শনিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

ব্রেকিং:
৫ মাস পর খুললো বিনোদনকেন্দ্র, দর্শনার্থীর উপস্থিতি কম ইউপি তথ্যসেবা কেন্দ্রের মাধ্যমে এনআইডি সেবা দেওয়ার উদ্যোগ বরিশালে পারিবারিক কৃষিতে সফলতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
৬৬

চাঁদপুরের মতলব-বেড়িবাঁধ সড়ক উন্নয়নে ১২২ কোটি টাকার প্রকল্প

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১ সেপ্টেম্বর ২০২০  

চাঁদপুরের মতলব-মেঘনা-ধনাগোদা-বেড়ীবাঁধ সড়ক উন্নয়নে ১২১ কোটি ৯৩ লাখ টাকার প্রকল্প হাতে নিচ্ছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ। সম্পূর্ণ সরকারি অর্থে বাস্তবায়নের জন্য প্রকল্পটি প্রস্তাব করা হয়েছে পরিকল্পনা কমিশনে।

মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) বৈঠকে প্রকল্পটি উপস্থাপন করা হচ্ছে। অনুমোদন পেলে চলতি বছর থেকে ২০২২ সালের জুনের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে সড়ক ও জনপথ অধিদফতর (সওজ)। এটি বাস্তবায়নের মাধ্যমে চাঁদপুর ও কুমিল্লা জেলা সদরের সঙ্গে মতলব উত্তর উপজেলার উন্নত সড়ক যোগাযোগ স্থাপন হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

পরিকল্পনা কমিশনের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা জানান, প্রস্তাবিত প্রকল্পটি চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে (এডিপি) বরাদ্দহীনভাবে অননুমোদিত নতুন প্রকল্প তালিকায় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। গত ২ মার্চ প্রকল্পটির ওপর অনুষ্ঠিত হয় প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির (পিইসি) সভা। ওই সভায় দেওয়া বিভিন্ন সুপারিশ প্রতিপালন করায় পরিকল্পনা কমিশনের পক্ষ থেকে প্রকল্পটি একনেকে উপস্থাপনের সুপারিশ করা হয়েছে।

প্রকল্পের প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে, চাঁদপুর জেলার মতলব-মেঘনা-ধনাগোদা-বেড়িবাঁধ সড়কটি একটি গুরুত্বপূর্ণ জেলা মহাসড়ক। এটির দৈর্ঘ্য ৬০ কিলোমিটার। সড়কটি মতলব উত্তর উপজেলার পরিধি ঘিরে মেঘনা ও ধনাগোদা নদী রক্ষা বেড়িবাঁধের ওপর অবস্থিত। সড়কটির পাশে ১৬টি লঞ্চঘাট রয়েছে। এই সড়কটি ব্যবহারের মাধ্যমে এ সব লঞ্চঘাট দিয়ে চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলার অধিবাসীরা রাজধানী ঢাকাসহ দেশের অন্যান্য স্থানে যাতায়াত করে থাকেন।

এরই মধ্যে সড়কটির ২০ দশমিক ০৬ কিলোমিটার সড়কাংশে ৫ দশমিক ৫ মিটার প্রস্থে প্রশস্তকরণ ও মজবুতিকরণ করা হয়েছে। অবশিষ্ট ৩৭ দশমিক ৯৪ কিলোমিটার সড়কাংশে বিদ্যমান প্রস্থ ৩ দশমিক ৭ মিটার হওয়ায় সড়কটিতে দু’টি যানবাহন পাশাপাশি অতিক্রম করতে সমস্যা হয়। এ কারণে ৩৭ দশমিক ৯৪ কিলোমিটার সড়কও ৫ দশমিক ৫ মিটার প্রস্থে ‍উন্নীতকরণ ও মজবুতিকরণের জন্য প্রকল্পটি প্রস্তাব করা হয়েছে।

প্রকল্পের আওতায় প্রধান কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে ৪ দশমিক ৮৩ লাখ ঘনমিটার মাটির কাজ (প্রশস্তকরণ), ৩৭ দশমিক ৯৪ কিলোমিটার পেভমেন্ট প্রশস্তকরণ, ৮০০ মিটার বাঁক প্রশস্তকরণ, ১৩ দশমিক ৭৫ কিলোমিটার পেভমেন্ট মজবুতিকরণ, ২৪ দশমিক ২০ কিলোমিটার সার্ভেসিং, তিনটি বাস-বে নির্মাণ, ৬২০ মিটার সসার ড্রেন নির্মাণ, ২৪০ মিটার ক্রস ড্রেন নির্মাণ, ২ হাজার ৪০০ মিটার আরসিসি প্যালাসাইডিং নির্মাণ, ৯ হাজার ১০৫ বর্গ মিটার রোড মার্কিং এবং ৩৭ দশমিক ৯৪ কিলোমিটার নির্মাণকালীণ রক্ষণাবেক্ষণ করা হবে।

প্রকল্পের প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে, সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের নিজস্ব জনবল দিয়ে মূল প্রকল্পটির সম্ভাব্যতা সমীক্ষা করা হয়েছে। ওই সমীক্ষায় উল্লেখ করা হয়েছে, সড়কটি মতলব উত্তর উপজেলার পরিধি ঘিরে মেঘনা ও ধনাগোধা নদী রক্ষা বেড়িবাঁধের ওপর  অবস্থিত। বর্তমানে সড়কটিতে ৩ হাজার ৪১৪টি যানবাহন চলাচল করে থাকে। এর মধ্যে ভারী যানবাহন ৯১৩টি, হালকা ২ হাজার ৫০১টি। সড়কটিতে প্রতিনিয়ত ট্রাফিকের পরিমাণ বাড়ছে। কিন্তু প্রয়োজনের তুলনায় কম প্রশস্ত হওয়ায় এবং অসংখ্য বাঁক থাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা যানবাহনগুলোর সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রায়ই দুর্ঘটনা দেখা দেয়। তাছাড়া এর পাশে ১৬টি লঞ্চঘাট রয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে ওইসব লঞ্চঘাট দিয়ে চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলা অধিবাসীরা নিরাপদে ও স্বল্প সময়ে যাতায়াত করতে পারবে।

প্রকল্পটির ব্যয় বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, প্রকল্পের আওতায় ১৩০টি সাইন ও সিগন্যাল স্থাপনে ব্যয় ধরা হয়েছে ১১ লাখ ৭০ হাজার টাকা। এছাড়া চার হাজারটি কংক্রিট গাইড পোস্ট স্থাপনে ব্যয় হবে ৯৬ লাখ টাকা। ৯ হাজার ১০৫ বর্গমিটার রোড মার্কিংয়ে ব্যয় হবে ১ কোটি টাকা। ৩৮টি কংক্রিট কিলোমিটার পোস্ট স্থাপনে ব্যয় ৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা। ২০টি ডিরেকশনাল সাইনের জন্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১৬ লাখ টাকা এবং নির্মাণকালীন রক্ষণাবেক্ষণ ৫৬ কোটি ৯২ লাখ টাকা ধরা হয়েছে।

এছাড়া মাটির কাজ (প্রশস্তকরণ) ব্যয় প্রস্তাব করা হয়েছে ১৯ কোটি ৮০ লাখ টাকা। পেভমেন্ট প্রশস্তকরণের জন্য ৩৯ কোটি ৭১ লাখ টাকা। পার্শ্ব রাস্তা নির্মাণে ৩৪ লাখ টাকা এবং পেভমেন্ট মজবুতিকরণে ব্যয় প্রস্তাব করা হয়েছে ১৫ কোটি ৬৪ লাখ টাকা।

দেশের খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • নতুন সম্ভাবনা সুন্দরবনে, ২৫ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ

  • শুরুর আগেই সরে দাঁড়ালেন ম্যাকমিলান

  • সিনেমায় আসছেন না মেহজাবীন

  • ভারত থেকে এলো আরও ১৯৯ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

  • নিজ মাদ্রাসায় চিরনিদ্রায় শায়িত আল্লামা শফী

  • মিয়ানমার থেকে এসেছে ৩০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

  • ভোমরা বন্দর দিয়ে ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি শুরু

  • আধা ঘণ্টায় গাজীপুর, বদলে যাবে উত্তর দিগন্ত

  • করোনায় ১১.২ বিলিয়ন আর্থিক সহায়তা দিয়েছে এডিবি

  • ১০ জেলায় মাছের উৎপাদন বাড়বে ৬৩ হাজার টন

  • ২৫ হাজার টন পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিল ভারত

  • ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি

  • গোপালগঞ্জে বাড়ছে ভাসমান সবজি চাষ

  • শিশু শিক্ষার আধুনিক অ্যাপ তৈরি করলো চুয়েট শিক্ষার্থীরা

  • বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ হবে নারায়ণগঞ্জে

  • মহামারি কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি: ওয়াশিংটন পোস্ট

  • করোনায় একমাত্র আওয়ামী লীগই মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

  • শেখ হাসিনাঃ একজন মানবিক নেতা ও ফেনী নদী চুক্তি

  • আইনের বাইরে এ শহরে কেউ  কিছু করতে পারবেন না : মেয়র আতিকুল

  • তিস্তা প্রকল্পে বদলে যাবে উত্তরাঞ্চলের ৫ জেলার মানুষের ভাগ্য  

  • করোনাকালেও খাদ্য উৎপাদনে রেকর্ড বাংলাদেশের

  • পেঁয়াজ আমদানি প্রক্রিয়া সহজ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে

  • মাদক চালান রোধে শিগগির শুরু হচ্ছে মেরিন ইউনিটের কার্যক্রম 

  • সরকারি চাকরিতে বয়স ছাড় দিতে মন্ত্রণালয়গুলোকে নির্দেশ

  • ঘুষ-দুর্নীতিমুক্ত প্রশাসনিক ব্যবস্থা গড়তে চাই: প্রধানমন্ত্রী

  • অটিস্টিক শিশুর স্বপ্ন পূরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • শাহজালাল বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল শুরু

  • ১৪ অক্টোবর থেকে ২২ দিন ইলিশ ধরা বন্ধ

  • ‘পুলিশ সদস্য কোন অন্যায় করে ছাড় পাবে না’

  • বিসিএস ছাড়া সরকারি চাকরিতে বয়স ছাড়ের নির্দেশ

  • চূড়ান্ত ধাপের জন্য প্রস্তুত গ্লোবের ভ্যাকসিন

  • একতলা বাড়ি পাচ্ছেন অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধারা

  • ৫ দেশ থেকে আসছে ১২ হাজার টন পেঁয়াজ

  • ৬টি দেশ থেকে আসছে ৪০ হাজার টন পেঁয়াজ

  • বেড়েছে রপ্তানি, ফিরছে পাটের সোনালি অতীত

  • পর্যটকদের জন্য চালু হচ্ছে ‘হোম স্টে’ সার্ভিস

  • ক্যামব্রিজকে পেছনে ফেলে দ্বিতীয় স্থানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

  • এগিয়ে চলেছে ঢাকা-চট্টগ্রাম ডাবল রেল লাইন নির্মাণের কাজ 

  • ইউএনডিপির নির্বাহী সদস্য হলো বাংলাদেশ

  • লবণাক্ততা সহনশীল ধানের নতুন ৩টি জাত উদ্ভাবন করলো ব্রি

  • ৪ পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় উন্নত বাংলাদেশ বাস্তবায়নের রূপরেখা

  • নোবেল পুরস্কারের জন্য মনোনীত হলেন বাংলাদেশি চিকিৎসক আবিদ

  • মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে মেট্রোরেলের উত্তরা দক্ষিণ স্টেশন

  • জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে ফের প্রথম স্থানে বাংলাদেশ

  • উচ্চতর গ্রেড পাচ্ছেন ৭ হাজার শিক্ষক

  • ৮০ টাকা কেজি পেঁয়াজ, ৬ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

  • বিশ্বে মোট উৎপাদিত ইলিশের ৮৬ শতাংশই বাংলাদেশের

  • মাল্টায় স্বাবলম্বী পিরোজপুরের ৬শ’ চাষি

  • শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা ঋণ চালুর কথা ভাবছে সরকার

  • বন্ধ পাটকল শ্রমিকদের পাওনা দেওয়া শুরু

  • রাজশাহীতে দৃশ্যমান হচ্ছে বঙ্গবন্ধু নভোথিয়েটার

  • অনলাইনে কর সনদ পাবেন সঞ্চয়পত্রের গ্রাহক

  • আসছে ১৬৫ ট্রাক পেঁয়াজ

  • আজ কলকাতার বাজারে উঠছে পদ্মার ইলিশ

  • চামড়া শিল্পে ন্যূনতম মজুরি ৭১০০ টাকা চূড়ান্ত

  • প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে শিক্ষার্থীদের আমরা এক হাজার করে টাকা দেব

  • অনলাইনেও কেনা যাবে টিসিবির পেঁয়াজ

  • চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৬.৮ শতাংশ: এডিবি

  • চলতি মাসে প্রবাসী আয়ে বড় ধরনের উত্থান

  • কাজকর্ম স্বাভাবিক: ঘুরে দাঁড়াচ্ছে দেশের অর্থনীতি