সোমবার   ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৪৯

ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে পর্দা তুলে আফগানিস্তানে খুলেছে বিশ্ববিদ্যালয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর ২০২১  

তালেবান ক্ষমতা দখলে নেওয়ার তিন সপ্তাহ পর খুলতে শুরু করেছে আফগানিস্তানের বিশ্ববিদ্যালয়গুলো। অনেক জায়গায় শ্রেণিকেক্ষের মাঝে পর্দা দিয়ে ছাত্র ও ছাত্রীদের আলাদা করা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের মিত্ররা সেনা সরিয়ে নেওয়ায় তালেবান গত ১৫ আগস্ট কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয়। ২০ বছর পর তারা আবার আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয়।

১৯৯৬ থেকে ২০০১ সালে ক্ষমতায় থাকার সময় মেয়েদের শিক্ষা ও চাকরি করা নিষিদ্ধ করেছিল তালেবান। তবে এবার তারা কিছুটা নমনীয় ভাবমূর্তি প্রতিষ্ঠা করতে চাইছে। তালেবান বলছে, ইসলামী আইন অনুযায়ী নারীদের সব অধিকারই তারা দেবে। তবে বাস্তবে সেটা কেমন হবে সে বিষয়টি এখনও স্পষ্ট নয়। খবর রয়টার্সের

আফগানিস্তানের বড় শহর কাবুল, কান্দাহার এবং হেরাতের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, শ্রেণিকক্ষে নারী শিক্ষার্থীদের আলাদা বসতে হচ্ছে। তাদের পাঠ দেওয়া হচ্ছে আলাদা এবং তাদের চলাচল সীমাবদ্ধ রাখা হয়েছে ক্যাম্পাসের নির্দিষ্ট এলাকায়।

কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আঞ্জিলা ক্লাসে ফিরে শ্রেণিকক্ষ পর্দা দেখার পর বলেছেন, এটা মেনে নেওয়া যায় না। যখন ক্লাসে ঢুকি, আমার তখন ভয় লাগছিল। আমরা ধীরে ধীরে ২০ বছর আগের সময়ে ফিরে যাচ্ছি।

আঞ্জিলা জানান, তালেবান আফগানিস্তানের দখল নেওয়ার আগেও ছাত্র- ছাত্রীরা ক্লাসে আলাদাই বসত। কিন্তু এখন মাঝখানে পর্দা দিয়ে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে।

ক্লাস কীভাবে চালাতে হবে, সে বিষয়ে আফগানিস্তানের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর একটি সমিতির পক্ষ থেকে একটি নীতিমালা করে দেওয়া হয়েছ। ছাত্রীদের হিজাব পড়া এবং তাদের জন্য আলাদা প্রবেশ পথ রাখতে বলা হয়েছে সেখানে।

নারী শিক্ষার্থীদের জন্য নারী শিক্ষক রাখার কথাও বলা হয়েছে ওই নীতিমালায়। তাছাড়া মেয়েদের আলাদা করে পাঠ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে অথবা পর্দা দিয়ে আলাদা করা শ্রেণিকক্ষের কথাও বলা হয়েছে সেখানে।

এটা আনুষ্ঠানিকভাবে তালেবানের বেঁধে দেওয়া নিয়ম কি না, সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেনি রয়টার্স। 

এই নীতিমালার বিষয়ে এবং ভাগ করে দেওয়া শ্রেণিকক্ষের ছবি কিংবা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কীভাবে চলবে সে বিষয়ে তালেবান মুখপাত্র তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেননি।

অবশ্য তালেবান গত সপ্তাহেই বলেছিল, শিক্ষাদান আবারও শুরু করতে হবে, তবে ছাত্র ও ছাত্রীদের আলাদাভাবে রাখতে হবে।

তালেবানের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, আফগানিস্তানের ‘সীমিত সম্পদ এবং জনবল’ বিবেচনায় পর্দা দিয়ে শ্রেণিকক্ষ ভাগ করে দেওয়া ‘খুবই যৌক্তিক’। শ্রেণিকক্ষের দুই পাশে একই শিক্ষকের পাঠ দেওয়াটাই ‘সবচেয়ে ভালো’ উপায়।

তালেবান শাসনে কী ধরনের নিয়ম-নীতি জারি করা হতে পারে তা নিয়ে অনিশ্চয়তার কথা জানিয়েছেন বেশ কয়েকজন শিক্ষক। 

দেশটির পশ্চিমাঞ্চলের হেরাত ইউনিভার্সিটির সাংবাদিকতা বিভাগের একজন শিক্ষক জানান, তিনি এক ঘণ্টার ক্লাসকে দুই ভাগে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। প্রথমে মেয়েদের এবং পরে ছেলেদের পাঠ দেবেন।

তার কোর্সের জন্য নাম লেখানো ১২০ জনের মধ্যে সোমবার চার ভাগের এক ভাগ শিক্ষার্থী ক্লাসে উপস্থিত ছিলেন। অনেক শিক্ষক ও শিক্ষার্থী আগেই দেশ ছেড়েছেন।

ওই শিক্ষক বলেন, শিক্ষার্থীরা আজ খুবই মানসিক চাপে ছিল। আমি তাদের আসা-যাওয়া এবং লেখাপড়া চালিয়ে যেতে বলেছি, সামনের দিনগুলোতে নতুন সরকার এ বিষয়ে নীতিমালা ঠিক করে দেবে।

কাবুলের একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শের আজম জানান, তার প্রতিষ্ঠান ছাত্র-ছাত্রীদের আলাদা ক্লাস নিতে অথবা পর্দা কিংবা কাঠের বোর্ড দিয়ে শ্রেণিকক্ষ ভাগ করে নিতে বলেছে।

কিন্তু তালেবানের বিজয়ের মধ্যে দিয়ে অর্থনৈতিক সঙ্কট আরও বেড়ে যাওয়ার ফলে কতজন শিক্ষার্থী ক্লাসে ফিরবে সে বিষয়ে তিনি নিশ্চিত নন।

তিনি বলেন, আমি জানি না কতজন শিক্ষার্থী ফিরবে। কারণ এখন আর্থিক সঙ্কট রয়েছে এবং বেশ কিছু শিক্ষার্থীর পরিবার কাজ হারিয়েছে।

আরও পড়ুন
আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • আবার চালু হচ্ছে স্পট রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে টিকাদান

  • নিরাপদ নগর সূচকে ঢাকা এগোলো আরো দুই ধাপ

  • ৫৯ আইপি টিভি বন্ধ করলো বিটিআরসি 

  • স্কুল-কলেজে বাড়ছে সাপ্তাহিক ছুটি

  • ৯ পৌরসভাসহ ১৬০ ইউপিতে ভোটগ্রহণ আজ

  • ঘরে বসেই মিলবে রাজউকের সেবা 

  • ১ অক্টোবর থেকে বিএসএমএমইউর বৈকালিক সেবা চালু

  • দুদকের ২ ডজনের বেশি কর্মকর্তার তথ্য সংগ্রহ শুরু

  • ৩০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করবে টিসিবি

  • বাংলাদেশের সুগন্ধি চাল বিশ্বময় সুবাস ছড়াচ্ছে

  • বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় এমপি হচ্ছেন ডা. প্রাণ গোপাল

  • ক্যানসার চিকিৎসায় বাংলাদেশের আরও এক ধাপ উন্নতি

  • ব্রহ্মপুত্র ঘিরে পরিবর্তনের ঢেউ

  • দুর্নীতিতে জিরো টলারেন্স চান প্রধানমন্ত্রী

  • ৫ অক্টোবরই খুলছে ঢাবির হল
    প্রবেশে লাগবে বৈধ পরিচয়পত্র-সনদ

  • ডায়াবেটিস নিয়ে ৭ ভুল ধারণা

  • জেল পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনীও আটক

  • সাপ্তাহিক লেনদেনের ২৩ শতাংশ ১০ কোম্পানির শেয়ারে

  • যে সবজির এক গ্লাস জুসেই মুক্তি মিলবে হার্টের সমস্যার

  • মরুর বুকে শুরু স্থগিত আইপিএলের বাকি অংশ

  • ইসলামী অর্থনীতির লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য

  • মালদ্বীপে বসে মিটিং করছেন ঢাকার নায়িকা

  • মোটরসাইকেলের আদলে কাঠের সাইকেল বানিয়ে তাক লাগালেন হবিগঞ্জের লক্ষণ

  • লাল শাপলায় রঙিন রাবানের বিল

  • ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দূতাবাসে ই-পাসপোর্ট সার্ভিস উদ্বোধন

  • ভ্রমণ পিপাসুদের টানছে রৌমারি বিল

  • ৫ অক্টোবরই খুলছে ঢাবির হল

  • গিনেস বুকে আবারো নাম লেখালেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পার্থ

  • চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি আলু উৎপাদন হয়েছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

  • সংবিধানের আলোকে আগামী দিনে নির্বাচন হবে: কৃষিমন্ত্রী

  • ডিসেম্বরের মধ্যে আসবে ২০ কোটি ডোজ টিকা

  • হচ্ছে উড়াল সড়ক, যোগাযোগের নতুন দিগন্তে হাওর

  • আধুনিকায়ন হচ্ছে দেশের ৫২ রেলস্টেশন

  • পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ

  • ‘২০২৪ সালের মধ্যে দেশে হুন্দাইয়ের গাড়ি তৈরি হবে’

  • বিআরটি’র সার্বিক অগ্রগতি ৬৩.২৭ শতাংশ

  • সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদনের কেন্দ্রস্থল হতে যাচ্ছে উত্তরাঞ্চল

  • ২৪ কোটি টিকা লাইন-আপে রয়েছে: ড. মোমেন

  • চাঁপাইনবাবগঞ্জে নতুন জাতের আম ‘ইলামতি’

  • জন্মসনদ দিয়েও টিকার নিবন্ধন করা যাবে: শিক্ষামন্ত্রী

  • রেলের চাকা ঘুরবে সারা দেশে

  • রূপপুরে চলতি মাসেই নিউক্লিয়ার চুল্লি স্থাপন

  • ‘১৬ কোটি মানুষের বাসস্থান-খাদ্য নিশ্চিত করেছে সরকার’

  • স্কুলের বেতন নিয়ে অভিভাবকদের চাপ নয়: শিক্ষামন্ত্রী

  • মুন্সিগঞ্জের বাঁশ-বেতের পণ্য যাচ্ছে বিদেশে

  • নবম-দশম শ্রেণিতে থাকছে না কোনো বিভাগ: শিক্ষামন্ত্রী

  • এনআইডি না থাকলেও যেভাবে পাবেন করোনার টিকা

  • মুগ্ধতা ছড়াচ্ছে কলাবাগান ঝরনা

  • আড়াই ফুটের গলি এখন ৬০ ফুট প্রশস্ত সড়ক

  • ৫ বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • রপ্তানির নতুন দিগন্ত ইউরেশিয়া

  • দেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বেড়েছে ১৫ শতাংশ

  • জ্বালানি তেল খালাসে নতুন যুগে বাংলাদেশ

  • নিকলী হাওড়ে পর্যটক নৌযানে লাইফ জ্যাকেট বাধ্যতামূলক

  • দ্বীপ রাঙ্গাবালীতে আলোর ঝলকানি

  • টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক, শুভ জন্মদিন

  • পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা থাকছে না

  • মহেশখালীতে ৪শ’ কোটি টাকার বিদ্যুৎ হাব

  • ৩ হাজার কনস্টেবল নিয়োগ: আবেদন করবেন যেভাবে

  • মাসে কোটির বেশি টিকা পাওয়ার ব্যবস্থা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী