সোমবার   ৩০ জানুয়ারি ২০২৩

সর্বশেষ:
রোকেয়া পদক পাচ্ছেন ৫ নারী আবারও শ্বাসরুদ্ধকর জয়, ৭ বছর পর ভারতের বিপক্ষে সিরিজ বাংলাদেশের একশ’ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় বাংলাদেশের ছোঁয়া দেশের দ্বিতীয় ডিজিটাল পল্লি হবে শরীয়তপুরের ডামুড্যায় প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হলেন তোফাজ্জল হোসেন মিয়া
৪৮৬৪

বাস্তবায়নের পথে ব-দ্বীপ স্বপ্ন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯ আগস্ট ২০২০  

দেশের পানিসম্পদ কাজে লাগাতে নতুন স্বপ্ন নিয়ে ঘোষণা করা হয় ডেল্টা প্ল্যান-২১০০। ৩ লাখ কোটি টাকা ব্যয়ে আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে এ মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়নে পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও দিকনির্দেশনা দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চেয়ারপার্সন করে সম্প্রতি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল গঠন করেছে সরকার। এতে যুক্ত রয়েছে রূপকল্প-৪১ এর খাদ্য নিরাপত্তা, শিল্প, জনস্বাস্থ্য, পরিবেশ ও সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রণীত কাঠামো। 

পানি সম্পদ উপমন্ত্রী এ.কে.এম. এনামুল হক শামীম জানান, দীর্ঘমেয়াদী এই কর্মসূচি দ্রুত বাস্তবায়নে নেদারল্যাল্ডসের ব-দ্বীপ পরিকল্পনাকে মডেল হিসেবে নেয়া হয়েছে। ব-দ্বীপ পরিকল্পনার আওতায় ছয়টি অঞ্চলে প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এগুলো হলো উপকূলীয় অঞ্চল, বরেন্দ্র ও খরাপ্রবণ অঞ্চল, হাওড় ও আকস্মিক বন্যাপ্রবণ এলাকা, পার্বত্য চট্টগ্রাম, নদীবিধৌত অঞ্চল ও নগর এলাকা। বিশ্বব্যাংকের অর্থনীতিবিদদের সঙ্গে মিলে বাংলাদেশের অর্থনীতিবিদেরা ব-দ্বীপ পরিকল্পনা কৌশলগুলো নির্ধারণ করা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পানি বিশেষজ্ঞ ড. আইনুন নিশাত বলেন, পরিকল্পনা বাস্তবায়নে এরই মধ্যে ২৬টি গবেষণা পরিচালনা করা হয়েছে। এর মাধ্যমে নদী নাব্য ফিরে পাবে। পরিকল্পিতভাবে নদীগুলো নাব্য রাখতে পারলে দেশে আর বন্যা থাকবে না। পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য অর্থায়ন বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে। আর সেজন্য এখন থেকেই অর্থের উৎস ঠিক করে প্রকল্প গ্রহণ করতে হবে।

নদীমাতৃক বাংলাদেশ পৃথিবীর বৃহত্তম ব-দ্বীপ। এই ব-দ্বীপ ঘিরেই সামগ্রিক পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনা উন্নয়নের লক্ষ্যে শত বছরের মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান-২১০০ বা ব-দ্বীপ পরিকল্পনা। পরিকল্পনার প্রথম ধাপে নদী ব্যবস্থাপনা, পানিবদ্ধতা দূরীকরণ এবং নদী-সাগর থেকে ভূমি উদ্ধার করে দেশের আয়তন বাড়ানোর মতো তিনটি কর্মসূচি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি উন্নত দেশের স্বপ্ন পূরণে রূপকল্প-৪১ বাস্তবায়নে কৃষি খাতের উন্নয়ন ঘটিয়ে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত, শিল্প খাতের উন্নয়ন করে সকলের জন্য কর্মসংস্থানের পাশাপাশি রফতানি বাণিজ্যের প্রসার, সকলের জন্য সু-স্বাস্থ্য নিশ্চিত করার জন্য জনস্বাস্থ্য পরিকল্পনা, পরিবেশ উন্নয়ন ও সার্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং ভূ-প্রতিবেশ খাত বিশেষ গুরুত্ব থাকছে ব-দ্বীপ পরিকল্পনায়।

ডেল্টা প্ল্যানে ২০১৮-৩০ সাল নাগাদ প্রথম পর্যায়ে ৬টি হটস্পট ঠিক করে ৮০টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে সরকার। এর মধ্যে ৬৫ প্রকল্প ভৌত অবকাঠামো সংক্রান্ত, ১৫টি প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা ও দক্ষতা উন্নয়ন এবং গবেষণা সংক্রান্ত। ব-দ্বীপ পরিকল্পনায় তিনটি লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে চরম দারিদ্র্য দূর করা ও ওই সময়ের মধ্যে দেশকে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশের কাতারে নিয়ে যাওয়া এবং ২০৪১ সালের মধ্যে সমৃদ্ধ দেশের মর্যাদা লাভ। সমীক্ষা কার্যক্রম ও গবেষণা কাজের জন্য নেদারল্যান্ডস সরকার ইতোমধ্যে ৪৮ কোটি টাকা সহায়তা দিয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ৩৩টি বড় ধরনের চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে। কিন্তু এসব চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেই ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়ন করা হবে।

শত বছরের মহাপরিকল্পনা বাংলাদেশ ডেল্টা প্ল্যান-২১০০ বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও দিকনির্দেশনা দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চেয়ারপার্সন করে ডেল্টা গভর্ন্যান্স কাউন্সিল’ গঠন করেছে সরকার। এর আগে বন্যা, নদীভাঙন, নদী ব্যবস্থাপনা, নগর ও গ্রামে পানি সরবরাহ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা এবং বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও নিষ্কাশন ব্যবস্থাপনার দীর্ঘমেয়াদী কৌশল হিসেবে বহু আলোচিত ‘ব-দ্বীপ পরিকল্পনা-২১০০। ২০১৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (এনইসি)। ডেল্টা প্ল্যান নামে বেশি পরিচিত এ মহাপরিকল্পনার অধীনে আপাতত ২০৩০ সালের মধ্যে বাস্তবায়নের জন্য ৮০টি প্রকল্প নেবে সরকার, যাতে ব্যয় হবে প্রায় ২৯৭৮ বিলিয়ন টাকা। ডেল্টা গবর্ন্যান্স কাউন্সিলে কৃষিমন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী, খাদ্যমন্ত্রী, ভূমিমন্ত্রী এবং পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রীকে সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে। এছাড়া এই কাউন্সিলে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী অথবা প্রতিমন্ত্রী, নৌ-পরিবহন মন্ত্রী বা প্রতিমন্ত্রী, পানিসম্পদ মন্ত্রী অথবা প্রতিমন্ত্রী এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রীকেও সদস্য করা হয়েছে। পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্যকে এই কাউন্সিলের সদস্য সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়নে অর্থনৈতিক ও অবকাঠামো উন্নয়নের পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদি গবেষণা এবং ধারাবাহিক পর্যবেক্ষণ জরুরি বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছেন, এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে এখন থেকে প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য অর্থায়ন এবং শুরুতেই অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রয়োজন। পরিকল্পনার মাধ্যমে বন্যা, নদীভাঙন, নদীশাসন, নদী ব্যবস্থাপনা, নগর ও গ্রামের পানি সরবরাহ এবং বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, নগর বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও নিষ্কাশন ব্যবস্থাপনার কৌশল নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া দীর্ঘমেয়াদে বাংলাদেশের আয়তন বাড়বে।

ডেল্টা পরিকল্পনার মাধ্যমে নেদারল্যান্ডসের ভূমি বাড়ছে। নেদারল্যান্ডস এ পর্যন্ত ৬ হাজার বর্গকিলোমিটার নতুন ভূমি পেয়েছে। বাংলাদেশেও নদীবাহিত পলি দিয়ে এমনভাবে ভূমি পেতে পারে। আগামী ১০০ বছরে পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে উন্নয়ন পরিকল্পনা এটি। শুধু তাই নয়, ২১০০ সালে বাংলাদেশকে কোন জায়গায় দেখতে চাই তা ব-দ্বীপ পরিকল্পনায় বলা হয়েছে। পৃথিবীতে এত দীর্ঘ সময়ের পরিকল্পনা আর কোন দেশ করেনি। পানিসম্পদ ব্যবস্থাপনা সঠিকভাবে করতে পারলে কৃষিতে আর পিছিয়ে পড়বে না বাংলাদেশ। এজন্য নেদারল্যান্ডসের ব-দ্বীপ পরিকল্পনাকে কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশের ব-দ্বীপ পরিকল্পনা করা হয়েছে। নেদারল্যান্ডসের আয়তন বাড়ছে। দেশটি নতুন ভূমি পেয়েছে। বাংলাদেশেও নদীবাহিত পলি দিয়ে এমনভাবে ভূমি পেতে পারে।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • টুঙ্গিপাড়ার চাষাবাদের আওতায় আসছে ৪ বিলের ৫০০ হেক্টর জমি 

  • কুমিল্লায় বোরো ধান চাষে ব্যস্ত কৃষকেরা

  • মুকুলে ভরে গেছে মেহেরপুরের আমবাগান

  • শিশুদের জন্য নিরাপদ পরিবেশ গড়ে তোলার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

  • এইচএসসির ফল প্রকাশ ৮ ফেব্রুয়ারি

  • ‘যতদিন বেঁচে থাকবো প্রযুক্তির উৎকর্ষের লড়াই নিয়েই বাঁচবো’

  • চট্টগ্রামে গড়ে তোলা হচ্ছে ৫টি অর্থনৈতিক জোন

  • সুনামগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্থ সড়কের মেরামত ও পুনর্বাসন কাজ শুরু

  • ডাক ও টেলিযোগাযোগ পদক পেলো ১৮ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান

  • অঙ্গদানকারী সারাহ ইসলামের মৃত্যু নেই: বিএসএমএমইউ উপাচার্য

  • বাংলাদেশের বড় উন্নয়ন সহযোগী জাপান: বাণিজ্যমন্ত্রী

  • ‘নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা সব দলের দায়িত্ব ও কর্তব্য’

  • এক পা নিয়েই সফল কৃষক শফিউল

  • বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় কবি : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

  • পূর্বাচলের ৪টি সেক্টরে পানির সংযোগ দিচ্ছে রাজউক

  • কল করলেই শোনা যাবে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ

  • যুক্তরাষ্ট্র-চীন-ভারতের সঙ্গে ভারসাম্যপূর্ণ সম্পর্ক রক্ষার বার্তা

  • যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত রচনা করেছেন মতিউল ইসলাম

  • রাজশাহীতে ১০ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি

  • দায়িত্ব নিলেন বিজিবির নতুন মহাপরিচালক নাজমুল হাসান

  • ১ থেকে ৭ মার্চ, মোবাইলে কল করলেই শোনা যাবে ৭ই মার্চের ভাষণ

  • ১৪ বছরে রাজশাহীর উন্নয়ন, প্রত্যাশার চেয়ে প্রাপ্তিই বেশি

  • বাংলাদেশ নিয়ে আগ্রহ বাড়ছে ডেনমার্কের

  • খাগড়াছড়ির সব ক্ষেত্রেই উন্নয়নের চিত্র

  • প্রথম পাতাল রেলের কাজ উদ্বোধন ২ ফেব্রুয়ারি, থাকবেন প্রধানমন্ত্রী

  • “আওয়ামী লীগ দেশ ছেড়ে পালায় না” : রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী

  • বাংলাদেশিসহ সাড়ে ৮২ হাজার শ্রমিক নেবে ইতালি

  • রাজশাহীর সভামঞ্চে শেখ হাসিনা

  • বাংলাদেশ থেকে আরও বেশি পোশাক নেওয়ার প্রতিশ্রুতি

  • সেন্টমার্টিন দ্বীপে নৌবাহিনীর চিকিৎসাসেবা ও পরিচ্ছন্নতা অভিযান

  • বাংলাদেশে প্রথম হুন্দাই গাড়ি তৈরির কারখানা উদ্বোধন

  • পূর্বাচল পানি সরবরাহ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন শেখ হাসিনা

  • ২৬ জানুয়ারি পতাল রেলের যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ

  • ৬৩ দেশের ৯১১০ বিদেশি মেহমান অংশ নেয় ইজতেমায়

  • পূর্বাচল পানি সরবরাহ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন শেখ হাসিনা

  • মিঠামইনে হচ্ছে উড়াল সড়ক, আনন্দে ভাসছে হাওরবাসী

  • ২০২৬ সালে চালু হবে মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্র বন্দর

  • পাতালরেলের যুগে বাংলাদেশ

  • ঢাকার নবাবগঞ্জে হচ্ছে অর্থনৈতিক অঞ্চল, ব্যয় ১৯১৫ কোটি

  • জিআই পণ্যে শক্তিশালী হচ্ছে দেশ

  • শিক্ষার্থীদের দ্রুত ভিসা দেওয়ার পরিকল্পনা যুক্তরাষ্ট্রের

  • রোহিঙ্গা ইস্যুতে সহযোগিতা মিলছে না : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

  • ইউরোপের বাজারে পোশাক রপ্তানি বেড়েছে ৪২ শতাংশ

  • টিসিবির জন্য ২৭৪ কোটি টাকার তেল-ডাল কিনছে সরকার

  • আমি নাকি মরে গেছি নিউজ হয়েছে! কি পরিমাণ গুজব : ওবায়দুল কাদের

  • ‘প্রশিক্ষণের জন্য নাবিকদের আর যেতে হবে না বিদেশ’

  • যশোরের ফুল দেশের গণ্ডি পেরিয়ে যাচ্ছে বিদেশে

  • কিশোর-কিশোরীদের স্বাস্থ্যসেবায় অ্যাপ

  • জুনে নতুন আলোয় আলোকিত হতে যাচ্ছে উত্তরাঞ্চল

  • জুনে নতুন আলোয় আলোকিত হতে যাচ্ছে উত্তরাঞ্চল

  • রেমিট্যান্সের পালে হাওয়া

  • মার্চ থেকে সরকারি হাসপাতালেই চেম্বার করতে পারবেন চিকিৎসকরা

  • নাটোরে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সরকারি মহিলা কলেজের রজতজয়ন্তী 

  • ডিসেম্বরে আসছে মাতারবাড়ির বিদ্যুৎ

  • ‘প্রতিটি বিভাগেই বিশেষায়িত শিশু হাসপাতাল নির্মাণ হবে’

  • ২৫ জানুয়ারি থেকে মেট্রোরেলের নতুন সময়সূচি

  • লটারির মাধ্যমে মিলছে গোল্ডেন মোবাইল নম্বর

  • ক্যাশলেস সোসাইটির যুগে বাংলাদেশ

  • চলতি বছরই রেল যাবে কক্সবাজার

  • উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে পৌঁছতে পাশে থাকবে বিশ্বব্যাংক