বৃহস্পতিবার   ১৬ জুলাই ২০২০

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
১৪২

করোনা দুর্দিনের সারথি কৃষি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২০  

মানব সভ্যতার সূচনা কৃষি থেকে, কেননা কথায় আছে- ‘কৃষিই কৃষ্টি’। আদিমকালে ক্ষুধা নিবারণের জন্য সংগৃহীত ফলের ফেলে দেয়া বীজ থেকে জন্মানো গাছে অনুরূপ ফল দেখেই মানুষ ধীরে ধীরে কৃষিকাজ করতে শেখে। তারপর পারস্পরিক পণ্য বিনিময়, কালক্রমে মুদ্রাপ্রথা থেকে অর্থনীতি কিংবা মুক্তবাজার অর্থনীতি হয়ে আজকের বিশ্বায়ন, সে এক বিশাল পথ পরিক্রমা। মানব সভ্যতা আজ উন্নতির চরম শিখরে পৌঁছেও যেন সে একই বৃত্তেই বাঁধা। করোনার যাঁতাকলে গভীর সংকটে বিশ্ব অর্থনীতি, চরম ঝুঁকিতে খাদ্য নিরাপত্তা। বিশ্ব খাদ্য সংস্থার দুর্ভিক্ষের হুঁশিয়ারি এবং বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার অন্তহীন করোনা ঝুঁকির ভবিষ্যদ্বাণীতে উদ্বিগ্ন বিশ্ববাসী। এর সাথে আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার প্রক্ষেপণ স্পষ্টত দৃশ্যমান যাতে কর্মক্ষম জনগোষ্ঠির অর্ধেক বা ১৬০ কোটি মানুষ জীবিকা হারাতে পারে।

এ পরিস্থিতিতে সুড়ঙ্গের শেষ আলো কৃষি। হ্যাঁ, দেশি-বিদেশি সকল বিশেষজ্ঞ, অর্থনীতিবিদ ও বিশ্লেষক একটি বিষয়ে একমত যে, খাদ্য নিরাপত্তা অর্জনের সাথে জীবিকার গতি সচল রাখতে কৃষিই একমাত্র অবলম্বন। সভ্যতার উষালগ্ন থেকে কৃষি যেমনই মানুষের ক্ষুধা নিবারণ তথা জীবিকা নির্বাহের বাহন ছিল তেমনই আজকের দিনেও কৃষিই আমাদের অস্তিত্ব রক্ষার বাহন। “একমাত্র কৃষিই পারে দেশকে দুর্ভিক্ষের হাত থেকে বাাঁচাতে” বলেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

স্বাধীনতার প্রাক্কালে আমাদের খাদ্যশস্যের উৎপাদন যেখানে ছিল মাত্র ১ কোটি মেট্রিক টন, সেখানে বর্তমানে তা প্রায় চার গুণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ৩.৮৪ কোটি মেট্রিক টন (বিবিএস, ২০১৯)। চাল উৎপাদনে বাংলাদেশ ইন্দোনেশিয়াকে পেছনে ফেলে তৃতীয় স্থানে উন্নীত হয়েছে। আরও আশার কথা, করোনা পরিস্থিতিতে বাংলাদেশের খাদ্য উৎপাদনের সম্ভাব্যতা শীর্ষক এক প্রতিবেদনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কৃষি সংস্থা (ইউএসডিএ) জানিয়েছে ধান, গম ও ভুট্টার মোট উৎপাদন স্বাভাবিকের তুলনায় প্রায় ১০ লাখ মে. টন বেশি হবে।

আপাত মজুতের সাথে অতিরিক্ত এ উৎপাদন যোগ হয়ে খাদ্যশস্যের পর্যাপ্ত একটি মজুতের ব্যাপারে আমরা আশাবাদী। সে নিরিখে আপাতত বাংলাদেশে খাদ্য সংকটের সম্ভবনা নেই। কিন্তু, বাংলাদেশ প্রাকৃতিক দুর্যোগপ্রবণ একটি দেশ এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ। সাইক্লোন সিডর, আইলা, মহাসেন, মোরা, বুলবুল, ফণী ও আম্ফানের মতেি হঠাৎ দুর্যোগ আর বন্যা, খরা ও ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের মতো নিয়মিত দুর্যোগে প্রায়শই ক্ষতিগ্রস্ত হয় আমাদের কৃষি উৎপাদন, ঝুঁকিতে পড়ে খাদ্য নিরাপত্তা, বাধাগ্রস্থ হয় অর্থনীতির গতি। তাই, সুসময়ে সীমিত সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করে কৃষি উৎপাদন আরও বাড়াতে হবে। করোনাজনিত খাদ্য সংকটের ঝুঁকি মোকাবিলায় ‘কর্মপরিকল্পনা ২০২০’ প্রণয়নে কৃষি সংশ্লিষ্ট গুণীজন ও অংশীজনদের সাথে জুম মিটিং প্লাটফর্মে ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনার সময় কৃষিমন্ত্রীও কৃষি উৎপাদন বাড়ানোর উপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করেছেন।

বাংলাদেশ বিশ্বের অষ্টম জনবহুল কৃষিপ্রধান দেশ এবং আমাদের অর্থনীতির ভিত কৃষিনির্ভর। তাই, কৃষিখাতে বিপর্যয় মানে আমাদের অর্থনীতিতে বিপর্যয়। তখন নীতি-নির্ধারণী মহলের টনক নড়ে কৃষিখাত নিয়ে, সাময়িক গুরুত্ব পেতে থাকে কৃষি। কৃষি উৎপাদন যখন অর্থনীতির চাকাকে সচল করে তোলে তখনই আবার গুরুত্ব হারাতে থাকে এ খাত, আবার নেমে আসে বিপর্যয়। এই ধারাবাহিকতা ছিল প্রায় গতানুগতিক। টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হলে অতীতের গতানুগতিক এই ধারাবাহিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। আশার কথা, বর্তমান কৃষিবান্ধব সরকার এই সংস্কৃতি থেকে বেরিয়ে আসছে। ক্ষমতায় এসে পুনঃপুনঃ সারের মূল্য হ্রাস এবং বিদ্যুৎ ও ডিজেলে ভর্তুকির মাধ্যমে সেচ খরচ কমিয়ে উৎপাদন বৃদ্ধিতে কৃষকদের উৎসাহিত করা হয়েছে। মাত্র ১০ টাকায় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলার মাধ্যমে সরাসরি কৃষকদের সরকারি সুযোগ-সুবিধা এবং কৃষিঋণ প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

শ্রমিক সংকট এড়িয়ে ফসল উৎপাদন ব্যবস্থাপনা সহজ করতে ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৫০-৭০% ভর্তুকিমূল্যে কৃষকদের মাঝে কম্বাইন হারভেস্টার, রিপার, রাইস ট্রান্সপ্লান্টার ইত্যাদি কৃষিযন্ত্র সরবরাহের মাধ্যমে কৃষি যান্ত্রিকীকরণে বিপ্লব সাধন করা হয়েছে। এ কার্যক্রম আরো জোরদার করতে নতুন অর্থবছরের বাজেটে ৩,১৯৮ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। গেল বোরো মৌসুমে সরাসরি কৃষক থেকে ১০৪০ টাকা মণে ৮ লাখ মে. টন ধান ও ১৪০০-১৪৪০ টাকা মণে ১২ লাখ ২০ হাজার মে. টন চাল সংগ্রহের ঘোষণা দেয়া হয়েছে যা এযাবৎকালের সর্বোচ্চ। বিভিন্ন সময়ে ঝুঁকি হ্র্রাসে ভর্তুকি ও প্রনোদনা প্রদান বিশেষত করোনা মহামারি জনিত পরিস্থিতি মোকাবিলায় কৃষি, মৎস ও প্রাণিসম্পদ খাতে মাত্র ৪% সুদে ৫,০০০ কোটি (নিয়মিত ১৪,৫০০ কোটি সহ মোট ১৯,৫০০ কোটি) টাকা কৃষিঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রাসহ সামগ্রিক কৃষিখাতে সর্বমোট ৯,৫০০ কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আম্ফান ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের ক্ষতিপূরণ প্রদানের ঘোষণা দেয়া হয়েছে এবং নতুন বাজেটে উৎপাদনমুখী খাতের মধ্যে কৃষিতে সর্বোচ্চ ২৯,৯৮৩ কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া, বিলম্বে হলেও প্রথমবারের মতো কৃষি, কৃষক ও কৃষিবিদসহ সকল কৃষিকর্মীদের জন্য একজন যোগ্য কাণ্ডারী কৃষিবিদ ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপির হাতে কৃষি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রদান এর বড় প্রমাণ।

গত কয়েক দশক ধরে গার্মেন্টস শিল্প এবং প্রবাসী আয় অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখলেও করোনা পরিস্থিতিতে এ দুটি খাতই প্রায় বিপর্যয়ের মুখে। প্রকৃতপক্ষে, যুগে যুগে প্রাকৃতিক দুর্যোগ, দাঙ্গা-হাঙ্গামা কিংবা যুদ্ধ বিগ্রহে যখনই অর্থনীতি বিপর্যস্ত হয়েছে সেই অবস্থা থেকে ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব হয়েছে কৃষি উৎপাদন দিয়েই। উদাহরণস্বরূপ, ২০০৭ সালের প্রলয়ংকারী সাইক্লোন সিডরে ফসলের মারাত্মক ক্ষতি এবং ২০০৮ সালের মহামন্দার ফলশ্রুতিতে খাদ্য শস্যের মূল্য সাধারণ জনগণের ক্রয়ক্ষমতার বাহিরে চলে যায়, উঁকি দেয় খাদ্য সংকট। সে সংকটকালে রফতানিকারক দেশসমূহের আপত্তি ও টালবাহানায় আন্তর্জাতিক বাজারে খাদ্য আমদানি করতে গিয়ে বাংলাদেশকে যে বিভীষিকাময় পরিস্থিতির স্বীকার হতে হয়েছিল তা সহজে ভুলার কথা নয়।

পরিস্থিতির ভয়াবহতায় প্রচার মাধ্যম ও নীতিনির্ধারণী মহলে হৈ চৈ পড়ে যায়। কৃষি বিভাগের বিশেষ তৎপরতায় ফসলের বাম্পার ফলন এবং বর্তমান সরকার ক্ষমতায় এসে কৃষিখাতে ভর্তুকি বৃদ্ধি তথা উত্তরোত্তর সার, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি তেলের মূল্য হ্রাস করায় খাদ্যশস্যের মূল্য স্বাভাবিক অবস্থায় এসে দাঁড়িয়েছিল। মন্দার ছোবলে বিশ্বব্যাপী যখন কোটি কোটি মানুষ বেকার হয়ে রাস্তায় নেমে পড়চ্ছিল, বন্ধ হয়ে যাচ্ছিল শিল্প-কারখানা ও বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান, তখন আমাদের অর্থনীতিতে প্রবৃদ্ধি না হোক অন্তত স্বাভাবিক ছিল সে কৃষিনির্ভর অর্থনীতির কারনেই। এছাড়া ’৭৬ এর মন্বন্তর, ১৯৪৩ এর ভয়াবহ দুর্ভিক্ষ এবং আমেরিকার চক্রান্তের ফলে সৃষ্ট ১৯৭৪ এর কৃত্রিম খাদ্য সংকট মোকাবিলায় কৃষির অবদান ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। করোনাজনিত সম্ভাব্য খাদ্য সংকট বা দুর্ভিক্ষ, বেকারত্ব ও অর্থনৈতিক স্থবিরতা এবং ঘূর্ণিঝড় আম্ফান ও বন্যার ক্ষতি কাটিয়ে খাদ্য নিরাপত্তা অর্জনেও তাই কৃষিই আমাদের ভরসা।

যে দেশের প্রধানমন্ত্রী কৃষকের ধান কাটার খবর রাখেন, যে দেশের কৃষিমন্ত্রী করোনা ঝুঁকি উপেক্ষা করে কৃষকের মাঠে ছুটে চলেন, যে দেশের কৃষি বিভাগের প্রধান (করোনাজয়ী) থেকে সকল কৃষিবিদ ও তৃণমূলের কৃষিকর্মীরা মানসম্মত সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়াই প্রতিনিয়ত কৃষিসেবা দিয়ে যাচ্ছেন আর একের পর এক করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন এবং যে দেশের কৃষকরা মৃত্যুকে পরোয়া না করে কৃষিকে নিয়ে আঁকড়ে থাকেন দিবারাত্রি, সে দেশে অন্তত দুর্ভিক্ষ হবে না একথা নিশ্চিত করে বলতে পারি, যদি অব্যাহত থাকে এ রীতি ও গতি।

লেখক : মোহাম্মদ লোকমান হোসেন মজুমদার,
বিসিএস (কৃষি), কৃষিবিদ, পরিবেশবিদ এবং পিএইচডি গবেষক।

মতামত বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করোনার ফল দিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ

  • বিদেশি ঋণের অর্থ ছাড়ে রেকর্ড

  • মোংলা বন্দরের মুনাফা ১১৫ কোটি টাকা

  • করোনাভাইরাসের আরও ৩ নতুন লক্ষণ

  • ২১ জুলাই থেকে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ শুরু

  • জ্বালানিভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে বাংলাদেশ-চীন যৌথ কোম্পানি

  • এক কোটি বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • যেসব খাবারে বাড়বে শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

  • প্রবাসী আয়ের ধারা ইতিবাচক, বেড়েছে আমেরিকা থেকে আসা আয়

  • ‘সরকার কারিগরিকে প্রাধান্য দিয়ে শিক্ষা ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজিয়েছে’

  • গভর্নরের মেয়াদ আরো দুই বছর বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি

  • করোনার কাছে হেরে গেলেন ভাষা সংগ্রামী ডা. সাঈদ হায়দার

  • গণপরিবহন নয়, বন্ধ থাকবে পণ্য পরিবহন

  • বাইসাইকেল পেল ১৭০০ ছাত্রী

  • স্মার্ট ল্যাম্পপোস্টে ফ্রি ওয়াইফাই, নিরাপত্তা নজরদারি

  • দেশে প্রথম হেলিপোর্ট তৈরির কাজ চলছে: বিমান সচিব

  • পাবলিক গাড়ি ও পায়ে হেঁটে স্থান পরিবর্তন করে সাহেদ

  • ডিবি কার্যালয়ে সাহেদ

  • পশুর হাটে থাকবে ১২০০ মেডিকেল টিম

  • পশুর চামড়া নিয়ে অরাজকতা বরদাশত করা হবে না: আইজিপি

  • হাট কাঁপাতে আসছে ‘বাংলার বাহাদুর’

  • আন্তর্জাতিক মানের গাড়ি নিয়ে নতুন যুগে কেএমপি

  • আন্তর্জাতিক মানের গাড়ি নিয়ে নতুন যুগে কেএমপি

  • শেখ হাসিনার কারাবন্দী দিবস আজ

  • ‘যুবসমাজের কর্মসংস্থান বর্তমান সরকারের অন্যতম অগ্রাধিকার’

  • স্থানীয় সরকারকে ঢেলে সাজানোর চিন্তা করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

  • বেড়িবাঁধ নির্মাণে ৮ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ

  • বেড়িবাঁধ নির্মাণে ৮ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ

  • পাঠ্যবই ছাপায় সাশ্রয় হচ্ছে ৩০০ কোটি টাকা

  • প্রকল্প ব্যয়ে সাশ্রয়ী হতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

  • আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বঙ্গকন্যার যত স্বীকৃতি

  • স্বাভাবিক গতি ফিরছে ছয় মেগা প্রকল্পে

  • আমন বীজে নগদ ভর্তুকি ও বিনামূল্যে সেচ সুবিধা দিচ্ছে সরকার

  • করোনা মোকাবিলায় মানবিক ছাত্রলীগ

  • করোনা: ইউরোপ-আমেরিকা যা পারেনি, শেখ হাসিনা তা পেরেছেন

  • অর্থবছর শুরুর নয়দিনেই ৭৫ কোটি ডলার রেমিট্যান্স

  • বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকরাই মাঠে গিয়ে কাজ করে: প্রধানমন্ত্রী 

  • এবার দেশেই তৈরি প্রাইভেটকার!

  • ও‌সিদের ক‌ঠোর বার্তা দি‌লেন আই‌জি‌পি

  • একনেকে প্রকল্প: অর্ধেক দামে মিলবে কৃষি যন্ত্রপাতি 

  • বিদেশে রপ্তানি হচ্ছে রাজশাহীর আম

  • করোনা জয় করেই বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে : প্রধানমন্ত্রী

  • সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন আর নেই

  • ঈদে সরকারি চাল পাচ্ছে ১ কোটি পরিবার

  • সাহারা খাতুনের মরদেহ দেশে পৌঁছেছে, জানাজা সকাল ১১টায়

  • অতিরিক্ত দুই মাসের বেতন পাবেন ডাক্তার-স্বাস্থ্যকর্মীরা

  • স্কুল-কলেজে আশ্রয়কেন্দ্র করার নির্দেশ

  • ২ মাসের বেতনের সমান বিশেষ সম্মানি পাবেন স্বাস্থ্যকর্মীরা

  • আরো ৫১টি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইন স্থাপন করবে সরকার

  • ১৬ জুলাই কোটি বৃক্ষরোপণের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

  • বিজিবিতে যুক্ত হলো অত্যাধুনিক যান ‘অল টেরেইন ভেহিক্যাল’

  • করোনায় মৃত্যুহার কমানোর পরিকল্পনায় সরকার: প্রধানমন্ত্রী

  • ‘নদীর সীমানা চিহ্নিত জায়গা দখলের দুঃসাহস দেখাবেন না’

  • খুলনায় হচ্ছে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়

  • সীমান্তে চোরাচালান রোধে বিজিবিতে যুক্ত হলো অল টেরেইন ভেহিক্যাল

  • প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ প্রত্যাশার বাইরে ছিল: রোমান

  • বিদেশ যেতে বাধ্যতামূলক হলো করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট

  • পাঠ্যবই ছাপায় সাশ্রয় হচ্ছে ৩০০ কোটি টাকা

  • কম্প্রেসর দিয়ে তুরস্কে ওয়ালটন পণ্যের রপ্তানি শুরু

  • অসহায় নারীদের কল্যাণে পৈতৃক ভিটা দান করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী