বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৩৮২

ঢাকা ইনার রিং রোড প্রকল্প: কমবে যানজট বাড়বে গতি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭ জানুয়ারি ২০২১  

ঢাকা শহরের যানজট কমিয়ে গাড়ির গতিবেগ বাড়াতে ইনার রিং রোড প্রকল্প বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এ উদ্যোগ বাস্তবায়িত হলে বহুমুখী যোগাযোগ সৃষ্টি হবে এবং শহরে গাড়ির চাপ কমবে। ৯১ কিলোমিটারের এ বৃত্তাকার সড়ক নির্মাণ প্রকল্প বাস্তবায়নে সম্ভাব্য ব্যয় চিন্তা করা হচ্ছে প্রায় ১৪ হাজার কোটি টাকা।

জানা যায়, দুটি ভাগে এ উদ্যোগ বাস্তবায়ন করা হবে। পূর্বাংশের ২৪ কিলোমিটার বেড়িবাঁধ বা এলিভেটেড বাস্তবায়ন করবে পানি উন্নয়ন বোর্ড। এ সংস্থার নেতৃত্বে ওই অংশের সমীক্ষা প্রণয়নের কাজ চলছে। আর বাকি ৬৭ কিলোমিটার সড়ক এবং প্রয়োজনীয় অন্যান্য অনুষঙ্গ বাস্তবায়ন করবে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর (সওজ)। ইতোমধ্যে এ অংশের সমীক্ষার কাজ শেষ হয়েছে। প্রকল্প প্রণয়নের কাজ শুরু করেছে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা।

এ প্রসঙ্গে সড়ক ও জনপথ বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. সবুজ উদ্দিন খান বলেন, ‘সংশোধিত কৌশলগত পরিবহণ পরিকল্পনায় (আরএসটিপি) ইনার রিং রোড বাস্তবায়নের সুপারিশ করা হয়েছে। আরএসটিপির প্রস্তাবিত এ প্রকল্প বাস্তবায়নের দায়িত্ব পেয়েছে সওজ এবং পাউবো। সরকারি অর্থায়নে অংশ বিশেষ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে। আর বাকি কাজের জন্য এশিয়ান অবকাঠামো বিনিয়োগ ব্যাংকের কাছে ঋণ চাওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে তারা ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘টার্গেট অনুযায়ী পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে। আগামী ৫ বছরের মধ্যে সওজ দায়িত্বপ্রাপ্ত অংশের কাজ সম্পন্ন করতে পারবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে ঢাকা শহরের গাড়ির চাপ কমার পাশাপাশি অর্থনৈতিক উন্নতি এবং শহরের বাসযোগ্য পরিবেশ নিশ্চিতে ভূমিকা রাখবে।’

সংশ্লিষ্টরা জানান, ঢাকার তেরমুখ থেকে আব্দুল্লাহপুর হয়ে গাবতলী-বাবুবাজার দিয়ে ডেমরা পর্যন্ত বৃত্তাকার সড়কপথের কাজ বাস্তবায়ন করবে সওজ। বেড়িবাঁধ সড়ক ধরে সোয়ারীঘাট পর্যন্ত গিয়ে ব্রিজ নির্মাণ করে কেরানীগঞ্জের ভেতর ঢুকে আবার পোস্তগোলা দিয়ে বেরিয়ে ডেমরার বালু নদীর কাছে গিয়ে শেষ হবে এ অংশ। সেখান থেকে পরবর্তীতে পাউবো বেড়িবাঁধ বা এলিভেটেড সড়ক করে রিং রোড বাস্তবায়ন করবে।

সংশ্লিষ্টরা আরও জানান, বিদ্যামান বেড়িবাঁধ সড়কটি দুই লেনের। এ সড়কে আরও আটটি লেন বাড়ানো হবে। বর্ধিত ৮ লেনসহ ঢাকা রিং রোড হবে ১০ লেনের। বুড়িগঙ্গা নদীর ওপর নতুন করে দুটি ব্রিজ নির্মিত হবে। এগুলো হবে ৮ লেন-বিশিষ্ট।

পোস্তগোলা ব্রিজে অতিরিক্ত ৬ লেন যুক্ত করা হবে। এসব ব্রিজ নির্মাণে ব্যয় হবে অন্তত দুই হাজার কোটি টাকা। রিং রোডে বিরতিহীন চলাচল নিশ্চিত করতে গাবতলী, হাজারীবাগ, কদমতলী এবং চাষাঢ়ায় ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হবে। আর বিরুলিয়া, বছিলা, পঞ্চবটি ও হাজীগঞ্জে ওভারপাস নির্মাণ করা হবে। একই সঙ্গে পোস্তগোলা অংশে একটি ইউলুপ নির্মাণের চিন্তা করছে সওজ। আর প্রথম পর্বে ধউর থেকে গাবতলী এবং পোস্তাগোলা থেকে চাষাঢ়া পর্যন্ত ২৪ কিলোমিটার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে প্রকল্প প্রণয়ন করা হচ্ছে। এ কাজ বাস্তবায়নে সম্ভাব্য ব্যয় চিন্তা করা হয়েছে দুই হাজার ১০০ কোটি টাকা।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) অধ্যাপক ড. সামসুল হক বলেন, ‘ঢাকার পাশে রিং রোড প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে ঢাকার ট্রাফিকগুলো বিভাজন হয়ে যাবে। শহরে গাড়ির চাপ কমবে, যানজট কমবে এবং সড়কে গাড়ির গতি বাড়বে। উন্নত শহরগুলো রিং রোডের সুবিধা ভোগ করছে। যেমন-লন্ডন শহরে ৫টি রিং রোড এবং বেইজিং শহরে ৬টি রিং রোড। ঢাকা শহরে এখনো কোনো রিং রোড তৈরি করা সম্ভব হয়নি।’

তিনি বলেন, ‘রিং রোড হলে পদ্মা সেতু দিয়ে ঢাকায় প্রবেশকারীরা যার যার সুবিধামতো রিং রোড ব্যবহার করে সেখানে চলে যাবেন। যে লোক উত্তরা যাবেন, তার পোস্তগোলা ব্রিজ দিয়ে ঢাকায় প্রবেশ করার কোনো যৌক্তিকতা নেই। তিনি বছিলা বা গাবতলী এলাকা দিয়ে ঢাকায় প্রবেশ করে বেড়িবাঁধ সড়ক ব্যবহার করে সে এলাকায় চলে যেতে পারবেন। অন্যান্য এলাকার যাত্রীরাও একইভাবে রিং রোডের সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। রিং রোড বাস্তবায়নের প্রতি সরকারকে বিশেষ দৃষ্টি দিতে হবে।’

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্সের (বিআইপি) সাধারণ সম্পাদক ড. আদিক মুহাম্মদ খান বলেন, ‘পরিকল্পিত শহরগুলো তৈরির সময় রিং রোড তৈরি করা হয়। ঢাকা অপরিকল্পিতভাবে গড়ে ওঠার কারণে এখন রিং রোড নিয়ে ভাবতে হচ্ছে। আর ঢাকা শহরের বর্তমান ট্রাফিকের যে অবস্থা, এ ধরনের প্রকল্প বাস্তবায়ন করা ছাড়া এ শহরকে বাসযোগ্য রাখা সম্ভব হবে না।’

জানতে চাইলে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) পরিকল্পনাবিদ ও ডিটেইল্ড এরিয়া প্ল্যানের (ড্যাপ) প্রকল্প পরিচালক মো. আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘যে কোনো শহরে রিং রোড ইতিবাচক ফল বয়ে আনে। গাড়ির চাপ কমে, অভ্যন্তরীণ যানজট কমে এবং গাড়ির গতিবেগ বাড়ে। এ কারণে ঢাকা শহরকে আরও গতিশীল করতে রিং রোড করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ড্যাপের প্রস্তাবনায় ইনার ও আউটার রিং রোডের প্রস্তাব করা হয়েছে। এ দুটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হলে ঢাকা শহর অনেকাংশে বদলে যাবে।’

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • প্রয়োজনে আরও টিকা ক্রয় করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • কমলগঞ্জে পাকা ঘরে উঠলেন ৬০ গৃহহীন পরিবার

  • তারল্য বাড়াতে ১০০ কোটি ডলারের বন্ড ছাড়বে আইসিবি

  • দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পাচ্ছে নিরপরাধরা

  • টিকায় এগিয়ে বাংলাদেশ

  • ‘কাজ ঝুলিয়ে রাখা ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে’

  • প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের কড়া নির্দেশনা

  • অ্যান্টিবায়োটিকের যত্রতত্র ব্যবহার বন্ধে প্রধানমন্ত্রীর ৬ প্রস্তা

  • সিলেটে ঘর পাচ্ছে ৪১৭৮টি পরিবার

  • ধর্ষণের হুমকিতে আমি ভয় পায় না: নুসরাত

  • মুক্তমনে স্বাধীনভাবে খেলছে শিশুরা

  • আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড পেলেন ঢাবি ছাত্রী সাজিয়া

  • যুক্তরাষ্ট্রের পাঠ্যপুস্তকে রাজুব ভৌমিকের আরেকটি বই

  • দেশের ইতিহাসে প্রথম টিকা নিচ্ছেন নার্স রুনু

  • কৃষিযন্ত্রের বাজার বাড়ছে

  • নির্ভরতার কৃষিতে ছুটছে অর্থনীতির চাকা

  • মাষকলাইয়ে আগ্রহ ফেরাতে প্রণোদনা

  • ‘সৌন্দর্যের’ কাঠবাদামে বাণিজ্যিক সম্ভাবনা

  • ধান চাষে বেড়েছে প্রযুক্তির ব্যবহার

  • দ্বিগুণ লাভে গাজর চাষে বিপ্লব!

  • বৈশ্বিক উদ্যোগ ব্যর্থ অর্থ ও সদিচ্ছার অভাবে: প্রধানমন্ত্রী

  • চাল আমদানির ফলে বাজার স্থিতিশীল হয়েছে: কৃষিমন্ত্রী

  • আগামী বছরের জুনেই শেষ হবে পদ্মাসেতুর কাজ

  • টিকা প্রদানে প্রস্তুত কুর্মিটোলা হাসপাতাল

  • সারাদেশে টিকাদান ৭ ফেব্রুয়ারি শুরু: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • মার্চে খুলছে ঢাবির হল

  • দক্ষিণ এশিয়ায় একমাত্র বাংলাদেশেরই বাড়ছে জিডিপি

  • পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ফোন করবেন জন কেরি

  • বাসা-ভাড়াটিয়ার তথ্য সংগ্রহ করবে ডিএমপি

  • ঘরে বসেই খাজনা পরিশোধ: ভূমিমন্ত্রী

  • মুজিবর্ষে ৭০ হাজার গৃহহীন পরিবারকে ঘর দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • অনুমোদন পেল বাংলাদেশে উদ্ভাবিত কোভিড টেস্ট কিট

  • বিনাশুল্কে চীনের বাজারে যাচ্ছে ৮২৫৬ বাংলাদেশি পণ্য

  • স্বপ্নের মেট্রোরেল: উত্তরা থেকে আগারগাঁও ৮০ ভাগ কাজ সম্পন্ন

  • ২০২৩ সালের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-২ উৎক্ষেপণ

  • বাংলাদেশে পৌঁছালো ভারতের উপহারের ২০ লাখ ডোজ টিকা

  • ৩ থেকে ৫ কোটি টাকা ঋণ পাবে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের উদ্যোক্তারা

  • আজ ‘স্বপ্ননীড়ে’ পা রাখছে ৬৬ হাজার ১৮৯ পরিবার

  • বাড়ি পেয়ে প্রধানমন্ত্রীর দীর্ঘায়ু কামনা করলেন গৃহহীনরা

  • কারা নিতে পারবেন না করোনা ভ্যাকসিন

  • দেশের প্রথম স্বয়ংক্রিয় দুগ্ধ খামার চালু

  • ২০৩০ সালে শিল্পখাতের উৎপাদনশীলতা হবে ৫.৬ শতাংশ: শিল্পমন্ত্রী

  • আপাতত সপ্তাহে একদিন ক্লাসের পরিকল্পনা : শিক্ষামন্ত্রী

  • ১৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে টিসিবির পেঁয়াজ

  • ৫০ বছর পর সুন্দরী খাল সংস্কার

  • নতুন ৬টি দেশে শ্রমিক পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছে সরকার

  • শাহজালাল বিমানবন্দর হবে দক্ষিণ এশিয়ার কেন্দ্রবিন্দু

  • দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের কৃষির উন্নয়নে হচ্ছে বিশ্বমানের গবেষণাকেন্দ্র

  • সর্বপ্রথম ভ্যাকসিন নিতে অর্থমন্ত্রীর আগ্রহ প্রকাশ

  • এক ‘মা’ জন্ম দিয়েছেন, আরেক ‘মা’ দিলেন ঘর

  • করোনা টিকা নিয়ে গুজব রোধে সতর্ক সরকার

  • দেশের সব নদী দখলমুক্ত করা হবে: নৌপ্রতিমন্ত্রী

  • আগামী মাসে বাড়ি পাচ্ছে আরও ১ লাখ পরিবার

  • বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুকে তুলে ধরতে ৫০ দেশ ঘুরবে গাড়ি

  • দু-একদিনের মধ্যেই আরও ৫০ লাখ টিকা আসবে: পাপন

  • চলতি অর্থবছরে ১২ শিল্পনগরী স্থাপন হচ্ছে: শিল্পমন্ত্রী

  • নয়াদিল্লির রাজপথে কুচকাওয়াজে বাংলাদেশের সেনা বাহিনী

  • অবশেষে ফেব্রুয়ারিতে খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

  • বাংলাদেশের কেনা টিকার প্রথম চালান আসবে ২৫ জানুয়ারি

  • কুমিল্লায় অতিথি পাখির মিলনমেলা