সোমবার   ২১ অক্টোবর ২০১৯

ব্রেকিং:
সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোর বার্ষিক ছুটি ৭৫ দিন আগামী মার্চে ঢাকা উত্তর সিটির ভোটের ইঙ্গিত সিইসির জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী আস্থা ভোটে টিকে গেলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে নেপালের বিদায়ী রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ খালেদার অনুপস্থিতিতেই কারাগারে বিচার চলবে রব ও মান্নার বিয়ে যুক্তফ্রন্টে, পরকীয়া ঐক্যফ্রন্টে: মাহী এটা জোট নয়, ঘোট : তথ্যমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় পেলেন সিনহা আবারও সরকার গঠনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর পদ্মা সেতু প্রকল্পের নামফলক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী
১৬৭৪

আওয়ামী লীগের ইশতেহার

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ২১ বিশেষ অঙ্গীকার-সম্বলিত ইশতেহার প্রকাশ করবে আওয়ামী লীগ। ১৮ ডিসেম্বর ইশতেহার প্রকাশ হতে পারে বলে দলের নীতিনির্ধারণী সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধা জানানোর মধ্য দিয়ে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া থেকে নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা শুরু হয়েছে। শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও মহান বিজয় দিবস উদযাপনের পাশাপাশি সিলেটে হযরত শাহজালাল (রহ.) ও হযরত শাহ পরাণ (রহ.) মাজার জিয়ারত শেষে নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করা হতে পারে।

আওয়ামী লীগের ইশতেহার উপ-কমিটি সূত্রে জানা যায়, নবম ও দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনী ইশতেহারের চেয়ে এবারের ইশতেহারের বড় পার্থক্য হবে বিশেষ এই অঙ্গীকার। এতে আগামীতে সরকার গঠন করতে পারলে যে বিষয়গুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বাস্তবায়ন করা হবে সেগুলো ক্রমান্বয়ে সাজানো হয়েছে। পাশাপাশি ইশতেহারে ইতিহাস, ঐতিহ্য ও আওয়ামী লীগের অতীত শাসনামলের কথাও তুলে ধরা হয়েছে।

ইশতেহারে করা বিশেষ অঙ্গীকারের মধ্যে রয়েছে- আমার গ্রাম-আমার শহর, প্রতিটি গ্রামে আধুনিক নগর সুবিধা সম্প্রসারণ, তারুণ্যের শক্তি-বাংলাদেশের সমৃদ্ধি, তরুণ-যুবসমাজকে দক্ষ জনশক্তিতে রূপান্তর এবং তাদের কর্মসংস্থানের নিশ্চয়তা।

অঙ্গীকারের মধ্যে থাকছে- দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ, নারী ক্ষমতায়ন, লিঙ্গ সমতা ও শিশু কল্যাণ, পুষ্টিসম্মত ও নিরাপদ খাদ্যের নিশ্চয়তা, সন্ত্রাস, সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদ নির্মূল, মেগা প্রজেক্টসমূহের দ্রুত ও মানসম্মত বাস্তবায়ন, গণতন্ত্র ও আইনের শাসন সুদৃঢ়, সরকারি ও বেসরকারি বিনিয়োগ বৃদ্ধি, দারিদ্র্য নির্মূল প্রভৃতি।

‘সকল স্তরে শিক্ষার মান বৃদ্ধি, সবার জন্য মানসম্মত স্বাস্থ্য সেবার নিশ্চয়তা, সার্বিক উন্নয়নে তথ্যপ্রযুক্তির অধিকতর ব্যবহার, আধুনিক কৃষি ব্যবস্থা, দক্ষ ও সেবামুখী জনপ্রশাসন, জনবান্ধব পুলিশ প্রশাসন, ব্লু-ইকোনমি-সমুদ্র সম্পদ উন্নয়ন, নিরাপদ সড়কের নিশ্চয়তা, প্রবীণ কল্যাণ কর্মসূচি, টেকসই ও অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন’ বিশেষ অঙ্গীকারে রয়েছে।

ইশতেহার সাতটি অধ্যায়ে ভাগ করা হয়েছে। যার শুরুতে থাকবে ‘আমাদের অঙ্গীকার’ আর শেষ হবে ‘দেশবাসীর প্রতি উদাত্ত আহ্বান’ দিয়ে।

