বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৩১

সৌদি-ইসরায়েল চুক্তি কি আসন্ন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২০  

মধ্যপ্রাচ্যজুড়ে অসংখ্য লোকের মনে এখন একটা প্রশ্নটা ঘুরপাক খাচ্ছে। আর সেই প্রশ্নটা হচ্ছে- সৌদি-ইসরায়েল শান্তিচুক্তি কি আসন্ন? কেননা, সৌদি শাসকরা ঐতিহাসিকভাবেই ইসরায়েলের সমালোচক হিসেবে পরিচিত ছিলেন; কিন্তু সেই তারাই কি শেষ পর্যন্ত ওই দেশটিকে স্বীকৃতি দিতে যাচ্ছে?

এক সময় এই আরব মিডিয়ায় ইসরায়েলকে আখ্যায়িত করা হতো ইহুদিবাদী শক্তি হিসেবে। অথচ এখন তারা দৃশ্যত ঘনিষ্ঠ মিত্রতার পথে হাঁটছে। সামাজিকমাধ্যমে সম্প্রতি এ নিয়ে প্রবল জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। সৌদি মালিকানাধীন আল-আরাবিয়া টেলিভিশনে সম্প্রতি প্রচারিত এক সাক্ষাৎকার থেকে এ জল্পনা আরও জোরাল হয়।

আল-আরাবিয়া টিভিতে প্রচারিত ওই সাক্ষাৎকারটি দিয়েছেন সাবেক সৌদি গোয়েন্দাপ্রধান প্রিন্স বান্দার বিন সুলতান আল-সউদ। ওয়াশিংটনে দীর্ঘদিন ধরে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ছিলেন তিনি। সম্প্রতি ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করায় ফিলিস্তিনি নেতারা যেভাবে কয়েকটি আরব দেশের সমালোচনা করেছেন, তার তীব্র প্রতিবাদ জানান প্রিন্স বান্দার। তার ওই সাক্ষাৎকারটি তিন পর্বে প্রচার করা হয়। প্রিন্স বান্দার বলেন, ‘যে কর্মকর্তারা তাদের লক্ষ্যের প্রতি সারাবিশ্বের সমর্থন পেতে চান, তাদের কাছ থেকে এত নিম্ন স্তরের এই বিতর্ক আমরা আশা করি না।’ তিনি বলেন, ‘উপসাগরীয় দেশগুলোর নেতৃত্বের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি নেতাদের এই বাড়াবাড়ি এবং নিন্দনীয় কথাবার্তা একেবারেই অগ্রহণযোগ্য।’
 
সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইন যখন ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে তখন ফিলিস্তিনি নেতারা একে ‘বেইমানি’ এবং ‘পিঠে ছুরি মারা’ বলে আখ্যায়িত করেছিলেন। প্রিন্স বান্দার ওয়াশিংটনে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত ছিলেন এক টানা ২২ বছর। তিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশের এতই ঘনিষ্ঠ ছিলেন যে, অনেকে তাকে ডাকতেন ‘বান্দার বিন বুশ’ নামে।

আল-আরাবিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রিন্স বান্দার ফিলিস্তিনি নেতৃত্বের ‘ঐতিহাসিক ব্যর্থতা’র কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, তারা ধরেই নিয়েছিল যে, সৌদি আরব সব সময়ই আমাদের সমর্থন দিয়ে যাবে।

সেই সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ফিলিস্তিনিদের দাবি অবশ্যই ন্যায়সঙ্গত; কিন্তু তারা যে এত বছরেও একটা শান্তিচুক্তি করতে পারলো না, তার জন্য ইসরায়েল এবং ফিলিস্তিনি নেতৃত্ব উভয়কেই সমানভাবে দায় নিতে হবে। ফিলিস্তিনি নেতৃত্ব এখন বিভক্ত। পশ্চিম তীরে শাসনকাজ চালাচ্ছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে গাজার ক্ষমতা দখল করে আছে ইসলামপন্থি আন্দোলনকারী হামাস। প্রিন্স বান্দার সেদিকে ইঙ্গিত করে বলেন, ফিলিস্তিনিদের নেতারা যখন নিজেদের মধ্যেই একমত হতে পারছেন না, তখন তারা একটা চুক্তিতে পৌঁছাবে কীভাবে?

সৌদি রাজপরিবারের ঘনিষ্ঠ এক কর্মকর্তা বলছিলেন, সৌদি রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত টিভি চ্যানেলে এ ধরনের বক্তব্য কখনোই প্রচার হতে পারে না, যদি বাদশাহ সালমান এবং যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান আগে থেকে এটা অনুমোদন না করেন। এই কথাগুলো বলবার জন্য তারা বেছে নিয়েছেন প্রিন্স বান্দারকে, যিনি একজন প্রবীণ কূটনীতিক এবং সৌদি রাজপরিবারের স্বার্থসিদ্ধির এক বিশ্বস্ত স্তম্ভ।

তার মতে, এখন পর্যন্ত এটা হচ্ছে সবচেয়ে স্পষ্ট ইঙ্গিত যে, সৌদি আরব ইসরায়েলের সঙ্গে এক সময় একটা চুক্তি করবে। তার জন্য তারা দেশের মানুষকে প্রস্তুত করছে।

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • রেমিটেন্স: গত অর্থবছরের ৪৪% এসেছে সাড়ে ৩ মাসেই

  • নারীদের দক্ষতা বাড়ানোর পরামর্শ

  • রাজশাহীতে চালু হচ্ছে নৌবন্দর

  • জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালে শয্যা বাড়ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • পেঁয়াজে ভারতনির্ভরতা কমাতে চায় বাংলাদেশ

  • সরকারি হস্তক্ষেপে কমেছে আলুর দাম

  • দুর্ঘটনা রোধে চালকদের ‘ডোপ’ টেস্ট করাতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

  • ভাসানচরে প্রস্তুত জাতিসংঘ ভবন, থাকবে পূর্ণাঙ্গ থানা ও ফাঁড়ি

  • বাক্কোর উদ্যোগে ‘বাক্কো অনলাইন প্রফেশনাল ফোরাম’ চালু

  • নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সবকিছু করে যাচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

  • এসডিজি অর্জনে কৃষির কোনও বিকল্প নেই: কৃষিমন্ত্রী

  • করোনায় নারী উদ্যোক্তারা অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন: স্পিকার

  • পদ্মায় অবৈধভাবে ইলিশ শিকার, ৬২ জেলেকে কারদণ্ড

  • দুর্গাপূজা শুরু, আজ মহাষষ্ঠী

  • কলকাতা ছাড়া পূজা ভাবতেই পারি না : জয়া

  • ইরান-রাশিয়ার কাছে মার্কিন ভোটারদের তথ্য আছে : এফবিআই

  • ডিসেম্বরে আন্তঃদেশীয় রেল যোগাযোগ উদ্বোধন : রেলমন্ত্রী

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুর্গোৎসব পালনের আহ্বান রাষ্ট্রপতির

  • অনন্য এক মহানায়ক

  • প্রথম শ্রেণিতে নিয়োগ পাচ্ছেন ৫৪১ জন নন-ক্যাডার

  • বাংলার অমৃত সূর্যোদয়ের প্রবল সম্ভাবনার প্রতীক শেখ রাসেল

  • বেসিস আউটসোর্সিং অ্যাওয়ার্ড পেলো ৮৭ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান

  • জামালপুরে যুক্তরাষ্ট্র শাখা যুবলীগের উদ্যোগে ত্রাণ পেল ৬০৬ পরিবার

  • স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে আখাউড়ার মাছ

  • ‘সমুদ্র অর্থনীতিকে কাজে লাগাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে’

  • ধর্ষণের ঘটনায় সালিশ বৈঠক কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট

  • আলুর বাজার মনিটরিং জোরদার করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

  • সব শিক্ষার্থীই পরবর্তী ক্লাসে উঠবে: শিক্ষামন্ত্রী

  • ‘নভেম্বরের মধ্যেই বিজেএমসির সব শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ করা হবে’

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা উদযাপনের আহ্বান আইনমন্ত্রীর

  • বাংলাদেশ থেকেই টেলিস্কোপে মহাকাশ পর্যবেক্ষণ

  • দেশের প্রথম হাইড্রোলিক এলিভেটর ড্যাম আনোয়ারায়

  • বিমানবাহিনীর আধুনিকায়ন: চীন থেকে আনা হলো ৭ প্রশিক্ষণ বিমান

  • বাড়ছে বিক্রি, ঘুরে দাঁড়াচ্ছে সিমেন্ট শিল্প

  • মুক্তিযোদ্ধা ভাতা বাড়িয়ে ২০ হাজার করার প্রস্তাব

  • দেশে মাটি ছাড়াই চাষ হচ্ছে বিদেশি সবজি

  • বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তালিকায় দেশের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন

  • মাটির নিচ দিয়ে তার নেওয়া শুরু হবে সোমবার: তাপস

  • পদ্মায় বসলো ৩৩তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৫ কিলোমিটার 

  • আগামী বছর থেকে গাড়ি তৈরি করবে বাংলাদেশ

  • জিডিপিতে ১.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি আনবে পদ্মা সেতু: চীন

  • সামুদ্রিক মাছ ‘বাংলাদেশিয়াস’ বৈশ্বিক তালিকায় অন্তর্ভুক্ত

  • ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে ইতালি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • হার্ডওয়্যার-সফটওয়্যার-প্রযুক্তি পণ্য রফতানি বাড়ছে

  • বাংলাদেশকে দিল্লির চোখে দেখে না যুক্তরাষ্ট্র: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • নিউইয়র্কের সর্বোচ্চ সম্মাননা পেলেন বিশ্বের সবচেয়ে খুদে বিজ্ঞানী

  • খাদ্যশস্য উৎপাদনে বিশ্বে উদাহরণ বাংলাদেশ

  • এবারের ওয়ার্ল্ড ফুড প্রাইজ পাচ্ছেন ডা. সালমা সুলতানা

  • বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ভারত-পাকিস্তানকে পেছনে ফেলল বাংলাদেশ

  • ফটোগ্রাফার হিমেলের ছবি জিতল আন্তর্জাতিক খেতাব

  • রাজধানীতে ৩ দিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

  • টাঙ্গাইলে গণধর্ষণ মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

  • ‘মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা ছাড়াই ওপরের ক্লাসে উন্নীত করা হবে’

  • পার্বত্য চট্টগ্রামের ২৮টি পাড়াকেন্দ্র ডিজিটাল হচ্ছে

  • দেশের সবচেয়ে বড় সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন শিগগিরই

  • ২২ দিন ইলিশ ধরা বন্ধ, ১১ হাজার ৪৩৮ জেলে পরিবার পাবে ভিজিএফের চাল 

  • বাধা কাটিয়ে এগিয়ে চলছে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে

  • শিশুদের বন্ধু বঙ্গবন্ধু

  • টিসিবি ২৫ টাকায় আলু বিক্রি শুরু করবে বুধবার

  • পুঁজিবাজারে লেনদেনে আজো বেড়েছে সূচক