বুধবার   ০৩ জুন ২০২০

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
৪৬৫

‘আ. লীগের প্রতিপক্ষ হওয়ার সামর্থ্য ঐক্য প্রক্রিয়ার নেই’

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৮ অক্টোবর ২০১৮  

শিক্ষাবিদ ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেছেন, আওয়ামী লীগের শক্ত প্রতিপক্ষ হওয়ার মতো শক্তি অর্জন করার সময় ও সামর্থ্য কোনোটিই নেই জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার। তিনি আরও বলেন, নির্বাচনি জোট হতেই পারে। একটা যথার্থ জোট হলে যথার্থ বিরোধী মহল গড়ে উঠবে। তাতে গণতন্ত্র অনেকটা এগিয়ে যায়। বর্তমানে আওয়ামী লীগের সঙ্গে কোনো বিরোধী দল নেই। সে দিক থেকে বিবেচনা করলে এরকম একটা জোট গঠনের যৌক্তিকতা রয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেন, পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে এই জোটের অন্তর্নিহিত কোনো শক্তি আমি দেখতে পাচ্ছি না। যারা নেতৃত্বে রয়েছেন তারা তাদের মূল থেকে বিচ্ছিন্নভাবে এসেছেন, সেটা যেকোনো কারণেই হোক। নির্বাচনের আগ মুহূর্তে এসে এমন একটি জোট হতেই পারে। সেটা হোক, আপত্তি নেই। কিন্তু তাদের অনেক সমস্যা রয়েছে। আপত্তিকর কিছু জায়গাও রয়েছে। সে জায়গাগুলোর বিষয়ে মানুষকে পরিষ্কার করতে হবে।

তিনি বলেন, জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গ ছাড়েনি বিএনপি। কৌশলগতভাবে জামায়াতকে আড়ালে রাখা হয়েছে। জামায়াত নির্ভর বিএনপির সঙ্গে যখন ড. কামাল হোসেনের মতো মুক্তিযুদ্ধের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তিত্ব হাত মেলান তখন নানাবিধ প্রশ্ন ওঠে। অন্য যারা রয়েছেন তারাও মান্য ব্যক্তি যেমন, আ স ম আবদুর রব, মাহমুদুর রহমান মান্না। কিন্তু তাদের রাজনৈতিক নীতি কি সঠিক জায়গায় আছে? জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া জাতীয় নির্বাচনে কার্যকরি ভূমিকা রাখতে পারবে না বা নির্বাচনকে খুব একটা প্রভাবিত করতে পারবে বলেই মনে হয় আমার।

তিনি আরও বলেন, এই জোটকে কীভাবে স্বাগতম জানাবো? সেই জায়গাটা কি রেখেছেন তারা? রাখেননি। জামায়াত ইসলামী যে জোটে সেখানে আমাদের বলার কিছু থাকে না। তবে যদি একটা ভালো জোট গড়ে উঠতো, যারা মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের তাহলে ভালো হতো। অনিয়ম-দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় থাকতো তাহলে স্বাগত জানানো যেত। কিন্তু বর্তমান ঐক্য প্রক্রিয়া নিয়ে মানুষের হাজারো প্রশ্ন রয়েছে। সেগুলো পরিষ্কার করতে হবে জোটের নেতাদের।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে এই রাজনৈতিক বিশ্লেষক বলেন, ডা. বি. চৌধুরীকে ঐক্য প্রক্রিয়ায় রাখা হয়নি বা তিনি থাকলেন না দুটোই হতে পারে। কারণ কোন প্রেক্ষাপটে বি. চৌধুরী ঐক্য প্রক্রিয়া থেকে ছিটকে পড়লেন তা নিয়ে নানা মুনীর নানা মত রয়েছে। তবে বি. চৌধুরী সঙ্গত কারণেই বিএনপির সঙ্গে যেতে পারেন না। কারণ তিনি দলটির প্রতিষ্ঠাকালীন মহাসচিব, মন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতি অনেক কিছুই ছিলেন। বিএনপির হয়ে ‘সাবাস বাংলাদেশের’ মতো ন্যক্কারজনক একটা তথ্য চিত্রও তৈরি করেছিলেন বিটিভিতে। আবার রাষ্ট্রপতির পদ থেকেও তাকে পালিয়ে যেতে হয়েছিল। সে কারণেই তিনি বিএনপির সঙ্গে যেতে পারেন না।

তিনি বলেন, বি. চৌধুরী বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধবিরোধীদের সঙ্গে তিনি থাকবেন না, যদিও একসময় ছিলেন। তবে তার এই বিলম্বিত বোধদয়ের জন্য তাকে ধন্যবাদ। কিন্তু এককভাবে তিনি কোনো রাজনৈতিক শক্তি হিসেবে প্রমাণ দিতে পারবেন না বা প্রদর্শনও করতে পারবেন না। যদিও শোনা যায় তিনি নাকি ঐক্য প্রক্রিয়ার কাছে ১৫০টি আসন দাবি করেছিলেন। কিন্তু আসলে কি হয়েছে সেই তথ্যপ্রমাণ আমাদের কাছে নেই। তবে এটা এখন বলা যায়, ঐক্য প্রক্রিয়ার শুরুতে একটা হোচট খেয়েছে বি. চৌধুরী ঐক্য প্রক্রিয়ার সঙ্গে না থাকায়।

আরও পড়ুন
সাক্ষাৎকার বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • মহামারীর মধ্যে ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলা নিয়ে যা বললেন প্রধানমন্ত্রী

  • ‘ডিএনসিসির ৩৬টি ওয়ার্ডে হবে স্যাটেলাইট অগ্নি নির্বাপণ স্টেশন’

  • ‘সংকটকে শেখ হাসিনার সরকার সম্ভাবনায় রূপ দিতে কাজ করে যাচ্ছে’

  • স্বপ্নের মেট্রোরেলের প্রথম পর্যায়ের ৭২ শতাংশ দৃশ্যমান

  • নতুন করে আরো ১১টি ট্রেন চালু

  • করোনার জন্য বরাদ্দ ১৬ হাজার কোটি টাকা

  • প্রবাসী পুনর্বাসনে ৭০০ কোটি টাকার তহবিল

  • করোনা সংকটে ৩১০০ কোটি টাকা দিচ্ছে ইইউ

  • সব বাধা অতিক্রম করে দেশ এগিয়ে যাবে : প্রধানমন্ত্রী

  • ডিএসসিসিতে দুর্নীতির লেশমাত্র রাখবো না: মেয়র তাপস 

  • উপজেলা পর্যায়েও টিসিবির পণ্য বিক্রির নির্দেশ হাইকোর্টের

  • জনগণ ও জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ নির্দেশনা

  • জীবাণু শঙ্কা-প্রাকৃতিক দুর্যোগ প্রতিরোধের চেষ্টায় প্রধানমন্ত্রী

  • স্বাস্থ্যবিমার আওতায় আসছেন ঢাবি’র সব শিক্ষার্থী

  • লিচুতে ভাগ্যবদল, ফুটপাত থেকে বাড়ি-গাড়ির মালিক

  • এশিয়া সেরা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম

  • ইউনাইটেডে পাঁচ মৃত্যুর ঘটনায় ১৪ জুনের মধ্যে প্রতিবেদন

  • করোনার প্রথম ওষুধ প্রস্তুত দাবি রাশিয়ার

  • লকডাউনের মধ্যেও দেশের মূল্যস্ফীতি ভালো অবস্থানে রয়েছে

  • ‘বাজারের চাইতে এবার বাড়ি থেকেই বেশি ধান বেচাকেনা হচ্ছে’

  • ‘রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা দিতে অবহেলা করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে’

  • দুর্নীতিকে আমি প্রশ্রয় দেব না, বললেন মেয়র তাপস

  • করোনাকালে সরকারের ত্রাণ সহায়তা পেয়েছে সোয়া ৬ কোটি মানুষ

  • কালের কণ্ঠ থেকে ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তফা কামালের ইস্তফা

  • অসুস্থ নায়ক জাভেদকে ১০ লাখ টাকা দিলেন প্রধানমন্ত্রী

  • জেলা হাসপাতালে আইসিইউ নিশ্চিতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • ক‌রোনায় প্রতি মি‌নি‌টে আক্রান্ত হচ্ছেন দুজন

  • করোনা আক্রান্ত রোগীদের নিয়ে যেখানে যেতে পারেন

  • মডার্নার ভ্যাকসিন নিয়ে ‘খুব আশাব্যঞ্জক’ ফল পাওয়া গেছে

  • আগামী বছরে নতুন শিক্ষাক্রমে পাঠ্যবই নয়

  • প্রধানমন্ত্রী আমার জন্য হাসপাতালে কেবিন বুকড দিয়েছেন: জাফরুল্লাহ

  • ইভারম্যাকটিন, ডক্সিসাইক্লিন ব্যবহারে করোনা মুক্তির হার বেড়েছে

  • আম্ফান-কাল বৈশাখীর ক্ষতিতেও পূরণ হবে বোরোর লক্ষ্যমাত্রা

  • প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করে জাতিসংঘ মহাসচিবের শুভেচ্ছা

  • অফিস-কারখানায় ১৩ দফা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নির্দেশ

  • নিজের করোনা পজিটিভ রিপোর্টে নিজেই স্বাক্ষর করেন ডা. শাকিল!

  • মসলা মিশ্রিত হালকা গরম পানিতে উপকৃত হচ্ছেন করোনা রোগীরা

  • করোনা শনাক্তে দেশেই তৈরি হলো ‘ভিটিএম কিট’

  • প্রত্যেক জেলা হাসপাতালে আইসিইউ নিশ্চিতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

  • করোনাকালীন সংকটেও কৃষির সাফল্য

  • শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সময়সীমা বাড়ল

  • জুন মাসেই প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা পাবে জামা-জুতা কেনার টাকা

  • বিএনপি’র চিন্তাধারা একপেশে: তথ্যমন্ত্রী

  • সীমিত পরিসরে গণপরিবহন চলার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি

  • যেকোনো সঙ্কটে আত্মবিশ্বাসটাই সবচেয়ে বড়: প্রধানমন্ত্রী

  • ১২ লাখ যুবককে আত্মকর্মী তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার

  • ডিএনসিসিতে বিনামূল্যে ডেঙ্গু পরীক্ষা, জানা যাবে তাৎক্ষণিক ফল

  • বঙ্গবন্ধুর ছবিযুক্ত ডাকটিকিট অবমুক্ত করল জাতিসংঘ

  • চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে দুর্যোগ সহনীয় ঘর পেল ১৬ পরিবার

  • শান্তিরক্ষীদের অবদান দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে: প্রধানমন্ত্রী

  • যতদিন না করোনা সংকট কাটবে, আমি পাশে থাকবো: প্রধানমন্ত্রী

  • মৃতের জানাজায় কেউ আসেনি, এসেছিল ‘মানবিক পুলিশ’

  • করোনাকালে জরুরি সাহায্য পেতে ফোন করুন

  • ৬ কোটি মানুষের কাছে পৌঁছেছে সরকারি ত্রাণ

  • দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কি.মি.

  • প্রথমবারের মতো শান্তিরক্ষীদের বহন করল বাংলাদেশ বিমান

  • উন্নত ও মানসম্মত চিকিৎসায় ১১১৯ পুলিশ সদস্যের করোনা জয় 

  • অর্ধেক যাত্রী নিয়ে আগের ভাড়ায়ই চলবে ট্রেন

  • স্পটে কাউকে পাওয়া না গেলে ধরে নেবেন তার চাকরি নেই: তাপস

  • এবার স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের উদ্যোগ