মঙ্গলবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১

সর্বশেষ:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে ইসি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ: নূরুল হুদা বারবার আসতে পারব না, যত খুশি সাজা দিন: খালেদা জিয়া ‘আকাশবীণার’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুবনে আবারও বিমান দুর্ঘটনা ট্রেন-বাসের সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২৫ ভুয়া ছবি দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছে মিয়ানমার: প্রধানমন্ত্রী
৯৩১

‘করোনা রোধে ডাক্তারদের অগ্রগণ্য ভূমিকা পালন করতে হবে’

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭ এপ্রিল ২০২০  

করোনাভাইরাস মহামারী প্রাদুর্ভাবে কোভিড-১৯ রোগীর সুনামি ঠেকাতে বহু ডাক্তারকে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে বলে মত দিয়েছেন ভারতের বিখ্যাত কার্ডিয়াক সার্জন ডা. দেবি প্রসাদ শেঠি। এমনকি মেডিকেলের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থীদেরও কোভিড-১৯ রোগীর ওয়ার্ডে পাঠানোর পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস বিষয়ে ভারতের লাইভমিন্ট পত্রিকাকে সাক্ষাৎকার দেন ভারতের খ্যাতনামা বহু বিশেষায়িত চেইন হাসপাতাল ‘নারায়ণ হেলথ ফাউন্ডেশনে’র চেয়ারম্যান ও প্রতিষ্ঠাতা ডা. দেবি প্রসাদ শেঠি।

তার চার দশকের ক্যারিয়ারে বহু গরিবকে বিনামূল্যে অপারেশন করেছেন।

দেবি শেঠি বলেন, মহামারী করোনা মোকাবেলায় ভারত জরুরি স্বাস্থ্য অবস্থার মুখোমুখি। যদি আমরা প্রতিটি স্তর থেকে সব স্বাস্থ্য উপকরণ নিয়ে মাঠে নামতে না পারি তাহলে ইতালির মতো ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছি। সম্প্রতি ভারতের লাইভমিন্ট পত্রিকাকে দেয়া তার সাক্ষাৎকারটি তুলে ধরা হল।

করোনাভাইরাস এবং ইবোলা, সোয়াইন ফ্লু বা অন্য কোনো মহামারীর মধ্যে পার্থক্য কি, যা ভারত এর আগেও মুখোমুখি হয়েছে?

দেবি শেঠি : পার্থক্য হল এ ভাইরাস চরম সংক্রামক। এটি আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসার কয়েক মিনিটের মধ্যেই ছড়ায়। এটি বায়ুবাহিত না হলেও এর মারাত্মক দিক হল এটি হাঁচি-কাশির ফোঁটা থেকে ছড়ায়।

উদাহরণস্বরূপ, যদি আক্রান্ত কেউ মোবাইল ফোনের ওপর হাঁচি দেয় এবং আপনি সেই মোবাইলটি নিলেন, আপনি ভাইরাসের সংস্পর্শে চলে এলেন। এটি দাবানলের মতো ছড়ায়, যেমনটি পুরো বিশ্বে ঘটছে।


একজন থেকে তিনজনে, এভাবে গুণিতক হারে ছড়াচ্ছে। ইতালি এর সঠিক উদাহরণ। দেশটিতে তিন সপ্তাহের কম সময়ে ৩০০ থেকে দুই হাজার জনে সংক্রমিত হয়েছে। এ ভাইরাস মানুষ মারছে না, বরং বিশ্বের পুরো স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে হত্যা করছে।

মহামারী মোকাবেলায় ভারতের জনস্বাস্থ্য কতটুকু প্রস্তুত?

দেবি শেঠি : যুক্তরাজ্যের শক্তিশালী জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা ও যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা এ ভাইরাস মোকাবেলায় সমর্থ হচ্ছে না। ব্যাঙ্গালুরুতে আমাদের মাত্র এক হাজার ভেন্টিলেটর রয়েছে। যদি ভাইরাস ভয়াবহভাবে ছড়ায়, আমাদের ভেন্টিলেটর ঘাটতিতে পড়তে হবে।

আমরা যদি এখনই কার্যকরী পদক্ষেপ না নেই তাহলে ডাক্তারদেরই সিদ্ধান্ত নিতে হবে, কে বাড়ি ফিরে যাবে এবং মারা যাবে আর কাকে হাসপাতালেই মরতে হবে।

এটি কতটা ধ্বংসাত্মক! আর এমনটাই ঘটছে ইতালি এবং যুক্তরাষ্ট্রে। তাহলে আপনিই অনুধাবন করুন, ভারতের পরিস্থিতি কেমন।

সংক্রমণ হ্রাসে সরকার চেষ্টা করছে, কিন্তু আমাদের নাগরিকরা কি যথেষ্ট করছে?

দেবি শেঠি : ভারতের শিক্ষিত শ্রেণিই বেশি হতাশ করছে। আমাদের নিজেদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য সামাজিক দূরত্ব দরকার। এটি বাধ্য করতে সরকার কারফিউ, ১৪৪ ধারা জারিসহ বহু কিছু করেছে। বাধ্যতামূলক লকডাউন ছাড়া সরকারের হাতে বিকল্প কিছু নেই। আমরা এসব উপেক্ষা করছি।

আমাদের ভারতে ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে এখনই স্বাস্থ্য সামগ্রী নিয়ে মাঠে নামতে হবে। আমাদের স্থানীয় কোম্পানির মাধ্যমে এখনই গণহারে ভেন্টিলেটর ও ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) উৎপাদন শুরু করা দরকার। ডিফেন্স রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (ডিআরডিও) মতো সংস্থাকেও এ মিশনে এগিয়ে আসতে হবে।

ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মী সংকটের ব্যাপারে কি বলবেন?

দেবি শেঠি : হ্যাঁ, ইতালির সবচেয়ে বড় সমস্যা হল দক্ষ জনশক্তি ও বেডের অভাব। তাহলে তারা কি করেছিল? দেশটির মেডিকেল কাউন্সিল কোর্স শেষ হওয়ার নয় মাস আগেই শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেট প্রদান করতে সব বিশ্ববিদ্যালয়কে নির্দেশনা দিয়েছিল। এই প্রক্রিয়ায় ইতালি তাৎক্ষণিকভাবে জরুরি মুহূর্তে ১০ হাজার ডাক্তার পেয়েছিল। ভারতেও এখনই এই প্রক্রিয়া অনুসরণ করা দরকার।

ভারতে অধিক পরিমাণে আমলাতান্ত্রিক জটিলতায় এগুলো কতটুকু সম্ভব?

দেবি শেঠি : ডাক্তাররাই আমাদের সম্পদ। আমাদের ৫০ হাজার ডাক্তার, বিশেষজ্ঞ ও মেডিকেল শিক্ষার্থী রয়েছে। আমাদের আরও প্রায় ২০ হাজার শিক্ষার্থী চীন এবং রাশিয়া থেকে মেডিসিনের ওপর স্মাতক করেছেন। পরীক্ষার বিড়ম্বনায় মেডিকেল শিক্ষার্থীদের বন্দি করবেন না। তাদের যোগ্য হিসেবে সার্টিফিকেট দিন এবং এই জরুরি মুহূর্তে স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত করুন।

আমরা জানি, কোনো ডাক্তার কোভিড ইউনিটে দৈনিক ৬ ঘণ্টার বেশি কাজ করতে পারেন না। এজন্য আমাদের ডাক্তারদের বিশাল বহর প্রয়োজন। ভারতের রাজ্যগুলোতে বহু মেডিকেল কলেজ ও টিচিং হাসপাতাল রয়েছে। সবগুলো খুলে দিন এবং এসব হাজার হাজার শিক্ষানবিস ডাক্তারকে করোনা আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসায় নিয়োজিত করুন।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ভারতেও অনলাইন পরামর্শ এবং ই-প্রেসক্রিপশনের বৈধতা দিতে হবে। সংকটকালীন এ সময়ে সব রোগীকে আমরা হাসপাতালে আসতে বলতে পারব না।

সব ধরনের আইনি মারপ্যাঁচ শিথিলতায় মেডিকেল কাউন্সিল অব ইন্ডিয়াকে কঠিন এ সময়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।

আরও পড়ুন
সাক্ষাৎকার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • বিকাশের ভুলের মাসুল দিচ্ছেন ৫১৬০ ভাতাভোগী

  • মসজিদে বেশি সময় ব্যয় করার প্রতিদান

  • আফগানিস্তানে মেয়েদের জন্য স্কুল খুলে দিতে ইউনেস্কোর আহ্বান

  • ‘গলুই’ শুটিং শুরু পরশু
    যুক্ত হলেন আলীরাজ-আজিজুল হাকিম ও সূচরিতা

  • ‘আমি মারা যাওয়ার আগে কেউ বিসিবি প্রেসিডেন্ট হতে চাইবে না’

  • জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ৬ সুপারিশ

  • জাতিসংঘের এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার পেলেন প্রধানমন্ত্রী

  • খুলনায় লবণাক্ত জমিতে তরমুজের ব্যাপক ফলন

  • আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলাদেশি তরুণী ফাইরুজ

  • শান্তিতে ভারত পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

  • দুর্গাপূজা উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ৩ কোটি টাকার অনুদান

  • এক যুগে দক্ষিণাঞ্চলে আমূল পরিবর্তণ

  • ৪২ পণ্য রপ্তানিতে মিলবে নগদ সহায়তা

  • ‘শিগগিরই দেশে দীর্ঘমেয়াদি অর্থায়নের প্রধান উৎস হবে পুঁজিবাজার’

  • আগামী বছর ১০০ স্কুলে পরীক্ষামূলক পাঠদান

  • জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মেডেল পেলেন নৌবাহিনীর ১১০ জন সদস্য

  • পায়রাবন্দর থেকে রাজস্ব আয় ৩০৪ কোটি টাকা

  • সরকারি ব্যয়ে বড় সাশ্রয়

  • এমপিওভুক্ত হলেন ডিগ্রি কলেজের ৮৪১ তৃতীয় শিক্ষক

  • দেশে করোনায় মৃত্যু কমেছে

  • জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বাংলাদেশকে সহায়তা বাড়াবে জার্মানি

  • যমুনায় ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ, এলাকাজুড়ে উৎসব

  • এক হাত নিয়েই জীবনযুদ্ধে লড়ছেন সাইফুল 

  • মাইকিং করে বিক্রি হচ্ছে চিংড়ি

  • ফের ভ্যাকসিন রফতানি শুরু করছে ভারত

  • মন্ত্রণালয়ে দুর্নীতি তদন্তে দুদককে আহ্বান জানালেন সেতুমন্ত্রী

  • ‘সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার জন্য করোনা ভয়াবহ রূপ নিতে পারেনি’

  • ‘স্বচ্ছ থাকলে সাংবাদিক নেতাদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই’

  • ‘শ্রেণিকক্ষের পাশাপাশি অনলাইনে পাঠদান চলমান থাকবে’

  • প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে ভ্যাট দিলো মাইক্রোসফট

  • পোশাক রপ্তানিতে ভিয়েতনামকে ছাড়াল বাংলাদেশ

  • ‘২০২৪ সালের মধ্যে দেশে হুন্দাইয়ের গাড়ি তৈরি হবে’

  • সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদনের কেন্দ্রস্থল হতে যাচ্ছে উত্তরাঞ্চল

  • ২৪ কোটি টিকা লাইন-আপে রয়েছে: ড. মোমেন

  • জন্মসনদ দিয়েও টিকার নিবন্ধন করা যাবে: শিক্ষামন্ত্রী

  • দুর্নীতিতে জিরো টলারেন্স চান প্রধানমন্ত্রী

  • রূপপুরে চলতি মাসেই নিউক্লিয়ার চুল্লি স্থাপন

  • ‘১৬ কোটি মানুষের বাসস্থান-খাদ্য নিশ্চিত করেছে সরকার’

  • এনআইডি না থাকলেও যেভাবে পাবেন করোনার টিকা

  • মুন্সিগঞ্জের বাঁশ-বেতের পণ্য যাচ্ছে বিদেশে

  • আড়াই ফুটের গলি এখন ৬০ ফুট প্রশস্ত সড়ক

  • জ্বালানি তেল খালাসে নতুন যুগে বাংলাদেশ

  • রপ্তানির নতুন দিগন্ত ইউরেশিয়া

  • নিকলী হাওড়ে পর্যটক নৌযানে লাইফ জ্যাকেট বাধ্যতামূলক

  • দ্বীপ রাঙ্গাবালীতে আলোর ঝলকানি

  • টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক, শুভ জন্মদিন

  • মহেশখালীতে ৪শ’ কোটি টাকার বিদ্যুৎ হাব

  • ৩ হাজার কনস্টেবল নিয়োগ: আবেদন করবেন যেভাবে

  • প্রথম বক্তব্যে প্রশংসায় ভাসছেন সিলেটের এমপি হাবিব

  • মাসে কোটির বেশি টিকা পাওয়ার ব্যবস্থা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

  • ১৫ ফুটের চিচিঙ্গা

  • জাতিসংঘে শেখ হাসিনার ভাষণ ২৪ সেপ্টেম্বর

  • স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

  • ‘ডিসেম্বরের মধ্যে চীন থেকে আসবে ৬ কোটি ডোজ টিকা’

  • নতুন ক্ষমতা পেলেন প্রতিমন্ত্রীরা

  • বাইডেনের সম্মেলনে শেখ হাসিনার ৬ প্রস্তাব

  • আশা জাগাচ্ছে বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কের নীলগাই

  • ৮৫ হাজার কারাবন্দিকে টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু

  • ভারত থেকে এলো উপহারের আরও ২৯ অ্যাম্বুলেন্স

  • হেলিকপ্টারে গিয়ে দেওয়া হলো দ্বিতীয় ডোজ টিকা