বুধবার   ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সর্বশেষ:
আরও ১০৮ শহীদ বুদ্ধিজীবীর তালিকা প্রকাশ সরকারি চাকরিতে লাখ লাখ পদ খালি, নিয়োগের উদ্যোগ বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার বৈঠক : সুবিধা পেতে সর্বোচ্চ জোর এলাকার উন্নয়নে প্রত্যেক সংসদ সদস্যরা পাবেন ২০ কোটি টাকা শিগগির চালু হবে বিরল স্থলবন্দর ১২ সিটির বর্জ্য রিসাইকেলের উদ্যোগ বিশ্ব নেতাদের নজর কেড়েছে শেখ হাসিনার ৬ প্রস্তাব
১০৯

নাফ নদী পাড়ি দেওয়ার অপেক্ষায় শত শত রোহিঙ্গা

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

কক্সবাজারের টেকনাফ ও উখিয়া সীমান্তের কাছে মিয়ানমারের ভেতরে দেশটির সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহী দল আরাকান আর্মির মধ্যে থেমে থেমে সংঘর্ষ, গুলি ও বোমাবর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। এর ফলে টেকনাফ অংশে মিয়ানমারের শীলখালী ও বলিবাজার এলাকার বাসিন্দাদের সেখানে থাকা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে।

এসব এলাকার জীবনের ঝুঁকি বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের আশায় মিয়ানমারের শত শত রোহিঙ্গা টেকনাফ ও উখিয়াসংলগ্ন নাফ নদীতে নৌকা নিয়ে ভাসছেন। দিনের বেলায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও কোস্টগার্ড বাহিনীর সদস্যদের উপস্থিতিতে অনুপ্রবেশ সম্ভব হচ্ছে না। তাই রাতে নজরদারি এড়িয়ে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করছেন অনেকেই।

বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করার জন্য নাফ নদীতে ডিঙি নৌকা নিয়ে অবস্থানের কয়েকটি ছবি ঢাকা পোস্টের হাতে এসেছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, লম্ববিল, উনছিপ্রাংকানজড় পাড়া এলাকাসহ নাফ নদীতে ছোট ডিঙি নৌকা নিয়ে অবস্থান করছে কিছু রোহিঙ্গা। যেখানে ছোট শিশু থেকে শুরু করে বয়স্ক মানুষ আছে। তারা বাংলাদেশ সীমান্তে অনুপ্রবেশের চেষ্টাকালে বিজিবি বাঁশি দিলে তারা মিয়ানমারের সীমান্তে চলে যান। তারা মিয়ানমারের কুমিরখালী জুমহাড়া ও ঘোনা পাড়া এলাকার বাসিন্দা বলে জানা যায়।

বিজিবি ও কোস্টগার্ড সূত্র মতে, নাফ নদী অতিক্রম করে টেকনাফে অনুপ্রবেশের সময় রোহিঙ্গা নাগরিকবোঝাই ৪-৬টি নৌকা মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হয়েছে। একই সময় টেকনাফ সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টাকালে বিজিবি ১০ জন রোহিঙ্গাকে আটক করে আবার মিয়ানমারে ফেরত পাঠিয়েছে।

উখিয়া পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গফুর চৌধুরী বলেন, আমার ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি এলাকা দিয়ে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের চেষ্টা করছে। শুনেছি বলিবাজার থেকে কিছু রোহিঙ্গা নদীতে ডিঙি নৌকা নিয়ে অবস্থান নিয়েছে সুযোগ বুঝে অনুপ্রবেশ করার জন্য। এর আগেও ২৩ জন রোহিঙ্গা অস্ত্র নিয়ে অনুপ্রবেশের সময় স্থানীয়দের সঙ্গে নিয়ে আমি তাদের আটক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে তুলে দিয়েছি। আমরা সজাগ আছি কোনো রোহিঙ্গাকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

টেকনাফ হোয়াইক্ষ্যং ইউনিয়নের খারাংখালীর বাসিন্দা রবিউল বলেন, আমাদের এলাকা দিয়ে কিছু রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করার চেষ্টা করছে। বেশ কিছুদিন ধরে ডিঙি নৌকা নিয়ে বাংলাদেশ সীমার কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। তারা কয়েকবার প্রবেশের চেষ্টাও করেছিল। কিন্তু বিজিবির বাধায় ঢুকতে পারিনি। তারা মিয়ানমারের শহর কুমিরখালীর বাসিন্দা। কুমিরখালী ঘাঁটি দখল নিতে কয়েকদিন ধরে ওই এলাকায় দেশটির সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহী দল আরাকান আর্মির মধ্যে থেমে থেমে সংঘর্ষ ও বোমাবর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। এর কারণে তারা এদিকে পালিয়ে আসছে।

হোয়াইক্ষ্যং লম্বাবিল এলাকার বাসিন্দা কায়সার বলেন, কাল আমাদের সীমান্ত দিয়ে দুইজন রোহিঙ্গা নারী অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেন। পরে বিজিবি আটক করে তাদের দেশে ফিরিয়ে দেয়। আমাদের লম্বাবিল এলাকার সীমান্ত দিয়ে খালি চোখে নাফ নদীতে রোহিঙ্গাবোঝাই ৩-৪টি ডিঙি নৌকা দেখা যায়।

হোয়াইক্ষ্যং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ আনোয়ারী বলেন, আমাদের এলাকা দিয়ে রোহিঙ্গারা প্রবেশের চেষ্টা করছে। দুই থেকে তিন দিনে ৬ জন রোহিঙ্গাকে বিজিবি আটক করে পুশব্যাক করেছে। আরও কিছু রোহিঙ্গা ডিঙি নৌকা নিয়ে নাফ নদীতে অবস্থান করছে শুনেছি। এইজন্য আমার সব ইউপি সদস্যদের সর্তক থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কোনোভাবেই যেন রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ করতে না পারে।

উনছিপ্রাং ২২নং ক্যাম্পের হেড মাঝি রফিক বলেন, এই মুহূর্তে কুমিরখালী ঘাঁটি দখল নিতে কয়েকদিন ধরে যুদ্ধে চলছে। কুমিরখালী জুমহাড়া ও ঘোনা পাড়া এলাকায় কয়েকশ রোহিঙ্গা পরিবার আছে। এলাকাগুলোতে ব্যাপক হামলা হচ্ছে। অনেকেই ঝুঁকিতে আছেন।

বিজিবির টেকনাফ-২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মহিউদ্দীন আহমেদ বলেন, ৯ ফেব্রুয়ারি হোয়াইক্যং ইউনিয়নের লম্বাবিল এলাকায় নাফ নদীর শূন্যরেখা অতিক্রম করে মিয়ানমার থেকে আসা সন্দেহজনক দুই নারী বাংলাদেশের অভ্যন্তরে অনুপ্রবেশ করে। এ সময় বিজবির সদস্যরা ওই দুই নারীকে দেখতে পেয়ে থামার জন্য নির্দেশ দেন। পরে তাদের আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। প্রাথামিক জিজ্ঞাসাবাদে, ওই দুই নারী নিজেদের মিয়ানমারের নাগরিক পরিচয় দেন। পরে তাদের পুশব্যাক করা হয়। আমরা সব সময়ই সজাগ আছি।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • বাংলাদেশের প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম উৎপাদনে অংশীদার হতে আগ্রহী ভারত

  • যে কোনো সংকট মোকাবিলায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান আইজিপির

  • বিএনপির জগাখিচুড়ি ঐক্যজোট এখন কোথায় : কাদের

  • বাংলাদেশ ও ঘানা ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে সম্মত

  • প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

  • গৌরবের অমর একুশে আজ

  • যৌন নিপীড়নের ঘটনায় জাবি সহকারী অধ্যাপক বরখাস্ত

  • দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারের প্রশংসনীয় উদ্যোগ

  • স্বল্পমূল্যে টিসিবির পণ্য ও টিআর কার্ডে খাদ্য সহায়তা করছে সরকার

  • মুর্শিদাবাদ-রাজশাহী নৌপথের নবযাত্রা

  • মুর্শিদাবাদ-রাজশাহী নৌপথের নবযাত্রা

  • বিসিবির নতুন দায়িত্ব পেয়ে যা বললেন হাবিবুল বাশার

  • অভিনেতা ঋতুরাজ সিং মারা গেছেন

  • উপজেলা নির্বাচন বিধিমালা ও আচরণবিধিতে আসছে পরিবর্তন

  • দুই শিশুর মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানে আইইডিসিআর

  • শূন্য পদে দ্রুত নিয়োগে জনপ্রশাসনের তাগিদ

  • ২১ গুণীজনকে একুশে পদক দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • হুথি আক্রমণে সুয়েজ খালের আয় কমেছে ৫০ শতাংশ: মিশর

  • মানুষের মল দিয়ে জ্বালানি তৈরি কেনিয়ায়

  • নাভালনির সঙ্গে নিজের যে মিল দেখতে পান ট্রাম্প

  • গাজা ইস্যুতে ইউটার্ন, যুদ্ধবিরতি চায় যুক্তরাষ্ট্র

  • ২১ আমাদের শিখিয়েছে মাথানত না করা: প্রধানমন্ত্রী

  • প্রাথমিকের দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষার ফল হতে পারে আজ

  • দাম কমলো সয়াবিন তেলের

  • তিউনিসিয়া উপকূলে নৌযানে অগ্নিকাণ্ড, ৮ বাংলাদেশির মৃত্যু

  • বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর পরিদর্শন ঘানার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

  • কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে কোনো হুমকি নেই : র‍্যাব ডিজি

  • দেশের বাজারে কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম

  • ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুকে মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছিল

  • ভাষা আন্দোলন ও আমাদের বঙ্গবন্ধু

  • সংরক্ষিত নারী আসনে আ.লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা

  • পিক আওয়ারে ৮ মিনিট পর পর মিলবে মেট্রোরেল

  • ফাগুন হাওয়ায় রঙিন ভালোবাসা

  • হাইওয়ে পুলিশ সদস্যের থাকবে ‘বডি ওর্ন ক্যামেরা’

  • গঙ্গা নিয়ে আলোচনা শুরু করল বাংলাদেশ ও ভারত

  • সংখ্যা নয় দক্ষ ও অভিজ্ঞ ডাক্তার চাই : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • চার ভাবনায় বাড়ছে মন্ত্রিসভার আকার

  • দেশের মানুষ এখন গণতন্ত্র উপভোগ করছে: প্রধানমন্ত্রী

  • দেড় হাজার রোহিঙ্গা যাচ্ছেন ভাসানচর 

  • বাণিজ্যিকভাবে জ্বালানি তেল উত্তোলনের পথে বাংলাদেশ

  • এআই বিষয়ক আইন করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার: আইনমন্ত্রী

  • নতুন রুটের সন্ধানে বিমান

  • বাগেরহাটে তৈরি ৪০ হাজার ‘কাঠের সাইকেল’ যাচ্ছে ইউরোপে

  • ডলারে আমানত রাখলেই করমুক্তি সুবিধা

  • ‘পাচারের অর্থ উদ্ধারে ১০ দেশের সাথে আইনগত চুক্তির উদ্যোগ’

  • নতুন ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানকে কর নেটওয়ার্কে আনার উদ্যোগ

  • স্কোয়াশ চাষে লাভবান কৃষক

  • জিআই হিসেবে অনুমোদন পেল আরো ৩ পণ্য

  • চট্টগ্রাম বন্দরে রপ্তানিমুখী কনটেইনারের জন্য বসলো স্ক্যানার

  • পাইপলাইনের ঋণ দ্রুত ছাড়িয়ে আনার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • ধানমন্ডি লেকে নজরুল সরোবর করা হবে : তাপস

  • ভাষা আন্দোলনের ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুকে মুছে ফেলার চেষ্টা হয়েছিল

  • সাকিবকে বাদ দিয়ে শান্তকে অধিনায়ক, মুখ খুললেন পাপন

  • গ্রামীণের ৭ প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া হয়েছে আইন মেনেই

  • বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীর সাথে জাপানের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

  • গাজায় যা হচ্ছে তা গণহত্যা : প্রধানমন্ত্রী

  • কুয়াকাটায় বিমানবন্দর নির্মাণে তোড়জোড়

  • দেশে সবুজ পোশাক কারখানা বেড়ে ২০৭

  • বিবিএসের তথ্য বলছে স্বস্তি ফিরছে খাদ্যপণ্যে

  • মুদ্রা বিনিময়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন পদ্ধতি চালু