রোববার   ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
১৬০

বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে পাবনার শুঁটকি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

বিশাল গাজনার বিলের উঁচু অংশের পানি অনেকটাই শুকিয়ে গেছে। সেখানে চলছে চাষাবাদ। তবে নিচু খালগুলোতে এখনো পানি আছে। ধরা পড়ছে শোল, বোয়াল, পুঁটি, খলশে, চেলা, ট্যাংরা, টাকি, বাইমসহ নানা প্রজাতির মাছ। ব্যস্ত জেলেরা মাছ ধরার ফাঁকে ফাঁকে আরেকটি কর্মযজ্ঞের তথ্য দিলেন। সে অনুসারে যেতে হলো উপজেলা শহরের চাতালে। সেখানে বিলের মাছ শুকিয়ে শুঁটকি করা হচ্ছে। রপ্তানি করা হবে যুক্তরাষ্ট্র, মালয়েশিয়া ও দুবাইয়ের বাজারে।

জেলার চাটমোহর উপজেলার বদনপুর গ্রামের মৎস্যজীবী হেলাল উদ্দিন। নিজে বিল থেকে মাছ না ধরলেও পাইকারিভাবে পুঁটি মাছ কেনেন স্থানীয় জেলেদের কাছে থেকে। এরপর প্রতি মণ শুঁটকি তৈরি করতে তাঁর খরচ হয় প্রায় ৫ হাজার টাকা। পরে সেগুলো মানভেদে প্রক্রিয়াজাত করেন। একেক মানের শুঁটকি বিক্রি করেন প্রতি মণ ৬ থেকে ৮ হাজার টাকায়। হেলাল বলছিলেন, উৎপাদন খরচ বাদ দিয়েও প্রতি মণ শুঁটকি থেকে গড়ে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত লাভ করেন তিনি।

হেলাল উদ্দিনের মতো তাঁর গ্রামের অনেকেই এখন শুঁটকির ব্যবসা করেন। জেলা মৎস্য কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা গেল, পাবনার বিভিন্ন বিল ও নদ-নদী থেকে প্রতিবছর ৬৯ হাজার ৫৭৪ মেট্রিক টন দেশি মাছ উৎপাদন হয়। এর মধ্যে তাজা মাছের চাহিদা আছে ৬২ হাজার ৭৪০ মেট্রিক টন। বাকি ৬৮৩ মেট্রিক টন মাছ উদ্বৃত্ত থাকে। উদ্বৃত্ত এ মাছ থেকে তৈরি হয় প্রায় ২০০ মেট্রিক টন শুঁটকি। এর মধ্যে চলনবিল অঞ্চল থেকে পাওয়া যায় প্রায় ১৩০ থেকে ১৩৫ মেট্রিক টন। অন্যদিকে গাজনার বিলসহ অন্যান্য বিল থেকে পাওয়া যায় ৬৫ থেকে ৭০ মেট্রিক টন শুঁটকি, যার বাজারমূল্য প্রায় ৮৫ কোটি টাকা। 

গত শুক্রবার সুজানগর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে মৎস্যজীবীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেল, স্থানীয় লোকজন বিল থেকে মাছ ধরার পর তা বাজারে পাইকারি বিক্রি হয়। এরপর সে মাছ যায় উপজেলা সদরে। সেখানে বিশাল এলাকাজুড়ে তৈরি হয়েছে বেশ কয়েকটি শুঁটকির চাতাল। সুজানগর উপজেলা সদরের মসজিদপাড়া শুঁটকি চাতালের ব্যবসায়ীরা জানান, চাতালে আসার পর মাছগুলোকে শুঁটকিতে পরিণত করা হয়। এরপর সেগুলো ভাগ করা হয় ‘এ’, ‘বি’ ও ‘সি’ ক্যাটাগরিতে। ‘এ’ মানের শুঁটকি বিক্রি হয় ঢাকার বড় ব্যবসায়ীদের কাছে। পরে ওই ব্যবসায়ীরা আরেক দফায় প্রক্রিয়াজাত করে আমেরিকা, মালয়েশিয়া, সৌদি আরব, কাতার, বাহরাইন, দুবাইয়ে রপ্তানি করেন।

অন্যদিকে এ ও বি মানের কিছু শুঁটকি সরাসরি রপ্তানি করা হয় ভারতে। আকার ও মানভেদে শুঁটকির দামেও ভিন্নতা আছে। পুঁটি, খলশে, চেলাসহ ছোট মাছের প্রতি মণ শুঁটকি ৬ থেকে ১৮ হাজার টাকায় বিক্রি হয়। আর বাইম, বোয়ালসহ বড় মাছের প্রতি মণ শুঁটকি বিক্রি হয় ২৫ থেকে ৫০ হাজার টাকায়। 

মসজিদপাড়া শুঁটকি চাতালের ব্যবসায়ী শরিফ কাজী জানান, শুধু সুজানগর থেকে প্রতি সপ্তাহে প্রায় ১০ টন শুঁটকি দেশের বিভিন্ন বাজারে সরবরাহ করা হয়। এ ছাড়া চলনবিল অঞ্চল থেকে গড়ে প্রতি সপ্তাহে আরও ২০ থেকে ২৫ টন শুঁটকির উৎপাদন হয়। 

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবদুর রউফ বলেন, বাজারে পাবনার শুঁটকির সুনাম আছে। তবে বৈদেশিক বাজারে শুঁটকি বিক্রির কোনো নীতিমালা নেই। এখনো ব্যবসায়ীরা বিচ্ছিন্নভাবে রপ্তানি করছেন। শুঁটকি সংরক্ষণের ব্যবস্থা ও নীতিমালা তৈরি করা গেলে এ খাত থেকেও বৈদেশিক মুদ্রা আয় সম্ভব।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • জাটকা সংরক্ষণে কাল থেকে ৬ জেলায় মাছ ধরা নিষিদ্ধ

  • উত্তরা-আগারগাঁও মেট্রোরেল দৃশ্যমান

  • সুনাম ছড়াচ্ছে আড়িয়াল বিলের করলা

  • সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী
    মুজিববর্ষে অনন্য মাইলফলকে দেশ

  • আধুনিক বিশ্বের মতো উন্নত বিদ্যুৎ ব্যবস্থায় যাচ্ছে দেশ

  • আগাম আনারসে কৃষকের হাসি

  • চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য বাংলাদেশের প্রস্তুতি সম্পন্ন

  • জিএসপি প্লাস সুবিধা আদায়ে প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে

  • ইচ্ছেকৃত ঋণখেলাপিদের গাড়ি ও বাড়ি ক্রয়ে নিষেধাজ্ঞা আসছে

  • ১৭ দিনে দেশে টিকা নিয়েছেন প্রায় ৩০ লাখ মানুষ

  • মুশতাকের মৃত্যু
    স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি

  • বদলে যাবে এসিআর, আসছে এপিএআর

  • ১৯ বছর পর আরিচা-কাজিরহাট রুটে পুনরায় ফেরি সার্ভিস চালু

  • চট্টগ্রামে উদ্বোধনের অপেক্ষায় শেখ হাসিনা পানি শোধনাগার

  • উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের অর্জন নতুন প্রজন্মের : প্রধানমন্ত্রী

  • ঝিনাইদহে ঘর পেলো ১শ’ ভূমিহীন পরিবার

  • ১৩ হাজার একর ভূমিতে অর্থনৈতিক অঞ্চল

  • ২০২১ সালেই দেশে আসবে হাইড্রোজেনচালিত কার

  • মানসম্মত তেল পাওয়ার লক্ষ্যে করা হচ্ছে সূর্যমুখী চাষ 

  • উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের চূড়ান্ত সুপারিশ পেল বাংলাদেশ

  • ঢাকা–জলপাইগুড়ি যাত্রীবাহী ট্রেন চালু ২৬ মার্চ

  • পিরোজপুরে পল্লী অবকাঠামো উন্নয়নে সরকারের ৬শ কোটি টাকার প্রকল্প

  • ৩০ হাজার বীর মুক্তিযোদ্ধার জন্য তৈরি হচ্ছে ‘বীর নিবাস’

  • দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে তুলসি পাতা

  • রকমারি সবজি দিয়ে ভেজিটেবল নাগেটস

  • বাংলাদেশ-ভারত স্বরাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক আজ 

  • স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণ : প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন আজ 

  • ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মানুষের নিরাপত্তার জন্য

  • উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ: শনিবার সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

  • সুখবরের অপেক্ষায় বাংলাদেশ; বের হতে পারে এলডিসি থেকে

  • ৪০ হাজার যুবককে ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ দেবে সরকার

  • নারী পুলিশকে আরও স্মার্ট করেছে স্কুটি

  • মসলিনের সোনালি যুগে ফিরছে বাংলাদেশ

  • বাংলাদেশ থেকে ১২ হাজার কর্মী নেবে সিঙ্গাপুর, রোমানিয়া

  • বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে অনেক এগিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর

  • প্রতিযোগিতায় ভালো অবস্থানে পোশাক খাত

  • রাত-দিন চলছে কাজ, মেট্রোরেলের লাইন বসেছে ৭ কিলোমিটার

  • বিমান বাহিনীর একটা গৌরবময় ইতিহাস রয়েছে: প্রধানমন্ত্রী 

  • তাঁতশিল্পকে আরো উন্নত এবং সমৃদ্ধশালী করতে কাজ করছে সরকার

  • ‘তথ্যের স্বচ্ছতা-নিরাপত্তা নিশ্চিতে ব্লকচেইন ব্যবহার করছে সরকার’

  • হাসপাতাল পেয়ে খুশি ৪০ গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ

  • ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে শ্রদ্ধা 

  • নিবন্ধনের আওতায় আসছে অটোরিকশা-ইজিবাইক

  • ৫৭ লাখ কৃষক পেলেন ৩৭২ কোটি টাকার প্রণোদনা

  • আলোকিত হবে দ্বীপকন্যা ‘চর কুকরি-মুকরি’

  • রিজার্ভ ৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়াল

  • বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক সুগভীর চান বাইডেন

  • ১৩ দিনে করোনার টিকা নিলেন ২৩ লাখ মানুষ

  • দিনরাত কাজ করে পদ্মা সেতু চালুর চিন্তা

  • বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা শান্তিপ্রিয় : প্রধানমন্ত্রী

  • উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ: শনিবার সংবাদ সম্মেলনে আসছেন প্রধানমন্ত্রী

  • উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের চূড়ান্ত সুপারিশ পেল বাংলাদেশ

  • মেয়েদের শিক্ষা ও জীবনমান উন্নয়নের প্রশংসায় এডিবি

  • বঙ্গবন্ধুর সততা থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে

  • শখের ‘গ্লাডিওলাস’ ফুল চাষে সাফল্য

  • বাংলাদেশ-ভারত স্বরাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক আজ 

  • ২০২১ সালেই দেশে আসবে হাইড্রোজেনচালিত কার

  • ১৩ হাজার একর ভূমিতে অর্থনৈতিক অঞ্চল

  • উত্তরাঞ্চয়ে কাঁচা মরিচের বাম্পার ফলন, খুশি কৃষক

  • খুলনায় এই প্রথম বাণিজ্যিকভাবে ক্যাপসিকাম চাষ