বুধবার   ০৩ জুন ২০২০

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
৩৪৬

গণফোরামের মতামত নিয়ে শপথ নিতে যাচ্ছি: মোকাব্বির 

ডেস্ক নিউজ 

প্রকাশিত: ৬ মার্চ ২০১৯  

গণফোরামের সংখ্যাগরিষ্ঠদের মতামতের ভিত্তিতে শপথ নেয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ৭ তারিখেই শপথ নেবো। সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়ার সময় তো এখনও আসে নাই। যখনই আসবে তখন বলবো। 

ড. কামাল হোসেন যদি কোনো সাংগঠনিক ব্যবস্থার কথা বলেন তাহলে ভিন্ন কথা। কারণ ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে দলের সবগুলো মিটিং হয়েছে। ওই সব মিটিংয়ে সংসদে যাওয়ার ব্যাপারে দুই তিনজন বাদে সবাই ইতিবাচক মতামত দিয়েছেন। আমি গণফোরামের মতামত নিয়ে শপথ নিতে যাচ্ছি। গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির হোসেন এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন।

আপনাদের শপথ গ্রহণের পর ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে কোনো দ্বন্দ্ব বা ঐক্যে ফাটল ধরবে কিনা এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের ঐক্য ছিলো ৩০ তারিখ পর্যন্ত। নির্বাচনী ঐক্য। গণফোরামের রাজনীতি আর বিএনপির রাজনীতির সাথে ঐক্য হয় না। কারণ আমরা বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি করি। শেখ হাসিনার রাজনীতি না। আর উনারা (বিএনপি) করেন তারেক রহমানের রাজনীতি। সুতরাং বঙ্গবন্ধুর রাজনীতি আর তারেক রহমানের রাজনীতি কোনোভাবেই মিলতে পারে না।
 
তিনি বলেন, দলের কার্যকরী সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এই দুজন তাদের ব্যক্তিগত কথা বলছেন। এটা দলীয় মতামত নয়। এটা আমি জোর দিয়ে বলতে পারি। আমদের সংগঠনের সংসদে না যাওয়ার ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। বরং যাওয়ার পক্ষেই সিদ্ধান্ত হয়েছে।

তাহলে ড. কামাল হোসেনের সম্মতিতে আপনারা শপথ নিতে যাচ্ছেন? 

এ প্রশ্নের জবাবে মোকাব্বির হোসেন বলেন, না, আমি বলছি গণফোরামের যে সভাগুলো হয়েছে, বিশেষ করে সেন্টাল কমিটির মিটিং, বর্ধিত সভা, স্থায়ী কমিটির মিটিং হয়েছে সবগুলো মিটিংয়ে ড. কামাল হোসেন সাহেব সভাপতিত্ব করেছেন। সেখানে উনি নিজেই দেখেছেন সংসদে যাওয়ার ব্যাপারে সবাই ইতিবাচক বক্তব্য রেখেছেন ও মনোভাব পোষণ করেছেন। সুতরাং এটা একটা সিদ্ধান্ত। যদিও এই ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত হয়নি।

তিনি বলেন, মিটিংগুলোতে যে সিদ্ধান্ত হয়েছে তা তো রেজুলেশন আকারে থাকার কথা। আসলে রেজুলেশন আকারে হয় নাই। যাওয়ার পক্ষে কারা বক্তব্য দিয়েছেন আর কারা না যাওয়ার পক্ষে বলেছেন এগুলো রেকর্ড আছে। সেন্টাল কমিটির মিটিংয়ের পর ড. কামাল হোসেন সাহেব বলেছেন সংসদে যাওয়ার ব্যাপারে আমরা ইতিবাচক। কারণ সেখানে তিনি ইতিবাচক বলেছেন এজন্য সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামতে সবাই সংসদে যাওয়ার পক্ষে বলেছেন। দুই তিনজন ছাড়া সবাই যাওয়ার পক্ষে মত দিয়েছেন।

কিন্তু এর আগে ড. কামাল হোসেন নির্বাচন প্রত্যাখান করে বক্তব্য দিয়েছেন এখন সেই নির্বাচনের একজন সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিতে যাচ্ছেন তাহলে এটা স্ব-বিরোধীতা হলো না? 

