শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ব্রেকিং:
৫ মাস পর খুললো বিনোদনকেন্দ্র, দর্শনার্থীর উপস্থিতি কম ইউপি তথ্যসেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে এনআইডি সেবা দেওয়ার উদ্যোগ বরিশালে পারিবারিক কৃষিতে সফলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
১৯৮

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় বিশ্বে বাংলাদেশের কণ্ঠস্বর এক কিশোরী

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪ ডিসেম্বর ২০১৯  

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে গত সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের অধিবেশনের সময় জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য বিশ্বের শতাধিক দেশের স্কুলে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছিলেন সুইডিশ কিশোরী গ্রেটা থানবার্গ। পরে এই স্কুল শিক্ষার্থীর আহ্বানে সাড়া দিয়ে নিউ ইয়র্কে সমবেত হয়েছিলেন দুই লাখের বেশি মানুষ। ওই সমাবেশেই জলবায়ু পরিবর্তনে সবেচেয়ে বেশি ক্ষতির সম্মুখীন বাংলাদেশের বিপদের কথাটি তুলে ধরেছিলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন কিশোরী রেবেকা শবনম।

লাখ লাখ মানুষের সামনে দাঁড়িয়ে ১৬ বছরের রেবেকা জানিয়েছিলেন, ঢাকায় বন্যার সময় চাচার কাঁধে চড়ে স্কুলে যেতে হয়েছিল তাকে।

তিনি বলেছিলেন, ‘জাতিগত বিচার ও দারিদ্রতা কীভাবে জলবায়ু জরুরি অবস্থার সঙ্গে পরস্পর সংশ্লিষ্ট তার উৎকৃষ্ট উদহারণ যে দেশটি সেই বাংলাদেশ থেকে আমি এসেছি। জলবায়ু সংকট কেবল পরিবেশগত বিষয় নয়, এটা জরুরি মানবাধিকার ইস্যু’।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে শবনম জানান, তিনি ভেবেছিলেন বাংলাদেশের কথা বলার সময় সমবেত মানুষদের কাছ থেকে নীরবতা ছাড়া আর কিছুই হয়তো পাওয়া যাবে না। তবে ধারণা ভুল প্রমাণ করে জনতা তার কথার জবাব দিয়েছিল সমস্বর গর্জনে।

রেবেকা বলেন, ‘আমরা বাঙালি নারী ও বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে বাস করা রোহিঙ্গা জনগণকে জানাতে চাই বিশ্বের তরুণরা তাদের জীবন ও নিরাপত্তার জন্য ধর্মঘট করছে’।

স্পেনের মাদ্রিদে এখন চলছে ‘অ্যাকশন ফর সারভাইভাল: ভালনারেবল নেশনস কপ-২৫ লিডার্স সামিট’। গতবারের সম্মেলনের তুলনায় এবার বিশ্বনেতারা আরো পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানাবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন শবনম।

তিনি বলেন, ‘কপ-২৫ স্রেফ সতর্কতামূলক (তাপমাত্রা বৃদ্ধির) তথ্য সরবরাহ করবে বলে আমরা আশা করি না, তবে তহবিল, সম্প্রসারণ ও জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার বন্ধে ভূমিকা রাখা হবে বলে আশা করি’।

রেবেকা বলেন, ‘আমি আশা করি তারা কেবল নবায়নযোগ্য সম্পদ রূপান্তরের আহ্বান জানাবেন না, সামনে থাকা দেশগুলোর পরিবর্তনের আহ্বানও জানাবেন তারা’।

নিউ ইয়র্কে সপরিবারে বাস করা শবনম এখনো হাই স্কুলের গন্ডি পার হননি। ছয় বছর বয়সে আমেরিকার মাটিতে পা রেখেছিলেন তিনি।

‘জলবায়ু ধর্মঘটের পর বাংলাদেশকে কেউ যেন ভুলে না যায় এবং আমাদের দাবির জন্য চাপ প্রয়োগ অব্যাহত রাখা যেন নিশ্চিত হয় সেই চেষ্টাই করছি’- বলেন এই বাংলাদেশি কিশোরী।

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • ৫৪ হাজার রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে পাঠাবে না সৌদি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  • প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন আজ 

  • ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ জারির কলঙ্কিত দিন

  • ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ বাঙালীর কলঙ্কজনক স্মৃতি

  • পঁচাত্তরের খুনিদের দায়মুক্তি অধ্যাদেশ এবং আমাদের দায়

  • মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের জন্য প্রধানমন্ত্রীর সুখবর

  • পদ্মা সেতু খুলবে পর্যটনের দুয়ার 

  • ‘ডিজিটাল সহযোগিতায় শক্তিশালী বৈশ্বিক অংশীদারিত্ব প্রয়োজন’

  • সার্কের সহযোগিতায় করোনা পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার আহ্বান

  • শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আন্তর্জাতিক দাবা আসর শুরু

  • জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর বাংলায় প্রথম ভাষণ দেওয়ার ৪৬তম বার্ষিকী 

  • খুলনার নোনা জমিতে কৃষি খামার, মজবুত হচ্ছে গ্রামীণ অর্থনীতি

  • সরকারের সর্বাত্মক প্রচেষ্টায় সৌদি প্রবাসীদের সঙ্কট কাটল 

  • জলবায়ু পরিবর্তন: জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ৫ দফা প্রস্তাব 

  • মসজিদ বিস্ফোরণে হতাহতদের ৫ লাখ টাকা করে দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • ‘বাংলাদেশ-ভারত সহযোগিতা দেনাপাওনার ঊর্ধ্বে’ 

  • দীর্ঘ সময় ক্ষমতায় থাকায় উন্নয়ন দৃশ্যমান হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী 

  • রোহিঙ্গাদের কারণে নানামুখী সমস্যায় পড়েছে বাংলাদেশ

  • ইউরোপে বাড়ছে রপ্তানি সম্ভাবনা

  • ইস্পাত শিল্পে কর্মসংস্থান হলো তিন লাখ মানুষের

  • জাতিসংঘে বঙ্গবন্ধুর প্রথম বাংলায় ভাষণ প্রদান স্মরণে ই-পোস্টার

  • সমুদ্রপথে ১১ দেশ থেকে আসছে পেঁয়াজ

  • রোহিঙ্গাদের প্রতি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত

  • সিটি কর্পোরেশনে নিবন্ধন ছাড়া হাসপাতাল চলবে না

  • ষষ্ঠ থেকে দশম পর্যন্ত যেভাবে মূল্যায়ন করা হবে শিক্ষার্থীদের

  • নেপালকে করোনার চিকিৎসা সামগ্রী দিল বাংলাদেশ

  • বিশ্বব্যাপী বৈষম্য দূর করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

  • উদ্বোধনের অপেক্ষায় দেশের সর্ববৃহৎ সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প

  • বিশ্ববন্ধু বঙ্গবন্ধু

  • শতভাগ উপজেলা বিদ্যুতায়নের পথে, বাকি একটি

  • নতুন সম্ভাবনা সুন্দরবনে, ২৫ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ

  • ‘দেশে তুলা উৎপাদন দিন দিন বাড়ছে’

  • দেশেই হবে আন্তর্জাতিক মানের হেলিপোর্ট টার্মিনাল নির্মাণ

  • শিশু শিক্ষার আধুনিক অ্যাপ তৈরি করলো চুয়েট শিক্ষার্থীরা

  • বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ হবে নারায়ণগঞ্জে

  • কেনার আগে মোবাইলের বৈধতা যাচাইয়ের পরামর্শ বিটিআরসির

  • পিরোজপুরে তৈরি হচ্ছে বিশ্বমানের ক্রিকেট ব্যাট

  • সাড়ে ৬ লাখ ফ্রিল্যান্সার পাবে পরিচয় পত্র

  • আধা ঘণ্টায় গাজীপুর, বদলে যাবে উত্তর দিগন্ত

  • এলইডির আলোয় ঝলমলে ঢাকা

  • অনলাইনেই করা যাবে মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন

  • গোয়াইনঘাটে ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হচ্ছে ৮টি আশ্রয় কেন্দ্র

  • দেশের সব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হবে ডিজিটাল একাডেমি

  • ইলিশ উৎপাদন আরো বাড়াতে একনেকে উঠছে ২৪৬ কোটির প্রকল্প

  • ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি

  • পেঁয়াজ আমদানিতে শুল্ক প্রত্যাহার, প্রজ্ঞাপন জারি

  • পায়রা নদীর ওপর নির্মিত হবে ‘শেখ হাসিনা পায়রা ব্রিজ’

  • নতুন কারা মহাপরিদর্শক হলেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান

  • ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচিতে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন ২২ লাখের বেশি মানুষ

  • ডিজিটাল সেবায় বদলে যাচ্ছে গ্রাম

  • প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পায়রা নদীর ওপর নির্মিত হবে সেতু

  • তিস্তায় পাল্টে যাবে জীবন

  • তিস্তা প্রকল্পে বদলে যাবে উত্তরাঞ্চলের ৫ জেলার মানুষের ভাগ্য  

  • বিলাসবহুল ক্রুজ শীপ এখন বাংলাদেশে, যাওয়া যাবে সেন্টমার্টিন

  • মোংলাকে আধুনিক বন্দরে রূপ দিতে বাস্তবায়ন হবে ১০ প্রকল্প

  • নাটোরে ২২ লাখ টাকার কৃষি প্রণোদনা পাচ্ছেন ৩,০০০ কৃষক

  • জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী

  • ‘পরিকল্পিত উপায়ে দেশব্যাপী রাস্তা নির্মাণে মাস্টারপ্ল্যান হবে’

  • করোনা মোকাবিলায় দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

  • ১০ জেলায় মাছের উৎপাদন বাড়বে ৬৩ হাজার টন