রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৩৭৯৯

বিএনপি নেতা ফখরুলের ভিডিও বার্তা নিয়ে বিতর্ক তুমুলে

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২৩ ডিসেম্বর ২০১৮  

 বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের একটি ভিডিও বার্তা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, বিশেষ করে ফেসবুকে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়েছে।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট্রের লাইভ এবং বিএনপি সমর্থকদের কিছু ফেসবুক পেজে প্রচার করা ওই ভিডিওতে মির্জা ফখরুল মুক্তিযুদ্ধের সময় তার মতো তরুণদের ভূমিকার কথা উল্লেখ করে এখনকার তরুণদের ৩০ ডিসেম্বর ‘সকাল সকাল’ ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

শুরু এবং শেষে ধানের শীষ প্রতীকের ছবিসহ বাংলা অক্ষরে ওই প্রতীকে ভোটের আহ্বান জানানো ভিডিওতে মির্জা ফখরুল তরুণদের উদ্দেশে বলেন, ‘তারা যে কাউকে ভোট দিতে পারে, কিন্তু তারা যেনো ভোটকেন্দ্রে ভোট দিতে যায় এবং ‘ভোট ডাকাতি’ ঠেকিয়ে দেয়।’

ভিডিওটি বিএনপি সমর্থক পেজে আপলোড হওয়ার পর বিএনপিপন্থী এবং বিএনপিবিরোধী দু’পক্ষ থেকেই তা শেয়ার করা হচ্ছে। এর বাইরেও অনেকে ভিডিওটি শেয়ার করছেন।

সবগুলো পোস্ট এবং শেয়ারে যেমন ভিডিওটি নিয়ে বিতর্ক চলছে, তেমনি মূল পোস্টেও কমেন্ট করে অনেকে বিতর্কে অংশ নিচ্ছেন। তার মধ্যে যেমন মির্জা ফখরুলের পক্ষে মন্তব্য আসছে, তেমনি তার বিরুদ্ধেও।

ইশরাক হাসান পারভেজ নামে একজন লিখেছেন: প্রত্যেকের ব্যক্তিগত মতাদর্শকে সম্মান করা উচিত৷ রাজনীতির বাইরে থেকেও আমার কাছে এই মানুষটির শব্দচয়ন, মার্জিত সদালাপ…সত্যিই ঈর্ষণীয়!

আলী হোসেন নামে আরেকজনের মন্তব্য: একজন রাজনীতিককে এমন পরিশীলিত ভাষায় কথা বলতে হবে! আমি বিএনপির সমর্থক নই, কিন্ত আপনার উন্নত মার্গের মার্জিত রুচির এই ভাষণকে শ্রদ্ধা জানাই অকুন্ঠ চিত্তে!

তবে, কিছু প্রশ্ন তুলে খন্দকার আহমেদ নামে একজন লিখেছেন: ছোট্ট প্রশ্ন….দাবি করছেন মুক্তিযোদ্ধা, বলছেন পাঞ্জাবী, পাকবাহিনী নয় কেন?? এতদিন ছিল পাকবাহিনী আজ হয়ে গেল ‘পাঞ্জাব’…পাঞ্জাব কিন্তু পুরো পাকিস্তান নয়…এখানে কি ইতিহাস বিকৃত করা হয়নি…

“মুক্তিযুদ্ধ করেছেন, এখনও কেন জামায়াতকে রেখেছেন সাথে, আবার অন্যদিকে নিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধের কিছু নিবেদিত প্রাণ মানুষকে… জনগণের সেবা, নাকি ক্ষমতায় যাওয়ার জন্যই এ ধরনের ‘ইমোশোনাল’ কথা বলা…‘জামায়াত কে না বলুন, না বলতে শিখুন’… শুভ কামনা,” এভাবেই তিনি তার বক্তব্য তুলে ধরেছেন।

নুসরাত ফাতেমা নামের একজনের মন্তব্য: অতীব দুঃখের কথাটি হচ্ছে তার পরিচয় তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের একজন প্রথম সারির নেতা। যে দলটি সিম্পলি বন্দুকের নল বিচারপতি সায়েমের কপালে ঠেকিয়ে ক্ষমতায় এসেছে, যে দলটি ৭৭ থেকে ৮১ শুধু শত শত মুক্তিযোদ্ধা সামরিক অফিসারদের খুন করেই ক্ষান্ত হয়নি বরং এই দেশটিতে মৌলবাদীদের বীজ বপন করে দিয়েছে।. … যত সহজে মির্জা সাহেব গণতন্ত্র শব্দটি বার বার উচ্চারণ করেছেন, বোধকরি গণতন্ত্র শব্দটি মির্জা সাহেবের জন্য ততটা স্বস্তিকর নয়। গণতন্ত্রের নাম করে বিরোধী পক্ষের নেত্রীকে আর্জেস গ্রেনেড দিয়ে হত্যা করবার চেষ্টা আর নগরের মোড়ে হাওয়া ভবন বানিয়ে চাঁদা আদায় করবার রশিদ মীর্জা সাহেবের চোখ মুখে যে সেঁটে রয়েছে, সেটি কি তিনি অনুভব করতে পারেন?

ফয়সাল আজিজ নামে একজন লিখেছেন: অথচ, তিনি (ফখরুল) সৎ সাহস রেখে বলতে পারেননি, তরুণদের ভোট মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষে হোক, যদিও তিনি নিজেকে মুক্তিযোদ্ধা দাবি করছেন, কালক্রমে তিনি বিএনপি করেন, তেমনি কালক্রমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবোধ এখন তার হৃদয় থেকে হারিয়ে গেছে, কারণ যেকোন মূল্যে ক্ষমতা চাই, কিন্তু তিনি যে স্বপ্নের পেছনে ছুটে বেড়াচ্ছেন সেই স্বপ্ন বারবার ভেঙে দেয় তারই দলের অন্যতম মহানায়ক তারেক রহমান…।

মূল পোস্টে এরকম পক্ষে বিপক্ষে মন্তব্য ছাড়াও শেয়ারগুলোতেও তুমুল আলোচনা চলছে।

প্রবাসী ডাক্তার সজল আশফাক ভিডিওটি শেয়ার করে লিখেছেন: মাত্র তিন মিনিট দশ সেকেন্ড। একজন রাজনীতিবিদ অন্ধকারে এ কোন আলো জ্বেলে দিয়ে গেলেন! মাত্র তিন মিনিট দশ সেকেন্ড! তারপর কিছুক্ষণের জন্য হলেও আপনি হারিয়ে যাবেন অন্য ভাবনায়! এই লোক বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলের নেতা? বিশ্বাস হয়!! এটা মানতে হবে!!! অসুরের মাঝে এ কোন মানবিক সুরের মূর্ছনা!!! মাত্র তিন মিনিট দশ সেকেন্ড!

তার পোস্টেই আরেক চিকিৎসক আব্দুন নূর তুষারের মন্তব্য: এজন্যই ২২ জন জামাতীকে সাথে নিয়ে ধানের শীষ দিয়ে নির্বাচন করছেন। যারা দেশ ও মুক্তিযুদ্ধ চায় নাই, তাদের সাথে নিয়ে….

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে চলমান লকডাউন : কাদের

  • করোনায় স্বাস্থ্যসেবা সমন্বয়ে ৬৪ জেলার দায়িত্বে ৬৪ সচিব

  • চাইলে বাংলাদেশকে টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

  • পদ্মা সেতুর অগ্রগতি ৯৩ শতাংশের বেশি

  • মুজিব নগর সরকারের দলিল পত্রসমূহ

  • ইসলামের জন্য বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ঐতিহাসিক অবদান

  • গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে জন কেরির সৌজন্য সাক্ষাৎ

  • রাজধানীর দুই এলাকায় করোনার সর্বাধিক সংক্রমণ

  • চলতি বছরই ২০ লাখের বেশি কর্মসংস্থান: পলক

  • ‘বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার ঘোষণাই বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ভিত্তি’

  • দেশে অরাজকতার চেষ্টা করলে ব্যবস্থা নেবে সরকার: আইনমন্ত্রী

  • স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ সরকার গঠিত হয় একাত্তরের ১০ এপ্রিল

  • ‘নিরাপদ মহাসড়ক নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে কাজ করছে সরকার’

  • বইমেলা শেষ হচ্ছে ১২ এপ্রিল: সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

  • বহুমুখী প্রকল্পে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বিপ্লব

  • করোনার ইস্যুতে ৬৪ জেলার দায়িত্ব পেলেন ৬৪ সচিব

  • সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ারের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

  • কাস্টমস ও ভ্যাট: করোনাকালেও চলছে ২৪ ঘণ্টা সেবা

  • ভোক্তাপর্যায়ে এলপিজির দাম ঘোষণা সোমবার

  • নদীর বুকে পুকুর-ফসলি জমি

  • যৌবন ফিরেছে তিস্তায়, কৃষক-জেলেদের স্বস্তি

  • মুড়ির গ্রাম তিমিরকাঠি, ঘরে ঘরে ব্যস্ততা

  • ১৭২ কোটি ব্যয়ে বিষমুক্ত সবজি উৎপাদনে বিপ্লব

  • আগাম পাহাড়ি কাঁঠালে বাড়ছে চাহিদা

  • আইসিটি খাতকে জরুরি সেবার আওতায় দেখতে চান উদ্যোক্তারা

  • বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বেড়েছে ৫৩২ শতাংশ

  • বোরো সংগ্রহে ব্যবহার হবে আধুনিক কৃষিযন্ত্র

  • উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেলের অগ্রগতি ৮৪ শতাংশ

  • শিমের লবণসহিষ্ণু নতুন জাত উদ্ভাবন

  • এবার ভারত থেকে জি-টু-জিতে চাল আমদানির সিদ্ধান্ত

  • মধুমতিতে নির্মিত হচ্ছে  ৬ লেনের সেতু

  • ২৫ মিনিটে প্রদক্ষিণ করা যাবে ঢাকা

  • রাজধানীতে নামছে ৬০টি দ্বিতল বাস

  • লকডাউনে থেমে নেই মেগা প্রকল্পগুলো

  • মাঠজুড়ে বোরো ধানের সবুজ সমারোহ

  • গণপরিবহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা 

  • মসজিদে নামাজ আদায়ে নতুন নির্দেশনা

  • তারাগঞ্জে সূর্যমুখীর চাষ বেড়েছে 

  • করোনা সংক্রমণ রোধে ফুলহাতা শার্ট পরার নির্দেশ পুলিশের

  • দেশের বাইরেও খ্যাতি ছড়িয়েছে চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী ‘মেজবান’

  • যানজট নিরসনে ঢাকায় হবে ৬১ কিলোমিটার পাতাল রেল

  • ১১ নির্দেশনা দিয়ে লকডাউনের প্রজ্ঞাপন, না মানলে আইনি ব্যবস্থা

  • জোর করে ঘরে রাখার চেয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির চেষ্টা করছি

  • লকডাউন শুরু

  • সোলার প্ল্যান্টে সেচ সুবিধা, কৃষিতে নতুন সম্ভাবনা

  • উৎসব-নববর্ষ-বিজয় দিবস ভাতা পাবেন সব বীর মুক্তিযোদ্ধা

  • লকডাউনে ব্যাংক লেনদেন আড়াই ঘণ্টা

  • শতবর্ষী ঐতিহ্য, আতাইকুলার লুঙ্গি-গামছার হাট

  • পদ্মা সেতুর অগ্রগতি ৯৩ শতাংশের বেশি

  • বুধবার থেকে চলবে গণপরিবহন

  • আন্তরিকভাবে কাজ করতে এনএসআই’র প্রতি আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

  • করোনা টেস্টের ফি দেওয়া যাচ্ছে ‘নগদ’-এ

  • বাম্পার ফলনের তরমুজ নিয়ে বিপাকে চাষি

  • মেগা প্রকল্পে বদলাচ্ছে দক্ষিণাঞ্চল

  • উন্নয়নের পূর্বশর্ত হলো শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখা: প্রধানমন্ত্রী

  • রোহিঙ্গাদের প্রতি অসাধারণ মানবতায় কৃতজ্ঞ বাইডেন

  • রাঙামাটিতে তরমুজের ফলন ভালো, খুশি কৃষক-ব্যবসায়ী 

  • হাজারো মানুষের ভাগ্য বদলে দিয়েছে যে বন্দর

  • অবশেষে চালু হলো গঙ্গা-কপোতাক্ষ সেচ প্রকল্প

  • কাল থেকে গণপরিবহন বন্ধ : সেতুমন্ত্রী