বুধবার   ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সর্বশেষ:
রোকেয়া পদক পাচ্ছেন ৫ নারী আবারও শ্বাসরুদ্ধকর জয়, ৭ বছর পর ভারতের বিপক্ষে সিরিজ বাংলাদেশের একশ’ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় বাংলাদেশের ছোঁয়া দেশের দ্বিতীয় ডিজিটাল পল্লি হবে শরীয়তপুরের ডামুড্যায় প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব হলেন তোফাজ্জল হোসেন মিয়া
১১০

১৩ বছরে চট্টগ্রামকে ঘিরে সরকারের যত উন্নয়ন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫ ডিসেম্বর ২০২২  

অনেক টানাপড়েন, চড়াই উৎরাই পেরিয়ে টানা ১৩ বছরের আওয়ামী লীগ সরকার। ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ার ঘোষণা দিয়ে ২০০৯ সালের যাত্রা শুরু করে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন সরকার।

এরপর টানা তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায়। এক যুগের বেশি সময় ক্ষমতায় থেকে দেশকে আধুনিক ও বিজ্ঞানভিত্তিক দেশে পরিণত করেছে সরকার। এরমধ্যে চট্টগ্রামেও হয়েছে উন্নয়ন। ছোট বড় অনেক প্রকল্প বাস্তাবায়ন দেখেছে বন্দর নগরীর মানুষ। এর মধ্যে রয়েছে ৮টি মেগা প্রকল্প। ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ইশতেহারে চট্টগ্রামকে প্রকৃত অর্থে বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জয়ের পর বিভিন্ন মেগা প্রকল্প গ্রহণ করে রেখেছেন সেই প্রতিশ্রুতি।

এসব প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে বঙ্গবন্ধু শিল্পনগর, বঙ্গবন্ধু টানেল, কোরিয়ান ইপিজেড, চায়না ইকোনমিক জোন, মহেশখালী এলএনজি টার্মিনাল ও গভীর সমুদ্রবন্দর, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেললাইন প্রকল্প, কক্সবাজার বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উন্নীতকরণ প্রকল্প, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সড়কপথ চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প, চট্টগ্রাম শহরের লালখান বাজার থেকে বিমানবন্দর পর্যন্ত দীর্ঘ ফ্লাইওভার এবং চট্টগ্রাম বন্দর বে-টার্মিনাল প্রকল্প।

বঙ্গবন্ধু শিল্পনগর:
চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে প্রায় ৭ হাজার একর এলাকায় গড়ে তোলা হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প নগর। যা দেশের বৃহত্তম ইকোনোমিক জোন। প্রায় ২২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে এই ইকোনমিক জোনে। বিনিয়োগকারী রয়েছেন ১৩৩ জন। নির্মাণাধীন রয়েছে ১৫টি প্রতিষ্ঠান। ধারণা করা হচ্ছে, এ শিল্প নগরে ১৫ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। প্রতিবছর প্রায় ২৫ বিলিয়ন ডলার মূল্যমানের পণ্য রপ্তানি হবে এ ইকোনোমিক জোন থেকে।

কর্ণফুলী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেল:
আওয়ামী লীগ সরকারের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কর্ণফুলী নদীর তলদেশে নির্মিত হয়েছে উপমহাদেশের প্রথম টানেল। মূল টানেলের দৈর্ঘ্য ৩ দশমিক ৩২ কিলোমিটার, যার সঙ্গে আনোয়ারা ও পতেঙ্গা প্রান্তে আরও ৫ দশমিক ৩৫ কিলোমিটার সংযোগ সড়কের কাজ চলমান রয়েছে। সরকারের নিজস্ব অর্থায়ন ও চীনের এক্সিম ব্যাংকের সহযোগিতায় প্রায় ১০ হাজার ৩৭৪ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। কর্ণফুলী টানেল বন্দর নগরীর দক্ষিণাঞ্চলকে যেমন একটি ব্যবসায়িক কেন্দ্রে পরিণত করবে, তেমনি ঢাকা ও চট্টগ্রামের মধ্যে কমাবে দূরত্ব ।

চট্টগ্রাম বন্দর:
বিশ্ব নৌ-বানিজ্যের সঙ্গে সংগতি রেখে চট্টগ্রাম বন্দরের উন্নয়নে ৮৯৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩০ বছর মেয়াদি একটি প্রকল্প প্রণয়ণ করেছে সরকার। বন্দরের ক্যাপাসিটি বৃদ্ধিসহ সার্বিক দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষে ১১ হাজার ৮৯০ কোটি ৩৬৩ লাখ টাকা ব্যয়ে চিটাগাং পোর্ট ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন প্রজেক্ট সম্পন্ন করা হয়েছে। বন্দরের জন্য আরও ৪ হাজার ৬১৯ লাখ টাকা ব্যয়ে ভেসেল ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশান সিস্টেম স্থাপন করা হয়েছে।

বে-টার্মিনাল:
জোয়ারের সময় শুধুমাত্র ৮ থেকে ৯ মিটার ড্রাফটের জাহাজ ভিড়তে পারে চট্টগ্রাম বন্দরে। এতে বছরে ৩০ লাখ কনটেইনার হ্যান্ডলিং করা সম্ভব হয়। বন্দরের চেয়ে ৫-৬ গুণ বড় বে-টার্মিনাল প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে ২৪ ঘণ্টায় ১৪ মিটার ড্রাফটের জাহাজ ভিড়তে পারবে এবং বছরে ৪৫ লাখ কন্টেইনার হ্যান্ডলিং করা যাবে। এর মাধ্যমে বছরে ৪০০ কোটি রাজস্ব আদায় করা সম্ভব।

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেললাইন প্রকল্প:
আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে চট্টগ্রামের দোহাজারী-কক্সবাজার পর্যন্ত ১০০ কিলোমিটার রেললাইন নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে।

বিশ্বের দীর্ঘতম মেরিন ড্রাইভ:
চট্টগ্রামের কালুরঘাট থেকে কর্ণফুলী নদীর তীর ঘেঁষে শাহ আমানত সেতু পর্যন্ত চার লেনের একটি মেরিন ড্রাইভ বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। এবার বৃহত্তর চট্টগ্রামে ২৫০ কিলোমিটার দীর্ঘ বিশ্বের দীর্ঘতম মেরিন ড্রাইভ নির্মাণ করতে যাচ্ছে সরকার। চট্টগ্রামের মীরসরাই থেকে কক্সবাজারের টেকনাফ পর্যন্ত প্রায় আড়াইশ কিলোমিটার দীর্ঘ এই মেরিন ড্রাইভ নির্মাণ প্রকল্প শীঘ্র শুরু হচ্ছে।

এলিডেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ও মেট্রোরেল:
লালখান বাজার থেকে পতেঙ্গা পর্যন্ত ১৬ দশমিক ৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়াও নগরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় নির্মিত হয়েছে দৃষ্টিনন্দন ফ্লাইওভার। চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন এলাকায় ৫৪ কিলোমিটার দীর্ঘ তিনটি মেট্রোরেল নির্মাণ করা হবে।

ওয়াসার স্যুয়ারেজ ও পানি শোধনাগার প্রকল্প:
চট্টগ্রামের নদীগুলো রক্ষায় প্রত্যেক শিল্প কারখানায় অবশ্যই সঠিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলে নদী দূষণমুক্ত রাখতে সরকার কাজ করছে। রাঙ্গুনিয়ার পোমরা এলাকায় স্থাপিত ওয়াসার ‘শেখ হাসিনা পানি শোধনাগার-২’ প্রকল্পে কর্ণফুলী নদীর পানি পরিশোধন করে দিনে ১৪ কোটি ৩০ লাখ লিটার সুপেয় পানি সরবরাহ করার সক্ষমতা রয়েছে। চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহরে ১৬৫ একর জায়গায় ৩ হাজার ৮০০ কোটি টাকা ব্যয়ে চাট্টগ্রাম ওয়াসার স্যুয়ারেজ প্রকল্প চালু হচ্ছে। অপরদিকে কর্ণফুলীর তীরে বোয়ালখালীতে দিনে ৬ কোটি লিটার ধারণক্ষমতার ভান্ডালজুড়ি পানি শোধনাগার প্রকল্পের কাজ শেষ হবে।

জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্প :
চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (চউক) ৫ হাজার ৬১৬ কোটি ব্যয়ে জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ২০১৭ সালের শুরু করা এ প্রকল্পের পুরো কাজ শেষ হলে নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন হবে। এছাড়া নগরীকে জলাবদ্ধতামুক্ত করতে পানি উন্নয়ন বোর্ড ৩ হাজার ৫০০ কোটি টাকার কাজ শুরু করছে।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, উন্নয়নের মাধ্যমে মানুষের সেবা করার ব্রত নিয়ে কাজ করছে আওয়ামী লীগ সরকার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চট্টগ্রামের উন্নয়নের জন্য বদ্ধ পরিকর। গত ১৩ বছরে চট্টগ্রামে প্রতি সেক্টেরে উন্নয়ন করেছেন। চট্টগ্রামে বড় বড় প্রকল্প নেওয়া হয়েছে এবং সেইগুলো ব্যস্তবায়ন করা হয়েছে। চট্টগ্রামের মানুষ উন্নয়নের সুফল পাচ্ছে।

মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, চট্টগ্রামের সার্বিক উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব সময় গুরুত্ব দিয়ে এসেছেন। ফলে চট্টগ্রামে এতগুলো মেগাপ্রকল্পের কাজ হয়েছে, হচ্ছে। এগুলো বাস্তবায়ন হলে চট্টগ্রামের চিত্র পাল্টে যাবে। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টিসহ সব ধরনের উন্নয়নের কথা আগামীকাল ভাষণে প্রধানমন্ত্রী তুলে ধরবেন।

বাংলার উন্নয়ন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • লালমনিরহাটে ‘বাংলা ইশারা ভাষা’ দিবস পালিত

  • নবায়নযোগ্য জ্বালানি খাতে বিনিয়োগে আগ্রহী চীন

  • সাতদিনে বইমেলায় ৫৩৫ নতুন বই

  • ভুটানের জালে ৫ গোল দিয়ে ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরা

  • পদ্মাপাড়ে ‘সমুদ্র বিলাস’

  • রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সম্মাননা পেলেন ড. অরূপরতন চৌধুরী

  • বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে নবনিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূতের সৌজন্য

  • পাঁচ খাতে দক্ষ শ্রমিক নেবে সৌদি আরব

  • পাহাড়ে সৌর বিদ্যুতের সেচ প্রকল্পে উপকৃত বান্দরবানের কৃষকেরা

  • হজের নিবন্ধন শুরু ৮ ফেব্রুয়ারি

  • উত্তরাঞ্চলে চা উৎপাদনের রেকর্ড

  • নওগাঁয় মাশরুম চাষে সাফল্য

  • তুরস্কে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য হটলাইন চালু

  • এইচএসসির ফল প্রকাশ ৮ ফেব্রুয়ারি

  • ভোলার চরফ্যাশনে বিষমুক্ত সবজি চাষ হচ্ছে

  • তিস্তার চরে পেঁয়াজের বাম্পার ফলনের স্বপ্ন দেখছেন কৃষকরা

  • ফুলচাষেই লাভবান নওগাঁর চাষিরা

  • অক্টোবরে উদ্বোধন হবে শাহজালাল আন্তঃ বিমানবন্দরে তৃতীয় টার্মিনাল

  • পরীক্ষামূলকভাবে চালু হলো নাগরিক ভূমিসেবা কেন্দ্র

  • ১ মাসের ব্যবধানে আরিফিন শুভ`র চোখ ধাঁধানো পরিবর্তন

  • তুরস্কের পাশে দাঁড়াল বাংলাদেশ! যাচ্ছে উদ্ধারকারী দল।

  • তুরস্ক যেন এক মৃত্যুপুরী! বেড়ে চলেছে মৃতের সংখ্যা!

  • ভেজাল ওষুধ উৎপাদন বিক্রিতে যাবজ্জীবন

  • প্রেসক্রিপশন ছাড়া ওষুধ বিক্রি করলে ২০ হাজার টাকা জরিমানা

  • জানুয়ারিতে মূল্যস্ফীতি কমে ৮.৫৭ শতাংশ

  • ১১৬১ কোটি টাকার দুর্নীতি : বিমানের ২৩ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুদকের

  • ফ্লাইওভারের দেওয়াল লিখন ও পোস্টার সরানোর নির্দেশ

  • তুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্পে হতাহতের ঘটনায় রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী

  • বায়ু ও শব্দদূষণের দায়ে ১৬ যানবাহন ও ১২ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

  • ‘মুজিব হানড্রেড সং’র মোড়ক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • নতুন শিক্ষাব্যবস্থার যুগে বাংলাদেশ

  • আদানির বিদ্যুৎ আসছে মার্চে

  • মামলায় সরকারি সাক্ষীদের খরচ দেয়ার নির্দেশ

  • রামপালে জুনের মধ্যে দ্বিতীয় ইউনিটে উৎপাদন শুরু

  • ‘একুশ’ বাঙালির প্রথম পরিচয়

  • সমন্বিত ট্র্যাফিক ব্যবস্থাপনা চালুর পরিকল্পনা করছে সরকার

  • ‘স্মার্ট জাতি গঠনই আমাদের পরবর্তী লক্ষ্য’

  • স্পিকারের সাথে নর্ডিক রাষ্ট্রগুলোর রাষ্ট্রদূতদের সৌজন্য সাক্ষাৎ

  • জাহাজ রফতানিতে নবদিগন্ত

  • রাজস্ব আয় আরও বাড়ানোর পদক্ষেপ নিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

  • বাংলাদেশ একটি সফল উন্নয়নের গল্প: বিশ্ব ব্যাংক

  • জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ

  • জিডিপিতে আমরা মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরকে পেছনে ফেলেছি : তথ্যমন্ত্রী

  • ধামরাইয়ে কৃষকদের মাঝে ঋণ বিতরণ

  • খুলনায় ১০৭ প্রতিষ্ঠানের পতিত জমিতে ফসলের ঝিলিক

  • বাংলাদেশের জন্য ৪৭০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ অনুমোদন করেছে আইএমএফ

  • পর্দা উঠলো অমর একুশে গ্রন্থ মেলার

  • দেশের প্রথম পাতাল রেলের নির্মাণকাজ উদ্বোধন ২ ফেব্রুয়ারি

  • জানুয়ারিতে ৫১৪ কোটি ডলারের পণ্য রপ্তানি

  • মেট্রোরেলে টিকিট বেচে আয় আড়াই কোটি টাকা

  • পাতাল রেলের যুগে বাংলাদেশ

  • উন্নয়নের নতুন মুকুট পাতালরেলের আদ্যোপান্ত

  • ঢাকায় আর্জেন্টিনার দূতাবাস চালু হচ্ছে ২৭ ফেব্রুয়ারি

  • প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আরও সাড়ে ৭ হাজার শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি আসছে

  • প্রথমবারের মতো ১২০ কিমি মিসাইল ফায়ারিং এর যুগে বাংলাদেশ

  • ২০২৬ সালেই চালু হবে মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্র বন্দর : নৌ প্রতিমন্ত্রী

  • রিজার্ভ চুরি: সাক্ষ্য দিতে ফিলিপাইনে বাংলাদেশের কর্মকর্তারা

  • ২৭ দিনে রেমিট্যান্স এলো ১৮ হাজার কোটি টাকা

  • চীনকে পেছনে ফেলে পোশাক রপ্তানিতে শীর্ষে বাংলাদেশ

  • জানুয়ারিতে রপ্তানি আয় বেড়েছে ৫.৮৯%