বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৪৭

ফ্ল্যাট জমি বিক্রি ও শেয়ারবাজারে রেকর্ড

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২১  

অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগে এবার শীর্ষে রয়েছে আবাসন খাত ও শেয়ারবাজার। চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরে অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগে দায়মুক্তি সুবিধা পেয়ে অভূতপূর্ব সাড়া দিয়েছেন করদাতারা। ফলে অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার হয়েছে। পুঁজিবাজারসহ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ বেড়েছে। অপ্রদর্শিত অর্থের মালিকরা এখন সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগ করছেন আবাসন খাতে। তারা এখন জমি আর ফ্ল্যাট কেনাকাটায় ব্যস্ত। শেয়ারবাজারেও অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের ঢেউ লেগেছে। লেনদেনের নতুন নতুন রেকর্ডে খুশি অংশীজনরা। 

জানা গেছে, আবাসন খাতে অপ্রদর্শিত অর্থের বিনিয়োগে গত ছয় মাসে ফ্ল্যাট, জমি, বিল্ডিং ও অ্যাপার্টমেন্টের বিক্রি বেড়েছে কয়েকগুণ। ক্রেতারা এখন আবাসন প্রকল্প ঘুরে বেড়াচ্ছেন। অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ সুবিধা দেওয়ার সবচেয়ে বড় প্রভাব হলো- মানুষ এখন সেকেন্ড হোমে যেতে পারছে না। ফলে অর্থপাচার কমছে। আবার আগে দুর্নীতি দমন কমিশন- দুদক যেখানে প্রশ্ন করত, এখন সেটা করার সুযোগ নেই। ফলে অপ্রদর্শিত অর্থ আবাসন খাতে বিনিয়োগে ক্রেতাদের আগ্রহ বেড়েছে। শেয়ারবাজারে গত ডিসেম্বরে যেখানে প্রতিদিনের গড় লেনদেন প্রায় ৩০০ কোটি টাকা ছিল, সেখানে চলতি জানুয়ারিতে প্রতিদিনের গড় লেনদেন প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে। 

এ প্রসঙ্গে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড- এনবিআর সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ) হাফিজ আহমেদ মুর্শেদ বলেন, করদাতাদের রিটার্নের গতি-প্রকৃতি দেখে মনে হচ্ছে, আবাসন খাত ও শেয়ারবাজারে অপ্রদর্শিত অর্থের বিনিয়োগ হয়েছে। সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগ হয়েছে আবাসনে। তার পরেই রয়েছে শেয়ারবাজার। এখনো বড় বড় করদাতারা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন। ফলে আরও প্রচুর অর্থ মূলধারায় আসবে। তার মতে, দেশের ইতিহাসে কোনো একক অর্থবছরে এত অপ্রদর্শিত অর্থ প্রদর্শনের রেকর্ড নেই। অর্থবছর শেষে এই আয় আরও অনেক বাড়বে। রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ- রিহ্যাব সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিন বলেন, অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ নিয়ে ক্রেতাদের মধ্যে জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে। মানুষের মাঝে একটা বার্তা পৌঁছে গেছে। এই বার্তা হলো- অপ্রদর্শিত অর্থ দেশে রাখুন। বিনিয়োগ করুন। সরকার আপনাকে সহযোগিতা করছে। অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগে আইনি প্রতিবন্ধকতা নেই। এ নিয়ে কোনো সংস্থা প্রশ্নও করতে পারবে না। তাই ক্রেতাদের প্রতি আহ্বান, অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগের অবাধ সুবিধা নিন। 

ঢাকা স্টক একচেঞ্জ-ডিএসই পরিচালক রকিবুর রহমান বলেন, শেয়ারবাজারে অপ্রদর্শিত অর্থের বিনিয়োগের জোয়ার এসেছে। আগামীতে এটা আরও অনেক বাড়বে। আমাদের মনে রাখতে হবে, প্রধানমন্ত্রী এই সুবিধা দিয়েছেন কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও বিনিয়োগের জন্য। শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের এই সুবিধা আগামীতে আরও বাড়বে। এদিকে দেশের প্রচলিত আইনে যা-ই থাকুক না কেন, অপ্রদর্শিত অর্থের বিনিয়োগ নিয়ে কেউ কোনো প্রশ্ন উত্থাপন করতে পারবে না। চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরে এই আইনি নির্দেশনা পেয়ে অপ্রদর্শিত আয় প্রদর্শনের রেকর্ড গড়েছেন করদাতারা। এনবিআর চলতি অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সারা দেশের ব্যক্তি-শ্রেণির করদাতার আয়কর বিবরণী বা রিটার্ন দাখিলের তথ্য প্রকাশ করেছে। সর্বশেষ হিসাবে, দেশের ব্যক্তি-শ্রেণির ৭ হাজার ৪৪৫ করদাতা তাদের বার্ষিক আয়কর বিবরণীতে অপ্রদর্শিত আয়ের ১০ হাজার ২২০ কোটি টাকা প্রদর্র্শন করেছেন। বিপরীতে এসব করদাতা সরকারি কোষাগারে আয়কর পরিশোধ করেছেন প্রায় ৯৩৯ কোটি ৭৬ লাখ টাকা। যা অপ্রদর্শিত আয় প্রদর্শনের ইতিহাসে রেকর্ড হিসেবে দেখছেন সংশ্লিষ্টরা। 

এনবিআর বলেছে, আয়কর অধ্যাদেশ ১৯-এর এএএএ অনুযায়ী ২০৫ জন করদাতা প্রায় ২২ কোটি ৮৪ লাখ টাকা কর পরিশোধ করে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ ও এক্সচেঞ্জ কমিশন কর্তৃক অনুমোদিত সিকিউরিটিজে বিনিয়োগ করেছেন। এ ছাড়া ১৯-এর এএএএএ ধারা অনুযায়ী ৭ হাজার ৪৪৫ জন করদাতা প্রায় ৯৩৯ কোটি ৭৬ লাখ টাকা আয়কর পরিশোধ করে অপ্রদর্শিত আয় প্রদর্শন করেছেন। ফলে দেশের আনুষ্ঠানিক অর্থনীতিতে প্রায় ১০ হাজার ২২০ কোটি টাকা প্রবেশ করেছে। যা বিনিয়োগ বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও কর জিডিপির হার বৃদ্ধিতে বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছে এনবিআর। করদাতাদের জন্য এই সুযোগ থাকবে আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত। অপর দিকে চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে থাকা আইনি নির্দেশনা অনুযায়ী, করদাতাদের অপ্রদর্শিত অর্থ বিনিয়োগ করতে হবে জমি, ফ্ল্যাট, বিল্ডিং ও অ্যাপার্টমেন্ট, ব্যাংক, সঞ্চয়পত্র, শেয়ারবাজার, বন্ড বা অন্য কোনো সিকিউরিটিজে। এই সুবিধা নিতে ১০ শতাংশ হারে আয়কর দিতে হবে। থাকবে না কোনো জরিমানা। 

প্রসঙ্গত, দেশে এ পর্যন্ত ১৭ বার অপ্রদর্শিত অর্থ মূল ধারায় আনার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এতে প্রায় ১৪ হাজার কোটি টাকা প্রদর্শিত হয়েছে। সবচেয়ে বেশি টাকা সাদা হয়েছে ২০০৭ ও ২০০৮ সালে এক-এগারোর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে। ওই সময় ৩২ হাজার ৫৫৮ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান এই সুযোগ নিয়েছিল। তখন ৯ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা প্রদর্শিত হয়।

আরও পড়ুন
অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • প্রয়োজনে আরও টিকা ক্রয় করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • কমলগঞ্জে পাকা ঘরে উঠলেন ৬০ গৃহহীন পরিবার

  • তারল্য বাড়াতে ১০০ কোটি ডলারের বন্ড ছাড়বে আইসিবি

  • দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পাচ্ছে নিরপরাধরা

  • টিকায় এগিয়ে বাংলাদেশ

  • ‘কাজ ঝুলিয়ে রাখা ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে’

  • প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কড়া নির্দেশনা

  • অ্যান্টিবায়োটিকের যত্রতত্র ব্যবহার বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর ৬ প্রস্তা

  • সিলেটে ঘর পাচ্ছে ৪১৭৮টি পরিবার

  • ধর্ষণের হুমকিতে আমি ভয় পায় না: নুসরাত

  • মুক্তমনে স্বাধীনভাবে খেলছে শিশুরা

  • আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড পেলেন ঢাবি ছাত্রী সাজিয়া

  • যুক্তরাষ্ট্রের পাঠ্যপুস্তকে রাজুব ভৌমিকের আরেকটি বই

  • দেশের ইতিহাসে প্রথম টিকা নিচ্ছেন নার্স রুনু

  • কৃষিযন্ত্রের বাজার বাড়ছে

  • নির্ভরতার কৃষিতে ছুটছে অর্থনীতির চাকা

  • মাষকলাইয়ে আগ্রহ ফেরাতে প্রণোদনা

  • ‘সৌন্দর্যের’ কাঠবাদামে বাণিজ্যিক সম্ভাবনা

  • ধান চাষে বেড়েছে প্রযুক্তির ব্যবহার

  • দ্বিগুণ লাভে গাজর চাষে বিপ্লব!

  • বৈশ্বিক উদ্যোগ ব্যর্থ অর্থ ও সদিচ্ছার অভাবে: প্রধানমন্ত্রী

  • চাল আমদানির ফলে বাজার স্থিতিশীল হয়েছে: কৃষিমন্ত্রী

  • আগামী বছরের জুনেই শেষ হবে পদ্মাসেতুর কাজ

  • টিকা প্রদানে প্রস্তুত কুর্মিটোলা হাসপাতাল

  • সারাদেশে টিকাদান ৭ ফেব্রুয়ারি শুরু: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • মার্চে খুলছে ঢাবির হল

  • দক্ষিণ এশিয়ায় একমাত্র বাংলাদেশেরই বাড়ছে জিডিপি

  • পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফোন করবেন জন কেরি

  • বাসা-ভাড়াটিয়ার তথ্য সংগ্রহ করবে ডিএমপি

  • ঘরে বসেই খাজনা পরিশোধ: ভূমিমন্ত্রী

  • মুজিবর্ষে ৭০ হাজার গৃহহীন পরিবারকে ঘর দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • অনুমোদন পেল বাংলাদেশে উদ্ভাবিত কোভিড টেস্ট কিট

  • বিনাশুল্কে চীনের বাজারে যাচ্ছে ৮২৫৬ বাংলাদেশি পণ্য

  • স্বপ্নের মেট্রোরেল: উত্তরা থেকে আগারগাঁও ৮০ ভাগ কাজ সম্পন্ন

  • ২০২৩ সালের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ উৎক্ষেপণ

  • বাংলাদেশে পৌঁছালো ভারতের উপহারের ২০ লাখ ডোজ টিকা

  • ৩ থেকে ৫ কোটি টাকা ঋণ পাবে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উদ্যোক্তারা

  • আজ ‘স্বপ্ননীড়ে’ পা রাখছে ৬৬ হাজার ১৮৯ পরিবার

  • বাড়ি পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা করলেন গৃহহীনরা

  • কারা নিতে পারবেন না করোনা ভ্যাকসিন

  • দেশের প্রথম স্বয়ংক্রিয় দুগ্ধ খামার চালু

  • ২০৩০ সালে শিল্পখাতের উৎপাদনশীলতা হবে ৫.৬ শতাংশ: শিল্পমন্ত্রী

  • আপাতত সপ্তাহে একদিন ক্লাসের পরিকল্পনা : শিক্ষামন্ত্রী

  • ১৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে টিসিবির পেঁয়াজ

  • ৫০ বছর পর সুন্দরী খাল সংস্কার

  • নতুন ৬টি দেশে শ্রমিক পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার

  • শাহজালাল বিমানবন্দর হবে দক্ষিণ এশিয়ার কেন্দ্রবিন্দু

  • দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের কৃষির উন্নয়নে হচ্ছে বিশ্বমানের গবেষণাকেন্দ্র

  • সর্বপ্রথম ভ্যাকসিন নিতে অর্থমন্ত্রীর আগ্রহ প্রকাশ

  • এক ‘মা’ জন্ম দিয়েছেন, আরেক ‘মা’ দিলেন ঘর

  • করোনা টিকা নিয়ে গুজব রোধে সতর্ক সরকার

  • দেশের সব নদী দখলমুক্ত করা হবে: নৌপ্রতিমন্ত্রী

  • আগামী মাসে বাড়ি পাচ্ছে আরও ১ লাখ পরিবার

  • বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুকে তুলে ধরতে ৫০ দেশ ঘুরবে গাড়ি

  • দু-একদিনের মধ্যেই আরও ৫০ লাখ টিকা আসবে: পাপন

  • চলতি অর্থবছরে ১২ শিল্পনগরী স্থাপন হচ্ছে: শিল্পমন্ত্রী

  • নয়াদিল্লির রাজপথে কুচকাওয়াজে বাংলাদেশের সেনা বাহিনী

  • অবশেষে ফেব্রুয়ারিতে খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

  • বাংলাদেশের কেনা টিকার প্রথম চালান আসবে ২৫ জানুয়ারি

  • কুমিল্লায় অতিথি পাখির মিলনমেলা