বৃহস্পতিবার   ২৪ অক্টোবর ২০১৯

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
১৮২

রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের আরেকটি নতুন ভিডিও পাওয়া গেছে

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের আরেকটি নতুন ভিডিও পাওয়া গেছে। ভিডিওটি ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

নতুন ভিডিওটি বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের সিসিটিভিতে ধারণ করা। এতে দেখা যায়, বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে আহত করার পর স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি একাই রক্তাক্ত অবস্থায় রিফাতকে রিকশায় হাসপাতালে নিয়ে যান।

হাসপাতালের সামনে স্থাপনকৃত সিসি ক্যামেরার ভিডিওতে দেখা যায়, গত ২৬ জুন সকাল ১০টা ২১ মিনিটে মিন্নি একাই একটি ব্যাটারিচালিত রিকশায় রক্তাক্ত ও অচেতন রিফাতকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে নিয়ে যান। এ সময় মিন্নির ডাকে দূরে দাঁড়িয়ে থাকা মামুন নামে এক যুবক রিফাত শরীফকে বহন করা রিকশার দিকে দৌড়ে আসেন। রিফাতের অবস্থা দেখে হাসপাতালের ভেতরে গিয়ে একটি স্ট্রেচার নিয়ে রিকশার পাশে আসেন মামুন।

এ সময় সেখানে উপস্থিত অনেকেই এগিয়ে আসেন। এরপর রিকশা থেকে নামিয়ে অচেতন রিফাত শরীফকে স্ট্রেচারে করে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হয়। হাসপাতালের সামনে উপস্থিত একজনের ফোন নিয়ে কল দিয়ে কারও সঙ্গে কথা বলেন মিন্নি। তখনো মিন্নির জামায় রক্ত লেগেছিল। এরপর হাসপাতালের ভেতরে যান তিনি। এর কিছু সময় পর মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন ও চাচা আবু সালেহ হাসপাতালে আসেন।

এরপর সকাল ১০টা ৩৮ মিনিটে হাসপাতালের সামনে একটি অ্যাম্বুলেন্স আসে। সেখানে রিফাত শরীফের বন্ধু মঞ্জুরুল আলম ওরফে জন ও তার কয়েকজন বন্ধু হাসপাতালের সামনে আসেন। তখন কিছু সময় ফোনে কথা বলেন জন।

পরে অ্যাস্বুলেন্সটি হাসপাতালের সামনে এনে রিফাত শরীফকে বহন করে বরিশাল নিয়ে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত করা হয়। ১০টা ৪৪ মিনিটে অক্সিজেন ও দুটি স্যালাইন লাগানো অবস্থায় রিফাত শরীফকে স্ট্রেচারে করে ওই অ্যাম্বুলেন্সে তোলা হয়। রিফাতকে বহন করা অ্যাম্বুলেন্সটি ১০টা ৪৯ মিনিটে বরগুনা জেনারেল হাসপাতাল প্রাঙ্গণ ত্যাগ করে বরিশালের শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের সামনে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের একটি ও বরগুনা জেলা পুলিশের একটি সিসি ক্যামেরা রয়েছে। তবে নতুন ভিডিওটি কোন ক্যামেরার ধারণ করা, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

গুরুতর আহত রিফাতকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসার পর চিকিৎসা দেয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন বরগুনার সিভিল সার্জন অফিসের সিনিয়র টেকনিশিয়ান সুভাষ চন্দ্র।

সুভাষ চন্দ্র বলেন, রিফাত শরীফকে যখন হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয় তখন আমি সেখানে উপস্থিত ছিলাম। ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রিফাতের অবস্থা খুব খারাপ ছিল সেদিন। বিশেষ করে তার বাম পাশের ফুসফুস ধারালো অস্ত্রের আঘাতে দ্বিখণ্ডিত হয়ে যায়। এ কারণে সব ব্যবস্থা করেও তার জীবন সংকটাপন্ন হওয়ায় চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে রক্ত দেয়া হয়নি। তবে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রিফাতকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশালের শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসক।

২৬ জুন সকালে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে রিফাতকে কোপানোর ঘটনায় ধারণ করা প্রথম ভিডিওটিতে দেখা যায়, রিফাতকে সন্ত্রাসীরা যখন কোপাচ্ছিল তখন স্বামীকে বাঁচাতে প্রাণপণ চেষ্টা করেছিলেন স্ত্রী মিন্নি। সন্ত্রাসীর সঙ্গে যুদ্ধ করেও স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না স্ত্রী মিন্নি।

একই ঘটনায় প্রকাশিত দ্বিতীয় ভিডিওটিতে দেখা যায়, ঘটনার দিন যখন রিফাতকে কলেজ গেট থেকে ধরে পূর্ব দিকে নিয়ে যাচ্ছিল সন্ত্রাসীরা তখন সন্ত্রাসীদের পেছনে ছিলেন মিন্নি।

এই ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার পর সন্দেহের জেরে গত ১৩ জুলাই সংবাদ সম্মেলন করে রিফাত হত্যায় মিন্নি জড়িত বলে অভিযোগ তোলেন রিফাতের বাবা। একই সঙ্গে দ্বিতীয় ভিডিওর উদ্ধৃতি দেন মিন্নির শ্বশুর আ. হালিম দুলাল শরীফ। এরপরই ১৬ জুলাই জিজ্ঞাসাবাদের নামে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে মিন্নিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বহু নাটকীয়তার পর মিন্নিকে ৭ নম্বর আসামি করে রিফাত হত্যা মামলার চার্জশিট দেয় পুলিশ। ৩ সেপ্টেম্বর উচ্চ আদালত থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে বর্তমানে বাবার বাড়িতে আছেন তিনি। রিফাত হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত হওয়ার পর কারামুক্ত হয়ে বরগুনার মাইঠা এলাকার বাবার বাসায় অবস্থান করলেও আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকায় এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি মিন্নি।

তবে এ বিষয়ে মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন কিশোর বলেন, হাসপাতালের সামনের ভিডিওটি আমিও পেয়েছি। স্বামী রিফাত শরীফকে বাঁচাতে মিন্নি যে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছে তা কলেজের সামনের ভিডিও এবং হাসপাতাল প্রাঙ্গণের ভিডিওতে সুস্পষ্টভাবে প্রমাণিত। আমি শুরু থেকেই বলে এসেছি, আমার মেয়ে এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত নয়। আমার মেয়েকে ষড়যন্ত্র করে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে। আমার মেয়ে নির্দোষ। আমার মেয়ে ষড়যন্ত্রের শিকার।

তিনি আরও বলেন, আমার মেয়ের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করেই কলেজের সামনের ভিডিওটি প্রকাশ করা হয়েছে। কিন্তু হাসপাতালের সামনের ভিডিওটি গোপন করার চেষ্টা করা হয়ছে। কিন্তু তা পারেনি তারা। এরকম আরও একটি ভিডিও আমার সন্ধানে আছে। আমি ওই ভিডিওটিও উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছি।

এ বিষয়ে মিন্নির আইনজীবী মাহবুবুল বারী বলেন, নতুন ভিডিওটি আমি দেখেছি। এতে সুস্পষ্টভাবে প্রমাণিত হয় স্বামীকে বাঁচাতে প্রাণপণ চেষ্টা করেছেন মিন্নি। তদন্ত কর্মকর্তার তদন্তে কী আছে সেটা আমি এখনো দেখিনি। কারণ, আদালতে দেয়া পুলিশের অভিযোগপত্রের কপি এখনো পাইনি আমরা। তদন্ত প্রতিবেদনে পুলিশ যদি এই ভিডিওর বিষয় উল্লেখ না করে, তবে তদন্ত প্রতিবেদনটি ত্রুটিপূর্ণ হবে।

https://www.facebook.com/451499495682222/videos/2705263979700132/

দেশের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • ‘বিশ্ব পোলিও দিবস’ আজ

  • জামালপুর থেকে অনলাইন ক্যাসিনোর ৫ সদস্য আটক

  • পাকিস্তান সফরে যশোরের মেয়ে নারী ক্রিকেট দলের মেঘলা

  • ম্যাজিস্ট্রেটের ওপর জেলেদের হামলা, পুলিশসহ ১২ জন আহত

  • ইতিহাসের অপেক্ষায় মৌসুমী

  • মিষ্টি দোকান থেকে বেরিয়ে এলো লক্ষ লক্ষ তেলাপোকা!

  • মৌসুমী জয়ী হলে পদত্যাগ করবেন সবাই

  • রণবীর-আলিয়ার বিয়ে ২২ জানুয়ারি

  • বাগাতিপাড়ায় পিকআপের তাণ্ডবে আহত ১০

  • নভেম্বরে শুরু হচ্ছে ঢাকা ফোকফেস্ট

  • সাভারে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি, আটক ২

  • ভয়ঙ্কর ধর্ষণের শিকার চলচ্চিত্র পরিচালক

  • মা হলেন নায়িকা রুমানা

  • এবার ফোকফেস্ট মাতাবেন ২ শতাধিক শিল্পী

  • ডিভোর্স লেটার পাননি বলে জানালেন অভিনেতা সিদ্দিক

  • বিসিসিআইর সিংহাসনে সৌরভ গাঙ্গুলি

  • জয়ে ফিরেছে ভারতের মোহনবাগান

  • দুর্দান্ত জয়ে ধারাবাহিক চট্টগ্রাম আবাহনী

  • প্রধানমন্ত্রীর উপপ্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকনের আজ জন্মদিন

  • জাতিসংঘ দিবস আজ

  • অবশেষে কার্যকর হচ্ছে সড়ক পরিবহন আইন

  • আপত্তিকর অবস্থায় আটক সেই পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

  • আপাতত আমরা খুশি, বললেন সাকিব

  • নুসরাত হত্যার রায় আজ

  • অতিরিক্ত সচিব হলেন ১৫৬ কর্মকর্তা

  • প্রথম ‘মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ’ হলেন শিলা

  • সাকিবদের সব দাবি মেনে নিয়েছে বিসিবি

  • কক্সবাজারের ডিসির বিরুদ্ধে দুপুরে মামলা, বিকালে খারিজ

  • দ. আফ্রিকায় ডাকাতের দেয়া আগুনে শিবচরের যুবকের মৃত্যু

  • জাতিসংঘ দফতরের সামনে গায়ে আগুন

  • আজ ‘কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’ ও ১৩টি সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

  • মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় দেশসেরা রংপুরের রাগীব নূর

  • অনলাইনে সরকারি সেবা দিতে ‘একপে’, ‘একসেবা’ ও ‘একশপ’-এর যাত্রা শুরু

  • ২০১৯ সালে বিশ্বে তৃতীয় সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি বাংলাদেশে: আইএমএফ

  • বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৫৭ পরিবার পেল অর্থ সহায়তা ও বীজ

  • এক মিনিটেই ‘নগদ’ হিসাব

  • ২৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন প্রকল্প গ্রহণ 

  • পর্যটন শিল্প বিকাশে অবদান রাখবে পটিয়া বাইপাস সড়ক

  • ভুলতা উড়ালসড়কের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • প্রকাশ পেল ‌‌‘আহাদ ফাহিম’ এর গান ‘আমি মিথ্যে বলিনি’ এর ভিডিও

  • দ্রুত এগুচ্ছে ৬ লেনের মাতামুহুরী সেতুর নির্মাণকাজ

  • দেশকে শীর্ষ পঞ্চাশে নেওয়ার লক্ষ্য জয়ের

  • ‘সাড়ে ২২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে’

  • ‘সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থায় বাংলাদেশের অর্থনীতি’

  • আগামী প্রজন্মকে পরিচ্ছন্ন হয়ে ওঠার আহ্বান স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

  • নতুন ঘর পাবেন ১৫ হাজার মুক্তিযোদ্ধাঃ  মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী

  • নদীর ভাঙন রোধে কাজ করছে সরকার: পানি সম্পদ উপমন্ত্রী

  • ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সরকারের যত অর্জন

  • ‘চরের মানুষ পাকা রাস্তা,পড়ালেখার জন্য স্কুল-মাদ্রাসা পেয়েছে’

  • ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন স্বপ্ন নয় বাস্তবঃ জয়

  • মুসলিমবান্ধব পর্যটন বিকাশে বাংলাদেশ আদর্শ: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

  • যানজট নিরসনে ঢাকায় আরও ২টি মেট্রোরেলের প্রকল্প অনুমোদন

  • রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ১৬৫ ভাসমান স্থাপনা উচ্ছেদ

  • যুবলীগ চেয়ারম্যানকে অব্যাহতি, চয়ন আহ্বায়ক ও হারুন সদস্য সচিব

  • ‘‌আমাকে কবর থেকে বের করো, এখানে ভীষণ অন্ধকার’‌

  • মুন্সিগঞ্জের ১৩ সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • ক্যাসিনো সংশ্নিষ্টতা পেলেই আইনি ব্যবস্থা: তথ্যমন্ত্রী

  • এক বাঘিনীর জন্য দুই বাঘের তুমুল লড়াই

  • বরিশালে ৪শ কেজি অবৈধ পলিথিনসহ আটক ২

  • এমপিওভুক্তি: অগ্রাধিকার পাবে প্রত্যন্ত অঞ্চল: শিক্ষামন্ত্রী