শনিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

ব্রেকিং:
৫ মাস পর খুললো বিনোদনকেন্দ্র, দর্শনার্থীর উপস্থিতি কম ইউপি তথ্যসেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে এনআইডি সেবা দেওয়ার উদ্যোগ বরিশালে পারিবারিক কৃষিতে সফলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
১৩৪

প্রতিযোগী দেশের তুলনায় ভালো অবস্থায় বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০  

করোনাভাইরাসের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়ীরা গত মার্চ থেকে পোশাক আমদানি কমিয়ে দেন। সেই প্রভাব এখনো কাটেনি। ফলে চলতি বছরের প্রথম সাত মাসে বাজারটিতে ২৯০ কোটি ডলার বা ২৪ হাজার ৬৫০ কোটি টাকার পোশাক রপ্তানি করেছে বাংলাদেশ, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ১৮ দশমিক ৫৪ শতাংশ কম।

বাংলাদেশের চেয়ে চীন, ভারত ও ইন্দোনেশিয়ায় রপ্তানি আরও বেশি কমেছে। সেই হিসেবে বাংলাদেশের অবস্থা ভালো। তার চেয়ে বড় কথা যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়ীরা চলতি বছরের প্রথম সাত মাসে (জানুয়ারি-জুলাই) ৩ হাজার ৩৮৭ কোটি ডলারের পোশাক আমদানি করেছেন, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৩০ দশমিক ৬০ শতাংশ কম।

ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব কমার্সের আওতাধীন অফিস অব টেক্সটাইল অ্যান্ড অ্যাপারেলের (অটেক্সা) দেওয়া পরিসংখ্যান থেকে এসব তথ্য জানা গেছে। গত বছর ৮ হাজার ৩৮০ কোটি ডলারের পোশাক আমদানি করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। 

বিদায়ী বছর যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলাদেশ ৫৯৩ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করেছিল। চলতি বছরের প্রথম মাসে ৬২ কোটি ডলার রপ্তানির বিপরীতে প্রবৃদ্ধি হয়েছিল ১৭ শতাংশ। পরের মাসেও প্রবৃদ্ধি হয় ১১ শতাংশ। মার্চ ও এপ্রিলেও রপ্তানি নেতিবাচক হয়নি। তবে মে মাসে গিয়ে রপ্তানি ১২ শতাংশ কমে যায়। সাত মাস শেষে ২৯০ কোটি ডলারের রপ্তানি হলেও তা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে সাড়ে ১৮ শতাংশ কম।

জানা যায়, ২০১৩ সালের এপ্রিলে সাভারের রানা প্লাজা ধসের পর যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রপ্তানি কমে যায়। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে এ বাজারে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করে বাংলাদেশ। গত বছর ৫৯৩ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি হয়, এ আয় ২০১৮ সালের চেয়ে ৯ দশমিক ৮৩ শতাংশ বেশি।

পোশাকশিল্পের উদ্যোক্তারা জানান, ২০১৮ সালে চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকেই অবস্থার পরিবর্তন হতে থাকে। চীনের ওপর নির্ভরশীলতা কমানো ও বাড়তি শুল্ক থেকে রেহাই পেতে বাংলাদেশে বেশি ক্রয়াদেশ দিতে শুরু করে অনেক ক্রেতা প্রতিষ্ঠান। রপ্তানিও আনুপাতিক হারে বাড়তে থাকে। তবে করোনায় নতুন করে বাজারটিতে খারাপ সময়ের মধ্যে পড়েছে বাংলাদেশ।

জানতে চাইলে নিট পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিকেএমইএর সহসভাপতি মোহাম্মদ হাতেম বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) দেশগুলোর চেয়ে তুলনামূলকভাবে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ক্রয়াদেশ বেশি আসছে। তবে তা কারখানাগুলোর সক্ষমতার চেয়ে অনেক কম। ফলে খুব বেশি আশাবাদী হওয়ার সুযোগ নেই। আগামী এক–দুই মাসে রপ্তানি পরিস্থিতির উন্নতি হলেও নেতিবাচক ধারা থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভব নয়। ডিসেম্বর থেকে বাজারটিতে রপ্তানি বাড়তে পারে।

মোহাম্মদ হাতেম আরও বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পোশাক রপ্তানি কমলেও প্রতিযোগী দেশগুলোর তুলনায় বাংলাদেশ খারাপ করছে না। তবে বর্তমানে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে পোশাকের মূল্য। ক্রেতারা করোনার অজুহাত দেখিয়ে অনেক কম দাম অফার করছেন। উদ্যোক্তারা বাধ্য হয়ে সেই কম দামেই ক্রয়াদেশ নিচ্ছেন। না নিলে কারখানাগুলো আরও বেশি ক্ষতির মুখে পড়বে।’

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পোশাক রপ্তানির শীর্ষস্থান নিয়ে চীন ও ভিয়েতনামের মধ্যে লড়াই জমে উঠেছে। গত মে পর্যন্ত ভিয়েতনাম প্রথম স্থানে ছিল। জুনে সেটি দখল করে নিয়েছে চীন। তবে দেশটির পোশাক রপ্তানি চলতি বছরের প্রথম সাত মাসে ৪৯ শতাংশ ৩৪ কমে গেছে। বাণিজ্যযুদ্ধের সঙ্গে করোনাভাইরাস যোগ হওয়ায় এ দুর্দশা হয়েছে। তাতে সাত মাস শেষ যুক্তরাষ্ট্রে ৭৩৪ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করছেন চীনের উদ্যোক্তারা। বাজারটিতে চীনের হিস্যা নামতে নামতে ২৫ দশমিক ৮৩ শতাংশ হয়েছে। গত বছর শেষে চীনের হিস্যা ছিল ২৯ দশমিক ৬৮ শতাংশ।

যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ভিয়েতনাম আবার দ্বিতীয় স্থানে চলে গেলেও রপ্তানি কমার দিক থেকে কিছুটা ভালো অবস্থানে আছে। চলতি বছরের প্রথম সাত মাসে ভিয়েতনাম ৬৯৪ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করেছে, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ১১ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ কম। তাদের বাজার হিস্যা ১৮ দশমিক ৪৬ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ৭ দশমিক ৬৬ শতাংশ হিস্যা নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ।

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • নতুন সম্ভাবনা সুন্দরবনে, ২৫ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ

  • শুরুর আগেই সরে দাঁড়ালেন ম্যাকমিলান

  • সিনেমায় আসছেন না মেহজাবীন

  • ভারত থেকে এলো আরও ১৯৯ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

  • নিজ মাদ্রাসায় চিরনিদ্রায় শায়িত আল্লামা শফী

  • মিয়ানমার থেকে এসেছে ৩০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

  • ভোমরা বন্দর দিয়ে ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি শুরু

  • আধা ঘণ্টায় গাজীপুর, বদলে যাবে উত্তর দিগন্ত

  • করোনায় ১১.২ বিলিয়ন আর্থিক সহায়তা দিয়েছে এডিবি

  • ১০ জেলায় মাছের উৎপাদন বাড়বে ৬৩ হাজার টন

  • ২৫ হাজার টন পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিল ভারত

  • ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি

  • গোপালগঞ্জে বাড়ছে ভাসমান সবজি চাষ

  • শিশু শিক্ষার আধুনিক অ্যাপ তৈরি করলো চুয়েট শিক্ষার্থীরা

  • বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ হবে নারায়ণগঞ্জে

  • মহামারি কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি: ওয়াশিংটন পোস্ট

  • করোনায় একমাত্র আওয়ামী লীগই মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

  • শেখ হাসিনাঃ একজন মানবিক নেতা ও ফেনী নদী চুক্তি

  • আইনের বাইরে এ শহরে কেউ  কিছু করতে পারবেন না : মেয়র আতিকুল

  • তিস্তা প্রকল্পে বদলে যাবে উত্তরাঞ্চলের ৫ জেলার মানুষের ভাগ্য  

  • করোনাকালেও খাদ্য উৎপাদনে রেকর্ড বাংলাদেশের

  • পেঁয়াজ আমদানি প্রক্রিয়া সহজ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে

  • মাদক চালান রোধে শিগগির শুরু হচ্ছে মেরিন ইউনিটের কার্যক্রম 

  • সরকারি চাকরিতে বয়স ছাড় দিতে মন্ত্রণালয়গুলোকে নির্দেশ

  • ঘুষ-দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসনিক ব্যবস্থা গড়তে চাই: প্রধানমন্ত্রী

  • অটিস্টিক শিশুর স্বপ্ন পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • শাহজালাল বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল শুরু

  • ১৪ অক্টোবর থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরা বন্ধ

  • ‘পুলিশ সদস্য কোন অন্যায় করে ছাড় পাবে না’

  • বিসিএস ছাড়া সরকারি চাকরিতে বয়স ছাড়ের নির্দেশ

  • চূড়ান্ত ধাপের জন্য প্রস্তুত গ্লোবের ভ্যাকসিন

  • একতলা বাড়ি পাচ্ছেন অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধারা

  • ৫ দেশ থেকে আসছে ১২ হাজার টন পেঁয়াজ

  • ৬টি দেশ থেকে আসছে ৪০ হাজার টন পেঁয়াজ

  • বেড়েছে রপ্তানি, ফিরছে পাটের সোনালি অতীত

  • পর্যটকদের জন্য চালু হচ্ছে ‘হোম স্টে’ সার্ভিস

  • ক্যামব্রিজকে পেছনে ফেলে দ্বিতীয় স্থানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

  • এগিয়ে চলেছে ঢাকা-চট্টগ্রাম ডাবল রেল লাইন নির্মাণের কাজ 

  • ইউএনডিপির নির্বাহী সদস্য হলো বাংলাদেশ

  • লবণাক্ততা সহনশীল ধানের নতুন ৩টি জাত উদ্ভাবন করলো ব্রি

  • ৪ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় উন্নত বাংলাদেশ বাস্তবায়নের রূপরেখা

  • নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনীত হলেন বাংলাদেশি চিকিৎসক আবিদ

  • মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে মেট্রোরেলের উত্তরা দক্ষিণ স্টেশন

  • জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে ফের প্রথম স্থানে বাংলাদেশ

  • উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ৭ হাজার শিক্ষক

  • ৮০ টাকা কেজি পেঁয়াজ, ৬ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

  • বিশ্বে মোট উৎপাদিত ইলিশের ৮৬ শতাংশই বাংলাদেশের

  • মাল্টায় স্বাবলম্বী পিরোজপুরের ৬শ’ চাষি

  • শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা ঋণ চালুর কথা ভাবছে সরকার

  • বন্ধ পাটকল শ্রমিকদের পাওনা দেওয়া শুরু

  • রাজশাহীতে দৃশ্যমান হচ্ছে বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটার

  • অনলাইনে কর সনদ পাবেন সঞ্চয়পত্রের গ্রাহক

  • আসছে ১৬৫ ট্রাক পেঁয়াজ

  • আজ কলকাতার বাজারে উঠছে পদ্মার ইলিশ

  • চামড়া শিল্পে ন্যূনতম মজুরি ৭১০০ টাকা চূড়ান্ত

  • প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে শিক্ষার্থীদের আমরা এক হাজার করে টাকা দেব

  • অনলাইনেও কেনা যাবে টিসিবির পেঁয়াজ

  • চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৬.৮ শতাংশ: এডিবি

  • চলতি মাসে প্রবাসী আয়ে বড় ধরনের উত্থান

  • কাজকর্ম স্বাভাবিক: ঘুরে দাঁড়াচ্ছে দেশের অর্থনীতি