারের দেওয়াল লিখন ও পোস্টার সরানোর নির্দেশ

  • তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্পে হতাহতের ঘটনায় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী

  • বায়ু ও শব্দদূষণের দায়ে ১৬ যানবাহন ও ১২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

  • ‘মুজিব হানড্রেড সং’র মোড়ক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • নতুন শিক্ষাব্যবস্থার যুগে বাংলাদেশ

  • আদানির বিদ্যুৎ আসছে মার্চে

  • মামলায় সরকারি সাক্ষীদের খরচ দেয়ার নির্দেশ

  • রামপালে জুনের মধ্যে দ্বিতীয় ইউনিটে উৎপাদন শুরু

  • ‘একুশ’ বাঙালির প্রথম পরিচয়

  • সমন্বিত ট্র্যাফিক ব্যবস্থাপনা চালুর পরিকল্পনা করছে সরকার

  • ‘স্মার্ট জাতি গঠনই আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য’

  • স্পিকারের সাথে নর্ডিক রাষ্ট্রগুলোর রাষ্ট্রদূতদের সৌজন্য সাক্ষাৎ

  • জাহাজ রফতানিতে নবদিগন্ত

  • রাজস্ব আয় আরও বাড়ানোর পদক্ষেপ নিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

  • বাংলাদেশ একটি সফল উন্নয়নের গল্প: বিশ্ব ব্যাংক

  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ

  • জিডিপিতে আমরা মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরকে পেছনে ফেলেছি : তথ্যমন্ত্রী

  • ধামরাইয়ে কৃষকদের মাঝে ঋণ বিতরণ

  • খুলনায় ১০৭ প্রতিষ্ঠানের পতিত জমিতে ফসলের ঝিলিক

  • বাংলাদেশের জন্য ৪৭০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে আইএমএফ

  • পর্দা উঠলো অমর একুশে গ্রন্থ মেলার

  • দেশের প্রথম পাতাল রেলের নির্মাণকাজ উদ্বোধন ২ ফেব্রুয়ারি

  • জানুয়ারিতে ৫১৪ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি

  • মেট্রোরেলে টিকিট বেচে আয় আড়াই কোটি টাকা

  • পাতাল রেলের যুগে বাংলাদেশ

  • উন্নয়নের নতুন মুকুট পাতালরেলের আদ্যোপান্ত

  • ঢাকায় আর্জেন্টিনার দূতাবাস চালু হচ্ছে ২৭ ফেব্রুয়ারি

  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আরও সাড়ে ৭ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি আসছে

  • প্রথমবারের মতো ১২০ কিমি মিসাইল ফায়ারিং এর যুগে বাংলাদেশ

  • ২০২৬ সালেই চালু হবে মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্র বন্দর : নৌ প্রতিমন্ত্রী

  • রিজার্ভ চুরি: সাক্ষ্য দিতে ফিলিপাইনে বাংলাদেশের কর্মকর্তারা

  • ২৭ দিনে রেমিট্যান্স এলো ১৮ হাজার কোটি টাকা

  • চীনকে পেছনে ফেলে পোশাক রপ্তানিতে শীর্ষে বাংলাদেশ

  • জানুয়ারিতে রপ্তানি আয় বেড়েছে ৫.৮৯%