বৃহস্পতিবার   ০৯ এপ্রিল ২০২০

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
২৪২

রংপুরে গ্লাডিওলাস চাষে কৃষকের ভাগ্য পরিবর্তন

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

কাঙ্ক্ষিত স্বপ্ন পূরণে গ্লাডিওলাস ফুল চাষে ভাগ্য বদলেছে রংপুরের অনেক কৃষকের। উপযোগী আবহাওয়া ও ভালো দামে বিক্রি করতে পারায় ক্রমেই আগ্রহ বাড়ছে এ ফুল চাষে। গ্লাডিওলাস ফুল চাষ সম্প্রসারণে কাজ করছেন কৃষিবিজ্ঞানীরা।

রংপুর নগরীর বুড়িরহাট এলাকার যুবক আব্দুর রশিদ এক বিঘা জমিতে বারি গ্লাডিওলাস ৩, ৪ ও ৫ জাতের ফুল চাষ করেছেন। সাদা, লাল, বেগুনি, হলুদ- বাহারি রঙের এ ফুল ফাগুনের বাতাসে দোল খাচ্ছে। ধান, আলু, তামাক ক্ষেতের মাঝে ফুলের বাগান মন কেড়েছে এলাকাবাসীর। সৌন্দর্যের প্রতীক ফুল দেখতে নগরীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মানুষ ছুটে আসছেন প্রতিনিয়ত। স্বল্প জমিতে ফুল চাষ করে ভালো লাভ আসায় আব্দুর রশিদের সাদাকালো জীবন এখন রঙিন। তাকে দেখে স্থানীয় বেকার যুবকরা ফুল চাষে উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন। স্থানীয় বাজারে ফুলের চাহিদা থাকায় বাজারজাতের কোনো সমস্যা নেই। রশিদের ফুল যাচ্ছে রংপুরসহ নীলফামারীর সৈয়দপুর, জলঢাকা, ডালিয়া, লালমনিরহাটের তুষ ভাণ্ডারের বিভিন্ন ফুলের দোকানে।

আব্দুর রশিদ বলেন, 'আমার পূর্বপুরুষেরা ধান, পাট, সবজি চাষ করতেন। আমিও এসবই আবাদ করতাম। ধান-আলুর দাম না পেয়ে প্রতিবছর ক্ষতির সম্মুখীন হতে হতো। কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের কর্মকর্তাদের পরামর্শে ২০১৯ সাল থেকে ফুল চাষের পরিকল্পনা হাতে নিলাম। তাদের দেখানো পদ্ধতি অনুযায়ী ফুলগাছ রোপণ, পরিচর্যা, সার, কীটনাশক দেওয়া শুরু করি। রোপণের ৭০ থেকে ৭৫ দিনের মধ্যেই ফুল আসে এবং ১০০ দিন পর্যন্ত ফুল বিক্রি করা যায়। আমার ২৪ শতক জমিতে গ্লাডিওলাস আবাদ করতে খরচ হয়েছে ৬০ থেকে ৬৫ হাজার টাকা এবং ফুল বিক্রি হবে ১ লাখ ২০ হাজার টাকার মতো। ফুল চাষে লাভ দ্বিগুণ হওয়ায় আমার অর্থনৈতিক অবস্থার অনেক পরিবর্তন হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, গ্লাডিওলাসের পাশাপাশি  গাঁদা, রজনীগন্ধা, গোলাপ চাষ করছি। ফুল বাগান পরিচর্যায় ৫ জন নারী ও আমার পরিবারের সদস্যরা নিয়োজিত রয়েছে। ফুল চাষ আমার খুব ভালো লাগে। প্রতিদিন মানুষ বাগান দেখতে আসে, ছবি তোলে।'

ফুল চাষে আগ্রহী রাসেল আহমেদ (২৩) বলেন, 'রশিদ ভাইয়ের ফুলের বাগান দেখে আমরা ফুল চাষে উদ্বুদ্ধ হয়েছি। আগামীতে বীজ কিংবা গাছের চারা ও কৃষি বিভাগের পরামর্শ পেলে আমি ফুল চাষ করতে চাই।'

স্থানীয় যুবক আনোয়ার হোসেন (২৮) বলেন, 'তামাক, আলু চাষ করার পর তা বিক্রি করতে অনেক ভোগান্তিতে পড়তে হয়। কিন্তু এ থেকে ফুল অনেক লাভজনক। এটি অনায়াসেই বিক্রি হয়। তাই আমরা চাকরির পেছনে না ছুটে ফুল চাষ করে স্বাবলম্বী হতে আগ্রহী।'

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বারি) উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের ফুল বিভাগ এবং রংপুর আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র ফুল চাষে কৃষককে আগ্রহী করে তুলছে। গ্লাডিওলাসসহ বিভিন্ন ফুলের চাষ সম্প্রসারণে জেলার বিভিন্ন স্থানে প্রদর্শনী প্লট স্থাপন করেছে বারি।

রংপুর আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আশিষ কুমার সাহা জানান ফুল চাষের সম্ভাবনার কথা। তিনি বলেন, 'রংপুর ও দিনাজপুর অঞ্চলের জমি বেশিরভাগ উঁচু ও মাঝারি উঁচু। এ অঞ্চলে প্রাকৃতিক দুর্যোগও কম হয়। তাই গ্লাডিওলাসসহ অন্যান্য ফুল চাষের সম্ভাবনা বেশ উজ্জ্বল। বারি উদ্ভাবিত গ্লাডিওলাস ফুলের জাতের মান ও বাজার চাহিদা অন্যান্য গ্লাডিওলাসের চেয়ে ভালো। তাই চাষিরা এ ফুল চাষে উদ্বুদ্ধ হলে স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে ফুল গোটা দেশে রপ্তানি করা সম্ভব। গ্লাডিওলাস, গাঁদা ফুল রোপণের তিন মাসের মধ্যে জাতভেদে ফুল আসে এবং প্রায় ৪ থেকে ৫ মাস পর্যন্ত ফুল থাকে।'

কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব কমলারঞ্জন দাস বলেন, 'ফুল চাষ লাভজনক হওয়ায় যুবকরা এর চাষে ঝুঁকছেন। গ্লাডিওলাস ফুল চাষ করে দ্বিগুণ লাভ করছে কৃষক। বিভিন্ন জাতীয় ও গুরুত্বপূর্ণ দিবসে অনেক ফুলের প্রয়োজন হয়। ফুলকেন্দ্রিক দিবসগুলোতে সাধারণ মানুষের কাছে ফুলকে সহজলভ্য করতে এবং ব্যবসায়ীদের আয় বৃদ্ধিতে বারি নানা উদ্যোগ নিয়েছে। আশা করি ফুল চাষ করে এ অঞ্চলের কৃষকরা স্বাবলম্বী হবেন এবং নিয়মিত অন্যান্য ফসলের সঙ্গে ফুল চাষ করবেন।'

আরও পড়ুন
বাংলার উন্নয়ন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • ফরিদপুরে যুবলীগের ভ্রাম্যমাণ বাজারে কম দামে পণ্য বিক্রি

  • সার্কভুক্ত দেশের বাণিজ্য ক্ষতি পোষাতে ৫ সুপারিশ

  • বঙ্গবন্ধু হত্যার দায় স্বীকার করে প্রাণভিক্ষা চেয়েছেন মাজেদ

  • রাজধানীর মোতাহার বস্তি লকডাউন

  • একাকী ইবাদতের মাধ্যমে শবে বরাত পালন করুন: আল্লামা শফী

  • সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন জাবেদ পাটোয়ারী?

  • লকডাউন তুলে নেয়ায় মুখরিত উহান

  • অগ্রণী ব্যাংকের কর্মকর্তা করোনায় আক্রান্ত

  • হজ নিবন্ধনের সময় বাড়লো ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত

  • সৌদি রাজ পরিবারের ১৫০ সদস্য করোনা আক্রান্ত!

  • প্রথমবারের মতো নামাজ সম্প্রচার করবে বিবিসি রেডিও

  • ‘শবেবরাত সকলের জন্য ক্ষমা, বরকত, সমৃদ্ধি ও কল্যাণ বয়ে আনুক’

  • গোলাবারুদের চেয়ে ভালোবাসার শক্তি অনেক বেশি: মাশরাফি

  • বগুড়ায় শুরু হচ্ছে করোনা পরীক্ষা

  • বাংলাদেশকে চিকিৎসক-ভেন্টিলেটর সহায়তার আশ্বাস চীনের

  • শ্রীমঙ্গলে করোনাভাইরাস: র‌্যাবের ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

  • এবার রাজধানীতে মসজিদের ইমাম করোনায় আক্রান্ত

  • ঢাবি’র আপ্যায়ন ব্যয়ের টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দান

  • পবিত্র শবে বরাতে কবরস্থান ও মাজারে জনসমাগম না করার আহ্বান

  • নমুনা সংগ্রহ ও রোগী পরিবহনে ৩টি বাহন প্রস্তুত রাখার নির্দেশ

  • জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হওয়ায় ২৯ জনের জরিমানা

  • এপিবিএন সদস্য করোনা পজিটিভ, ৪৩৪ সদস্য কোয়ারেন্টাইনে

  • ‘মাজেদ বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছিল’

  • জাতিসংঘের বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচিতে যোগ দিন

  • যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় একদিনেই ২ হাজার মৃত্যু

  • করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮৩ হাজার ছাড়ালো

  • আইজিপি হলেন বেনজীর আহমেদ, র‌্যাব মহাপরিচালক মামুন

  • ‘যতদিন প্রয়োজন ততদিন ত্রাণ সামগ্রী দেয়া হবে’

  • ‘একটি মানুষও না খেয়ে থাকবে না’

  • ‘সরকারের কাছে পর্যাপ্ত খাদ্য মজুদ রয়েছে’

  • চীন-জাপানে ‘সাফল্য’ পাওয়া করোনার ওষুধ তৈরি করল বাংলাদেশ

  • যাত্রাবাড়ীর সেই নারীর বাসায় খাবার পৌঁছে দিলেন ওসি

  • ‘গোপনীয়তা বজায় রেখে অসহায় মধ্যবিত্তদের খাদ্যসামগ্রী দিবে সরকার’

  • মশার গান আর শুনতে চাই না: মেয়রকে প্রধানমন্ত্রী

  • ৩০ লাখ পরিবারকে ৬৮০ কোটি টাকা নগদ দেবে সরকার: তথ্যমন্ত্রী

  • বাংলাদেশে করোনার আচরণ নিয়ে গবেষকদের বিভিন্ন মত 

  • ‘খাদ্যসামগ্রী নিতে না আসা নাগরিকদের জন্য হটলাইন চালু’

  • সকল অফিসে এক মাসের ছুটি সংক্রান্ত প্রচারটি গুজব

  • মধ্যবিত্ত পরিবারগুলোকে গোপনে ত্রাণ দিবে সিএমপি

  • মানবতার পাশে দাঁড়িয়ে যেসব ছবি ভাইরাল হয়েছে

  • বিনা পারিশ্রমিকে ৫০ হাজার পিপিই তৈরি করেছেন পোশাককর্মীরা

  • বিশ্বে প্রতি মিনিটে করোনাতে আক্রান্ত ৫০, মৃত্যু ৪

  • সকল যানবাহন পর্যায়ক্রমে চালু হবে

  • ‘ঢাকা মেডিকেলে বিনা পয়সায় করোনা পরীক্ষা করা যাবে’

  • ফরিদগঞ্জে রাতের আঁধারে ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছে তরুণরা

  • করোনা সংক্রান্ত ভুল তথ্য ঠেকাতে ভাইবার ও ডব্লিউএইচও কাজ করছে

  • করোনা সংক্রমণে নতুন পাঁচ উপসর্গ

  • পোশাক শিল্পের পাশে দাঁড়াচ্ছে বিশ্বের নামিদামি ক্রেতা ব্র্যান্ড

  • ৫ এপ্রিল থেকে বস্তিবাসী পাবেন ১০ টাকা কেজিতে চাল

  • প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে দুই দিনের বেতন দেয়ার ঘোষণা ঢাবি শিক্ষকদের

  • এবার সরাসরি ঢাকা-কক্সবাজার রেললাইন করবে সরকার

  • কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে সেনাবাহিনী

  • শ্রম মন্ত্রণালয়ের সফলতা, ইউরোপীয় ইউনিয়নে জিএসপি বহাল

  • ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রি শুরু রোববার

  • কর্মহীনদের ঘরে খাবার পৌঁছে দিবে সরকার

  • পোশাক খাতে সুখবর আসছে

  • এক নজরে প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা প্যাকেজ

  • ৭২ হাজার ৭৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

  • রোববার থেকে চালু হচ্ছে পোশাক কারখানা

  • দেশের ২ লাখ মুক্তিযোদ্ধা পাচ্ছেন নববর্ষ ভাতা