অধ্যায়গুলো মধ্যে রয়েছে : পটভূমি, গৌরবোজ্জ্বল পাঁচ বছর (জুন ১৯৯৬-জুলাই ২০০১) স্বাধীনতার আকাঙ্ক্ষা পূরণের সুবর্ণ সময়, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার : লুণ্ঠন, দুঃশাসন ও দুর্বৃত্তায়নের বিরুদ্ধে গণপ্রতিরোধ, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমল : গণতন্ত্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও উত্তরণ, আওয়ামী লীগ শাসনামল : সংকট উত্তরণ এবং দিন বদলের পথে যাত্রা (জানুয়ারি ২০০৯- ডিসেম্বর ২০১৩), আওয়ামী লীগ শাসনামল : উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি পথে বিশ্বের বিস্ময় বাংলাদেশ (জানুয়ারি ২০১৪-ডিসেম্বর ২০১৮), সরকার পরিচালনার দুই মেয়াদে সাফল্য ও অর্জন এবং আগামী পাঁচ বছরের (২০১৯-২০২৩) লক্ষ্য ও পরিকল্পনা।

অন্যান্য অধ্যায়ে আরও রয়েছে- গণতন্ত্র, নির্বাচন ও কার্যকর সংসদ; আইনের শাসন ও মানবাধিকার সুরক্ষা; দক্ষ, সেবামুখী ও জবাবদিহিমূলক প্রশাসন; জনবান্ধব পুলিশ প্রশাসন গড়ে তোলা; দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ; সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও মাদক; সামষ্টিক অর্থনীতি : উচ্চ আয়; টেকসই ও আন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন; কৌশল ও পদক্ষেপ; অবকাঠামো উন্নয়নে বৃহৎ প্রকল্প (মেগাপ্রজেক্ট); ‘আমার গ্রাম-আমার শহর’ প্রতিটি গ্রামে আধুনিক নগর সুবিধা সম্প্রসারণ; তরুণ যুব সমাজ : ‘তারুণ্যের শক্তি-বাংলাদেশের সমৃদ্ধি’; দারিদ্র্য বিমোচন ও বৈষম্য হ্রাস; কৃষি, খাদ্য ও পুষ্টি : খাদ্য নিরাপত্তা অর্জনের নিশ্চয়তা।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, শিল্প উন্নয়ন, শ্রমিক কল্যাণ ও শ্রমনীতি, স্থানীয় সরকার : জনগণের ক্ষমতায়ন, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা ও পরিবার কল্যাণ, যোগাযোগ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি : ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নপূরণ, সমুদ্র বিজয় : ব্লু-ইকোনমি : সমুদ্র বিজয়-উন্নয়নের দিগন্ত উন্মোচন, জলবায়ু পরিবর্তন ও পরিবেশ সুরক্ষা, শিশুকল্যাণ, প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ কল্যাণ, নারীর ক্ষমতায়ন, মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন, সংস্কৃতি, ক্রীড়া, ক্ষুদ্র নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠী, ধর্মীয় সংখ্যালঘু ও অনুন্নত সম্প্রদায়, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও অবাধ তথ্য প্রবাহ, প্রতিরক্ষা : নিরাপত্তা, সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা সুরক্ষা, পররাষ্ট্র, এনজিও ইত্যাদি বিষয়ে সরকারের অর্জন সংক্রান্ত বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়েছে।

ইশতেহারে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে মুজিববর্ষ পালন : উন্নয়ন অগ্রযাত্রার শপথ গ্রহণ, ২০৩০ সালে এসডিজি বাস্তবায়ন, ব-দ্বীপ বা ডেল্টা পরিকল্পনা ২১০০, জননেত্রী শেখ হাসিনার সম্মোহনী নেতৃত্বের বিশ্বজনীন স্বীকৃতি ও ভবিষ্যৎ দিকদর্শন।

এসব বিষয় নিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ইশতেহার তৈরি করেছে আওয়ামী লীগ।

আরও পড়ুন
জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
  • আদালতের আদেশ: শিরোনামহীনের গান গাইতে পারবেন তুহিন

  • বিয়ে করলেন জেনিফার লরেন্স

  • শুরু হচ্ছে বাংলা নাট্যোৎসব

  • বয়স বাড়িয়ে প্রেমিকাকে বিয়ে, কারাগারে প্রেমিক

  • ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সরকারের যত অর্জন

  • ২৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন প্রকল্প গ্রহণ 

  • ‘চরের মানুষ পাকা রাস্তা,পড়ালেখার জন্য স্কুল-মাদ্রাসা পেয়েছে’

  • ‘সাড়ে ২২ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছে’

  • দেশকে শীর্ষ পঞ্চাশে নেওয়ার লক্ষ্য জয়ের

  • অনলাইনে সরকারি সেবা দিতে ‘একপে’, ‘একসেবা’ ও ‘একশপ’-এর যাত্রা শুরু

  • আপনার সন্তান খায় না, তাহলে এভাবে দিন

  • বিরতিহীন দীর্ঘতম বিমান যাত্রায় ফ্লাইট সিডনিতে পৌঁছেছে

  • ‘গণতন্ত্রকে খুন করেছে মমতা’

  • কনের আত্মীয়রা মল মূত্র খাওয়ালো বরের পিতাকে

  • আটক ইসরাইলি সেনাদের বিষয়ে হামাসের ভিডিও বার্তা

  • কুর্দি এলাকায় সিরীয় সেনা মানে যুদ্ধ: তুরস্ক

  • এক অন্য রকম শিক্ষকের গল্প

  • নেতার অভাবেই ক্ষমতায় মোদি: অভিজিৎ

  • বড় সিরীয় ঘাঁটি ছাড়ল যুক্তরাষ্ট্র

  • ভারতের হামলায় পাকিস্তানের ১০ সেনা নিহত

  • বিশ্বে প্রথমবার ড্রোনে পণ্য ডেলিভারি

  • কানাডার জাতীয় নির্বাচন আজ

  • কাশ্মীর নিয়ে কথা বলায় তুরস্ক সফর বাতিল মোদির

  • সিংড়ায় বোনকে তালাক দেয়ায় দুলাভাইকে পিটিয়ে জখম

  • হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে ফের চালু হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু চেয়ার’

  • আল-আকসায় ফের শত শত কট্টরপন্থী ইহুদির অনুপ্রবেশ

  • মেহেরপুরে যৌন উত্তেজক সিরাপ তৈরির কারখানার সন্ধান

  • লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগ নেতার ওপর হামলা

  • টিউবওয়েলে দেশলাই ধরলেই আগুন!

  • সেই কলেজছাত্রীকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে হত্যার অভিযোগ

  • আজ ‘কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’ ও ১৩টি সেতু উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

  • ১৪ হাজার মুক্তিযোদ্ধাকে পাকা বাড়ি দেওয়া হবে: মোজাম্মেল হক

  • মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় দেশসেরা রংপুরের রাগীব নূর

  • পাতাল মেট্রোরেলে বদলে যাবে ঢাকা শহর

  • বাংলাদেশের প্রথম তৃতীয় লিঙ্গের ভাইস চেয়ারম্যান পিংকী

  • ২০১৯ সালে বিশ্বে তৃতীয় সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি বাংলাদেশে: আইএমএফ

  • বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৫৭ পরিবার পেল অর্থ সহায়তা ও বীজ

  • অর্থনীতিকে এগিয়ে নেবে উদ্ভাবনী প্রযুক্তি: মোমেন

  • পর্যটন শিল্প বিকাশে অবদান রাখবে পটিয়া বাইপাস সড়ক

  • ভুলতা উড়ালসড়কের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • দ্রুত এগুচ্ছে ৬ লেনের মাতামুহুরী সেতুর নির্মাণকাজ

  • আগামী প্রজন্মকে পরিচ্ছন্ন হয়ে ওঠার আহ্বান স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

  • ‘সবচেয়ে সুবিধাজনক অবস্থায় বাংলাদেশের অর্থনীতি’

  • প্রকাশ পেল ‌‌‘আহাদ ফাহিম’ এর গান ‘আমি মিথ্যে বলিনি’ এর ভিডিও

  • সরকারি উদ্যোগে সব উপজেলায় গঠন হচ্ছে কিশোর-কিশোরী ক্লাব

  • যানজট নিরসনে ঢাকায় আরও ২টি মেট্রোরেলের প্রকল্প অনুমোদন

  • মুসলিমবান্ধব পর্যটন বিকাশে বাংলাদেশ আদর্শ: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

  • আবরারকে পিটিয়ে হত্যার কারণ জানালেন ডিএমপি

  • নকল জুস তৈরির কারখানায় অভিযান, ৪০ হাজার টাকা জরিমানা 

  • মুন্সিগঞ্জের ১৩ সেতুর উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

  • প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশের ভাষা আমার নেই: আবরারের মা

  • শুধু উন্নয়ন নয়,দেশ এখন দুর্যোগ মোকাবেলাতেও রোল মডেল:প্রধানমন্ত্রী

  • সেনাপ্রধান কাতার যাচ্ছেন মঙ্গলবার

  • ‘‌আমাকে কবর থেকে বের করো, এখানে ভীষণ অন্ধকার’‌

  • এক বাঘিনীর জন্য দুই বাঘের তুমুল লড়াই

  • হাওরের ৩ উপজেলায় রেসিডিন্সিয়াল স্কুল-কলেজ হবে: রাষ্ট্রপতি

  • জেরুজালেমের গভর্নরকে তুলে নিয়ে গেল ইসরাইল

  • যুগোপযোগী সিলেবাস প্রণয়ন করা হবেঃ শিক্ষা উপমন্ত্রী

  • ‘সুন্দরবনকে অক্ষত রেখেই মোংলা ইকোনমিক জোনের কাজ শুরু হয়েছে’

  • নতুন ঘর পাবেন ১৫ হাজার মুক্তিযোদ্ধাঃ  মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী