মঙ্গলবার   ২৪ নভেম্বর ২০২০

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৩৬৭

৪০০ কুমির রপ্তানি করবে বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৫ অক্টোবর ২০২০  

৪০০ কুমির রপ্তানি করবে বাংলাদেশ। এসব কুমির যাবে মালয়েশিয়ায়। রপ্তানি করে এক বছরে এক খামার থেকে আয় হবে প্রায় আড়াই শ কোটি টাকা। দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম কুমিরের খামারটি পার্বত্য চট্টগ্রামের বান্দরবান জেলায়। বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম মৌজার ২৫ একর পাহাড়ি জমিতে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান এ খামার গড়ে তোলে ২০০৮ সালে। বাণিজ্যিকভাবে সেখানে কুমিরের চাষ শুরু হয় ২০১০ সালে। 

কুমিরের এ খামারটি নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা থেকে ৪৫ কিলোমিটার দূরে কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের কাছাকাছি ঘুমধুম পাহাড়ি এলাকার তুমব্রু গ্রামে অবস্থিত। এ গ্রামটি মিয়ানমার সীমান্তের একেবারে কাছে। খামারের পাহাড় থেকে দেখা যায় মিয়ানমারও। বর্তমানে ওই খামারে কাজ করছেন দুজন প্রকল্প কর্মকর্তার অধীনে ২০ জন কর্মচারী। আসছে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই এ ওয়াইল্ড লাইফ ফার্ম থেকে ৪ শতাধিক কুমির মালয়েশিয়ায় রপ্তানি হতে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর উপপরিচালক রবীন্দ্র ঘোষ বলেন, কুমির রপ্তানি আশার আলো দেখাচ্ছে। এ খাত এগিয়ে নিতে কাজ করছে সরকার।

২০১০ সালের আগস্টে অস্ট্রেলিয়া ও মালয়েশিয়া থেকে ৫০টি অস্ট্রেলীয় প্রজাতির কুমির আনা হয়। এর একেকটির দাম পড়ে ৩ লাখ টাকা। পরে নাইক্ষ্যংছড়ির ওই খামারের উন্মুক্ত জলাশয়ে সেগুলো ছাড়া হয়। এর মধ্যে মারা যায় ৪টি কুমির। ৪৬টি সুস্থ কুমিরের মধ্যে পরে স্ত্রী কুমিরের সংখ্যা দাঁড়ায় ৩১ ও পুরুষ ১৫-তে। সেই ৪৬টি কুমির থেকে নাইক্ষ্যংছড়ির ওয়াইল্ড লাইফ ফার্মে বর্তমানে বাচ্চাসহ ছোট-বড় কুমিরের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ হাজার ৪০০-তে। খামারে উন্মুক্ত জলাশয় ও খাঁচার ভিতর- দুই ভাবেই কুমির রাখা হয়েছে। 

প্রাণিবিজ্ঞানীদের মতে, এসব কুমির প্রায় ১০০ বছর বাঁচে। প্রাপ্তবয়স্ক হতে একেকটি কুমিরের লাগে ৮ থেকে ১২ বছর। প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর তারা হাঁস-মুরগির মতো ডিম দেয়। তবে কুমিরের ডিমের আকৃতি রাজহাঁসের মতো বড়। এরা ডিম দেয় সাধারণত বর্ষাকালে। ২০ থেকে ৮০টি করে ডিম দেয় একেকটি প্রাপ্তবয়স্ক স্ত্রী কুমির। ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ৮০ থেকে ৮৬ দিনেই ডিম থেকে কুমিরছানারা চোখ ফুটে বের হয়। 

এ খামারে কুমিরের বাচ্চা ফোটানো হয় ইনকিউবেটরে। ডিম ফোটার সঙ্গে সঙ্গেই বাচ্চাদের সংগ্রহ করে আরেকটি ইনকিউবেটরে রাখা হয়। কারণ বাচ্চাগুলোর নাভি থেকে কুসুম ছাড়তে লাগে ৭২ ঘণ্টা। এরপর শিশু কুমিরদের নার্সারিতে নিয়ে ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় রাখা হয়। জন্মের সময় একটি কুমির প্রায় ১২ ইঞ্চি লম্বা হয়। দুই বছর বয়স হওয়ার পর বাচ্চা কুমিরগুলোকে আকারভেদে পুকুরে স্থানান্তর করা হয়। রপ্তানির জন্য তৈরি এসব কুমির গড়ে ৫ ফুট লম্বা। এগুলোর ওজন ২০ থেকে ২৫ কেজি। চামড়া ছাড়াও কুমিরের প্রতি কেজি মাংস ৩০ ডলারে বিক্রি হয় বিদেশে। ১২ ডলারে বিক্রি হয় ১ বর্গ সেন্টিমিটার চামড়া। 

কুমির রপ্তানি থেকে বছরে কমপক্ষে আড়াই শ কোটি টাকা আয়ের সম্ভাবনা দেখছে প্রতিষ্ঠানটি। কুমিরের চামড়া বেশ দামি। এ চামড়া দিয়ে ব্যাগ, জুতাসহ অনেক দামি জিনিস তৈরি করা হয়। এ ছাড়া কুমিরের মাংস, হাড়, দাঁতও দামি। কুমিরের হাড় থেকে তৈরি হয় পারফিউম, দাঁত থেকে গয়না, পায়ের থাবা থেকে চাবির রিং। কুমিরের মাংসও বেশ সুস্বাদু ও পুষ্টিকর। তাই দেশে ও বিদেশে চাহিদা অনেক। এক কথায়, কুমিরের কোনো কিছুই ফেলনা নয়। কুমিরকে বলা হয় গোল্ড আয়রন অর্থাৎ সোনালি লোহা। দেশের একমাত্র সরকারি কুমির প্রজনন কেন্দ্র বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবনের করমজল। ২০০০ সালে করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্র শুরু হওয়ার পর সেখানে কুমির প্রথম ডিম দেয় ২০০৫ সালে। এখন পর্যন্ত করমজলে বিভিন্ন সময় ২৯২টি কুমিরের ছানা জন্ম নিয়েছে।

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • সিঙ্গাপুরের চেয়েও শক্তিশালী বাংলাদেশের অর্থনীতি 

  • ঢাকাকে আধুনিক করতে বিশেষ পরিকল্পনা

  • ‘বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ১৫ লাখ কর্মসংস্থান হবে’

  • বিমানের বহরে যুক্ত হচ্ছে ‘ধ্রুবতারা’, নাম দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

  • বেকার যুবকদের মডেল কুষ্টিয়ার হাফিজুল

  • হেলথ আইডি কার্ড স্বাস্থ্যসেবায় আরেক মাইলফলক : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • ট্রেনে সংযোজন হচ্ছে বায়ো-টয়লেট, বাঁচবে অর্থ-পরিবেশ

  • জন্মের পরই ইউনিক আইডি পাবে শিশু 

  • সরকারি মেডিকেল কলেজে ২৮২টি আসন বাড়ছে

  • পাঁচ দশকে ১০৫ ধানের জাত উদ্ভাবন করেছে ব্রি

  • পদ্মা সেতুর পৌনে ৬ কিলোমিটার দৃশ্যমান

  • ফায়ার সার্ভিসের সক্ষমতা বাড়াতে সব উপজেলায় ফায়ার স্টেশন

  • আন্তর্জাতিক পুরস্কার পেল আইসিটি বিভাগের আইডিয়া প্রকল্প

  • এক মাসে মোবাইল সংযোগ বাড়লো সাড়ে ৯ লাখ

  • সেতু নির্মাণে দুঃখ ঘুচলো মাইনীমুখ বাসিন্দাদের

  • আমনে রঙিন কৃষকের মাঠ

  • বদলে যাচ্ছে বুড়িগঙ্গা ও তুরাগ, নির্মাণ হচ্ছে ডিজিটাল ওয়াকওয়ে

  • কালিগঙ্গা নদীর উপরে সেতু নির্মাণ কাজ এগিয়ে চলেছে

  • রাজধানীবাসীর চাহিদা মেটাচ্ছে যশলদিয়া পানি শোধনাগার

  • চমেকে ১০০ শয্যার পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসা সেন্টার হচ্ছে 

  • মেট্রোরেল প্রকল্পের প্রথম অংশের কাজ এখন দৃশ্যমান

  • রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের লক্ষ্যে জাতিসংঘে রেজুলেশান পাস

  • এক বছরে ই-কমার্স লেনদেন বেড়েছে ১০৮ শতাংশ

  • বিশ্বসেরা বিজ্ঞানীদের তালিকায় জাবি অধ্যাপক ইব্রাহিম খলিল 

  • গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়নে সরকারের বৃহৎ পরিকল্পনা 

  • ‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে বাচ্চাদের মৃত্যুর ঝুঁকিতে ফেলা যাবে না’

  • ‘করোনার সময়েও আমরা চেষ্টা করেছি অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে’

  • ‘দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আমরা সদা-প্রস্তুত ও দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ’

  • জানুয়ারির মধ্যেই কাজ শুরু

  • সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে সশস্ত্র বাহিনীর কর্মদক্ষতা: প্রধানমন্ত্রী

  • দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর পৌনে ৬ কিলোমিটার

  • ডিসেম্বরের মধ্যে বসবে পদ্মা সেতুর বাকি ৪ স্প্যান

  • ভ্যাকসিনে সুখবর বাংলাদেশে, প্রতি ডোজ ৩৯৯ টাকা 

  • ১৬ ডিসেম্বর চিলাহাটি-হলদিবাড়ি লাইনে রেল চলাচল শুরু: রেল মন্ত্রী

  • বুড়িগঙ্গা-তুরাগ তীরে নির্মাণ হচ্ছে ডিজিটাল ওয়াকওয়ে

  • ৮টি এলএনজি ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে

  • ১০ মডেল গ্রামের মানুষ পাবে শহরের সব সুবিধা

  • জুড়ীতে ৪ কোটি টাকায় নির্মাণ হচ্ছে বৃন্দারঘাট ব্রিজ

  • দুই শতাধিক নতুন জাতের ধানের উদ্ভাবক স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত নূর

  • নেপালের বিপক্ষে সিরিজ জয় বাংলাদেশের

  • ভ্যাকসিনের জন্য ১০০০ কোটি টাকা বুকিং দিয়েছে বাংলাদেশ

  • গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়নে সরকারের বৃহৎ পরিকল্পনা 

  • হাঁস পালন করে স্বাবলম্বী দোহারের রেনু বেগম

  • এশিয়ার ‘আউটস্ট্যান্ডিং লিডার’ পুরস্কার পেলেন আজিজ খান

  • মেট্রোরেল প্রকল্পের প্রথম অংশের কাজ এখন দৃশ্যমান

  • চুয়াডাঙ্গায় ১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নিরাপদ পানির পাম্প চালু  

  • বিশ্বের সেরা ২০ নারী ক্রিকেটারের একজন মুর্শিদা

  • কটন কাগজে আসছে নতুন ১০ টাকার নোট

  • কুমির চাষে সম্ভাবনা দেখছে বাংলাদেশ

  • আটটি এলএনজি ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র হচ্ছে

  • অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহারের ঝুঁকি মারাত্মক : প্রধানমন্ত্রী

  • সাকিবকে হত্যার হুমকিদাতা গ্রেপ্তার

  • এক বছরে ই-কমার্স লেনদেন বেড়েছে ১০৮ শতাংশ

  • সুফিয়া কামালের আদর্শ বাঙালি নারীর প্রেরণার উৎস : প্রধানমন্ত্রী

  • রাত আটটার মধ্যে দোকান-পাট বন্ধের আহ্বান

  • প্রত্যেক উপজেলায় ফায়ার স্টেশন হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • এশিয়ার সেরা ১০ ফুটবলারের তালিকায় বাংলাদেশের সাদ

  • নাটোরে মাস্ক না পরায় ৪০ জন আটক

  • আমরা যে ধর্মেরই হই না কেন সবাই বাঙালি: জয়

  • ‘দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় আমরা সদা-প্রস্তুত ও দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ’