রোববার   ০৭ জুন ২০২০

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
২৭৭

‘পদ্মা সেতুর ৪২টি খুঁটির সবগুলোর নির্মাণ কাজ শেষ’

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩১ মার্চ ২০২০  

পদ্মা সেতুর ৪২টি খুঁটির সবগুলো নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। বাকি রয়েছে কেবল ১৪টি স্প্যান ওঠানো। এরপর স্প্যানের ভেতরে রেলপথ ও ওপরের সড়কপথ বিস্তৃত করার কাজ চলবে। মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) দুপুর সাড়ে ১২টায় পদ্মা সেতুর সবশেষ খুঁটির ওপরের অংশের ঢালাই কংক্রিটিং শুরু করা হয়।

সেতু প্রকৌশলীরা জানান, সন্ধ্যার মধ্যে এ কংক্রিটের কাজ শেষ হবে। এরপর আরও তিন দিনের মধ্যে এটি শক্ত আকার ধারণ করবে। আর প্রায় এক মাসের মধ্যে পুরোপুরি লোড নেওয়ার ক্ষমতা পাবে এ খুঁটি।

প্রায় সাড়ে চার বছর ধরে চলা পদ্মা সেতুর খুঁটির কাজ শেষের মধ্য দিয়ে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ অতিক্রম করল প্রকল্প। মাঝখানে শুধুমাত্র খুঁটি জটিলতার কারণে কাজ পিছিয়েছে এক বছরের বেশি সময়। নদী তলদেশের মাটির গুণগত বৈশিষ্ট্য বদলে খুঁটি গেঁথেছেন সেতুর প্রকৌশলী ও নির্মাণ শ্রমিকরা।

এদিকে পদ্মা সেতুর ৪১টি স্প্যানের ২৭টি এ পর্যন্ত বসানো হয়েছে। বাকি রয়েছে মাত্র ১৪টি স্প্যান বসানো। যা শেষ হবে আগস্ট মাসে।

চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি জানায়, মূল সেতুর ৪১টি স্প্যানের মধ্যে মাওয়া এসেছে ৩৯টি। ২৭টি স্থাপন করা হয়েছে। যার দৈর্ঘ্য ৪ হাজার ৫০ মিটার। অবশিষ্ট ২টি স্প্যান চীনে নির্মাণ সম্পন্ন করে রাখা। এখন সে দু‘টির ব্লাস্টিং ও পেইন্টিং কাজ চলছে। আগামী ২০ এপ্রিলের মধ্যে চীন থেকে এটি বাংলাদেশে রওনা দেবে। এরপরই পুরো সেতু একসঙ্গে দৃশ্যমান হবে।

৪২টি খুঁটিতেই দাঁড়াবে ৬.১৫ কিলোমিটার লম্বা পদ্মাসেতু। এক খুঁটি থেকে আরেক খুঁটির দূরত্ব প্রায় ১৫০ মিটার। একেকটি খুঁটি ৫০ হাজার টন লোড নিতে সক্ষম।

পদ্মা সেতুর প্রকৌশলীরা জানান, মাঝনদী ও মাওয়া প্রান্তে পদ্মাসেতুর ২২টি খুঁটিতে সবচেয়ে বেশি জটিলতা দেখা দিয়েছিল। প্রথমদিকে যে গভীরতার ধারণা নিয়ে কাজ এগোনে হচ্ছিল বাস্তবে তার সঙ্গে মিলেনি। এ নিয়েই বিপত্তি হয়েছিল সেতু নির্মাণে।

এসব কারণে আটকে যায় ২২টি পিলারের কাজ। সবশেষে এমন একটি পদ্ধতি প্রয়োগ করা হয় যাতে নদীর তলদেশে কৃত্রিম প্রক্রিয়ায় মাটি বদলে নতুন মাটি তৈরি করে পিলার গাঁথা যায়। এই বিশেষ ‘স্ক্রিন গ্রাউটিং’ পদ্ধতিতে প্রয়োগ করা সফলতা পাওয়া যায়।

পদ্মা সেতুর আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ প্যানেল প্রধান অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী জানান, পাইপের ছিদ্র দিয়ে বিশেষ কেমিক্যাল নদীর তলদেশে পাঠিয়ে মাটির গুণাগুণ শক্ত করে তারপর সেখানে খুঁটি গাঁথা হয়েছে।

অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী বলেন, ‘কাজ শুরু করতে গিয়ে নদীর নিচে মাটির যে স্তর পাওয়া গেছে তা পিলার গেঁথে রাখার উপযোগী নয়। পরে নদীর তলদেশের মাটির গুণগত বৈশিষ্ট্য পরিবর্তন করে ড্রাইভিং করতে হয়েছে। এমন পদ্ধতিতে কোনো সেতুর খুঁটি নির্মাণ বাংলাদেশে প্রথমবারের মত এবং বিশ্বে নজিরবিহীন।’

পদ্ধতিটি ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, ‘পাইলের সঙ্গে স্টিলের ছোট ছোট পাইপ ওয়েল্ডিং করে দেওয়া হয়েছে। আর পাইপের ভেতর দিয়ে এক ধরনের কেমিক্যাল পাঠিয়ে দেওয়া হয় নদীর তলদেশের মাটিতে। আর তখন সেই মাটি শক্ত রূপ ধারণ করে। এরপর এসব পাইল লোড বহনের সক্ষমতা তৈরি হয়। আর এ পদ্ধতিটির নাম স্কিন গ্রাউটিং।’

পদ্মা সেতু প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, এ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ১১টি খুঁটি গড়ে তোলা হয়েছে। সবশেষ ৪২ নাম্বার খুঁটি এভাবে সম্পন্ন করা হলো। যা এখন কংক্রিটিংয়ের মাধ্যমে শেষ হচ্ছে।

নদীতে ৬.১৫ কিলোমিটারসহ তিন জেলা মুন্সিগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুর মিলিয়ে সাড়ে ৯ কিলোমিটার লম্বা পদ্মাসেতু। স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় এই নির্মাণ প্রকল্পে ব্যয় হচ্ছে ৩৩ হাজার কোটি টাকা। আগামী বছর জুনে পদ্মা সেতু খুলে দেয়া হবে। তখন একসঙ্গে সড়ক ও রেলপথে চালু হবে। এখন পর্যন্ত পদ্মা সেতু চার কিলোমিটার দৃশ্যমান।

পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, মূল সেতুর বাস্তব কাজের অগ্রগতি-৮৬.৭৫ শতাংশ এবং আর্থিক অগ্রগতি- ৮৩.৯৭ শতাংশ। মূল সেতু কাজের চুক্তিমূল্য- ১২ হাজার ১৩৩.৩৯ কোটি টাকা এবং এ পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে ১০ হাজার ১৮৮.০৭ কোটি টাকা। ।

নদীশাসন কাজের বাস্তব অগ্রগতি-৭০.৫০ শতাংশ এবং আর্থিক অগ্রগতি- ৫৫.০৫ শতাংশ। নদীশাসন কাজের চুক্তিমূল্য- ৮ হাজার ৭০৭.৮১ কোটি টাকা এবং এ পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে- ৪ হাজার ৭৯৩.৯০ কোটি টাকা। সংযাগ সড়ক ও সার্ভিস এরিয়ার বাস্তব কাজের অগ্রগতি ১০০ শতাংশ।

মূল সেতুতে মোট ৪২টি এবং দুইপ্রান্তের ভায়াডাক্টে (৪৪+৪৭) ৯১টিসহ সর্বমোট ১৩৩টি পিয়ার রয়েছে। এখন সবগুলো পিয়ার বা খুঁটির কাজ শেষ হলো বলেও জানান প্রকল্প পরিচালক।

আরও পড়ুন
দেশের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • ‘করোনা নিয়ে ইকোনমিস্টের প্রতিবেদনে ভুল তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে’

  • ঐতিহাসিক ৭ জুন: শহীদের রক্তে লেখা ছিল আমাদের ছয় দফা

  • বাঙালির মুক্তির সনদ ‘৬-দফা’

  • ভিন্ন আঙ্গিকে পালিত হবে ৬ দফা দিবস

  • বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ও রেমিট্যান্সে রেকর্ড

  • মানবপাচারকারীদের ধরতে সারা দেশে অভিযান

  • অক্টোবরের পর বাংলাদেশের অর্থনীতিতে উত্থান ঘটবে : আইএমএফ

  • চাটমোহরে ১০০ শিক্ষার্থী পেল বাইসাইকেল

  • দিল্লীর বাংলাদেশ মিশনের কফি টেবিল বুক প্রকাশ

  • ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের সহযোগিতায় ডিসিসিআইর স্বতন্ত্র বিভাগ চালু

  • স্বাধীনতা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক মর্যাদা পায় ছয় দফা

  • ছয় দফা: বাংলার মানুষের মুক্তি সনদ

  • ৬ দফা যেভাবে বাঙালির মুক্তির সনদ হয়ে উঠলো

  • করোনাকালে ১ লক্ষ ২ হাজার ৯৫৭ কোটি টাকার প্রণোদনা ঘোষণা

  • প্রাকৃতিক দুর্যোগ রোধে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

  • করোনা সফলতায় প্রধানমন্ত্রীর অর্জন ম্লানে ষড়যন্ত্র চলছে

  • বাংলাদেশি সেনাদের নিয়ে গর্ব করা উচিত: অ্যান্তোনিও গুতেরেস

  • নমুনা সংগ্রহে ভ্রাম্যমাণ বুথের কথা ভাবছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

  • ফেসবুক ইনবক্সে নারী যাত্রীর অভিযোগ পেয়ে ছুটে গেলেন ম্যাজিস্ট্রেট

  • মিয়ানমার সীমান্তবর্তী এলাকায় আবারো উত্তেজনা

  • আরেক দফা কঠোর লকডাউন দেয়ার আহ্বান

  • ‘সংক্রমণের বিস্তার রোধে সচেতনতার প্রাচীর নির্মাণ করতে হবে’

  • চিকিৎসা নেটওয়ার্কসহ সচেতনতা তৈরিতে দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে সরকার

  • করোনায় আক্রান্ত দেশের অনেক রাজনীতিবিদ

  • সংক্রমণ বাড়লেই রেড জোন, কক্সবাজার দিয়ে শুরু

  • করোনার ২০০ কোটি ডোজ সম্ভাব্য ভ্যাকসিন তৈরির ঘোষণা

  • করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধ করবে ‘করোনা ট্রেসার বিডি’ অ্যাপ

  • ‘কোভিড-১৯ এর বিরু‌দ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই কর‌তে হ‌বে’

  • ম্যাংগো ট্রেনের প্রথম যাত্রায় আসলো সাড়ে ১০ টন আম

  • ভিক্ষুক নাজিম উদ্দিন পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহার

  • ইভারম্যাকটিন, ডক্সিসাইক্লিন ব্যবহারে করোনা মুক্তির হার বেড়েছে

  • প্রত্যেক জেলা হাসপাতালে আইসিইউ নিশ্চিতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • আম্ফান-কাল বৈশাখীর ক্ষতিতেও পূরণ হবে বোরোর লক্ষ্যমাত্রা

  • মসলা মিশ্রিত হালকা গরম পানিতে উপকৃত হচ্ছেন করোনা রোগীরা

  • জুন মাসেই প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা পাবে জামা-জুতা কেনার টাকা

  • চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে দুর্যোগ সহনীয় ঘর পেল ১৬ পরিবার

  • স্পটে কাউকে পাওয়া না গেলে ধরে নেবেন তার চাকরি নেই: তাপস

  • বিএনপি’র চিন্তাধারা একপেশে: তথ্যমন্ত্রী

  • যেকোনো সঙ্কটে আত্মবিশ্বাসটাই সবচেয়ে বড়: প্রধানমন্ত্রী

  • বঙ্গবন্ধুর ছবিযুক্ত ডাকটিকিট অবমুক্ত করল জাতিসংঘ

  • সোনালী ই-সেবা: ২ মিনিটেই খোলা যাবে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট

  • বিশ্ব পরিবেশ দিবস আজ

  • ৪ জুন ১৯৫৭:প্রথম বাঙালি হিসাবে চা বোর্ডের চেয়ারম্যান হন বঙ্গবন্ধু

  • করোনায় বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি আদায় করলে কঠোর ব্যবস্থা

  • গ্রামাঞ্চলেও চালু হচ্ছে এটিএম ও পয়েন্ট অব সেলস মেশিন

  • চীন থেকে করোনা মেডিকেল টিম আসছে ৮ জুন

  • ‘প্রধানমন্ত্রী চান মেট্রোরেল প্রজেক্টের কাজের গতি আরও বাড়াতে’

  • জাতিসংঘ পুরস্কার পেল ভূমি মন্ত্রণালয়

  • দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি.

  • এবার স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের উদ্যোগ

  • অর্ধেক যাত্রী নিয়ে আগের ভাড়ায়ই চলবে ট্রেন

  • বাইরে চলাচলে মাস্ক না পরলে অনুযায়ী ব্যবস্থা

  • ২০২১ সালের মধ্যে দেশের ৯০ শতাংশ সেবা অনলাইনে দেওয়া হবে

  • বাংলাদেশে ৬৪১৭ কোটি বিনিয়োগ করবে এডিবি

  • লিচুতে ভাগ্যবদল, ফুটপাত থেকে বাড়ি-গাড়ির মালিক

  • করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রচেষ্টায় ৬ দেশের একাত্মতা

  • করোনা সঙ্কটেও মে মাসে দেশে এসেছে দেড় বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স

  • এবারো কোটি টাকা লিচু বিক্রির আশা

  • কৃষকের মুখে হাসি ফুটিয়েছে ভুট্টা

  • এশিয়া সেরা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম