সোমবার   ২৬ অক্টোবর ২০২০

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
২৫৭

১০ জেলায় মাছের উৎপাদন বাড়বে ৬৩ হাজার টন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০  

আগামী সাড়ে তিন বছরে দেশের ১০ জেলায় ৬৩ হাজার টন দেশি প্রজাতির মাছের উৎপাদন বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। জেলাগুলো হচ্ছে- গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, ফরিদপুর, বরিশাল, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, নড়াইল ও বাগেরহাট। এই ১০ জেলায় দেশি প্রজাতির মাছ ও শামুকের উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি এগুলো সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। 

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সরকার ২০২ কোটি টাকা ব্যয়ে 'দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণ ও উন্নয়ন' শীর্ষক প্রকল্প গ্রহণ করেছে। গত ১৫ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি একনেকের সভায় প্রকল্পটি অনুমোদন দিয়েছে।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে মৎস্য অধিদপ্তর। চলতি বছর শুরু হওয়া প্রকল্পটি ২০২৪ সালের ৩০ জুন মেয়াদে শেষ করার জন্য লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। 

পরিকল্পনা কমিশনে জমা দেওয়া প্রকল্প প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে, প্রকল্পের আওতায় নতুন করে ১৬০টি মৎস্য অভয়াশ্রম গড়ে তোলা হবে। সংস্কার ও রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে ২৪০টি মৎস্য অভয়াশ্রম। ৩৯২টি দেশীয় প্রজাতির মাছের প্রদর্শনী খামার গড়ে তোলা হবে। ৩৯২টি লাগসই প্রযুক্তির প্রদর্শনী ও ১৯৬টি বিল নার্সারি স্থাপন করা হবে। ২টি বাঁওড় ও ১১০টি বিল বা পস্নাবনভূমিতে দেশীয় প্রজাতির রুইমাছের পোনা ছাড়া হবে। 

জানা গেছে, ঢাকা বিভাগের অন্তর্ভুক্ত গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুর জেলার সবকটি উপজেলা ও ফরিদপুর জেলার দুই উপজেলা, বরিশাল বিভাগের বরিশাল, ঝালকাঠি, পিরোজপুর ও বরগুনা জেলার সব উপজেলা, খুলনা বিভাগের নড়াইল জেলার সব উপজেলা ও বাগেরহাট জেলার ২টি উপজেলাজুড়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হবে। প্রকল্পের আওতায় বিভিন্ন এলাকার ১১০টি ধানখেতে পেনে চাষ প্রদর্শনী করা হবে। ১০০টি ইউনিটে খাঁচায় মাছ চাষ করা হবে। ১৫টি শামুকের চাষ প্রদর্শনী করা হবে। একই সঙ্গে মৎস্যজীবী ও জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান এবং তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। 

মৎস্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রকল্প এলাকা গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, ফরিদপুর, বরিশাল, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, নড়াইল ও বাগেরহাট জেলার অভ্যন্তরীণ জলাশয়ের মাছের উৎপাদন ও উৎপাদনশীলতা ভিত্তি বছর ২০১৭-১৮-এর উৎপাদন ৩ লাখ ৮৩ হাজার মেট্রিক টন থেকে ১৬ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৪ লাখ ৪৬ হাজার মেট্রিক টনে উন্নীত করা। দেশীয় প্রজাতির মাছ এবং শামুক সংরক্ষণ উন্নয়নের লক্ষ্যে ৩৯২টি দেশীয় প্রজাতির মাছ চাষ প্রদর্শনী ও ১৫টি শামুকের প্রদর্শনী স্থাপন করা। ১০০টি ইউনিটে খাঁচায় মাছ চাষ প্রদর্শনী করা। ১১০টি ধানখেতে মাছ চাষ প্রদর্শনী ও ৩৯২টি পেনে মাছ চাষ প্রদর্শনী স্থাপন করা এবং মৎস্য খাতে সংশ্লিষ্ট প্রকল্প এলাকার ১ লাখ ৮ হাজার ৮৪৭ জন সুফলভোগীর দক্ষতা উন্নয়ন। প্রকল্পের আওতায় উন্নত মৎস্যচাষ অনুশীলন করে দেশি প্রজাতির মাছ ও শামুক উৎপাদন বাড়ানোর পাশাপাশি সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে। প্রকল্পটি সরকারের সপ্তম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার উদ্দেশ্য ও লক্ষ্যের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ। 

এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে বিলুপ্তপ্রায় মূল্যবান দেশীয় প্রজাতির মাছের সংরক্ষণ ও উন্নয়নের মাধ্যমে দেশে নিরাপদ মাছের উৎপাদন বাড়বে। খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তায় সহায়ক হবে। এতে দেশে আমিষের ঘাটতি যেমন পূরণ হবে, তেমনি কর্মসংস্থানের দুয়ার খুলবে। দেশের আর্থিক সমৃদ্ধি বাড়বে। অর্থনীতি হবে শক্তিশালী।

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • সেনাপ্রধানের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নেই: আইএসপিআর

  • দুর্নীতির বিরুদ্ধে রিপোর্ট সরকারকে ব্যবস্থা নিতে সহায়তা করে

  • ‌‘দুর্নীতির বীজ বপন করে গেছে ৭৫ পরবর্তী অবৈধ সরকারগুলো’

  • দক্ষিণ এশিয়ার নতুন ধনী ‘বাংলাদেশ’

  • নারীর নিরাপত্তা নিশ্চিতে সচেষ্ট বাংলাদেশ

  • ব্যবসার প্রসারে বড় ভূমিকা রাখবে প্রযুক্তি

  • পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম চুল্লি দেশে

  • এগিয়ে চলছে মেট্রোরেল

  • সরকারি পরিষেবার অর্থ জমা উন্মুক্ত হচ্ছে সব ব্যাংকে

  • দু-তিন বছরে সড়কে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আসবে

  • ৪০০ কুমির রপ্তানি করবে বাংলাদেশ

  • ঘুরে দাঁড়াচ্ছে পর্যটন খাত

  • ‘তলাবিহীন ঝুড়ি’ থেকে শক্তিশালী অর্থনীতির দেশ বাংলাদেশ

  • বদলে যাচ্ছে পিছিয়ে পড়া অঞ্চলের শিক্ষার চিত্র

  • নকিয়া বাংলাদেশে কারখানা স্থাপন করতে আগ্রহী

  • করোনাকালে ক্ষুদ্র শিল্পকে বাঁচাতে এগিয়ে এসেছে সরকার

  • পদ্মা সেতুর ৫ কিলোমিটারের বেশি দৃশ্যমান

  • দক্ষিণ এশিয়ার অর্থনীতিতে নতুন নেতা হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ

  • জাতীয় গো-প্রজনন কেন্দ্রে চার দশকে উৎপাদন ১৪ লাখ গরু

  • তাঁতিদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে হচ্ছে ফ্যাশন ডিজাইন ইনস্টিটিউট

  • অঞ্চলভিত্তিক পেঁয়াজ চাষ করবে সরকার

  • টিকা কিনতে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ

  • এবার শীতের তীব্রতা কম হবে

  • ২০৩০ সালের মধ্যে সড়কে মৃত্যু ৫০ শতাংশ কমানো হবে

  • ‘দুই-তিন বছরে বাংলাদেশের সড়কে বৈপ্লবিক পরিবর্তন হবে’

  • ‘২০৩০ সালের মধ্যে ছয় লেনের মেট্রোরেল নির্মাণের পরিকল্পনা সরকারের’

  • ‘ফ্রান্স-বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়াতে কাজ করা হচ্ছে’

  • ভাল ফলন ও দাম পাচ্ছেন লেবু চাষিরা

  • বাজার সিন্ডিকেট ভাঙতে সরকার কাজ করছে

  • করোনাকালেও থেমে নেই কৃষকের উৎপাদন

  • নিউইয়র্কের সর্বোচ্চ সম্মাননা পেলেন বিশ্বের সবচেয়ে খুদে বিজ্ঞানী

  • মুক্তিযোদ্ধা ভাতা বাড়িয়ে ২০ হাজার করার প্রস্তাব

  • জিডিপিতে ১.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি আনবে পদ্মা সেতু: চীন

  • মাটির নিচ দিয়ে তার নেওয়া শুরু হবে সোমবার: তাপস

  • পদ্মায় বসলো ৩৩তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৫ কিলোমিটার 

  • দক্ষিণ এশিয়ার নতুন অর্থনৈতিক নেতা বাংলাদেশ: দ্য ডিপ্লোম্যাট

  • সামুদ্রিক মাছ ‘বাংলাদেশিয়াস’ বৈশ্বিক তালিকায় অন্তর্ভুক্ত

  • পার্বত্য চট্টগ্রামের ২৮টি পাড়াকেন্দ্র ডিজিটাল হচ্ছে

  • বদলে যাচ্ছে ঢাকাসহ সব বিমানবন্দরের চেহারা

  • টিসিবি ২৫ টাকায় আলু বিক্রি শুরু করবে বুধবার

  • ‘মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা ছাড়াই ওপরের ক্লাসে উন্নীত করা হবে’

  • রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের চুল্লি রাশিয়া থেকে দেশে পৌঁছেছে

  • ডিজিটাল মানচিত্রে পোশাক কারখানা

  • জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হচ্ছে ১০০ কোটি ঘনফুট গ্যাস

  • স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে আখাউড়ার মাছ

  • উত্তরে দৃশ্যমান মেট্রোরেল

  • দেশের সবচেয়ে বড় সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন শিগগিরই

  • ‘দুই-তিন বছরে বাংলাদেশের সড়কে বৈপ্লবিক পরিবর্তন হবে’

  • নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সবকিছু করে যাচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

  • রাজশাহীতে চালু হচ্ছে নৌবন্দর

  • পরিচ্ছন্ন নারায়ণগঞ্জ গড়তে ৩০১ কোটি টাকা

  • এবার গারো পাহাড়ে চা চাষের উদ্যোগ

  • করোনার মধ্যেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশের অধিকাংশ সূচক

  • নারীদের দক্ষতা বাড়ানোর পরামর্শ

  • সরকারি তৎপরতায় ঘুরে দাঁড়াচ্ছে পোলট্রি শিল্প

  • একনেকে ১৬৬৮ কোটি খরচে ৪ প্রকল্প অনুমোদন

  • ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

  • ওসমানী বিমানবন্দরের আয়তন বাড়ছে তিনগুণ

  • ‘আমরা ভাগ্যবান শেখ হাসিনার মতো একজন দক্ষ নেত্রী পেয়েছি’ 

  • রোহিঙ্গাদের জন্য আরো ৩৫ কোটি ডলার অনুদান ঘোষণা