সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
১১৯

ষষ্ঠ শ্রেণির শতভাগ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি দেবে সরকার 

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর ২০১৯  

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জাবেদ আহমেদ বলেছেন, আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকেই ষষ্ঠ শ্রেণির শতভাগ শিক্ষার্থীর টিউশন ফি সরকার দেবে। সারা দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের টিউশন ফি এক এক রকম। কোন প্রতিষ্ঠানে কত টাকা টিউশন ফি দেওয়া হবে তা নির্ধারণ করতে আরও কয়েকটি কর্মশালা করে চূড়ান্ত করা হবে। পর্যায়ক্রমে এটি দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত চালু করা হবে। শিক্ষায় এসডিজি-৪ বাস্তবায়নের জন্য এ সিদ্বান্ত নেওয়া হয়েছে।

এসইডিপির (এডুকেশন ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম) অধীনে 'সমন্বিত উপবৃত্তি কর্মসূচি (এইচএসপি) শীর্ষক স্কিমের মাধ্যমে এ কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হবে। গত রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সিনিয়র সচিবের সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা অংশীজনদের নিয়ে এ সংক্রান্ত একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় এসব তথ্য জানানো হয়। 

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, লেখাপড়ার পেছনে একজন শিক্ষার্থীর দুই ধরনের খরচ হয়। একটি প্রাতিষ্ঠানিক। অপরটি পারিবারিক। পারিবারিক ব্যয়ের মধ্যে আছে খাতা, কলম, জামা-কাপড় ইত্যাদি। অবৈতনিক শিক্ষার ধারণায় সরকার প্রাতিষ্ঠানিক খরচ বহন করবে। এতে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোনো টিউশন ও অন্যান্য ফি আদায় করা হবে না।

জানা গেছে, সরকার দুইভাবে টিউশন ফি দিতে পারে বলে মত দেয়া হয়েছে। একটি হচ্ছে, প্রত্যেক স্কুল-মাদ্রাসা একই হারে টিউশন ফি নেবে। সেই ফির অর্থ সরকার শিক্ষার্থীর কাছে পাঠাবে। শিক্ষার্থী তা স্কুলে জমা দেবে। অথবা, শিক্ষার্থীদের নির্ধারিত টিউশন ফি সরকার সরাসরি প্রতিষ্ঠানে পাঠাবে। এ ক্ষেত্রে ষষ্ঠ শ্রেণিতে প্রতিষ্ঠান ভেদে ৩৫ টাকা থেকে ১২০টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে।

মন্ত্রণালয়ের গবেষণায় বলা হয়েছে, ২০১৯ সালের জুলাইয়ে ষষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণিতে ৭৫ লাখ ৮২ হাজার ৮৭৫ শিক্ষার্থী অধ্যায়ন করছে। শিক্ষার্থী বৃদ্ধির আনুপাতিক হার বিশ্লেষণ করে বলা হয়েছে, ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত নিম্ন মাধ্যমিক স্তরে ২০২১ সালে ৮০ লাখ ৪৪ হাজার ৬৭৩ জন এবং ২০২৫ সালে ৯০ লাখ ৫৪ হাজার ৩৫০ জন হবে। ২০৩০ সালে বাংলাদেশে ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত নিম্ন মাধ্যমিকে শিক্ষার্থী হবে এক কোটি চার লাখ ৯৬ হাজার ৪৭৪। প্রতিবছর ১০ শতাংশ হারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে। ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত তিন শ্রেণিতে অবৈতনিক শিক্ষা চালু করতে সরকারের ১৮ কোটি ১৭ লাখ পাঁচ হাজার টাকা দরকার হবে।

আরও পড়ুন
বাংলার উন্নয়ন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • মহাত্মা গান্ধীকে নিয়ে সালমানের টুইট (ভিডিও)

  • লাইফ সাপোর্টে হুমায়ূন সাধু

  • বোরহানউদ্দিনের সেই শুভসহ ৩ জন কারাগারে

  • ভিডিও ভাইরাল,মুখ খুললেন মেহজাবিন

  • আদালতের আদেশ: শিরোনামহীনের গান গাইতে পারবেন তুহিন

  • বিয়ে করলেন জেনিফার লরেন্স

  • শুরু হচ্ছে বাংলা নাট্যোৎসব

  • বয়স বাড়িয়ে প্রেমিকাকে বিয়ে, কারাগারে প্রেমিক

  • ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সরকারের যত অর্জন

  • ২৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন প্রকল্প গ্রহণ 

  • ‘চরের মানুষ পাকা রাস্তা,পড়ালেখার জন্য স্কুল-মাদ্রাসা পেয়েছে’

  • ‘সাড়ে ২২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে’

  • দেশকে শীর্ষ পঞ্চাশে নেওয়ার লক্ষ্য জয়ের

  • অনলাইনে সরকারি সেবা দিতে ‘একপে’, ‘একসেবা’ ও ‘একশপ’-এর যাত্রা শুরু

  • আপনার সন্তান খায় না, তাহলে এভাবে দিন

  • বিরতিহীন দীর্ঘতম বিমান যাত্রায় ফ্লাইট সিডনিতে পৌঁছেছে

  • ‘গণতন্ত্রকে খুন করেছে মমতা’

  • কনের আত্মীয়রা মল মূত্র খাওয়ালো বরের পিতাকে

  • আটক ইসরাইলি সেনাদের বিষয়ে হামাসের ভিডিও বার্তা

  • কুর্দি এলাকায় সিরীয় সেনা মানে যুদ্ধ: তুরস্ক

  • এক অন্য রকম শিক্ষকের গল্প

  • নেতার অভাবেই ক্ষমতায় মোদি: অভিজিৎ

  • বড় সিরীয় ঘাঁটি ছাড়ল যুক্তরাষ্ট্র

  • ভারতের হামলায় পাকিস্তানের ১০ সেনা নিহত

  • বিশ্বে প্রথমবার ড্রোনে পণ্য ডেলিভারি

  • কানাডার জাতীয় নির্বাচন আজ

  • কাশ্মীর নিয়ে কথা বলায় তুরস্ক সফর বাতিল মোদির

  • সিংড়ায় বোনকে তালাক দেয়ায় দুলাভাইকে পিটিয়ে জখম

  • হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে ফের চালু হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার’

  • আল-আকসায় ফের শত শত কট্টরপন্থী ইহুদির অনুপ্রবেশ

  • আজ ‘কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’ ও ১৩টি সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

  • ১৪ হাজার মুক্তিযোদ্ধাকে পাকা বাড়ি দেওয়া হবে: মোজাম্মেল হক

  • মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় দেশসেরা রংপুরের রাগীব নূর

  • পাতাল মেট্রোরেলে বদলে যাবে ঢাকা শহর

  • বাংলাদেশের প্রথম তৃতীয় লিঙ্গের ভাইস চেয়ারম্যান পিংকী

  • ২০১৯ সালে বিশ্বে তৃতীয় সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি বাংলাদেশে: আইএমএফ

  • বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৫৭ পরিবার পেল অর্থ সহায়তা ও বীজ

  • অর্থনীতিকে এগিয়ে নেবে উদ্ভাবনী প্রযুক্তি: মোমেন

  • পর্যটন শিল্প বিকাশে অবদান রাখবে পটিয়া বাইপাস সড়ক

  • ভুলতা উড়ালসড়কের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • দ্রুত এগুচ্ছে ৬ লেনের মাতামুহুরী সেতুর নির্মাণকাজ

  • আগামী প্রজন্মকে পরিচ্ছন্ন হয়ে ওঠার আহ্বান স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

  • ‘সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থায় বাংলাদেশের অর্থনীতি’

  • প্রকাশ পেল ‌‌‘আহাদ ফাহিম’ এর গান ‘আমি মিথ্যে বলিনি’ এর ভিডিও

  • সরকারি উদ্যোগে সব উপজেলায় গঠন হচ্ছে কিশোর-কিশোরী ক্লাব

  • যানজট নিরসনে ঢাকায় আরও ২টি মেট্রোরেলের প্রকল্প অনুমোদন

  • মুসলিমবান্ধব পর্যটন বিকাশে বাংলাদেশ আদর্শ: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

  • আবরারকে পিটিয়ে হত্যার কারণ জানালেন ডিএমপি

  • নকল জুস তৈরির কারখানায় অভিযান, ৪০ হাজার টাকা জরিমানা 

  • মুন্সিগঞ্জের ১৩ সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশের ভাষা আমার নেই: আবরারের মা

  • শুধু উন্নয়ন নয়,দেশ এখন দুর্যোগ মোকাবেলাতেও রোল মডেল:প্রধানমন্ত্রী

  • সেনাপ্রধান কাতার যাচ্ছেন মঙ্গলবার

  • ‘‌আমাকে কবর থেকে বের করো, এখানে ভীষণ অন্ধকার’‌

  • এক বাঘিনীর জন্য দুই বাঘের তুমুল লড়াই

  • হাওরের ৩ উপজেলায় রেসিডিন্সিয়াল স্কুল-কলেজ হবে: রাষ্ট্রপতি

  • জেরুজালেমের গভর্নরকে তুলে নিয়ে গেল ইসরাইল

  • যুগোপযোগী সিলেবাস প্রণয়ন করা হবেঃ শিক্ষা উপমন্ত্রী

  • ‘সুন্দরবনকে অক্ষত রেখেই মোংলা ইকোনমিক জোনের কাজ শুরু হয়েছে’

  • নতুন ঘর পাবেন ১৫ হাজার মুক্তিযোদ্ধাঃ  মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী