বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৫৬৪

ঢাকাজুড়ে ২৫০ কিলোমিটার সাবওয়ে

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২০  

রাজধানী ঢাকাকে নিরবচ্ছিন্ন নেটওয়ার্কের মধ্যে নিয়ে আসতে সাবওয়ে প্রকল্পের সম্ভাব্যতা যাচাইয়ের প্রাথমিক কাজ শেষ হয়েছে। আগামী বছর জুলাই-আগস্টের মধ্যে চূড়ান্ত প্রতিবেদন এবং নকশা পাওয়া যাবে। প্রাথমিক প্রতিবেদন অনুযায়ী রাজধানী ঢাকার তলদেশে প্রায় ২৫০ কিলোমিটার সাবওয়ে তৈরি করার প্রস্তাব এসেছে। এটি বাস্তবায়নে ৩০ বছর সময় নেওয়া হবে।

প্রাথমিক প্রতিবেদন পাওয়ার পর সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগ ইতিমধ্যে প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য অর্থের সংস্থান করতে কাজ শুরু করেছে। প্রকল্প প্রস্তাব তৈরি করা হচ্ছে সরকারের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগে পাঠানোর জন্য। একই সঙ্গে সেতু বিভাগ নিজেরাও অর্থায়নের জন্য বিভিন্ন দাতা সংস্থা ও দেশের সঙ্গে যোগাযোগ করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। দাতা সংস্থার সহযোগিতা পেলে বছরে অন্তত একটি সাবওয়ে তৈরির কাজ শুরু করার আশা করছে সেতু বিভাগ। 

সেতু বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, রাজধানী ঢাকাকে যানজটমুক্ত এবং এক স্থান থেকে অন্য স্থানে নগরবাসীর যাতায়াত সহজ করতে সেতু বিভাগ পুরো রাজধানী জুড়ে সাবওয়ে তৈরির পরিকল্পনা গ্রহণ করে। এরই অংশ হিসেবে ২০১৮ সালে শুরু হয় সাবওয়ে প্রকল্পের সমীক্ষার (ফিজিবিলিটি স্টাডি) কাজ। স্পেনের টিপসা নামের একটি প্রতিষ্ঠান জয়েন্টভেঞ্চারে বাংলাদেশি আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠানকে সঙ্গে নিয়ে ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বরে সমীক্ষা শুরু করে পুরো রাজধানী জুড়ে। ৩১৭ কোটি টাকার এই প্রকল্পে ইতিমধ্যে সমীক্ষার একটি প্রাথমিক প্রতিবেদনও হাতে পেয়েছে সেতু বিভাগ। 

ওই প্রতিবেদন অনুযায়ী, রাজধানী ঢাকার তলদেশে প্রায় ২৫০ কিলোমিটার সাবওয়ে নির্মাণের কথা বলা হয়েছে। এতে মোট ১১টি লাইন রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে। এর মধ্যে অন্তত পাঁচটি লাইন থাকবে ঢাকার পাশের জেলা এবং কয়েকটি এলাকার সঙ্গে কানেকটিং লাইন হিসেবে। এর একটি লাইন কানেকটিং থাকবে নারয়ণগঞ্জের সঙ্গে, একটি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে, একটি কেরানীগঞ্জের ঝিলমিল প্রকল্পের সঙ্গে, একটি থাকবে পূর্বাচলে এবং একটি সংযোগ থাকবে টঙ্গী হয়ে গাজীপুর পর্যন্ত। এরপর পর্যায়ক্রমে যুক্ত করা হবে মুন্সীগঞ্জ ও নরসিংদীর আশাপাশের এলাকাও। 

সেতু বিভাগ সূত্র জানায়, প্রাথমিক নকশা অনুযায়ী লাইনের নাম চূড়ান্ত না হলেও এখন পর্যন্ত যে ১১টি লাইন পাওয়া গেছে সেগুলোর একেকটির দৈর্ঘ্য ২০ থেকে ৩০ কিলোমিটার। প্রতিটি সাবওয়ে লাইনের এক কিলোমিটার অন্তর অন্তর স্টেশন থাকবে। একই সঙ্গে থাকবে ইন্টারকানেকশন, যাতে সাবওয়েতে চলে যাওয়া নগরবাসী সহজেই এক স্থান থেকে আরেক স্থানে যাতায়াত করতে পারবেন মেট্রো বদলের মাধ্যমে।

