সোমবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
১৬১

লালমনিরহাটে চা চাষে আগ্রহ বাড়ছে কৃষকদের

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০২১  

জেলার হাতীবান্ধা উপজেলায় বাণিজ্যিকভাবে সমতল ভূমিতে চা চাষ হচ্ছে। জেলাজুড়ে এখন ১৩৬ দশমিক ৪৮ একর জমিতে চা বাগান গড়ে উঠেছে। তবে বাণিজ্যিকভাবে সর্বপ্রথম হাতীবান্ধা উপজেলায়ই চা বাগান গড়ে উঠে। তবে এখন এর গণ্ডি বিস্তৃতি লাভ করে জেলার ৫টি উপজেলায় হচ্ছে চা চাষ। এ শিল্পে সাফল্যও পাচ্ছেন চা চাষীরা। এজন্য প্রতিনিয়তই এ এলাকার লোকজনের কাছে চা চাষ জনপ্রিয় হচ্ছে। ভবিষ্যতে চা শিল্পই লালমনিরহাট জেলার অর্থনৈতিক অবস্থা চাঙ্গা করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

জানা গেছে, ২০০৭ সালে হাতীবান্ধায় বাণিজ্যিকভাবে ১ একর সমতল ভূমিতে ব্যক্তি উদ্যোগে চা চাষ শুরু করেন শাহানারা বেগম সোমা ও ফেরদৌস আলম দম্পতি। তাদের দেখে এলাকায় অনেকে চা চাষে আগ্রহী হয়। কিন্তু পর্যাপ্ত ধারণা ও প্রশিক্ষণ না থাকায় বিষয়টি তখন তেমনভাবে সাড়া পায়নি। তবে ২০১৫ সাল থেকে চা বোর্ডের পরামর্শ ও সার্বিক সহযোগিতায় ক্রমান্বয়ে চা বাগান বাড়তে থাকে। এরি পরিপ্রেক্ষিতে বর্তমানে জেলায় ৮২ জন কৃষক চা চাষ করছেন। গড়ে প্রতিমাসে চা চাষীরা প্রতি একর জমি থেকে ২ হাজার কেজি গ্রিন চা পাতা সংগ্রহ করতে পারছেন।

হাতীবান্ধা উপজেলার সিংগীমারী গ্রামের চা চাষী আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, ব্যক্তিগত উদ্যোগে ৩ বছর আগে ১ একর জমিতে চায়ের বাগান শুরু করি। কিন্তু প্রথম দিকে চা চাষ সম্পর্কে ধারণা না থাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়ি। এমন অবস্থায় এক বছর ধরে স্থানীয় চা বোর্ডের কর্মকর্তাদের পরামর্শ নিয়ে চা চাষে সাফল্য আসে। এখন আমার লাভ হচ্ছে।

চা চাষী ধনঞ্জয় কুমার বর্মণ বলেন, চা বোর্ডের পরামর্শ ও সহযোগিতায় সমতল ভূমিতে এখন আমরা চা উৎপন্ন করতে পেরে খুশি ও গর্বিত। বৈদ্যুতিক সমস্যা ও মালিকের মূলধন না থাকায় হাতীবান্ধা উপজেলার বিছনদই গ্রামে ২০১৪ সালে স্থাপিত ফ্যাক্টরিটি বন্ধ রয়েছে। এতে আমাদের বড় সমস্যা হচ্ছে যে, আমাদের উৎপাদিত চা পাতা পঞ্চগড়ে নিয়ে বিক্রি করতে হয়। এতে আমাদের পরিবহন খরচ বেড়ে যায়। স্থানীয়ভাবে গড়ে উঠা চা ফ্যাক্টরি আবারও চালু করা প্রয়োজন। তাহলে আমাদের পরিবহন খরচ কমে লাভ আরও বেশি হবে।

বাংলাদেশ চা বোর্ডের প্রকল্প পরিচালক (হাতীবান্ধা কার্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) আরিফ খান বলেন, লালমনিরহাটের পাঁচ উপজেলায় সমতল ভূমিতে আশাতীত চা উৎপন্ন হচ্ছে, যা চা বোর্ডকে বিস্মিত করেছে। এ অঞ্চলের মাটি চা চাষের জন্য খুবই উপযোগি। চা চাষের প্রসারে কৃষকদের শ্যালো মেশিনসহ চা বাগানে ব্যবহৃত বিভিন্ন কৃষি যন্ত্রপাতি বিনামূল্যে সরবরাহ করে সহায়তা দিচ্ছি। এছাড়াও কৃষকদের বিনামূল্যে কীটনাশক ও ছায়া গাছের চারা বিতরণ করা হয়। ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল ব্যানারে চা বাগানের পরিচর্যা ও কর্তন বিষয়ে কৃষকদের সবসময় পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা দেয়া হচ্ছে। এ স্কুলের মাধ্যমে চা চাষে ধারণা নিতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হয়। ফলে চায়ের ফলনও বৃদ্ধি পাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, হাতীবান্ধার বিছনদই গ্রামে একমাত্র চা প্রসেসিং ফ্যাক্টরিটি বৈদ্যুতিক সমস্যার কারণে বন্ধ থাকায় কৃষকদের উৎপাদিত চা পাতা বিক্রি করতে হচ্ছে পঞ্চগড়ে গিয়ে। চাষীদের উন্নয়নে চা বোর্ড থেকে কৃষকদের পরিবহন সুবিধা নিশ্চিত করতে হয়েছে।

আগামী কয়েক বছরের মধ্যে লালমনিরহাট চা চাষে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে এমন আশা ব্যক্ত করে তিনি বলেন, একসময় চা চাষই এ জেলার অর্থনৈতিক অবস্থা চাঙ্গা করবে। ৭০০ পরিবারের স্থায়ী কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। ভবিষ্যতে চা চাষ জেলায় টেকসই উন্নয়নের অংশ হবে। আমরা এ লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছি।

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • আবার চালু হচ্ছে স্পট রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে টিকাদান

  • নিরাপদ নগর সূচকে ঢাকা এগোলো আরো দুই ধাপ

  • ৫৯ আইপি টিভি বন্ধ করলো বিটিআরসি 

  • স্কুল-কলেজে বাড়ছে সাপ্তাহিক ছুটি

  • ৯ পৌরসভাসহ ১৬০ ইউপিতে ভোটগ্রহণ আজ

  • ঘরে বসেই মিলবে রাজউকের সেবা 

  • ১ অক্টোবর থেকে বিএসএমএমইউর বৈকালিক সেবা চালু

  • দুদকের ২ ডজনের বেশি কর্মকর্তার তথ্য সংগ্রহ শুরু

  • ৩০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি

  • বাংলাদেশের সুগন্ধি চাল বিশ্বময় সুবাস ছড়াচ্ছে

  • বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হচ্ছেন ডা. প্রাণ গোপাল

  • ক্যানসার চিকিৎসায় বাংলাদেশের আরও এক ধাপ উন্নতি

  • ব্রহ্মপুত্র ঘিরে পরিবর্তনের ঢেউ

  • দুর্নীতিতে জিরো টলারেন্স চান প্রধানমন্ত্রী

  • ৫ অক্টোবরই খুলছে ঢাবির হল
    প্রবেশে লাগবে বৈধ পরিচয়পত্র-সনদ

  • ডায়াবেটিস নিয়ে ৭ ভুল ধারণা

  • জেল পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনীও আটক

  • সাপ্তাহিক লেনদেনের ২৩ শতাংশ ১০ কোম্পানির শেয়ারে

  • যে সবজির এক গ্লাস জুসেই মুক্তি মিলবে হার্টের সমস্যার

  • মরুর বুকে শুরু স্থগিত আইপিএলের বাকি অংশ

  • ইসলামী অর্থনীতির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

  • মালদ্বীপে বসে মিটিং করছেন ঢাকার নায়িকা

  • মোটরসাইকেলের আদলে কাঠের সাইকেল বানিয়ে তাক লাগালেন হবিগঞ্জের লক্ষণ

  • লাল শাপলায় রঙিন রাবানের বিল

  • ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসে ই-পাসপোর্ট সার্ভিস উদ্বোধন

  • ভ্রমণ পিপাসুদের টানছে রৌমারি বিল

  • ৫ অক্টোবরই খুলছে ঢাবির হল

  • গিনেস বুকে আবারো নাম লেখালেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পার্থ

  • চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি আলু উৎপাদন হয়েছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

  • সংবিধানের আলোকে আগামী দিনে নির্বাচন হবে: কৃষিমন্ত্রী

  • ডিসেম্বরের মধ্যে আসবে ২০ কোটি ডোজ টিকা

  • হচ্ছে উড়াল সড়ক, যোগাযোগের নতুন দিগন্তে হাওর

  • আধুনিকায়ন হচ্ছে দেশের ৫২ রেলস্টেশন

  • পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ

  • ‘২০২৪ সালের মধ্যে দেশে হুন্দাইয়ের গাড়ি তৈরি হবে’

  • বিআরটি’র সার্বিক অগ্রগতি ৬৩.২৭ শতাংশ

  • সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদনের কেন্দ্রস্থল হতে যাচ্ছে উত্তরাঞ্চল

  • ২৪ কোটি টিকা লাইন-আপে রয়েছে: ড. মোমেন

  • চাঁপাইনবাবগঞ্জে নতুন জাতের আম ‘ইলামতি’

  • জন্মসনদ দিয়েও টিকার নিবন্ধন করা যাবে: শিক্ষামন্ত্রী

  • রেলের চাকা ঘুরবে সারা দেশে

  • রূপপুরে চলতি মাসেই নিউক্লিয়ার চুল্লি স্থাপন

  • ‘১৬ কোটি মানুষের বাসস্থান-খাদ্য নিশ্চিত করেছে সরকার’

  • স্কুলের বেতন নিয়ে অভিভাবকদের চাপ নয়: শিক্ষামন্ত্রী

  • মুন্সিগঞ্জের বাঁশ-বেতের পণ্য যাচ্ছে বিদেশে

  • নবম-দশম শ্রেণিতে থাকছে না কোনো বিভাগ: শিক্ষামন্ত্রী

  • এনআইডি না থাকলেও যেভাবে পাবেন করোনার টিকা

  • মুগ্ধতা ছড়াচ্ছে কলাবাগান ঝরনা

  • আড়াই ফুটের গলি এখন ৬০ ফুট প্রশস্ত সড়ক

  • ৫ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • রপ্তানির নতুন দিগন্ত ইউরেশিয়া

  • দেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বেড়েছে ১৫ শতাংশ

  • জ্বালানি তেল খালাসে নতুন যুগে বাংলাদেশ

  • নিকলী হাওড়ে পর্যটক নৌযানে লাইফ জ্যাকেট বাধ্যতামূলক

  • দ্বীপ রাঙ্গাবালীতে আলোর ঝলকানি

  • টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক, শুভ জন্মদিন

  • পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা থাকছে না

  • মহেশখালীতে ৪শ’ কোটি টাকার বিদ্যুৎ হাব

  • ৩ হাজার কনস্টেবল নিয়োগ: আবেদন করবেন যেভাবে

  • মাসে কোটির বেশি টিকা পাওয়ার ব্যবস্থা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী