শনিবার   ০৬ জুন ২০২০

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
১৮৫

করোনা সংকটে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পেয়ে খুশি কর্মহীন মানুষ

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ১৭ মে ২০২০  

করোনায় সংকটে পৌঁছতে শুরু করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার। প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পেয়ে খুশি কর্মহীন মানুষ। করোনায় সংকটে পড়া কর্মহীন ও দুস্থ পরিবারপ্রতি আড়াই হাজার টাকা পেয়ে কেউ ছেলেমেয়ের জন্য ঈদের বাজার-সদাই। আবার কেউ কেউ এ টাকায় সন্তানদের খাতা-কলম বা দুধ কিনতে পেরে খুশি। একে দুঃসময়ের অবলম্বন হিসেবেই দেখছেন তারা।

সাভারের পরিবহন শ্রমিক কামাল হোসেনের আয় বেশ কিছু দিন ধরে বন্ধ। কিন্তু ঈদে আর কিছু না হোক দুই সন্তানের জন্য নতুন জামা কিনতে হবে। একটু ভালো খাবারের ব্যবস্থাও করা দরকার। মোবাইল ফোনে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার আড়াই হাজার টাকা পৌঁছে গেছে তার অ্যাকাউন্টে। এতে কমেছে দুশ্চিন্তা। তিনি বলেন, আমাদের মতো যারা দরিদ্র, এ মুহূর্তে এই টাকা তাদের কাছে অনেক কিছু।

নওগাঁর রানী আক্তারও পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার। রিকশাচালক স্বামীর কাজ বন্ধ তাই ঈদ তো পরের কথা সংসারের প্রতিদিনের খরচ চালানেই যখন কঠিন হয়ে পড়েছিল, তখন এ টাকাই তাদের স্বস্তির কারণ।

তিনি বলেন, করোনা আসার পর থেকে আমাদের কোনো কাজ-কর্ম নেই। এ টাকা দিয়েই আমাদের বাচ্চাদের দুধ কিনছি, চাল-ডাল কিনছি; বাচ্চাদের খাতা-কলম কিনছি।

একই ধরনের কথা বলেন, ব্রাক্ষণবাড়িয়ার এক উপকারভোগীও। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের যে সহযোগিতা করেছেন তার জন্য উনার কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।

নীলফামারীর বাবুপাড়ার উপকারভোগী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর টাকা পাওয়ার পরই মনের মধ্যে এক অন্য ধরনের খুশি জাগল। টাকা পাওয়ার পরই তা দিয়ে আমি বাজার করেছি।

বরিশালের বাকেরগঞ্জের এক নারী বলেন, শেখ হাসিনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। ঈদের আগে তিনি আমাদের টাকা দিয়েছেন। আমরা এতে অনেক উপকৃত হয়েছি।

রাজধানীর পাংশার এক ব্যক্তি বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতা পেয়েছি। সেই টাকা দিয়ে আজ (শনিবার) বাজার করেছি। এজন্য আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানাই। তিনি যেন সারা জীবন দেশের খেদমত করার সুযোগ পান।

বগুড়ার এক উপকারভোগী বলেন, আমরা কোনো দল করি না। এ করোনা সংকটের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী যে সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছেন তাতে আমরা খুবই উপকৃত হয়েছি। মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে যে টাকাগুলো পেয়েছি তাতে আমাদের খুবই উপকার হয়েছে।

বরগুনার পাথরঘাটার এক ইমাম বলেন, এ টাকাটা পাওয়াতে আমি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই। অতীতে কোনো সরকার এভাবে সহযোগিতা করেনি।

মানিকগঞ্জের এক বস্তিতে বসবাসকারী নারী উপকারভোগী কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমরা গরিব মানুষ। আমরা বস্তিতে বাস করি। আমাদের খাওয়া দাওয়ায় খুব কষ্ট। যে টাকাটা আমাদের দেয়া হয়েছে, এতে খুব উপকার হয়েছে। আপনাকে (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) আল্লাহ ভালো রাখুন।

নওগাঁর জেলা প্রশাসক হারুন অর রশীদ বলেন, আমরা চষ্টো করেছি স্বচ্ছতার ভিত্তিতে যারা পাওয়ার তারা যেন প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহারের এ আড়াই হাজার টাকা পান। ৫০ লাখ মানুষের কাছে হাতে হাতে টাকা পোঁছে দেয়া একটা বড় কর্মযজ্ঞ।

এ বিষয়ে ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ব্যাপকভাবে সরকারি ত্রাণ কার্যক্রম শুরু হয়। এর একপর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী উপলব্ধি করেন কিছু শ্রেণি-পেশার মানুষ আছে, যারা ত্রাণের সঙ্গে সম্পৃক্ত নয় কিন্তু তাদের কিছু সহযোগিতা দরকার। পেশাগত কাজ বন্ধ থাকার কারণে তারা আর্থিক অনটনের মধ্যে রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী একটি তালিকা করে তাদের অ্যাকাউন্টে একটি নির্দষ্টি পরিমাণ টাকা প্রদান করবেন।

তিনি বলেন, ত্রাণ মন্ত্রণালয় ও আইসিটি ডিভিশনের এক যৌথসভায় সিদ্ধান্ত হয়, একটা সফটওয়্যার তৈরি করা হবে এবং খুব অল্প সময়ের মধ্যে আইসিটি ডিভিশনের কিছু প্রোগ্রামার এটা তৈরি করেন। এ সফটওয়্যারে আমাদের ডাটাগুলো আপলোট করা শুরু হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে তারা ডাটাগুলোকে ভেলিডেট করে শুদ্ধ ডাটাকে ফিন্যান্স ডিভিশনে পাঠায়। তারা এ ডাটাগুলো পাঠায় বাংলাদেশ ব্যাংকে। বাংলাদেশ ব্যাংক ইএফপির মাধ্যমে প্রত্যেকটা মানুষের মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকাটা পাঠায়।

তিনি আরও বলেন, আমাদের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে সময়। যেকোনোভাবে ঈদের আগেই মানুষের হাতে পৌঁছাতে হবে। সময় আছে কম, কাজ অনেক বেশি। কিন্তু সবাই নিবিড় ও নিবেদিতভাবে কাজটা করছেন। ফলে আমরা আশাবাদী ঈদের আগেই প্রতিটি পরিবারকে এ টাকাটা পৌঁছে দিতে পারব।

কারিগরি সমস্যা হয়েছিল, ১০ দিন আগেই সমাধান হয়েছে: 
করোনাভাইরাস মহামারীতে ক্ষতিগ্রস্তদের সরকারিভাবে আড়াই হাজার টাকার নগদ সহায়তার জন্য সারা দেশের ৫০ লাখ পরিবারের তালিকা করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। এ কাজে কারিগরি সহায়তা দেয় আইসিটি বিভাগ। ওই উপকারভোগীদের তালিকায় ভুলভ্রান্তির অভিযোগ ওঠে। তালিকায় একই মোবাইল নাম্বার ভিন্ন নামে বারবার ব্যবহার করা হয়েছে। তালিকায় এ ধরনের প্রায় ৮ লাখ মোবাইল নাম্বার রয়েছে।

গণমাধ্যমে বিষয়টি ভিন্নভাবে উপস্থাপন করায় তা নিয়ে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে। তবে এটি কোনো অনিয়ম বা দুর্নীতি নয় বলে দাবি করেছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের মতে, কারিগরি সমস্যা হয়েছিল। যা আজ থেকে ১০ দিন আগেই সমাধান হয়েছে।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. শাহ কামাল শনিবার বলেন, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে ৫০ লাখ পরিবারের তালিকা করা হয়েছে। আইসিটি মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় কিউআর কার্ড (কুইক রেসপন্স কার্ড) তৈরি করা হয়েছে। এ জন্য উপকারভোগীদের মোবাইল নাম্বার অবশ্যই থাকতে হবে। কিন্তু হতদরিদ্র এসব ব্যক্তির অনেকের মোবাইল নম্বর ছিল না। ফলে আইসিটি বিভাগ থেকে বলে দেয়া হয় যে কোনো মোবাইল নাম্বার বসিয়ে দিতে। যাদের মোবাইল নাম্বার নেই তাদের তালিকার ঘরে একই নাম্বার কপি-পেস্ট করে বসিয়ে দেয়া হয়। কিন্তু এ সংক্রান্ত সফটওয়ার এ তালিকা গ্রহণ করেনি। ফলে আমরা বলে দিয়েছি, যাদের মোবাইল নাম্বার নেই তাদের অবশ্যই মোবাইল নাম্বার নিতে হবে অথবা ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। এরপর সেভাবেই এখন কাজ চলছে। এ নিয়ে আর কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু কোনো কোনো গণমাধ্যমে বিষয়টি ভিন্নভাবে উপস্থাপন করায় তা নিয়ে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে। এটা ঠিক নয়।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ও রেমিট্যান্সে রেকর্ড

  • মানবপাচারকারীদের ধরতে সারা দেশে অভিযান

  • অক্টোবরের পর বাংলাদেশের অর্থনীতিতে উত্থান ঘটবে : আইএমএফ

  • চাটমোহরে ১০০ শিক্ষার্থী পেল বাইসাইকেল

  • দিল্লীর বাংলাদেশ মিশনের কফি টেবিল বুক প্রকাশ

  • ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের সহযোগিতায় ডিসিসিআইর স্বতন্ত্র বিভাগ চালু

  • স্বাধীনতা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক মর্যাদা পায় ছয় দফা

  • ছয় দফা: বাংলার মানুষের মুক্তি সনদ

  • ৬ দফা যেভাবে বাঙালির মুক্তির সনদ হয়ে উঠলো

  • করোনাকালে ১ লক্ষ ২ হাজার ৯৫৭ কোটি টাকার প্রণোদনা ঘোষণা

  • প্রাকৃতিক দুর্যোগ রোধে ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

  • করোনা সফলতায় প্রধানমন্ত্রীর অর্জন ম্লানে ষড়যন্ত্র চলছে

  • বাংলাদেশি সেনাদের নিয়ে গর্ব করা উচিত: অ্যান্তোনিও গুতেরেস

  • নমুনা সংগ্রহে ভ্রাম্যমাণ বুথের কথা ভাবছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়

  • ফেসবুক ইনবক্সে নারী যাত্রীর অভিযোগ পেয়ে ছুটে গেলেন ম্যাজিস্ট্রেট

  • মিয়ানমার সীমান্তবর্তী এলাকায় আবারো উত্তেজনা

  • আরেক দফা কঠোর লকডাউন দেয়ার আহ্বান

  • ‘সংক্রমণের বিস্তার রোধে সচেতনতার প্রাচীর নির্মাণ করতে হবে’

  • চিকিৎসা নেটওয়ার্কসহ সচেতনতা তৈরিতে দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে সরকার

  • করোনায় আক্রান্ত দেশের অনেক রাজনীতিবিদ

  • সংক্রমণ বাড়লেই রেড জোন, কক্সবাজার দিয়ে শুরু

  • করোনার ২০০ কোটি ডোজ সম্ভাব্য ভ্যাকসিন তৈরির ঘোষণা

  • করোনা ভাইরাসের বিস্তার রোধ করবে ‘করোনা ট্রেসার বিডি’ অ্যাপ

  • ‘কোভিড-১৯ এর বিরু‌দ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই কর‌তে হ‌বে’

  • ম্যাংগো ট্রেনের প্রথম যাত্রায় আসলো সাড়ে ১০ টন আম

  • ভিক্ষুক নাজিম উদ্দিন পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর উপহার

  • ‘অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে দক্ষরাই হবেন ডিজিটাল বিপ্লবের লিডার’

  • ডেঙ্গু প্রতিরোধে আজ থেকে শুরু হচ্ছে চিরুনি অভিযান

  • নারায়ণগঞ্জের দগ্ধ রোগীর চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন লিপি ওসমান

  • ছাতকে সরকারি চালসহ আটক ১

  • ইভারম্যাকটিন, ডক্সিসাইক্লিন ব্যবহারে করোনা মুক্তির হার বেড়েছে

  • প্রত্যেক জেলা হাসপাতালে আইসিইউ নিশ্চিতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • আম্ফান-কাল বৈশাখীর ক্ষতিতেও পূরণ হবে বোরোর লক্ষ্যমাত্রা

  • মসলা মিশ্রিত হালকা গরম পানিতে উপকৃত হচ্ছেন করোনা রোগীরা

  • জুন মাসেই প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা পাবে জামা-জুতা কেনার টাকা

  • চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে দুর্যোগ সহনীয় ঘর পেল ১৬ পরিবার

  • বিএনপি’র চিন্তাধারা একপেশে: তথ্যমন্ত্রী

  • স্পটে কাউকে পাওয়া না গেলে ধরে নেবেন তার চাকরি নেই: তাপস

  • যেকোনো সঙ্কটে আত্মবিশ্বাসটাই সবচেয়ে বড়: প্রধানমন্ত্রী

  • বঙ্গবন্ধুর ছবিযুক্ত ডাকটিকিট অবমুক্ত করল জাতিসংঘ

  • সোনালী ই-সেবা: ২ মিনিটেই খোলা যাবে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট

  • বিশ্ব পরিবেশ দিবস আজ

  • ৪ জুন ১৯৫৭:প্রথম বাঙালি হিসাবে চা বোর্ডের চেয়ারম্যান হন বঙ্গবন্ধু

  • করোনায় বন্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি আদায় করলে কঠোর ব্যবস্থা

  • গ্রামাঞ্চলেও চালু হচ্ছে এটিএম ও পয়েন্ট অব সেলস মেশিন

  • চীন থেকে করোনা মেডিকেল টিম আসছে ৮ জুন

  • দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি.

  • ‘প্রধানমন্ত্রী চান মেট্রোরেল প্রজেক্টের কাজের গতি আরও বাড়াতে’

  • এবার স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের উদ্যোগ

  • অর্ধেক যাত্রী নিয়ে আগের ভাড়ায়ই চলবে ট্রেন

  • বাইরে চলাচলে মাস্ক না পরলে অনুযায়ী ব্যবস্থা

  • ২০২১ সালের মধ্যে দেশের ৯০ শতাংশ সেবা অনলাইনে দেওয়া হবে

  • জাতিসংঘ পুরস্কার পেল ভূমি মন্ত্রণালয়

  • বাংলাদেশে ৬৪১৭ কোটি বিনিয়োগ করবে এডিবি

  • লিচুতে ভাগ্যবদল, ফুটপাত থেকে বাড়ি-গাড়ির মালিক

  • করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের প্রচেষ্টায় ৬ দেশের একাত্মতা

  • এবারো কোটি টাকা লিচু বিক্রির আশা

  • করোনা সঙ্কটেও মে মাসে দেশে এসেছে দেড় বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স

  • কৃষকের মুখে হাসি ফুটিয়েছে ভুট্টা

  • এশিয়া সেরা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম