শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ব্রেকিং:
৫ মাস পর খুললো বিনোদনকেন্দ্র, দর্শনার্থীর উপস্থিতি কম ইউপি তথ্যসেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে এনআইডি সেবা দেওয়ার উদ্যোগ বরিশালে পারিবারিক কৃষিতে সফলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
৩৯৮

ভারতের স্বীকৃতি ত্বরান্বিত করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামকে

নিউজ ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৭ ডিসেম্বর ২০১৯  

দীর্ঘ ২৪ বছরের শোষণ ও বঞ্চনা থেকে মুক্তি পেতে ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে পাকিস্তান সরকারের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে এদেশের মুক্তিকামী বাঙালিরা। দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের ডিসেম্বর মাসে স্বাধীনতার চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছাতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। সেই সংগ্রামের প্রথম সফলতা আসে ৬ ডিসেম্বর। এই দিন প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত বাংলাদেশকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃতি দান করে। যার ফলে স্বাধীনতা অর্জনের আন্দোলনে নতুন গতি খুঁজে পায় মুক্তিকামী বাঙালিরা। 

তথ্যসূত্র বলছে, ১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় কঠোর প্রতিরোধ গড়ে তুলেন মুক্তিযোদ্ধারা। এই দিনে ভারতীয় প্রতিরক্ষা বাহিনী এবং বাংলাদেশের মুক্তি বাহিনী দেশের বৃহৎ অঞ্চলকে মুক্ত করতে সক্ষম হয়। তীব্র প্রতিরোধের মুখে যশোর ছেড়ে পালাতে বাধ্য হয় পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সদস্যরা। ৬ ডিসেম্বর দেশের প্রথম জেলা হিসেবে যশোরকে শত্রুমুক্ত ঘোষণা করা হয়। ওঠানো হয় স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা। কুড়িগ্রামও শত্রুমুক্ত হয় এদিন। 

বঙ্গোপসাগরে ভারতের নৌবাহিনী সৃষ্টি করে নৌ-অবরোধ। আজকের এ দিনে ফেনী মুক্ত হয়। দশম ইস্টবেঙ্গল রেজিমেন্ট ও সাব-সেক্টরের মুক্তিযোদ্ধারা কর্নেল জাফর ইমামের নেতৃত্বে ফেনী মুক্ত করেন। মেজর জলিলের নেতৃত্বাধীন মুক্তিযোদ্ধারা সাতক্ষীরা মুক্ত করে খুলনার দিকে অগ্রসর হতে থাকে।

ঝিনাইগাতীর আহম্মদ নগর হানাদার বাহিনীর ঘাঁটি আক্রমণ করেন কোম্পানি কমান্ডার মো. রহমতুল্লাহ। পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও মুক্ত করে সেদিন বীরগঞ্জ ও খানসামার পাক অবস্থানের দিকে এগিয়ে চলছিল মুক্তিবাহিনী ও মিত্রবাহিনী। এদিকে লাকসাম, আখাউড়া, চৌদ্দগ্রাম, হিলিতে মুক্তিবাহিনী দৃঢ় অবস্থান নেয়। রাতে আখাউড়া ও সিলেটের শমসেরনগর যৌথবাহিনীর অধিকারে আসে। আর যৌথবাহিনী পায়ে হেঁটে ঝিনাইদহ পৌঁছে এবং শহরটি মুক্ত করে।

প্রতি ঘণ্টায় মুক্তিবাহিনী ও মিত্রবাহিনীর এই অপ্রতিরোধ্য অগ্রগতির সময় ভারত স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয় বাংলাদেশকে। সেদিন লোকসভায় দাঁড়িয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী বলেন, ‘সতর্কতার সঙ্গে বিবেচনা করার পর স্থায়ী মন্ত্রিসভার বৈঠকে ভারত বাংলাদেশকে স্বীকৃতিদানের আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শুধুমাত্র ভাবাবেগে পরিচালিত হয়ে নয়, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ পরিস্থিতি সম্পূর্ণরূপে বিচার করেই স্বীকৃতি দিচ্ছি।’

এদিকে স্বীকৃতি পেয়ে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে জাতির উদ্দেশে এক বেতার ভাষণে অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম মিত্র-রাষ্ট্র ভারতের জওয়ানদের অভিনন্দন জানান। অন্যদিকে বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়ায় ভারতের সঙ্গে তাৎক্ষণিক কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে পাকিস্তান। আর ভারতে মার্কিন অর্থনৈতিক সাহায্য বন্ধ হয়ে যায়।

১৯৭১ সালের ৬ ডিসেম্বর মিত্রবাহিনী চেষ্টা করেছিল যাতে পাকবাহিনী কোথাও জড়ো হতে না পারে। প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারত আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দান করায় বাংলাদেশের জনগণ বিপুলভাবে মিত্রবাহিনীর সাহায্যে এগিয়ে আসেন। 

তৎকালীন দৈনিক পাকিস্তান ও আজাদ-এর খবর অনুযায়ী, এদিন ইন্দিরা গান্ধী বাংলাদেশ সরকারকে বৈধ সরকার বলেও ঘোষণা দেন। মুজিবনগর সরকারের অস্থায়ী প্রেসিডেন্ট সৈয়দ নজরুল ইসলামকে দেওয়া এক চিঠিতে ইন্দিরা গান্ধী তার এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। তার আগেই ভুটানের রাজা জিগমে ওয়ানচুক বাংলাদেশের বাস্তব অস্তিত্বকে স্বীকার করে নিয়ে বাংলাদেশ সরকারকে বৈধ বলে স্বীকার করে নেন। বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেওয়ায় পাকিস্তান এদিন ভারতের সঙ্গে তার কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে। যুদ্ধের প্রেক্ষিতে পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন পূর্ব পাকিস্তানে অনুষ্ঠেয় উপ-নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করে।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে পাঠাবে না সৌদি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন আজ 

  • ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারির কলঙ্কিত দিন

  • ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ বাঙালীর কলঙ্কজনক স্মৃতি

  • পঁচাত্তরের খুনিদের দায়মুক্তি অধ্যাদেশ এবং আমাদের দায়

  • মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সুখবর

  • পদ্মা সেতু খুলবে পর্যটনের দুয়ার 

  • ‘ডিজিটাল সহযোগিতায় শক্তিশালী বৈশ্বিক অংশীদারিত্ব প্রয়োজন’

  • সার্কের সহযোগিতায় করোনা পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার আহ্বান

  • শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আন্তর্জাতিক দাবা আসর শুরু

  • জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় প্রথম ভাষণ দেওয়ার ৪৬তম বার্ষিকী 

  • খুলনার নোনা জমিতে কৃষি খামার, মজবুত হচ্ছে গ্রামীণ অর্থনীতি

  • সরকারের সর্বাত্মক প্রচেষ্টায় সৌদি প্রবাসীদের সঙ্কট কাটল 

  • জলবায়ু পরিবর্তন: জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ৫ দফা প্রস্তাব 

  • মসজিদ বিস্ফোরণে হতাহতদের ৫ লাখ টাকা করে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • ‘বাংলাদেশ-ভারত সহযোগিতা দেনাপাওনার ঊর্ধ্বে’ 

  • দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকায় উন্নয়ন দৃশ্যমান হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী 

  • রোহিঙ্গাদের কারণে নানামুখী সমস্যায় পড়েছে বাংলাদেশ

  • ইউরোপে বাড়ছে রপ্তানি সম্ভাবনা

  • ইস্পাত শিল্পে কর্মসংস্থান হলো তিন লাখ মানুষের

  • জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর প্রথম বাংলায় ভাষণ প্রদান স্মরণে ই-পোস্টার

  • সমুদ্রপথে ১১ দেশ থেকে আসছে পেঁয়াজ

  • রোহিঙ্গাদের প্রতি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত

  • সিটি কর্পোরেশনে নিবন্ধন ছাড়া হাসপাতাল চলবে না

  • ষষ্ঠ থেকে দশম পর্যন্ত যেভাবে মূল্যায়ন করা হবে শিক্ষার্থীদের

  • নেপালকে করোনার চিকিৎসা সামগ্রী দিল বাংলাদেশ

  • বিশ্বব্যাপী বৈষম্য দূর করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

  • উদ্বোধনের অপেক্ষায় দেশের সর্ববৃহৎ সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প

  • বিশ্ববন্ধু বঙ্গবন্ধু

  • শতভাগ উপজেলা বিদ্যুতায়নের পথে, বাকি একটি

  • নতুন সম্ভাবনা সুন্দরবনে, ২৫ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ

  • ‘দেশে তুলা উৎপাদন দিন দিন বাড়ছে’

  • দেশেই হবে আন্তর্জাতিক মানের হেলিপোর্ট টার্মিনাল নির্মাণ

  • শিশু শিক্ষার আধুনিক অ্যাপ তৈরি করলো চুয়েট শিক্ষার্থীরা

  • বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ হবে নারায়ণগঞ্জে

  • কেনার আগে মোবাইলের বৈধতা যাচাইয়ের পরামর্শ বিটিআরসির

  • পিরোজপুরে তৈরি হচ্ছে বিশ্বমানের ক্রিকেট ব্যাট

  • সাড়ে ৬ লাখ ফ্রিল্যান্সার পাবে পরিচয় পত্র

  • আধা ঘণ্টায় গাজীপুর, বদলে যাবে উত্তর দিগন্ত

  • এলইডির আলোয় ঝলমলে ঢাকা

  • অনলাইনেই করা যাবে মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন

  • গোয়াইনঘাটে ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হচ্ছে ৮টি আশ্রয় কেন্দ্র

  • দেশের সব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হবে ডিজিটাল একাডেমি

  • ইলিশ উৎপাদন আরো বাড়াতে একনেকে উঠছে ২৪৬ কোটির প্রকল্প

  • ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি

  • পেঁয়াজ আমদানিতে শুল্ক প্রত্যাহার, প্রজ্ঞাপন জারি

  • পায়রা নদীর ওপর নির্মিত হবে ‘শেখ হাসিনা পায়রা ব্রিজ’

  • নতুন কারা মহাপরিদর্শক হলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান

  • ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচিতে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন ২২ লাখের বেশি মানুষ

  • ডিজিটাল সেবায় বদলে যাচ্ছে গ্রাম

  • প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পায়রা নদীর ওপর নির্মিত হবে সেতু

  • তিস্তায় পাল্টে যাবে জীবন

  • তিস্তা প্রকল্পে বদলে যাবে উত্তরাঞ্চলের ৫ জেলার মানুষের ভাগ্য  

  • বিলাসবহুল ক্রুজ শীপ এখন বাংলাদেশে, যাওয়া যাবে সেন্টমার্টিন

  • মোংলাকে আধুনিক বন্দরে রূপ দিতে বাস্তবায়ন হবে ১০ প্রকল্প

  • নাটোরে ২২ লাখ টাকার কৃষি প্রণোদনা পাচ্ছেন ৩,০০০ কৃষক

  • জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী

  • ‘পরিকল্পিত উপায়ে দেশব্যাপী রাস্তা নির্মাণে মাস্টারপ্ল্যান হবে’

  • করোনা মোকাবিলায় দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

  • ১০ জেলায় মাছের উৎপাদন বাড়বে ৬৩ হাজার টন