সেতু বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে রাজধানীতে মেট্রোরেলে যে কাজ চলছে সেই কাজের সঙ্গে যাতে সাবওয়ে প্রকল্প সাংঘর্ষিক না হয় সে জন্য সবকিছু বিবেচনায় নিয়ে সমীক্ষা প্রতিবেদন এবং প্রাথমিক নকশা দিয়েছে পরামর্শক প্রতিষ্ঠান। বিশেষ করে চলমান মেট্রোরেল প্রকল্পের যেসব লাইন আন্ডারগ্রাউন্ড দিয়ে যাবে সেগুলোর সঙ্গে সম্ভাব্য যেসব জায়গায় কানেকটিং হওয়া দরকার সেসব জায়গায় সাবওয়ে কানেকটিং করা হবে। ইন্টারচেঞ্জও করা হবে। সাবওয়ে প্রকল্পের বিষয়ে জানতে চাইলে সেতু বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী কাজী মো. ফেরদৌস বলেন, এটি একটি দীর্ঘমেয়াদি প্রকল্প। কমপক্ষে ৩০ বছর সময় নিয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। 

তিনি বলেন, ইতিমধ্যে প্রাথমিক সমীক্ষা প্রতিবেদনে সাবওয়ে প্রকল্পের একটি সামগ্রিক চিত্র পাওয়া গেছে। কভিড-১৯-এর কারণে সমীক্ষার কাজ কিছুটা ব্যাহত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আগামী বছর জুলাই-আগস্টের মধ্যে চূড়ান্ত প্রতিবেদন পাওয়া যাবে। 

প্রধান প্রকৌশলী বলেন, ‘ইতিমধ্যে প্রাথমিক প্রতিবেদনের আলোকে আমরা সাবওয়ের প্রকল্প প্রস্তাবনা তৈরির কাজ শুরু করেছি। এই প্রকল্প অনেক ব্যয়বহুল। অনেক অর্থের প্রয়োজন। আমরা প্রকল্প প্রস্তাব তৈরি করে ইআরডিতে পাঠাব। তারা চেষ্টা করবেন দাতা সংস্থা বা বিভিন্ন দেশের সঙ্গে কথা বলে অর্থের সংস্থান করতে। আমাদের দিক থেকেও আমরা অর্থ সংস্থানের জন্য বিভিন্ন পর্যায়ে যোগাযোগ করব।’

তিনি বলেন, ‘এ প্রকল্প বাস্তবায়নে সময় লাগবে। সবকিছু চূড়ান্ত হওয়ার পর যদি আমরা বছরে একটা লাইনের কাজ শুরু করতে পারি, তাহলেও সেটি অনেক বড় কাজ হবে।’

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • মুজিববর্ষে সবার জন্য ঘর নিশ্চিতে সর্বাত্মক কাজ করছে সরকার

  • রেমিটেন্স: গত অর্থবছরের ৪৪% এসেছে সাড়ে ৩ মাসেই

  • নারীদের দক্ষতা বাড়ানোর পরামর্শ

  • রাজশাহীতে চালু হচ্ছে নৌবন্দর

  • জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালে শয্যা বাড়ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • পেঁয়াজে ভারতনির্ভরতা কমাতে চায় বাংলাদেশ

  • সরকারি হস্তক্ষেপে কমেছে আলুর দাম

  • দুর্ঘটনা রোধে চালকদের ‘ডোপ’ টেস্ট করাতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

  • ভাসানচরে প্রস্তুত জাতিসংঘ ভবন, থাকবে পূর্ণাঙ্গ থানা ও ফাঁড়ি

  • বাক্কোর উদ্যোগে ‘বাক্কো অনলাইন প্রফেশনাল ফোরাম’ চালু

  • নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে সবকিছু করে যাচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

  • এসডিজি অর্জনে কৃষির কোনও বিকল্প নেই: কৃষিমন্ত্রী

  • করোনায় নারী উদ্যোক্তারা অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন: স্পিকার

  • পদ্মায় অবৈধভাবে ইলিশ শিকার, ৬২ জেলেকে কারদণ্ড

  • দুর্গাপূজা শুরু, আজ মহাষষ্ঠী

  • কলকাতা ছাড়া পূজা ভাবতেই পারি না : জয়া

  • ইরান-রাশিয়ার কাছে মার্কিন ভোটারদের তথ্য আছে : এফবিআই

  • ডিসেম্বরে আন্তঃদেশীয় রেল যোগাযোগ উদ্বোধন : রেলমন্ত্রী

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে দুর্গোৎসব পালনের আহ্বান রাষ্ট্রপতির

  • অনন্য এক মহানায়ক

  • প্রথম শ্রেণিতে নিয়োগ পাচ্ছেন ৫৪১ জন নন-ক্যাডার

  • বাংলার অমৃত সূর্যোদয়ের প্রবল সম্ভাবনার প্রতীক শেখ রাসেল

  • বেসিস আউটসোর্সিং অ্যাওয়ার্ড পেলো ৮৭ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান

  • জামালপুরে যুক্তরাষ্ট্র শাখা যুবলীগের উদ্যোগে ত্রাণ পেল ৬০৬ পরিবার

  • স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে আখাউড়ার মাছ

  • ‘সমুদ্র অর্থনীতিকে কাজে লাগাতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে’

  • ধর্ষণের ঘটনায় সালিশ বৈঠক কেন অবৈধ নয়: হাইকোর্ট

  • আলুর বাজার মনিটরিং জোরদার করা হবে: কৃষিমন্ত্রী

  • সব শিক্ষার্থীই পরবর্তী ক্লাসে উঠবে: শিক্ষামন্ত্রী

  • ‘নভেম্বরের মধ্যেই বিজেএমসির সব শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ করা হবে’

  • বাংলাদেশ থেকেই টেলিস্কোপে মহাকাশ পর্যবেক্ষণ

  • দেশের প্রথম হাইড্রোলিক এলিভেটর ড্যাম আনোয়ারায়

  • বিমানবাহিনীর আধুনিকায়ন: চীন থেকে আনা হলো ৭ প্রশিক্ষণ বিমান

  • বাড়ছে বিক্রি, ঘুরে দাঁড়াচ্ছে সিমেন্ট শিল্প

  • মুক্তিযোদ্ধা ভাতা বাড়িয়ে ২০ হাজার করার প্রস্তাব

  • দেশে মাটি ছাড়াই চাষ হচ্ছে বিদেশি সবজি

  • বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তালিকায় দেশের তৈরি করোনা ভ্যাকসিন

  • মাটির নিচ দিয়ে তার নেওয়া শুরু হবে সোমবার: তাপস

  • পদ্মায় বসলো ৩৩তম স্প্যান, দৃশ্যমান ৫ কিলোমিটার 

  • জিডিপিতে ১.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি আনবে পদ্মা সেতু: চীন

  • আগামী বছর থেকে গাড়ি তৈরি করবে বাংলাদেশ

  • নিউইয়র্কের সর্বোচ্চ সম্মাননা পেলেন বিশ্বের সবচেয়ে খুদে বিজ্ঞানী

  • সামুদ্রিক মাছ ‘বাংলাদেশিয়াস’ বৈশ্বিক তালিকায় অন্তর্ভুক্ত

  • ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়েছে ইতালি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • হার্ডওয়্যার-সফটওয়্যার-প্রযুক্তি পণ্য রফতানি বাড়ছে

  • বাংলাদেশকে দিল্লির চোখে দেখে না যুক্তরাষ্ট্র: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • খাদ্যশস্য উৎপাদনে বিশ্বে উদাহরণ বাংলাদেশ

  • এবারের ওয়ার্ল্ড ফুড প্রাইজ পাচ্ছেন ডা. সালমা সুলতানা

  • বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ভারত-পাকিস্তানকে পেছনে ফেলল বাংলাদেশ

  • রাজধানীতে ৩ দিন মোটরসাইকেল চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

  • ফটোগ্রাফার হিমেলের ছবি জিতল আন্তর্জাতিক খেতাব

  • টাঙ্গাইলে গণধর্ষণ মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদণ্ড

  • পার্বত্য চট্টগ্রামের ২৮টি পাড়াকেন্দ্র ডিজিটাল হচ্ছে

  • ‘মাধ্যমিকে বার্ষিক পরীক্ষা ছাড়াই ওপরের ক্লাসে উন্নীত করা হবে’

  • দেশের সবচেয়ে বড় সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপাদন শিগগিরই

  • টিসিবি ২৫ টাকায় আলু বিক্রি শুরু করবে বুধবার

  • ২২ দিন ইলিশ ধরা বন্ধ, ১১ হাজার ৪৩৮ জেলে পরিবার পাবে ভিজিএফের চাল 

  • বাধা কাটিয়ে এগিয়ে চলছে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে

  • শিশুদের বন্ধু বঙ্গবন্ধু

  • পুঁজিবাজারে লেনদেনে আজো বেড়েছে সূচক