বৃহস্পতিবার   ২৬ নভেম্বর ২০২০

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
১৭৭

দুই শতাধিক নতুন জাতের ধানের উদ্ভাবক স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত নূর

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০২০  

রাজশাহীর তানোর পৌর এলাকার গোল্লাপাড়া মহল্লার কৃষক নূর মোহাম্মদ। রাজশাহী অঞ্চলে তিনি একজন আদর্শ কৃষক হিসেবে পরিচিত। কৃষিতে বিশেষ অবদানের জন্য পেয়েছেন স্বর্ণপদক।

চলতি রোপা আমন মৌসুমে বিলকুমারী বিলসংলগ্ন গোল্লাপাড়ায় এক একর জমিতে ৭৪ প্রকার জাতের ধান রোপণ করেছেন। তার উদ্ভাবিত নতুন জাতের ধানের সংখ্যা দুই শতাধিক। এছাড়া বরেন্দ্র অঞ্চলের বিলুপ্তপ্রায় ৩০০ জাতের ধানের বীজ তিনি সংরক্ষণে রেখেছেন।

বর্তমানে রোপণকৃত ক্ষেতজুড়ে শোভা পাচ্ছে ছোট ছোট অনেক সাইনবোর্ড। শুরুতেই যে কেউ দেখলে ভাববেন এটি বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইন্সটিটিউটের বিজ্ঞানীদের  প্রদর্শনী প্লট। কিন্তু না, গোল্লাপাড়া মহল্লার প্রান্তিক কৃষক নূর মোহাম্মদের নিজস্ব ধান গবেষণা ক্ষেত।

কাছে গিয়ে দেখা যাবে- লাল, বেগুনি, সোনালি, সবুজ, খয়েরি, সাদাগুঁটিসহ নানা প্রকার ধানে ভরপুর পুরো ক্ষেত। কৃষক বাবার হাত ধরেই কৃষিতে হাতেখড়ি। এরপর দীর্ঘ গবেষণার পথ পাড়ি দিয়ে তিনি সংকরায়ণের মাধ্যমে একের পর এক বিভিন্ন জাতের নতুন ধানের উদ্ভাবন করেছেন। চালিয়ে যাচ্ছেন আরও গবেষণা। বছর বছর উদ্ভাবন করছেন নতুন ধানের বীজ। এ বছরও তিনি গবেষণার মাধ্যমে আরও একটি নতুন ধানের জাত উদ্ভাবন করেছেন।

আজন্ম কৃষক নূর মোহাম্মদের উদ্ভাবনকৃত নতুন জাতের ধানের সংখ্যা দুই শতাধিক। তার নতুন জাতের ধানের উদ্ভাবনের স্বীকৃতিস্বরূপ রাষ্ট্রীয় স্বর্ণপদক পেয়েছেন।

নূর মোহাম্মদের উদ্ভাবনী ধান খরাসহিষ্ণু। নতুন উদ্ভাবনকৃত জাতের নাম দিয়েছেন এনএমকেপি-১০৫ (নূর মোহাম্মদ কৃষি পরিষেবা)। এ বছর তার নতুন উদ্ভাবনী ধান বোরো মৌসুমে বপন করা যাবে। এ জাতের ধান ১৩০ দিনের মধ্যেই কাটা যাবে। দেশের প্রচলিত বোরো ধান বপন থেকে শুরু করে কাটা পর্যন্ত সময় লাগে ১৪০ দিন। তার নতুন এই জাতের ধান কৃষক ১০ দিন কম সময়ে ঘরে তুলতে পারবেন।

সম্প্রতি বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইন্সটিটিউট (ব্রি) ফলিত গবেষণা বিভাগের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. বিশ্বজিৎ কর্মকার নূর মোহাম্মদের ক্ষেত পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি বলেন, প্রান্তিক কৃষক নূর মোহাম্মদের শিক্ষাগত যোগ্যতার কোনো সনদ নেই। কিন্তু তার রয়েছে ধান নিয়ে নতুন নতুন উদ্ভাবনী চিন্তা। স্বশিক্ষিত এই বিজ্ঞানীর কাজ আমলে নিয়েছে বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইন্সটিটিউটের বিজ্ঞানীরা। সংকরায়ণ করে একের পর এক নতুন ধানের জাত উদ্ভাবনে অভিজ্ঞ হয়ে উঠেছেন এই প্রান্তিক কৃষক। তার উদ্ভাবনী বিভিন্ন ধানের জাত স্বীকৃতির অপেক্ষায় রয়েছে।

এলাকার কৃষকরা বলছেন, নূর মোহাম্মদ দীর্ঘদিন থেকেই ধান নিয়ে গবেষণা করছেন। তার চিন্তা ও গবেষণায় একের পর এক নতুন জাতের ধান উদ্ভাবন করা সম্ভব হয়েছে। এসব জাতের ধান তিনি এ অঞ্চলের কৃষকদের মাঝে ছড়িয়ে দিয়েছেন। তার উদ্ভাবনী ধান এখন অনেক কৃষক চাষাবাদ করছেন। এর ফলে কৃষকরা কম খরচে এবং কম সময়ে অধিক ফসল ঘরে তুলতে পারছেন।

ইতোমধ্যেই তিনি রাজশাহী অঞ্চলসহ সারা দেশে ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন। এছাড়া খরাপ্রবণ এলাকা হিসেবে পরিচিত বরেন্দ্র অঞ্চলের বিলুপ্ত হওয়া প্রায় তিনশ' জাতের  ধানের বীজ সংরক্ষণে রেখেছেন নূর মোহাম্মদ। বিলুপ্ত হতে চলা এসব ধান বীজ সংরক্ষণ এবং ধান নিয়ে চিন্তা ও গবেষণা করতে করতে তিনি হয়ে উঠেছেন ধান বীজ বিজ্ঞানী।

দরিদ্র এই আদর্শ কৃষক নূর মোহাম্মদ তার নিজের মাটির বাড়িকে বানিয়ে ফেলেছেন বিলুপ্ত প্রায় ধান বীজের গবেষণাগার।

স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত আদর্শ কৃষক নূর মোহাম্মদ বলেন, চলতি রোপা আমন মৌসুমে এক একর জমিতে ৭৪ জাতের ধান লাগিয়েছেন। সংকরায়ণের মাধ্যমে এবার নতুন প্রজাতির একটি জাত উদ্ভাবন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ এগ্রিকালচার ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশনের (বিএডিসি) রাজশাহী এবং রংপুর বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত যুগ্ম পরিচালক দোলোয়ার হোসেন বলেন, ধান বীজ গবেষক নূর মোহাম্মদ দেশের সম্পদ ও গর্ব। দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন জাতের ধান নিয়ে তিনি কাজ করছেন। কৃষি বিভাগ সব সময়ই নূর মোহাম্মদকে সব ধরনের সহযোগিতা করছে। তার প্লট ধান বিজ্ঞানীদের পরিদর্শন করানো হয়েছে। অন্য বিজ্ঞানীরাও তার প্লট পরিদর্শনে আসার কথা রয়েছে। আশা করছি এই প্রান্তিক কৃষকের মাধ্যমে দেশি জাতের হারানো অনেক জাতের ধান ফিরে পাওয়া সম্ভব হবে।

আরও পড়ুন
দেশের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • জানুয়ারিতে ঘর পাবে ‘আম্ফানে’ ক্ষতিগ্রস্ত এক হাজার পরিবার  

  • করোনার টিকায় অগ্রাধিকার পাবেন স্বাস্থ্যকর্মী ও বয়স্করা

  • ২০২২ সালের মধ্যে সব ভোটার স্মার্টকার্ড পাবেন 

  • ২০২১ সালের জুনে পায়রা সেতুতে যান চলাচল শুরু 

  • ভ্যাকসিন সংরক্ষণ ও সরবরাহের প্রস্তুতি নিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

  • সঞ্চয়পত্রে আস্থা, বিনিয়োগের উত্তম জায়গা ডাকঘর

  • চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর, আসছে দুটি বিসিএসের প্রজ্ঞাপন 

  • ‘জুমায় সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী বক্তব্য প্রচার করতে হবে’

  • করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ১২ হাজার পরিবার ৫ হাজার করে টাকা পাবে 

  • ৪ বছরের মধ্যে ঢাকা শহরের বৈদ্যুতিক তার ভূগর্ভস্থ করা হবে

  • মাস্ক পরা নিশ্চিতে আরো কঠোর হচ্ছে সরকার 

  • প্রণোদনা প্যাকেজ নিয়ে অর্থ মন্ত্রণালয় মতবিনিময় সভা করবে 

  • নতুন কারিকুলামে অষ্টম থেকেই কর্মমুখী শিক্ষার সুযোগ

  • এসএমই খাতে ৬ শতাংশ সুদে ঋণ

  • ‘হাসিনা-মোদি ভার্চুয়াল বৈঠকে ৪টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর’ 

  • করোনা মোকাবিলা করে এগিয়ে চলছে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার রেললাইনের কাজ

  • ঝিনাইদহে ৯১ কোটি টাকা ব্যয়ে ৭ মডেল মসজিদ নির্মাণ

  • সৌদি আরবের যুবরাজকে ‘মুজিববর্ষ’ উদযাপনে আমন্ত্রণ

  • জাজিরা থেকে শুরু হয়ে পৌঁছে গেল মাওয়া প্রান্তে

  • ডিজিটাল সেন্টারগুলো হবে অর্থনীতির নতুন কেন্দ্র: পলক

  • করোনার টিকা নিয়ে চিন্তার কিছু নেই: প্রধানমন্ত্রী 

  • জনসেবায় চার কোটি টাকার জমি দিলেন এমপি

  • বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যকে কেন্দ্র করে ধর্মভিত্তিক দলের নাশকতার ছক 

  • ই-পাসপোর্টের চাহিদা বাড়ছে, ভোগান্তি কমছে 

  • ভাস্কর্য আর মূর্তি এক নয়: সম্মিলিত ইসলামী জোট 

  • অর্থপাচারকারীদের যাবতীয় তথ্য চেয়েছে হাইকোর্ট

  • বাংলাদেশে ব্যাপকভাবে বিনিয়োগে আগ্রহী সৌদি আরব

  • বিষয় যখন ভাস্কর্য কিছু বলা অপরিহার্য

  • সিঙ্গাপুরের চেয়েও শক্তিশালী বাংলাদেশের অর্থনীতি 

  • ঢাকাকে আধুনিক করতে বিশেষ পরিকল্পনা

  • দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর পৌনে ৬ কিলোমিটার

  • ডিসেম্বরের মধ্যে বসবে পদ্মা সেতুর বাকি ৪ স্প্যান

  • ১৬ ডিসেম্বর চিলাহাটি-হলদিবাড়ি লাইনে রেল চলাচল শুরু: রেল মন্ত্রী

  • বুড়িগঙ্গা-তুরাগ তীরে নির্মাণ হচ্ছে ডিজিটাল ওয়াকওয়ে

  • ৮টি এলএনজি ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে

  • ১০ মডেল গ্রামের মানুষ পাবে শহরের সব সুবিধা

  • জুড়ীতে ৪ কোটি টাকায় নির্মাণ হচ্ছে বৃন্দারঘাট ব্রিজ

  • নেপালের বিপক্ষে সিরিজ জয় বাংলাদেশের

  • দুই শতাধিক নতুন জাতের ধানের উদ্ভাবক স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত নূর

  • মেট্রোরেল প্রকল্পের প্রথম অংশের কাজ এখন দৃশ্যমান

  • গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়নে সরকারের বৃহৎ পরিকল্পনা 

  • জন্মের পরই ইউনিক আইডি পাবে শিশু 

  • ভ্যাকসিনের জন্য ১০০০ কোটি টাকা বুকিং দিয়েছে বাংলাদেশ

  • ‘বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরে ১৫ লাখ কর্মসংস্থান হবে’

  • এশিয়ার ‘আউটস্ট্যান্ডিং লিডার’ পুরস্কার পেলেন আজিজ খান

  • চুয়াডাঙ্গায় ১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নিরাপদ পানির পাম্প চালু  

  • এক বছরে ই-কমার্স লেনদেন বেড়েছে ১০৮ শতাংশ

  • বিশ্বের সেরা ২০ নারী ক্রিকেটারের একজন মুর্শিদা

  • কুমির চাষে সম্ভাবনা দেখছে বাংলাদেশ

  • বিমানের বহরে যুক্ত হচ্ছে ‘ধ্রুবতারা’, নাম দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

  • অ্যান্টিবায়োটিকের যথেচ্ছ ব্যবহারের ঝুঁকি মারাত্মক : প্রধানমন্ত্রী

  • চমেকে ১০০ শয্যার পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসা সেন্টার হচ্ছে 

  • প্রত্যেক উপজেলায় ফায়ার স্টেশন হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • ই-পাসপোর্টের চাহিদা বাড়ছে, ভোগান্তি কমছে 

  • এশিয়ার সেরা ১০ ফুটবলারের তালিকায় বাংলাদেশের সাদ

  • সিঙ্গাপুরের চেয়েও শক্তিশালী বাংলাদেশের অর্থনীতি 

  • রাত আটটার মধ্যে দোকান-পাট বন্ধের আহ্বান

  • পদ্মা সেতুর পৌনে ৬ কিলোমিটার দৃশ্যমান

  • নাটোরে মাস্ক না পরায় ৪০ জন আটক

  • সুফিয়া কামালের আদর্শ বাঙালি নারীর প্রেরণার উৎস : প্রধানমন্ত্রী