শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
২৮১

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ: ৪১ জেলায় আসছে সুখবর

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

আদালতে রিটজনিত কারণে দেশের ৪১ জেলায় চূড়ান্তভাবে পাস করা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রার্থীদের যোগদান ও পদায়ন স্থগিত রয়েছে। তবে আগামী মার্চের মধ্যে রিট নিষ্পত্তি করে দেশের সব জেলায় নিয়োগ ও পদায়ন সম্পন্ন করার চেষ্টা চালাচ্ছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জানা গেছে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম নীতিমালা অনুযায়ী, ৬০ শতাংশ নারী, ২০ শতাংশ পোষ্য ও ২০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটা অনুসরণ করা হয়। ২০১৯ সালের ২৪ ডিসেম্বর শিক্ষক নিয়োগের চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশিত হয়। এরপর ১৬ ফেব্রুয়ারি নতুন শিক্ষকদের জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে যোগদান করতে বলা হয়। ১৭ থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারি তাদের ওরিয়েন্টেশন এবং ১৯ ফেব্রুয়ারি নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের পদায়নের আদেশ জারি করে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। এর পরই বিপত্তি ঘটে। দেশের ৪১ জেলায় শিক্ষক নিয়োগে বিধি অনুযায়ী কোটা অনুসরণ হয়নি বলে আদালতে রিট করেন নিয়োগ পরীক্ষার মৌখিক পরীক্ষায় ফেল করা প্রার্থীরা।
 
জানা গেছে, পটুয়াখালী, দিনাজপুর, গোপালগঞ্জ, গাজীপুর, ফরিদপুর, ঢাকা, খুলনা, নাটোরসহ বেশ কয়েকটি জেলায় একাধিক রিট আবেদন করা হয়েছে। এ কারণে একটি আবেদন নিষ্পত্তি হলে আরেকটি বহাল থাকছে বলে সেসব জেলায় নিয়োগ কার্যক্রম সম্পন্ন করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তবে শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা অনুসরণ করে চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আকরাম আল হোসেন।

তিনি বলেন, ‘নীতিমালা অনুযায়ী প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। যারা নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণ করতে পারেনি, তাদের মধ্যে একশ্রেণির প্রার্থী আদালতে গিয়ে মামলা করেছে। তার প্রেক্ষাপটে আদালত থেকে ৪১ জেলার নিয়োগ কার্যক্রমে স্থগিতাদেশ দেয়া হয়েছে।’

সচিব বলেন, ‘আমরা শক্ত হাতে সব মামলা মোকাবিলা করছি। আমাদের আইনজীবীরা প্রমাণ আদালতে দাখিল করেছেন। এ কারণে নতুন করে আর কোনো জেলায় এ নিয়োগ-সংক্রান্ত মামলা গ্রহণ করা হচ্ছে না। ইতিমধ্যে কয়েকটি জেলায় স্থগিতাদেশ বাতিল হওয়ার অপেক্ষায়। যেসব জেলায় স্থগিতাদেশ বাতিল করা হবে সেখানে যোগদান ও পদায়ন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর (ডিপিই) মহাপরিচালককে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।’

এদিকে নিয়োগ পরীক্ষায় চূড়ান্তভাবে পাস করা প্রার্থীদের যোগদান ও পদায়ন স্থগিত হওয়ায় আন্দোলনে নেমেছেন নিয়োগের অপেক্ষায় থাকা প্রার্থীরা। রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) তারা ঢাকায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে তিন দফা দাবিতে মানববন্ধন পালন করেন।

আন্দোলনের সমন্বয়ক মো. শাওন নাজিউর বলেন, ‘নিয়োগ পরীক্ষায় চূড়ান্তভাবে পাস করেও ৪১ জেলার প্রার্থীদের যোগদান স্থগিত রাখা হয়েছে। একের পর এক আদালতে রিট হচ্ছে, আর আমাদের নিয়োগ কার্যক্রম অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ছে। সব পরীক্ষা মোকাবিলা করে আমরা পাস করেছি, তার মধ্যে ২০ জেলায় নিয়োগ ও পদায়ন দেয়া হয়েছে। অথচ আমাদের অনিশ্চয়তার মধ্যে রাখা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ বঞ্চিত নামে ফেসবুকে একটি গ্রুপ তৈরি করা হয়েছে। তার মাধ্যমে দেশের নিয়োগবঞ্চিত ৪০ জেলার প্রার্থীরা একত্রিত হয়ে মানববন্ধনে যোগ দিয়েছেন। অন্যান্য জেলার মতো যোগদান ও পদায়ন দিতে হবে। এ জন্য সরকারের কাছে তিন দফা দাবি তোলা হয়েছে।’

এ বিষয়ে দায়ী ব্যক্তিদের শনাক্ত করে আইনের আওতার আনার দাবি জানান তারা।

নিয়োগ-সংক্রান্ত বিষয়ে জানতে চাইলে ডিপিই’র মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ বলেন, ‘নিয়োগ-সংক্রান্ত বিষয়ে ৪১ জেলায় মামলা হওয়ায় সেসব জেলায় যোগদান ও পদায়ন স্থগিত রাখা হয়েছে। বাকি ২০ জেলায় নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। বর্তমানে তারা পাঠদান শুরু করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘ইতিমধ্যে আদালত থেকে বিভিন্ন জেলার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হচ্ছে। যেখানে এ স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হবে, সেখানে নিয়োগের পরবর্তী প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। তবে অপেক্ষমাণ প্রার্থীরা যেদিন যোগদান করবেন, সেদিন থেকে তাদের বেতন-ভাতা সুবিধা নির্ধারণ করা হবে। আদালতের নির্দেশনার কারণে এটি অনুসরণ করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা আশা করি, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সব জেলার স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হবে। মার্চ মাসের মধ্যে সকলকে নিয়োগ ও পদায়ন করে চলমান শিক্ষকদের বদলি এবং নতুন নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হবে।’

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালের ৩০ জুলাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়। পরে ওই বছরের ১ থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত সারাদেশ থেকে ২৪ লাখ পাঁচজন প্রার্থী আবেদন করেন। গত বছর সারাদেশে প্রথম ধাপে ২৪ মে, দ্বিতীয় ধাপে ৩১ মে, তৃতীয় ধাপে ২১ জুন এবং চতুর্থ ধাপে ২৮ জুন লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
 
সেপ্টেম্বরে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষায় ৫৫ হাজার ২৯৫ জন পাস করেন। গত ৬ অক্টোবর থেকে এর মৌখিক পরীক্ষা শুরু হয়। মাসব্যাপী সারাদেশের সব জেলায় মৌখিক পরীক্ষা আয়োজন করা হয়। সবশেষে গত ২৪ ডিসেম্বর ৬১ জেলায় ১৮ হাজার ১৪৭ জনকে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত করে ফলাফল প্রকাশ করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

আরও পড়ুন
শিক্ষা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • মাওলানা সাদ করোনায় আক্রান্ত, ধারণা ভারতীয় গোয়েন্দাদের

  • করোনা রোধে প্রধানমন্ত্রীর ৩১ নির্দেশনা

  • পিপিই প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে জাতিসংঘ প্রতিনিধির প্রশংসা

  • করোনা: সিঙ্গাপুরে একমাস লকডাউন ঘোষণা

  • সরকারি কর্মকর্তাদের মাস্ক ব্যবহারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • চট্টগ্রামে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত, ভবন লকডাউন

  • বেসরকারি চাকরিজীবীদের তিন মাস ধরে বেতন দেবে সৌদি সরকার

  • করোনাভাইরাসের আঁতুড়ঘর হতে পারে ভারতের গ্রামগুলো

  • ‘করোনা নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হলে বিশ্বব্যাপী খাদ্য সংকট সৃষ্টি হবে’

  • রাজশাহীর চিড়িয়াখানায় কুকুর ঢুকে খেয়ে ফেলল ৪ হরিণ

  • যুদ্ধাপরাধী সাঈদীর মুক্তি দাবি: ছাত্রলীগের নেতা বহিষ্কার

  • নাগরিকদের নিয়ে দ্বিতীয় চার্টার্ড ফ্লাইট যুক্তরাষ্ট্রে যাবে রোববার

  • ১৭৯৮ সালের পর প্রথমবারের মতো বাতিল হতে পারে হজ

  • বিশ্বে প্রতি মিনিটে করোনাতে আক্রান্ত ৫০, মৃত্যু ৪

  • আলমডাঙ্গায় জুমার নামাজে দূরত্ব রেখে বসতে বলায় যুবকের কাণ্ড!

  • ভারতে আটকা বাংলাদেশিরা লকডাউনের পর ফিরবেন

  • লক্ষ্মীপুরে খাবার নিয়ে দিনমজুরের বাড়িতে ডিসি

  • ঝিনাইদহে আড্ডা ঠেকাতে কেটলি নিয়ে খাবার দিচ্ছে চেয়ারম্যান

  • ‘গোপনীয়তা বজায় রেখে অসহায় মধ্যবিত্তদের খাদ্যসামগ্রী দিবে সরকার’

  • মানিকগঞ্জে টোকাইয়ের ফোনে খাবার নিয়ে হাজির ইউএনও

  • ‌‌‌‌ক্লিনিক-প্রাইভেট চেম্বার বন্ধ থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে 

  • ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে করোনা ধ্বংস করছে ওষুধ

  • করোনায় মৃতের সংখ্যা ৫৮ হাজার ছাড়িয়েছে

  • করোনাভাইরাস রোধে সাত লাখ পাউন্ড দিলেন নেইমার

  • একদিনে ৬ হাজার মৃত্যু দেখল বিশ্ব

  • দক্ষিণ আফ্রিকাতে বসবাসকারী শতভাগ বাংলাদেশি করোনাভাইরাসের ঝুঁকিতে

  • ফ্রান্সে ২৪ ঘণ্টায় প্রায় দেড় হাজার মৃত্যু

  • স্পেনে ২৪ ঘণ্টায় ৯৫০ জনের মৃত্যু

  • স্বাস্থ্যকর্মীদের স্টেডিয়ামে থাকার ব্যবস্থা করলো ইংল্যান্ড

  • গাজীপুরে ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন এমপি সবুজ

  • কল করার ৩০ মিনিটেই বাজার নিয়ে হাজির পুলিশ!

  • করোনার সাহায্য নিয়ে নয়-ছয় করলে ছাড়ব না, হুশিয়ারি প্রধানন্ত্রীর

  • যাত্রাবাড়ীর সেই নারীর বাসায় খাবার পৌঁছে দিলেন ওসি

  • নওগাঁয় একাই ৩০ হাজার পরিবারের দায়িত্ব নিলেন জলিল জন

  • মশার গান আর শুনতে চাই না: মেয়রকে প্রধানমন্ত্রী

  • পরিস্থিতি বিবেচনায় ছুটি আরও বাড়ছে: প্রধানমন্ত্রী 

  • দাফনের পর মৃতদেহ থেকে করোনাভাইরাস ছড়ায় না

  • বাজারে নিরাপদ দূরত্ব নিশ্চিতে লালবৃত্ত এঁকে দিচ্ছে ডিএমপি

  • হায়রে কুশিক্ষিত, অর্বাচীন মেধাবী!

  • ভেন্টিলেটর তৈরির কৌশল উন্মুক্ত করলেন বাংলাদেশের ইশরাক

  • ‘করোনা রোধে প্রয়োজনে অন্য দেশকেও সহায়তা করতে প্রস্তুত বাংলাদেশ’

  • সবাইকে ঘরে থেকে পরিবারকে সময় দেয়ার অনুরোধ জানালেন করোনাজয়ী তরুণ

  • ‘পদ্মা সেতুর ৪২টি খুঁটির সবগুলোর নির্মাণ কাজ শেষ’

  • করোনার কালকেটা কেমন হবে?

  • জনগণের কল্যাণেই এবার নববর্ষের অনুষ্ঠান হবে না: প্রধানমন্ত্রী

  • ‘বৈশ্বিক মহামারীতে আমাদের যা করণীয়’

  • প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ২৫ কোটি টাকা দিল সশস্ত্র বাহিনী

  • ‘সতর্ক থেকে নিজে বাঁচুন, অন্যকে বাঁচতে দিন’

  • সকল অফিসে এক মাসের ছুটি সংক্রান্ত প্রচারটি গুজব

  • টানা দ্বিতীয় দিনেও নতুন কোনো করোনারোগী শনাক্ত হয়নি: আইইডিসিআর

  • করোনার বিস্তার আটকে দিতে পারে উষ্ণ আর্দ্র আবহাওয়া

  • ভারতীয় রুপির বিপরীতে শক্তিশালী হচ্ছে টাকার মান

  • ‘গোপনীয়তা বজায় রেখে অসহায় মধ্যবিত্তদের খাদ্যসামগ্রী দিবে সরকার’

  • করোনা আক্রান্তদের জন্য অস্থায়ী হাসপাতাল করবে সেনাবাহিনী

  • বিনা পারিশ্রমিকে ৫০ হাজার পিপিই তৈরি করেছেন পোশাককর্মীরা

  • ২ হাজার পরিবারকে সহায়তা দিয়েছে সাকিব আল হাসান ফাউন্ডেশন

  • জেনে নিন, করোনাভাইরাস নিয়ে সত্য মিথ্যা

  • করোনা সংক্রান্ত ভুল তথ্য ঠেকাতে ভাইবার ও ডব্লিউএইচও কাজ করছে

  • সকল যানবাহন পর্যায়ক্রমে চালু হবে

  • বাংলাদেশে করোনার আচরণ নিয়ে গবেষকদের বিভিন্ন মত