এ প্রশ্নে জবাবে মোকাব্বির হোসেন বলেন, না স্ব-বিরোধীতা হলো না এজন্যই আমরা বিরোধী দল থেকে আমরা যারা বিরোধী দল ছিলাম। আমরা অত্যন্ত প্রতিকূলতার অবস্থার মধ্য দিয়ে নির্বাচিত হয়েছি। জনগণ আমাদের নির্বাচিত করেছে। যারা প্রশাসনের সুবিধা নিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন বলে যাচ্ছেন। তাদের ব্যাপারে এটা প্রযোজ্য। যারা জনগণের ভোটের নির্বাচিত হয়েছে তাদের ব্যাপারে এই বক্তব্য এই সিদ্ধান্ত প্রযোজ্য না।

আপনি বলতে চাচ্ছেন ড. কামাল হোসেন নির্বাচন প্রত্যাখানের কথা বলেছেন সেটা আপনাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়? 

এ প্রশ্নের জবাবে মোকাব্বির বলেন, আমাদের ৮জনকে বাদ দিয়ে বলেছেন। ২৯৯ আসন উনি প্রত্যাখান করেছেন। যেখানে প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে আমরা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছি আমাদের বিজয়কে উনি প্রত্যাখান করেননি।

আরও পড়ুন
সাক্ষাৎকার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • মহামারীর মধ্যে ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলা নিয়ে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী

  • ‘ডিএনসিসির ৩৬টি ওয়ার্ডে হবে স্যাটেলাইট অগ্নি নির্বাপণ স্টেশন’

  • ‘সংকটকে শেখ হাসিনার সরকার সম্ভাবনায় রূপ দিতে কাজ করে যাচ্ছে’

  • স্বপ্নের মেট্রোরেলের প্রথম পর্যায়ের ৭২ শতাংশ দৃশ্যমান

  • নতুন করে আরো ১১টি ট্রেন চালু

  • করোনার জন্য বরাদ্দ ১৬ হাজার কোটি টাকা

  • প্রবাসী পুনর্বাসনে ৭০০ কোটি টাকার তহবিল

  • করোনা সংকটে ৩১০০ কোটি টাকা দিচ্ছে ইইউ

  • সব বাধা অতিক্রম করে দেশ এগিয়ে যাবে : প্রধানমন্ত্রী

  • ডিএসসিসিতে দুর্নীতির লেশমাত্র রাখবো না: মেয়র তাপস 

  • উপজেলা পর্যায়েও টিসিবির পণ্য বিক্রির নির্দেশ হাইকোর্টের

  • জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ নির্দেশনা

  • জীবাণু শঙ্কা-প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রতিরোধের চেষ্টায় প্রধানমন্ত্রী

  • স্বাস্থ্যবিমার আওতায় আসছেন ঢাবি’র সব শিক্ষার্থী

  • লিচুতে ভাগ্যবদল, ফুটপাত থেকে বাড়ি-গাড়ির মালিক

  • এশিয়া সেরা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম

  • ইউনাইটেডে পাঁচ মৃত্যুর ঘটনায় ১৪ জুনের মধ্যে প্রতিবেদন

  • করোনার প্রথম ওষুধ প্রস্তুত দাবি রাশিয়ার

  • লকডাউনের মধ্যেও দেশের মূল্যস্ফীতি ভালো অবস্থানে রয়েছে

  • ‘বাজারের চাইতে এবার বাড়ি থেকেই বেশি ধান বেচাকেনা হচ্ছে’

  • ‘রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা দিতে অবহেলা করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে’

  • দুর্নীতিকে আমি প্রশ্রয় দেব না, বললেন মেয়র তাপস

  • করোনাকালে সরকারের ত্রাণ সহায়তা পেয়েছে সোয়া ৬ কোটি মানুষ

  • কালের কণ্ঠ থেকে ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তফা কামালের ইস্তফা

  • অসুস্থ নায়ক জাভেদকে ১০ লাখ টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • জেলা হাসপাতালে আইসিইউ নিশ্চিতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • ক‌রোনায় প্রতি মি‌নি‌টে আক্রান্ত হচ্ছেন দুজন

  • করোনা আক্রান্ত রোগীদের নিয়ে যেখানে যেতে পারেন

  • মডার্নার ভ্যাকসিন নিয়ে ‘খুব আশাব্যঞ্জক’ ফল পাওয়া গেছে

  • আগামী বছরে নতুন শিক্ষাক্রমে পাঠ্যবই নয়

  • প্রধানমন্ত্রী আমার জন্য হাসপাতালে কেবিন বুকড দিয়েছেন: জাফরুল্লাহ

  • ইভারম্যাকটিন, ডক্সিসাইক্লিন ব্যবহারে করোনা মুক্তির হার বেড়েছে

  • আম্ফান-কাল বৈশাখীর ক্ষতিতেও পূরণ হবে বোরোর লক্ষ্যমাত্রা

  • প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করে জাতিসংঘ মহাসচিবের শুভেচ্ছা

  • অফিস-কারখানায় ১৩ দফা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশ

  • নিজের করোনা পজিটিভ রিপোর্টে নিজেই স্বাক্ষর করেন ডা. শাকিল!

  • মসলা মিশ্রিত হালকা গরম পানিতে উপকৃত হচ্ছেন করোনা রোগীরা

  • করোনা শনাক্তে দেশেই তৈরি হলো ‘ভিটিএম কিট’

  • প্রত্যেক জেলা হাসপাতালে আইসিইউ নিশ্চিতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • করোনাকালীন সংকটেও কৃষির সাফল্য

  • শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সময়সীমা বাড়ল

  • জুন মাসেই প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা পাবে জামা-জুতা কেনার টাকা

  • বিএনপি’র চিন্তাধারা একপেশে: তথ্যমন্ত্রী

  • সীমিত পরিসরে গণপরিবহন চলার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি

  • যেকোনো সঙ্কটে আত্মবিশ্বাসটাই সবচেয়ে বড়: প্রধানমন্ত্রী

  • ১২ লাখ যুবককে আত্মকর্মী তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার

  • ডিএনসিসিতে বিনামূল্যে ডেঙ্গু পরীক্ষা, জানা যাবে তাৎক্ষণিক ফল

  • বঙ্গবন্ধুর ছবিযুক্ত ডাকটিকিট অবমুক্ত করল জাতিসংঘ

  • চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে দুর্যোগ সহনীয় ঘর পেল ১৬ পরিবার

  • শান্তিরক্ষীদের অবদান দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে: প্রধানমন্ত্রী

  • যতদিন না করোনা সংকট কাটবে, আমি পাশে থাকবো: প্রধানমন্ত্রী

  • মৃতের জানাজায় কেউ আসেনি, এসেছিল ‘মানবিক পুলিশ’

  • করোনাকালে জরুরি সাহায্য পেতে ফোন করুন

  • ৬ কোটি মানুষের কাছে পৌঁছেছে সরকারি ত্রাণ

  • দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি.

  • প্রথমবারের মতো শান্তিরক্ষীদের বহন করল বাংলাদেশ বিমান

  • উন্নত ও মানসম্মত চিকিৎসায় ১১১৯ পুলিশ সদস্যের করোনা জয় 

  • অর্ধেক যাত্রী নিয়ে আগের ভাড়ায়ই চলবে ট্রেন

  • স্পটে কাউকে পাওয়া না গেলে ধরে নেবেন তার চাকরি নেই: তাপস

  • এবার স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের উদ্যোগ